নিবন্ধন : ডিএ নং- ৬৩২৯ || বুধবার , ২৬শে জুন, ২০১৯ ইং , ১২ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২২শে শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

আবারও বন্ধের পথে কলকাতার সিরিয়াল!

আবারও বন্ধের পথে কলকাতার সিরিয়াল!

আবারও বন্ধের পথে কলকাতার বাংলা সিরিয়াল। প্রযোজনা সংস্থা দাগ ক্রিয়েটিভ মিডিয়ার বিরুদ্ধে এবার প্রতারণার অভিযোগ এনেছে আর্টিস্ট ফোরাম। সংস্থাটির মালিক রানা সরকারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে আইনি পদক্ষেপ নেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা।

আর্টিস্ট ফোরামের অভিযোগ, গত কয়েক মাস ধরে ৫টি ধারাবাহিকের কলাকুশলীরা পারিশ্রমিক পাচ্ছেন না। প্রায় দেড় কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। খবর জি-নিউজের।

মাস খানেক আগেই শেষ হয়ে গেছে প্রথম প্রতিশ্রুতি। অন্য চারটি প্রযোজনা সংশ্লিষ্ট চ্যানেলগুলো গত ১৬ মার্চ হাতবদল করে দেয় অন্য প্রযোজকদের হাতে। সিরিয়ালগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘জয় বাবা লোকনাথ’, ‘খনার বচন’, ‘শ্রী চৈতন্য’, ‘প্রথম প্রতিশ্রুতি’ এবং ‘আমি সিরাজের বেগম’।

এর মধ্যে গেল ১৭ মার্চ শেষ হয়ে গেছে আমি সিরাজের বেগম। কিন্তু তারপর এখনও অভিনেতা-অভিনেত্রীদের এবং কলাকুশলীদের পারিশ্রমিকের একটা বড় অংশ বাকি। আর সেই বকেয়া মূল্য এক কোটিরও বেশি। আর্টিস্ট ফোরামের পক্ষ থেকে বারবার বলা হলেও এখনও এই সমস্যার সমাধান হয়নি বলে অভিযোগ।

এবার প্রযোজক সংস্থার বিরুদ্ধে টেলিভিশন আর্টিস্টদের বকেয়া না মেটানোর অভিযোগে শনিবার সকালে সাংবাদিক বৈঠক করেন আর্টিস্ট ফোরামের সদস্যরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, অরিন্দম গাঙ্গুলিসহ আরও অনেকেই।

আর্টিস্ট ফোরামের কার্যনির্বাহী সভাপতি অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বলেন, দাগ ক্রিয়েটিভ মিডিয়া কলাকুশলীদের পারিশ্রমিক থেকে ২০ থেকে ২৫ শতাংশ উৎসে কর কাটলেও তা এখনও পর্যন্ত সরকারি কোষাগারে জমা পড়েনি। সামগ্রিক বিষয়টি আর্টিস্ট ফোরামের তরফে সরকারকে জানানো হয়েছে। ঘটনার দ্রুত নিষ্পত্তি না হলে সমস্যার সমাধানে প্রযোজনে গণ আন্দোলনে নামারও হুঁশিয়ারি দিয়েছে আর্টিস্ট ফোরাম।

এর আগে ২০১৮ সালে টেলিপাড়ার অচলবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল। সে সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপে সমাধান হয়। আর্টিস্ট ফোরাম সে সময়ও সমস্যা সমাধানে অগ্রসর হয়েছিল। চলতি আর্থিক সংকটের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে বড় আন্দোলনের পথে যেতে পারে আর্টিস্ট ফোরাম।

Comments

comments

এমন আরো খবর:

Web developed by: AsadZone.Com
x

Send this to a friend