চাকরি দেওয়ার নামে গণধর্ষণের অভিযোগ, আটক ৫

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

সাভারে চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত পাঁচ ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম সায়েদ জানান, গতকাল সোমবার (৮ এপ্রিল) চাকরি দেওয়ার নাম করে অভিযোগকারী ওই গৃহবধূকে একটি গার্মেন্টসে যেতে বলে মিরাজ সরদার নামের এক ব্যক্তি। পরে ওই নারী প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে গার্মেন্টসের সামনে গেলে মিরাজ কারখানার বাইরে এসে এক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলার ছলে তাঁকে নিজের বাসায় নিয়ে যায়।

ওই বাসায় একাধিক ব্যক্তি তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করেছেন ওই নারী। গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে ওই নারীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে ওই নারী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা করেন। মামলার পর পুলিশ অভিযুক্ত মিরাজ সরদার (৩২), মোক্তার হোসেন (২৯), মাহবুব (৪২), মতি গোমস্তা (৫৫) ও রাকিবুল ইসলাম (২৪) নামের পাঁচজনকে আটক করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এমারত হোসেন বলেন, ‘সাভার মডেল থানায় একটি গণধর্ষণের অভিযোগে বাদী মামলা দাখিল করেন এবং তারপর আমরা তাৎক্ষণিকভাবে অভিযান পরিচালনা করি। এ সময় পাঁচজন আসামিকে গ্রেপ্তারে সক্ষম হই। অজ্ঞাত আরো দু-তিনজন আসামি আছে। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানান এমারত হোসেন। আজ মঙ্গলবার দুপুরে তাঁদের আদালতে পাঠিয়ে রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে বলেও জানান তিনি।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments