বাগেরহাটে ‌শিশুকে হত্যার অভিযোগ, সৎমা পলাতক

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে উম্মে হালিমা খাদিজা নামে সাড়ে তিন বছরের শিশুকে বিষ খাইয়ে পুকুরে ফেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার সৎ মায়ের বিরুদ্ধে। শুক্রবার দুপুরে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার সোনাখালি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর থেকে নিহতের সৎমা পলাতক রয়েছে। শনিবার দুপুরে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিহত খাদিজার লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। খাদিজা মোরেলগঞ্জের সোনাখালী গ্রামের অটোরিকশা চালক আ. হাদি মল্লিকের মেয়ে।

নিহতের দাদা আব্দুল আজিজ মল্লিক শনিবার দুপুরে মোবাইলে জানান, সন্তান প্রসবের সময় উম্মে হালিম খাদিজার মা মারা যায়। এরপর তার বাবা আব্দুল হা‌দি ম‌ল্লিক চর‌হোগলাবু‌নিয়া গ্রামের সীমা বেগমকে বিয়ে করেন। প্রায়ই সীমা বেগম তার সৎ মেয়ে খা‌দিজার ওপর নির্যাতন করতো। শুক্রবার দুপুরে সে খাদিজাকে বিষ খাইয়ে ঘরের পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। এসময় তার ফুফু আজমিনা পুকুরে কোনও কিছু পড়ার শব্দ পায়। পরে পুকুর পাড়ে গিয়ে পানিতে খা‌দিজাকে দেখে উদ্ধার করে হাসপাতা‌লে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসময় কৌশলে তার সৎমা সীমা বেগম পালিয়ে যায়।

‌মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেএম আজিজুল হক জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ময়নাতদন্তের রি‌পোর্ট পে‌লে পরব‌র্তী ব্যবস্থা নেওয়া হ‌বে। ত‌বে নিহ‌ত শিশুর সৎমা‌কে এখনো পাওয়া যায়‌নি।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments