প্রথম দিনেই ১২ মেট্রিকটন ইলিশ ভারতে রপ্তানি

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

দ্বিতীয় বারের মতো দুর্গাপূজা উপলক্ষে বেনাপোল বন্দর দিয়ে ইলিশের প্রথম চালানে ১২ মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে রপ্তানি হয়েছে।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫ টার সময় কাস্টমস ও বন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে ইলিশের ট্রাক প্রবেশ করেছে বলে জানান কাস্টমসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন।

এদিকে দুই দেশেই শুল্কমুক্ত সুবিধায় এ ইলিশ ভারতে রপ্তানি করা হয়। এ ইলিশ ভারতে রপ্তানির জন্য বাংলাদেশি ৯ টি রপ্তানি কারক প্রতিষ্ঠান অনুমোদন পেয়েছেন। এর মধ্যে প্রথম দিনে জাহানাবাদ সী ফুডস লিমিটেডের দুটি ট্রাকে ১২ মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে গেছে। যার প্রতিকেজি ইলিশের রপ্তানি মূল্য ১০ ডলার। এবং প্রতিকেজি বাংলাদেশি মূল্য ৮৫০ টাকা।

মাছ রপ্তানিকারক খুলনার জাহানাবাদ সী ফুডস লিমিটেডের প্রতিনিধি নিলা এন্টারপ্রাইজের মালিক মিহির মূখার্জি জানান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পূজা উপলক্ষে ভারতে ১৪শ ৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন হয়। আগামী মাসের ১০ অক্টোবরের মধ্যে ১৪শ ৫০ মেট্রিক টন ইলিশের সব চালান পাঠানোর নির্দেশনা রয়েছে। প্রথম চালানে দুটি ট্রাকে ১২ মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে রপ্তানি হয়েছে।

বেনাপোল সিএন্ডএফ অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি মফিজুর রহমান সজন জানান, দেশে ইলিশ সংকটের কারনে দীর্ঘ ৭ বছর ধরে বিদেশে ইলিশ রপ্তানি বন্ধ রয়েছে। তবে প্রতিবেশি দেশ ভারতের সাথে বন্ধুত্ব সম্পর্ক বাড়াতে গতবছর দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ৫০০ টন ইলিশ রপ্তানি করা হয়েছিলো। এবারও ১৪শ ৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানি অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশি সরকার। এতে করে দু দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সুসম্পর্ক আরো বাড়বে বলে তিনি মনে করছেন।

জানা যায়, দেশে ইলিশের উৎপাদন কমে যাওয়ায় সংকট দেখিয়ে ২০১২ সালের পরে ভারতে ইলিশ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় সরকার। তবে প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে বন্ধুত্ব ও সুসম্পর্ক বাড়াতে গতবছর দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ৫০০ টন ইলিশ রপ্তানি করা হয়েছিলো। তার ধারাবাহিকতায় এবছর ও দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ১৪শ ৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments