আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

১২ বছর পর বড় পর্দায় শর্মিলা ঠাকুর

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আশির দশকে বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর। ২০১০ সালে ব্রেক কী বাদ সিনেমায় শেষবার বড় পর্দায় দেখা গিয়েছিল তাকে। দীর্ঘ ১২ বছর পর আবারও অভিনয়ে ফিরছেন তিনি। পরিচালক রাহুল চিট্টেলার গুলমোহর সিনেমা দিয়ে। ছবিতে অমল পালেকর, মনোজ বাজপেয়ীদের সঙ্গে পর্দায় অভিনয় করতে দেখা যাবে শর্মিলাকে। ছবিতে আরও অভিনয় করছেন লাইফ অফ পাই খ্যাত সূরজ শর্মা ও সিমরন ঋষি বাগ্গা।

ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে ছবির শুটিং। রূপালি পর্দায় কামব্যাক করা নিয়ে অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর বলেছেন, অনেক দিন পর অভিনয়ে ফিরলাম। সিনেমাটির চিত্রনাট্য শুনেই অভিনয় করতে রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। একটি পরিবারের গল্প। এত সুন্দর করে গল্প বলা হয়েছে যে আমি আর দ্বিতীয়বার ভাবিনি। একসঙ্গে বসে এ সিনেমা দেখতে খুবই ভালো লাগবে দর্শকের।

পারিবারিক সিনেমা গুলমোহর। বাত্রা পরিবারের গল্প উঠে আসবে এই সিনেমাতে। ৩৪ বছরের পুরোনো বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যাবে গোটা বাত্রা পরিবার। এরপরই একান্নবর্তী পরিবারের পুরোনো সেই কথা নিজের ভাবনা দিয়ে পর্দায় ফুটিয়ে তুলবেন পরিচালক রাহুল চিট্টেলা। পরিবারের সদস্যরা পরস্পরের সঙ্গে নতুনভাবে সংযোগ স্থাপন করছেন। তারই মধ্যে ফাঁস হবে অনেক গোপন তথ্য।

লম্বা ব্রেকের পর এই ধরনের পারিবারিক ছবিতে কাজ করতে পেরে খুশি শর্মিলা ঠাকুরও। রাহুল চিট্টেলা পরিচালিত এই ছবির যৌথ প্রযোজনা করছে ফক্স স্টার স্টুডিওজ ও চকবোর্ড এন্টারটেইনমেন্ট অ্যান্ড অটোনমাস ওয়ার্কস। সব ঠিক থাকলে চলতি বছরের আগস্টে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে গুলমোহর-এর।

নিউজ ট্যাগ: শর্মিলা ঠাকুর

আরও খবর



স্বজনদের কবর জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিহত স্বজনদের কবর জিয়ারত করেছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দুই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। ঈদুল ফিতরের মধ্যে বুধবার সকালে তারা রাজধানীর বনানী কবরস্থানে যান এবং সেখানে তারা পরিবারের সদস্যদের কবর জিয়ারত ও দোয়া করেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং থেকে এ তথ্য জানোনো হয়।

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব-১ এম এম ইমরুল কায়েস জানান, বোনকে নিয়ে বুধবার সকালে বনানী কবরস্থানে যান শেখ হাসিনা। তারা পরিবারের সদস্যদের কবর জিয়ারত ও দোয়া করেন।

এরপর তারা ১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট নিহত জাতির পিতার পরিবারের সদস্যদের কবরে গোলাপের পাপড়ি ছিটিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সেনাবাহিনীর একদল বিপথগামী কর্মকর্তার হাতে সপরিবারে জীবন দিতে হয় তৎকালীন রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

সেই রাতে ঘাতকরা বঙ্গবন্ধু ছাড়াও তার স্ত্রী ফজিলাতুন নেছা মুজিব, তিন ছেলে শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেল, শেখ কামালের স্ত্রী সুলতানা কামাল, শেখ জামালের স্ত্রী রোজী জামাল, বঙ্গবন্ধুর ছোট ভাই শেখ নাসেরসহ পরিবারের ১৮ সদস্যকে হত্যা করে। এদের মধ্যে বঙ্গবন্ধু ছাড়া বাকি সবার কবর বনানী কবরস্থানে। বঙ্গবন্ধুকে সমাহিত করা হয় গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায়। তখন বিদেশে থাকায় বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই মেয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।


আরও খবর



৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়সহ বজ্রবৃষ্টির পূর্বাভাস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৬৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

৬০ কিলোমিটার বা তার চেয়েও বেশি শক্তির ঝড়সহ বজ্রবৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আজ বৃহস্পতিবার আবহাওয়া অধিদপ্তর এ তথ্য জানিয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়া এবং বিজলিসহ বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এদিকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় নদীবন্দরের জন্য দেওয়া এক বিশেষ সতর্কবার্তায় বলা হয়, কুষ্টিয়া, ফরিদপুর, কুমিল্লা, নোয়াখালী, বরিশাল এবং চট্টগ্রাম অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্র বৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকায় নদীবন্দরকে ২ নম্বর সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এছাড়া দেশের অন্য এলাকায় পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়োহাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকায় নদী বন্দরকে ১ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।


আরও খবর



খাগড়াছড়িতে ইয়াবাসহ স্কুল শিক্ষক আটক

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙায় ৫৫ পিস ইয়াবাসহ এক স্কুল শিক্ষকসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৫ মে) সন্ধ্যার দিকে মাটিরাঙ্গা পোর শহরের বলিপাড়ার হাবিল মিয়ার বাড়ি থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে ৫৫ পিস ইয়াবা আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের বলিপাড়া এলাকার হাবিল মিয়ার ছেলে মো. রজ্জব আলী (৪২), মিস্ত্রিপাড়ার মো. এছহাক মিয়ার ছেলে জোবায়ের বিন এছহাক ফয়সাল ও বলিটিলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. গোলাম কিবরিয়া রনি (৩১)।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে, মাটিরাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক মাহমুদুল হাসান ইরফান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাটিরাঙ্গা পোর শহরের বলিপাড়ার হাবিল মিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৫৫পিস ইয়াবাসহ তিন জনকে আটক করা হয়।

এই ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



জোরেশোরে চলছে জাতীয় ঈদগাহের প্রস্তুতি

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে গত দুই বছর জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে কোনো ঈদ জামাত হয়নি। তবে এবার সংক্রমণ পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। ফলে জাতীয় ঈদগাহে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এ লক্ষ্যে জোরেশোরে চলছে মাঠ প্রস্তুতের কাজ।

জাতীয় ঈদগাহ ময়দান ঘুরে দেখা গেছে, চারদিকে বাঁশ দিয়ে প্যান্ডেল করার কাজ শেষ। এখন চলছে বাঁশের কাঠামোর ওপর সামিয়ানা টাঙানোর কাজ। মাঠের ভেতরে একাধিক দর্জিকে সামিয়ানা সেলাইয়ে ব্যস্ত সময় পার করতে দেখা যায়। ওপরে সামিয়ানা টাঙানো প্রায় শেষ। মাইক ও বৈদ্যুতিক তার বসানোর কাজও প্রায় শেষদিকে। সবমিলিয়ে পুরো ঈদগাহ মাঠজুড়ে পুরোদমে কাজ করছেন শ্রমিকরা। মাঝেমধ্যে সেখানে এসে ঘুরে যাচ্ছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

এবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ঈদগাহ মাঠ প্রস্তুতে টেন্ডার পেয়েছে পিয়ারো সরদার অ্যান্ড সন্স। এ প্রতিষ্ঠানের মালিক মোজাম্মেল হক বলেন, প্যান্ডেল নির্মাণের কাজ ৯০ ভাগ শেষ। আজ শনিবার ত্রিপল ও কাপড় বিছানোর কাজ করবো।

মাঠের আইনশৃঙ্খলা ও সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়ে জানতে চাইলে রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার সাজ্জাদুর রহমান বলেন, ঈদ জামাত ঘিরে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মাঠে কাজ শুরুর পর থেকে পুলিশ টহল দিচ্ছে। মাঠ প্রস্তুতের পর ঈদ জামাত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কয়েক স্তরে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।

জাতীয় ঈদগাহের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার সাংবাদিকদের বিস্তারিত জানাবেন বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা। এদিকে, আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে জাতীয় ঈদগাহে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। তবে আবহাওয়া প্রতিকূল থাকলে ঈদের প্রধান জামাত সকাল ৯টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে অনুষ্ঠিত হবে। গত ১২ এপ্রিল সচিবালয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপনে সরকারি কর্মসূচি নির্ধারণে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২ বা ৩ মে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। দেশে করোনাভাইরাস মহামারির ব্যাপক সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে গত দুই বছর জাতীয় ঈদগাহ মাঠে ঈদের জামাত আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছিল না। এর পরিবর্তে দুই বছর ধরে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজ ট্যাগ: জাতীয় ঈদগাহ

আরও খবর



আবারও বেসামাল নিত্যপণ্যের বাজার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আবারও বেসামাল হয়ে পড়েছে নিত্যপণ্যের বাজার। সয়াবিন তেলের দাম বৃদ্ধির পর গেল কয়েক দিনে সংকট কিছুটা কমেছে। তবে পেঁয়াজ আমদানির মেয়াদ শেষ হওয়ায় প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে পণ্যটি আসা বন্ধ রয়েছে। এতে দেশের খুচরা ও পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। এ ছাড়া সবজি, রসুন ও ডিমের দাম এক সপ্তাহ ব্যবধানে বেড়েছে। অন্য পণ্যের দাম অবশ্য অপরিবর্তিত রয়েছে।

শুক্রবার (১৩ মে) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে।

ঈদের পর বাজারে সবজির চাহিদা বেড়েছে। এ ছাড়া গত কয়েক দিন ধরে টানা বৃষ্টি থাকায় সবজির দাম কিছুটা বেড়েছে।

চলতি সপ্তাহে ৪০ টাকা কেজি দরে মিষ্টি কুমড়া, মুলা ও পেঁপে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া এ সপ্তাহে ৬০ টাকা কেজি দরে শসা, টমেটো, চিচিঙ্গা, পটল, বরবটি ও ধুন্দল বিক্রি হচ্ছে। আকারভেদে চাল কুমড়া প্রতিপিস ৫০ টাকা এবং লাউ ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, প্রতি কেজি কাঁচামরিচ ১৩০ টাকা এবং পেঁয়াজের দাম ২৫-৩০ টাকা থেকে কয়েক দফা বেড়ে ৪৫-৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা।

প্রতি কেজি দেশি রসুনের দাম ৪০-৫০ টাকা থেকে দ্বিগুণ বেড়ে ৯০-১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া আমদানি করা রসুনের দাম কেজিপ্রতি ১০০-১২০ টাকা থেকে বেড়ে ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

খোলা সয়াবিন তেল খুচরা বাজারে কেজিপ্রতি ২২০-২৫০ টাকায়, পাম অয়েল কেজিপ্রতি ১৯৫-২০০ টাকায় এবং বোতলজাত পাঁচ লিটার সয়াবিন তেল ৯৮০-৯৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, গরুর মাংস প্রতি কেজি ৭০০ টাকা, খাসির মাংস প্রতি কেজি ৯০০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি প্রতি কেজি ১৭০-১৮০ টাকা, সোনালি মুরগি প্রতি কেজি ৩০০-৩১০ টাকা এবং লেয়ার মুরগি প্রতি কেজি ২৭০-২৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি ডজন লাল ডিম ১১৫ টাকা, প্রতি ডজন হাঁসের ডিমের ১৬০ টাকা এবং প্রতি ডজন দেশি মুরগির ডিম ১৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

তবে মাছের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রতি কেজি রুই মাছ ৩০০-৮৫০ টাকা, তেলাপিয়া ও পাঙাস মাছ কেজিপ্রতি ১৬০-১৭০ টাকা, প্রতি কেজি পাবদা মাছ ৩০০-৪০০ টাকা এবং শোল মাছ প্রতি কেজি ৪০০-৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।


আরও খবর
ফের বাড়লো স্বর্ণের দাম

মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২