বিশিষ্ট সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ আর নেই

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার
বিশিষ্ট সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ আর নেই

ব্যাংককের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিশিষ্ট সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ আজ শনিবার (২৭ এপ্রিল) স্থানীয় সময় বেলা ১১টা দিকে না ফেরার দেশে চলে গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর। তার বড় মেয়ে অঙ্গনা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ২ এপ্রিল হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে মাহফুজ উল্লাহকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা জানান, হৃদরোগ, কিডনি ও ফুসফুসের জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি। তাকে সেখানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়।

পরবর্তীতে শারীরিক অবস্থার তেমন উন্নতি না হওয়ায় গত ১১ এপ্রিল (বুধবার) রাত ১১টা ৫২ মি‌নি‌টে তাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ব্যাংককে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় তার সঙ্গে তার অষ্ট্রেলিয়া প্রবাসী বড় মেয়ে ডা. মেঘলা ও জামাতা ছিলেন।

জনপ্রিয় সাপ্তাহিক বিচিত্রার জন্মলগ্ন থেকেই তিনি এ পত্রিকার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। মাঝে চীন গণপ্রজাতন্ত্রে বিশেষজ্ঞ হিসেবে, কোলকাতাস্থ বাংলাদেশ উপদূতাবাসে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ এবং সাংবাদিকতা বিভাগে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে কাজ করেন তিনি। সর্বশেষ তিনি বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন। বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশের নেতৃস্থানীয় বাংলা ও ইংরেজি দৈনিকে কাজ করেছেন তিনি। রেডিও ও টেলিভিশনে অনুষ্ঠান উপস্থাপনাও করেছেন।

মাহফুজ উল্লাহ আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত একজন সক্রিয় পরিবেশবিদ এবং বাংলাদেশে তিনিই প্রথম পরিবেশ সাংবাদিকতা শুরু করেন। তিনি ১৯৫০ সালের ১০ মার্চ নোয়াখালীতে জন্মগ্রহণ করেন। ছাত্রজীবনে বাম রাজনীতি করা মাহফুজ উল্লাহ ষাটের দশকে ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন। মাহফুজ উল্লাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিদ্যা ও সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

উল্লেখ্য, এর আগে গেল ২১ এপ্রিল মাহফুজ উল্লাহ মারা গেছেন- গণমাধ্যমে এ খবর প্রকাশিত হলে তার ছোট মেয়ে জানিয়েছিলেন তিনি বেঁচে আছেন।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments