দেশে এসেছে বিমানের ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

দেশে এসেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’। শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৪টা ৪০ মিনিটে এটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। বিমানটিকে ওয়াটার স্যালুটের মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়।

 

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় ১৩ সেপ্টেম্বর বেলা ১২টায় সিয়াটল থেকে বাংলাদেশের পথে যাত্রা শুরু করে ‘রাজহংস’। ঢাকায় উড়োজাহাজটি নিয়ে এসেছেন বিমানের পাইলট ক্যাপ্টেন শোয়েব চৌধুরী, ক্যাপ্টেন সরওয়ার, ফার্স্ট অফিসার জামিল ও আতিয়াব। বিরতিহীনভাবে ১৫ ঘণ্টা চালিয়ে এই ড্রিমলাইনার নিয়ে এসেছেন তারা।

 

বিমানকে এর মালিকানা হস্তান্তর করেন বোয়িং পরিচালক (ডেলিভারি কন্টাক্ট) জন বর্বার। বিমানের পক্ষে পরিচালক (প্রকিউরমেন্ট অ্যান্ড লজিস্টিক সাপোর্ট) মো. মমিনুল ইসলাম মালিকানা বুঝে নেন। এ সময় বিমানের চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল (অব.) মোহাম্মদ ইনামুল বারী, পরিচালক (প্রশাসন) জিয়াউদ্দিন আহমেদসহ বিমান ও বোয়িংয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

উড়োজাহাজটি দেশে আসার নির্ধারিত সময় ছিল ১২ সেপ্টেম্বর। তবে উড়োজাহাজটি ডেলিভারি দেওয়ার আগ মুহূর্তের পরিদর্শনে রাডারে ত্রুটি দেখা দেয়। ত্রুটি সারাতে ৪৮ ঘণ্টা সময় নেয় নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং। ড্রিমলাইনারটি ১৪ সেপ্টেম্বর উদ্বোধন করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মতি জ্ঞাপন করলেও বর্তমান পরিস্থিতিতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়।

 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০০৮ সালে মার্কিন প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন বিমান কেনার জন্য ২ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি করে। ড্রিমলাইনারে আসন সংখ্যা মোট ২৭১টি। এর মধ্যে বিজনেস ক্লাস ২৪টি আর ২৪৭টি ইকোনমি ক্লাস। বিজনেস ক্লাসের ২৪টি আসন ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত সম্পূর্ণ ফ্ল্যাটবেড হওয়ায় এটি যাত্রীদের আরামদায়ক বিশ্রামের জন্য সহায়ক।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments