আ. লীগ নেতার বাড়ি থেকে ৬৭ বস্তা চাল উদ্ধার

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেতার বাড়ি থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির (ওএমএস) ৬৭ বস্তা চাল উদ্ধার হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলার পাকড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং ওএমএস ডিলার আলাউদ্দীন স্বপনকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোদাগাড়ীর পাকড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং ওএমএস ডিলার স্বপনের গোয়ালপাড়ার বাড়ি থেকে চালগুলো উদ্ধার করে পুলিশ।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল ইসলাম সরকার বলেন, স্বপন তার লোকজন নিয়ে ওএমএস’র চালের বস্তা পরিবর্তন করছিলেন।

উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা জামাল উদ্দীন জানান, ৬ এপ্রিল আলাউদ্দীন স্বপন ওএমএস ডিলার হিসেবে কাকনহাট খাদ্য গুদাম থেকে ৩০ কেজি ওজনের ৫০০ বস্তা (১৫ মেট্রিক টন) চাল উত্তোলন করে। দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার উপস্থিতিতে ৭ এপ্রিল থেকে কার্ডধারী অতি দরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণ শুরু করেন তিনি।

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ-সহকারী কৃষি অফিসার জালাল উদ্দীন দেওয়ান বলেন, ১৬ এপ্রিল স্বপন ফোনে জানান ৪৯২ জনকে চাল দেওয়া হয়েছে। আর ৮ বস্তা চাল তার গুদামে রয়েছে।

পাকড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রাকিব সরকার বলেন, ওএমএস ডিলার স্বপনের কাছ থেকে ৫০০ জন অতিদরিদ্র মানুষ চাল পাবে। কিন্তু অতি দরিদ্রদের চাল না দিয়ে কালোবাজারে তা বিক্রির উদ্দেশ্যে বাড়িতে মজুত রাখে স্বপন।

গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, স্বপনকে আটক করে তার কাগজপত্র যাচাই করা হচ্ছে।

ইউএনও নাজমুল ইসলাম সরকার বলেন, স্বপনের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জানান, ২০১২ সালের দিকে স্বপন আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। এর আগে তিনি উপজেলা যুবদলের সভাপতি ছিলেন।

গোদাগাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশিদ বলেন, ওএমএসের চালসহ আটককৃত পাকড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আলাউদ্দীন স্বপনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments