শ্রীলঙ্কার দেওয়া শর্ত মেনে সফরে যাবে না বাংলাদেশ

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের শর্ত মেনে সেই দেশে টেস্ট চ্যাম্পিয়নসশিপ খেলা সম্ভব না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। মিরপুরে হোম অব ক্রিকেটে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) গণমাধ্যমে এমনটি জানান তিনি।

শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য পুরোদমে অনুশীলন শুরু করেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। আর এই সফরের ব্যাপারে অনেক আগেই নিশ্চিত করা হয়েছে। করোনাকালে জাতীয় দলের এই সফরটা বেশ গুরুত্বপূর্ণও। শ্রীলঙ্কার করোনা পরিস্থিতিও তুলনামূলকভাবে ভালো। তবে তা সত্ত্বেও বেশ সতর্ক সেখানকার সরকার। টাইগারদেরও তাই বাধ্যতামূলক কোরারেন্টিনে থাকতে হবে।

শ্রীলঙ্কা সফরে বিসিবির চাওয়া ছিল ক্রিকেটারদের জন্য ৭ দিনের কোয়ারেন্টিন। পাশাপাশি অনুশীলনও চালিয়ে যাওয়া। তবে লঙ্কান ক্রীড়া মন্ত্রণালয় তরফ থেকে সেদেশের বোর্ড জানিয়েছে, ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে এবং এরমাঝে কোনো অনুশীলন করা যাবে না।

পাপন বলেন, ‘আমরা আমাদের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তাদের জানিয়ে দিয়েছি। তবে তারা যে শর্ত দিয়েছে, তাতে সেখানে গিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নসশিপ খেলা সম্ভব না। আর সেখানে সফর না হলে ঘরোয়া লিগ শুরুর ব্যাপারে চিন্তা করা যাবে। ’

এদিকে জাতীয় দলের প্রস্তুতির জন্য একই সময়ে এইচপি দলের সফরও নির্ধারণ করেছিল বিসিবি। তবে শ্রীলঙ্কা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের করোনা সংক্রান্ত নীতিমালার কারণে এইচপি দলের সফর নিয়ে শঙ্কা আগেই বেড়েছে।

জাতীয় দল ও এইচপি দলের ক্রিকেটার সহ বেশ বড় সংখ্যার একটা দল একসঙ্গে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা। সেটা নিয়েই লঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আপত্তি তুলেছে। তারওপর ১৪ দিনের কোরারেন্টিন ও অনুশীলন নিয়ে বেঁকে বসেছে লঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। সে কারণেই অনিশ্চিত এইচপি দলের সফর। 

এর আগে অবশ্য শ্রীলঙ্কায় গিয়ে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনের সম্ভাবনার বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দি সুজন। তিনি বলেছিলেন, কোয়ারেন্টিন ৭ দিনের বেশি হবে না। তবে সংখ্যাটা আরও কমিয়ে আনার চেষ্টা করছে বিসিবি।

তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে টাইগারদের।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments