আজঃ মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দেওয়ায় আর্মেনিয়ার ওপর চটল ইসরায়েল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ফিলিস্তিনকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিয়েছে আর্মেনিয়া। আজ শুক্রবার (২১ জুন) এই স্বীকৃতি দেয় দেশটি। এতে ক্ষুব্ধ ইসরায়েল আর্মেনিয়ার রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে। খবর এএফপি।

আর্মেনিয়া ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতির পাশাপাশি গাজা উপত্যকায় বেসামরিক লোকজনের ওপর ইসরায়েলের সামরিকবাহিনীর আগ্রাসন ও ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাস সদস্যদের বন্দি বানানোর নিন্দা জানিয়েছে। তাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছে দেশশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এদিকে, আর্মেনিয়ার ঘোষণার পরপরই এক বিবৃতিতে ইসরায়েল বলেছে, ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে আর্মেনিয়ার স্বীকৃতিকে ইসরায়েলি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কঠোর তিরস্কারের জন্য রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে।


আরও খবর
আজ নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মদিন!

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




নাজিরপুরে খালের বর্জ্য অপসারণ ও দখলমুক্ত করতে প্রশাসন, সাংবাদিক ও সুধীদের সাথে মতবিনিময়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

Image

পিরোজপুরের নাজিরপুরে উপজেলা সদরের প্রধান খালসহ বিভিন্ন খালের বর্জ্য অপসারণ ও খালসহ জলাধারের অবৈধ দখলমুক্ত করতে উপজেলার বিভিন্ন কর্মকর্তাসহ সাংবাদিক ও সুধীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কৃষি প্রশিক্ষণ হলরুমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অরূপ রতন সিংহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম নুরে আলম সিদ্দিকী শাহীন।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মো. মশিউর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাসুম বিল্লাহ, উপজেলা প্রকৌশলী মো. জাকির হোসেন মিয়া, জেলা পরিষদ সদস্য সুলতান মাহমুদ খান, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল কান্তি বিশ্বাস, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, উপজেলা সদরের সরকারী মহিলা কলেজ সংলগ্ন প্রধান খালের একটি অংশ দখল করে অবৈধভাবে ভবন নির্মাণ, খালের পাড় আটকে খাল ছোট করে ফেলাসহ সেখানে বর্জ্য ফেলে পরিবেশ নোংরা করা ফেলেছে। এতে স্থানীয়দের বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া উপজেলার বিভিন্ন খাল ও জলাশয়ের সরকারী জমি দখল করা হয়েছে। এমন বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা চেয়ারম্যানের উদ্যোগে এ কর্মসূচী নেয়া হয়েছে।


আরও খবর



স্বরূপকাঠিতে চাচাকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন ভাতিজা

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে জমিজমা নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষ চাচাকে ইয়াবা দিয়ে মাদক মামলায় ফাঁসাতে গিয়ে নিজেরাই ফেঁসে গেলেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নের জরুরবাড়ী বাজারে।

এ ঘটনার মুলহোতা পাশ্ববর্তী বানারীপাড়া উপজেলার ইলুহার গ্রামের মো. হাসান (৩৭) নামের একজনকে গ্রেফতার করে রবিবার সকালে পিরোজপুর আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলা সুত্রে ও ভুক্তভোগী সিদ্দিকের কাছ থেকে জানা যায়, বানারীপাড়া উপজেলার ইলুহার গ্রামের দোকানী সিদ্দিক তালুকদারের (৫৯) সাথে তার ভাতিজা মো. হাসান ও তাদের আত্নীয়দের জমিজমা বিরোধ নিয়ে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। ওই মামলায় সিদ্দিকের পক্ষে রায় আসবে এটা অনুমান করেতে পেরে হাসান তার আত্নীয় স্বজনদের নিয়ে সিদ্দিককে ফাঁসাতে ষড়যন্ত্রের ছক তৈরি করেন। ছক অনুযায়ী শুক্রবার রাত আনুমানিক সাড়ে দশটার দিকে সিদ্দিক দোকান বন্ধ করে রাস্তা হেটে বাড়ি যাওয়ার সময় তাকে হাসান সহ হাসানের আত্নীয় আল আমিন (৪০), রহিম তালুকদার (৪৫), সফিকুল ইসলাম (২৮), আবুল হোসেন (২৫) ও মো. শাহিন (২৫) মিলে সিদ্দিককে একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিকসায় তুলে নেয়। অটোতে তুলে তারা সিদ্দিকে বেদম মারপিট করে। একসময় তারা সিদ্দিককে নিয়ে বানারীপাড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী স্বরূপকাঠি উপজেলার সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নের জরুরবাড়ী বাজারের বিজের কাছে নিয়ে আসে। সেখানে এসে তাকে অটো থেকে নামিয়ে তার কোমরে লুঙ্গিতে একটি কৌটা গুজে দিয়ে মাদক বিক্রেতা বলে ডাকচিৎকার দিয়ে লোকজনকে জড়ো করে। একপর্যায়ে হাসান তার মোবাইল দিয়ে স্বরূপকাঠি থানায় ফোন দিয়ে মাদক বিক্রেতাকে আটকের খবর জানায়।

খবর পেয়ে নেছারাবাদ থানার এস আই গোলাম হাফিজ ও এএসআই মো. ইয়াছিন ঘটনাস্থলে গিয়ে সিদ্দিককে আটক করে। এসময় তার কোমরে গুজে থাকা কৌটা তল্লাসী করে ৯০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে সিদ্দিকের দেয়া তথ্যনুযায়ী পুলিশের কিছুটা সন্দেহ হলে পুলিশ সিদ্দিকের সাথে হাসানকেও থানায় নিয়ে আসে। থানায় জিজ্ঞাসাবাদে সিদ্দিক জানায় মামলা সংক্রান্ত বিরোধের জেলে তাকে হাসান পরিকল্পিতভাবে ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন।

পরদিন শনিবার পুলিশ আটককৃতদের এলাকায় এবং বানারীপাড়া থানায় যোগাযোগ করে সিদ্দিকের সাথে হাসানদের বিরোধের সত্যতা খুঁজে পায়। এক পর্যায়ে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে হাসান তার ষড়যন্ত্রের কথা স্বীকার করে। পরে শনিবার রাতে এস আই মো. গোলাম হাফেজ বাদী হয়ে নেছারাবাদ থানায় ৬ জনকে নামীয় ও আরো ৪/৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। সত্য ঘটনা উদঘাটনের সংবাদ পেয়েই ঘটনার সাথে জড়িত অন্য আসামীরা আত্মগোপন করে।

এ বিষয়ে নেছারাবাদ থানার ওসি মো. গোলাম ছরোয়ার জানান, সিদ্দিক তালুকদার ও হাসানকে আটকের পর সিদ্দিক জানায় তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে। পরে আটককৃতদের এলাকায় তদন্ত করে জানতে পারি মামলা নিয়ে বিরোধের জেরে সিদ্দিক তালুকদারকে মাদক মালায় ফাঁসাতে হাসান এ নাটক তৈরি করেছিলো। এ ঘটনায় মামলা দায়ের শেষে হাসানকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে রবিবার আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং উদ্ধারকৃত ইয়াবার নমুনা পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। জব্দকৃত ইয়াবার মূল্য আনুমানিক ২৭ হাজার টাকা বলে তিনি জানান।


আরও খবর



কাস্টমস কমিশনার এনামুল হকের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

সিলেটের কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনার মোহাম্মদ এনামুল হকের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞার আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (৮ জুলাই) দুপুরে শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালত এ আদেশ।

আজ মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক ফারজানা ইয়াসমিন মোহাম্মদ এনামুল হকের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক এ আদেশ দেন। দুদকের পক্ষে মীর আহাম্মদ আলী সালাম এ তথ্য জানান।

গত ৪ জুলাই এনামুল হকের ৮ কোটি ৯৫ লাখ ৪৪ হাজার ৫০০ টাকার জমি ও ফ্ল্যাট ক্রোকের নির্দেশ দেন একই আদালত।

ক্রোক করা সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে গুলশানের জোয়ারসাহারায় ৬১ লাখ টাকার তিন কাঠা জমি, খিলক্ষেতে ৭ লাখ ৮৪ হাজার টাকার ৩৩ শতাংশ জমি। কাকরাইলের আইরিশ নূরজাহানে কমনস্পেসসহ ১ হাজার ১৭০ বর্গফুটের ফ্ল্যাট, যার মূল্য ২৮ লাখ ৩০ হাজার ৫০০ টাকা। একই ভবনে কারপার্কিং স্পেসহ ১ হাজার ৮৩৫ বর্গফুটের ফ্ল্যাট, যার মূল্য ৫১ লাখ ২ হাজার ৯০০ টাকা।

এছাড়া কাকরাইলে ১ হাজার ৯০০ বর্গফুট ও ৩ হাজার ৮০০ বর্গফুটের ফ্ল্যাটসহ কারপার্কিং রয়েছে, যার মূল্য ২ কোটি ৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা। গাজীপুরে ৬২ লাখ ৪০ হাজার টাকার পাঁচ কাঠা জমি। মোহাম্মদপুরে তিনটি বাণিজ্যিক ভবনে চার হাজার বর্গফুটের তিনটি স্পেস, যার প্রতিটির মূল্য ৭১ লাখ ৩৫ হাজার করে। মোহাম্মদপুরে ১০ হাজার ৯৬৫ বর্গফুটের স্পেস রয়েছে, যার মূল্য ২ কোটি ৩৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা। এছাড়া গুলশানের ৭২ লাখ টাকার ২ হাজার ৪২৮ বর্গফুটের ফ্ল্যাট এবং বাড্ডায় চার কাঠা নাল জমি, যার মূল্য ১৪ লাখ ৫৫ হাজার টাকা।

জ্ঞাত আয় বর্হিভূত ৯ কোটি ৭৬ লাখ ৯৭ হাজার ১০৭ টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগে এনামুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন মামলা দায়ের করে।


আরও খবর
কোটা নিয়ে আপিল বিভাগে শুনানি রোববার

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




অধিনায়ক হিসেবে শান্তর ওপরই আস্থা বিসিবির

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

চলতি বছরের শুরুতে তিন ফরম্যাটে অধিনায়ক করা হয় নাজমুল হোসেন শান্তকে। বিশ্বকাপে দল সাফল্য পেলেও ব্যাট হাতে পারফরম্যান্স সন্তোষজনক ছিল না। সাত ম্যাচে ৯৫.৭২ স্ট্রাইক রেটে ১১২ রান করেন তিনি। ব্যাট হাতে পারফরম্যান্সের কারণেই অধিনায়কত্ব থেকে তাকে সরিয়ে দেওয়ার কথা উঠছে।

এ নিয়ে জানতে চাইলে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, আমরা শান্তকে ম্যান্ডেট দিয়েছি এক বছরের জন্য। এখন পর্যন্ত এই বিষয় নিয়ে আমরা আলোচনা করিনি। তাসকিন শুরু করেছে সহঅধিনায়ক হিসেবে। আমার মনে হয়, সে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে পারে।

কিন্তু এই মুহুর্তে অধিনায়ক পরিবর্তন হবে কি না, ভবিষ্যতেও হবে কি না, এই বিষয় নিয়ে আমি আলোচনা করতে পারব না। সবকিছু বোর্ডের সিদ্ধান্তে হয়। শান্তকে আমরা এই বছরের জন্য ম্যান্ডেট দিয়েছি। বাকিটা বোর্ডের ইচ্ছা।

এবারের বিশ্বকাপে বেশ কয়েকজন ব্যাটার ছিলেন অফ ফর্মে। এ নিয়ে দলকেও ভুগতে হয়েছে। জালাল ইউনুস এ ব্যাপারে জানান, পারফর্ম করেই দলে এসেছিলেন তারা। ভবিষ্যতেও পারফরম্যান্সেই জোর দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

জালাল আরও বলেন, সাকিব-মাহমুদউল্লাহ কারও নাম নিয়ে বলছি না, যারা পারফর্ম করে সামনে আসবে তারাই খেলবে। এখন যারা খেলছে তারা সবাই পারফর্ম করেই এসেছে। যারা টি-২০ দলে গিয়েছে প্রত্যেকেই সামর্থ্য দেখিয়েই টিমে ছিল। দলের মধ্যে পারফর্ম্যান্সকেই সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার দেওয়া হয়।


আরও খবর



মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে আপিল বিভাগে শুনানি বুধবার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

সরকারি চাকরির প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে শুনানি আগামীকাল বুধবার।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম শুনানির জন্য এ দিন ধার্য করেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক।

শুধু এই মামলার শুনানির দিন ধার্যের জন্য বেলা সাড়ে ১১টায় চেম্বার বিচারপতির আদালত বসেছিলেন।

প্রসঙ্গত, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর নবম থেকে ১৩তম গ্রেড পর্যন্ত সরাসরি নিয়োগে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে একটি পরিপত্র জারি করে। সেখানে বলা হয়েছিল, ৯ম গ্রেড (পূর্বতন ১ম শ্রেণি) এবং ১০ম-১৩তম গ্রেড (পূর্বতন ২য় শ্রেণি) পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে মেধাতালিকার ভিত্তিতে নিয়োগ দিতে হবে। ওই পদসমূহে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি বাতিল করা হয়। নারী কোটা ১০ শতাংশ, মুক্তিযোদ্ধা কোটা ৩০ শতাংশ, জেলা কোটা ১০ শতাংশ, উপজাতি পাঁচ ও প্রতিবন্ধীদের এক শতাংশ কোটা বাতিল করা হয়।

এই পরিপত্রের মুক্তিযোদ্ধা কোটা ৩০ শতাংশ বাতিল চ্যালেঞ্জ করে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল ২০২১ সালে হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের করে। গত ৫ জুন রায় দেয় হাইকোর্ট। রায়ে সরকারের পরিপত্র বাতিল করে মুক্তিযোদ্ধা ৩০ শতাংশ কোটা বহাল রাখার আদেশ দেয়া হয়। এই রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ' আবেদন করলে ৪ জুলাই আপিল বিভাগ হাইকোর্টের রায় বহাল রেখে নিয়মিত আপিল করতে বলেন। ফলে পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ ও আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত সরকারি চাকরিতে কোট বহাল থাকছে।

এই কোটার বিরুদ্ধেই আন্দোলন করে যাচ্ছেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীরা।


আরও খবর
কোটা নিয়ে আপিল বিভাগে শুনানি রোববার

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪