নিবন্ধন : ডিএ নং- ৬৩২৯ || মঙ্গলবার , ২০শে আগস্ট, ২০১৯ ইং , ৫ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

বগুড়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন নিয়ে সংঘর্ষ

বগুড়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন নিয়ে সংঘর্ষ

বগুড়ার শিবগঞ্জের উত্তর শ্যামপুর গ্রামে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন নিয়ে সংঘর্ষ, একজনকে ভ্রাম্যমান আদালতে সাজা। এলাকায় চরম উত্তেজনা।

থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উত্তর শ্যামপুর গ্রামের আলমগীর হোসেনের ছেলে সিহাব উদ্দিনের (২৪) সাথে প্রতিপক্ষ মৃতঃ ছমির উদ্দিন আকন্দের ছেলে হান্না মিয়ার (৪০) সাথে বালু উত্তোলন নিয়ে র্দীঘ দিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। হান্না দীর্ঘদিন থেকে গ্রামের মধ্যে তার জমিতে বালু তোলার জন্য বোর্ড বিক্রি করে অবৈধভাবে ব্যাবসা চালিয়ে আসছিলো। এতে করে পার্শ্ববর্তী জমির মালিক সিহাব এর প্রায় দুই লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন হয়। সিহাবসহ এলাকাবাসী তাকে র্দীঘদিন বালু তুলতে নিষেধ করলেও দুই-চার দিন সময়ের কথা বলে কৌশলে বিভিন্ন জায়গায় বিট দিয়ে এ ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছিল।

রবিবার সকালে এলাকাবাসীর কথামত মসজিদের কাজের জন্য সিহাব তার নিজস্ব জায়গায় বালু তুলতে চাইলে হান্না মিয়া অন্যায়ভাবে তার সাথে বিরোধে জড়ায়। এক পর্যায়ে হান্না মিয়ার হাতে থাকা কোদাল দিয়ে সিহাবকে আঘাত করলে সিহাবের ডান চোখের নিচে জখম হয়। সিহাবের ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে তিনি প্রাণে রক্ষা পায়। অভিযোগ সূত্রে আরোও জানা যায়, হান্না মিয়া সিহাবকে বিভিন্ন সময়ে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

জানতে চাইলে একই গ্রামের বাছেদ জানায়, হান্না মিয়া গ্রামের মধ্যে ৮-৯মাস যাবৎ ৭২ শতাংশ জায়গায় বালু তুলে এলাকাবাসীর ভোগান্তির সৃষ্টি করেছে।

বাদী সিহাব এ বিষয়ে বলেন, এলাকাবাসী তাকে বালু তুলতে নিষেধ করলেও তিনি অন্যায়ভাবে আমার জায়গাসহ প্রায় ২লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন করে।

ঘটনাটি সম্পর্কে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, এবিষয়ে আমি একটি অভিযোগ পেয়ে ফোর্স পাঠিয়ে হান্নাকে গ্রেফতার করে নির্বার্হী ম্যাজিষ্ট্রেটের মাধ্যমে ভ্রাম্যমান আদালতে দশ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ১৫দিনের জেল দেওয়া হয়েছে। অবৈধভাবে বালু উত্তোলকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চলোমান থাকবে।

Comments

comments

এমন আরো খবর:

Web developed by: AsadZone.Com

Send this to a friend