পরপর দুইজন করোনা রোগী শনাক্ত, রাজশাহী লকডাউন

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে রাজশাহী জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) সকালে জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক এ ঘোষণা দেন।

এ নিয়ে গণবিজ্ঞপ্তিও জারি করেছেন জেলা প্রশাসক। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই অবস্থা জারি থাকবে।

গণবজ্ঞিপ্তিতে বলা হয়, ইতোমধ্যে রাজশাহী জেলায় দুইজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এছাড়াও ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে করোনাভাইরাসের ব্যাপক প্রার্দুভাব দেখা দিয়েছে। এ কারণে ঢাকা-নারায়নগঞ্জ থেকে বিপুলসংখ্যক মানুষ রাজশাহী জেলায় আগমনের প্রবণতা দেখা দিয়েছে। এই প্রেক্ষিতে জেলা সিভিল সার্জনসহ আইন-শৃংখলা সংক্রান্ত সকল সংস্থার মতামতের ভিত্তিতে প্রাণঘাতী করানোভাইরাস প্রতিরোধে রাজশাহী জেলাকে লকডাউন (অবরুদ্ধ) ঘোষণা করা হলো।

এদিকে লকডাউনে রাজশাহী জেলার সঙ্গে অন্য জেলার প্রবেশ ও বাহির হওয়ার সকল রাস্তাঘাট বন্ধ থাকবে। জেলার কেউ বাইরে যেতে পারবেন না এবং জেলার বাইরে থেকে কেউ ভেতরে প্রবেশ করতেও পারবেন না।

সব ধরনের গণপরিবহন ও জনসমাগম বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি পরিষেবা, চিকিৎসাসেবা, কৃষিপণ্য, খাদ্যদ্রব্য সরবরাহ ও সংগ্রহ বিদ্যুৎ-গ্যাস, ফায়ার সার্ভিস, টেলিফোন, ইন্টারনেট, ব্যাংকিং সেবা, মোবাইল ব্যাংকিং, ওষুধ শিল্প সংশ্লিষ্ট যানবাহন ও কর্মী ইত্যাদি এবং সরকার কর্তৃক সময়ে সময়ে ঘোষিত অন্যান্য জরুরি পরিষেবা এর আওতামুক্ত থাকবে।

মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে। আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয় ওই গণবিজ্ঞপ্তিতে।

এর আগে গত ৬ এপ্রিল থেকে অঘোষিত লকডাউন চলছে রাজশাহীতে। এরই মধ্যে ১৩ এপ্রিল করোনা রোগী শনাক্ত হয়েচে জেলার বাগমারা উপজেলায়। এর আগে ১২ এপ্রিল পুঠিয়া উপজেলায় আরেকজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments