নিবন্ধন : ডিএ নং- ৬৩২৯ || রবিবার , ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৭ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২২শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে ধন্য জাপানের জনপ্রিয় গায়ক

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে ধন্য জাপানের জনপ্রিয় গায়ক

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর-এর দূত হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেছেন জাপানের সঙ্গীতশিল্পী ও অভিনেতা তাকামাসা ইশিহারা। সম্প্রতি জাপানের প্রধানমন্ত্রীর দফতরে শেখ হাসিনার সম্মানে আয়োজিত এক ভোজসভায় আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন মিয়াভি নামে পরিচিত এই তারকা। সেখানে গিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছবি তুলেছেন। জানিয়েছেন, শেখ হাসিনার সামনে রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের অসামান্য ভূমিকার প্রশংসা করার সুযোগ পেয়ে নিজেকে ধন্য মনে করছেন।

১৯৮১ সালে জন্ম নেয়া তাকামাসা ইশিহারা একইসঙ্গে একজন জনপ্রিয় গায়ক, গীতিকার, গিটারিস্ট, সঙ্গীত প্রযোজক ও অভিনেতা। বহু আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি ও প্রশংসা পাওয়া মিয়াভি একজন অ্যাকটিভিস্টও। নিজের মেধা, কণ্ঠ ও অবস্থানকে কাজে লাগিয়ে ইউএনএইচসিআর-এর বিভিন্ন প্রচারণায় সমর্থন জুগিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি জাপানের প্রধানমন্ত্রীর দফতরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে আয়োজিত ভোজসভায় ইউএনএইচসিআর-এর দূত হিসেবে আমন্ত্রিত ছিলেন মিয়াভি। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছবিও তুলেছেন। সেই ছবি পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ছবিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হাস্যোজ্জ্বল মুখে দেখা গেছে।

মিয়াভি সেই অভিজ্ঞতা শেয়ার করে ইন্সটাগ্রামে লিখেছেন, ‘জাপানের প্রধানমন্ত্রীর দফতরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মানে আয়োজিত ভোজসভায় ইউএসএইচসিআর-এর দূত হিসেবে আমন্ত্রণ পেয়েছিলাম। রোহিঙ্গাদের প্রতি বাংলাদেশ যে সহমর্মিতা দেখিয়েছে, এখানে এসে সে কথা বলতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রী আবে এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে যারা আমার জন্য এখানে আসার সুযোগ সৃষ্টি করেছেন। আশা করছি দ্রুত বাংলাদেশে যাবো এবং বাচ্চাদের সাথে সময় কাটাবো।’

ইউএনএইচসিআর-এর বৈশ্বিক কার্যক্রম নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে মিয়াভির চলমান প্রচারণার কারণে উদ্বাস্তু সংকট নিয়ে অনেক সচেতনতা তৈরি হয়েছে বলে মনে করা হয়। তিনি মূলত উদ্বাস্তু শিশুদের মানসম্পন্ন শিক্ষা বিষয়ে অধিক সোচ্চার। ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে মিয়াভিকে ইউএনএইচসিআরের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।

Comments

comments

এমন আরো খবর:

Web developed by: AsadZone.Com

Send this to a friend