লক্ষ্মীপুরে মাদরাসাছাত্রকে যৌন নিপীড়ন, শিক্ষক কারাগারে

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

লক্ষ্মীপুরে মাদরাসা পড়ুয়া এক শিশু ছাত্রকে (৭) যৌন নিপীড়নের ঘটনায় শিক্ষক মো. মামুনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে ছাত্রের বাবা বাদী হয়ে শিক্ষকের বিরুদ্ধে সদর থানায় এ মামলা করেন। পরে ওই মামলায় শিক্ষককে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

 

নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্র সদর উপজেলার তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়নের তাহ্ফীজুল কোরআন মাদরাসার প্রথম শ্রেণির ছাত্র। অভিযুক্ত মামুন একই মাদরাসার আরবি শিক্ষক।

 

জানা গেছে, গত বুধবার রাতে ওই ছাত্রকে যৌন নিপীড়ন করেছে শিক্ষক মামুন। পরদিন সকালে ছাত্র তার মা-বাবাকে ঘটনাটি জানায়। ঘটনাটি জানাজানি হয়ে গেলে শুক্রবার রাতে স্থানীয়রা শিক্ষক মামুনকে পিটুনি দিয়ে তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের নিয়ে যায়। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই শিক্ষককে আটক করে।

 

তেওয়ারীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক ইবনে হুছাঈন বলেন, স্থানীয়রা ওই শিক্ষককে আটক করে উনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে নিয়ে আসে। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। ওই ছাত্রের বাবাকে মামলা করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। আমরা ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

 

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পরে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments