আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ কাল থেকে শুরু, মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ২১৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আগামীকাল শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে আবারও শুরু হচ্ছে ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন (বিধিনিষেধ)। এ সময় শিল্প-কলকারখানাসহ বন্ধ থাকবে সব ধরনের যানবাহন ও অফিস-আদালত। মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে মাঠে থাকবে পুলিশ ও বিজিবির পাশাপাশি সেনাবাহিনী।

কঠোর বিধিনিষেধের এই সময়ে সরকারের জারি করা নির্দেশনা পূর্ণরূপে মেনে নিজ নিজ অবস্থানে থাকার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। সাংবাদিকদের এক ভিডিও বার্তায় ফরহাদ হোসেন আজ বৃহস্পতিবার বলেন, আগামীকাল (২৩ জুলাই) থেকে পূর্বঘোষিত লকডাউন আগের চেয়ে কঠোরভাবে পালন করা হবে। সরকারি-বেসরকারিসব ধরনের অফিস বন্ধ থাকবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও বিজিবি মাঠে থাকবে। পোশাক কারখানাসহ সব ধরনের শিল্প-কলকারখানাও বন্ধ থাকবে। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকার এ পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

যাঁরা কর্মস্থল ছেড়ে গ্রামে গেছেন, তাঁদের আসার বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী জানান, বিধিনিষেধের প্রজ্ঞাপন বেশ আগেই জারি করা হয়েছে। কাজেই পূর্বঘোষণা থাকা সত্ত্বেও যাঁরা গ্রামে গেছেন, আমরা ধরে নিচ্ছি তাঁরা নিজ নিজ দায়িত্ব নিয়েই গেছেন। তারা বেশ ভালোভাবেই বিধিনিষেধ আরোপের বিষয়টি জানেন। তাঁরা কর্মস্থলে ফিরতে চাইলে বিধিনিষেধ মেনেই ফিরবেন। যাঁরা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কর্মস্থলে ফিরতে পারবেন না, তাঁরা নিজ নিজ অবস্থানে থাকবেন।

সবাইকে বিধিনিষেধ মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে ফরহাদ হোসেন বলেন, একটু অবহেলা করলেই করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে।

এদিকে, গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মো. রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে নিম্নোক্ত তিনটি বিষয়কে বিধিনিষেধের আওতামুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

১. খাদ্য ও খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন এবং প্রক্রিয়াজাতকরণ মিল কারখানা।

২. কোরবানির পশুর চামড়া পরিবহণ, সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণ।

৩. ওষুধ, অক্সিজেন ও কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য উৎপাদনকারী শিল্প।

এরআগে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ওই প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, ২৩ জুলাই ভোর ৬টা থেকে ৫ আগস্ট মধ্যরাত পর্যন্ত ফের কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকর থাকবে।

ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন, জনসাধারণের যাতায়াত, ঈদ পূর্ববর্তী ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা, দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল করা হলো। তবে, এ সময়ে জনসাধারণকে সতর্কাবস্থায় থাকা এবং মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে।

এ ছাড়া ২৩ দফা নির্দেশনা দিয়ে ঈদের তৃতীয় দিন অর্থাৎ ২৩ জুলাই ভোর ৬টা থেকে ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়।


আরও খবর



ঝাঁজ কমেছে কাঁচা মরিচ-পেঁয়াজের, বেড়েছে শসার

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | ১৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান লকডাউনের প্রভাব পড়েছে কাঁচাবাজারে। সপ্তাহের ব্যবধানে কমেছে মুরগি, ডিম, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচসহ সবজির দাম। তবে, অপরিবর্তিত রয়েছে অন্যান্য পণ্যের দাম।

বিক্রেতারা বলছেন, লকডাউনের প্রভাব পড়েছে কাঁচাবাজারে। অতি প্রয়োজন ছাড়া ক্রেতারা বাজারে আসছেন না। তাই পণ্যের দাম কমেছে। বেচাকেনা একেবারেই কম বলে জানিয়েছেন তারা। শুক্রবার (৩০ জুলাই ) সকালে রাজধানীর মিরপুর ১১নম্বর বাজার, মিরপুর কালশী বাজার ও পল্লবী এলাকা ঘুরে এসব চিত্র উঠে এসেছে।

বাজারে বেশিরভাগ সবজির দাম কমেছে। এসব বাজারে প্রতি কেজি (গোল) বেগুন ৬০ টাকা, করলা ৪০ টাকা, ইন্ডিয়ান টমেটো ১২০ টাকা, বরবটি ৬০ টাকা। চাল কুমড়া পিস ৪০ টাকা, প্রতি পিস লাউ আকারভেদে বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়, মিষ্টি কুমড়ার কেজি ৪০ টাকা, চিচিঙ্গা ৪০ টাকা, পটল ৩০ টাকা, ঢেঁড়স ৩০ টাকা, ধুন্দুল ৫০ টাকা, কচুর গাট ৪০ টাকা, কাকরোল ৪০ টাকা।

এ সব বাজারে আলু বিক্রি হচ্ছে ২৫ টাকা কেজি। পেঁয়াজের দাম কমে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা।

এছাড়া এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতিকেজি কাঁচা মরিচের দাম ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কাঁচাকলার হালি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকায়। পেঁপে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা। শসার দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়। লেবুর হালি বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকায়।

এছাড়া শুকনা মরিচ প্রতি কেজি ১৫০ থেকে ২৫০ টাকা, রসুনের কেজি ৮০ থেকে ১৩০ টাকা, আদার দাম ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা। হলুদ ১৬০ টাকা থেকে ২২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। চিনির প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকা। এছাড়া প্যাকেট চিনি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭৮ থেকে ৮০ টাকায়।

বাজারে আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে চাল। বিআর-২৮ চাল বিক্রি হচ্ছে ৫২ থেকে ৫৪ টাকা, মিনিকেট ৬০ থেকে ৬২ টাকা, পাইজাম চাল বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৫০ টাকা, নাজিরশাইল চাল বিক্রি হচ্ছে ৬৫ থেকে ৬৮ টাকা, পোলাওর চাল আগের দামেই ৯০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মিরপুর ১১ নাম্বার বাজারে চাল বিক্রেতা আমির হোসেন বলেন, বর্তমানে বাজারে চালের দাম আগের মতোই আছে। মূলত রাইস মিল মালিকরা প্রতি সিজনে চাল কিনে মজুদ করে রাখেন। তাদের ইচ্ছেমতো সপ্তাহে সপ্তাহে চালের দাম বাড়িয়ে দেন। এর প্রভাব বাজারে পড়ে। চালের দাম আবারও বাড়ার সম্ভাবনা আছে।

ডিমের দাম কমেছে। লাল ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ৯৫ থেকে ১০০ টাকায়। হাঁসের ডিমের দাম বেড়ে ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৩৫ টাকা। সোনালী (কক) মুরগির ডিমের ডজন ১৫০ টাকা।

মুরগির দাম কমে বাজারে প্রতি কেজি সোনালি (কক) মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২১০ টাকায়। ব্রয়লার মুরগি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা। লেয়ার মুরগি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২১০ থেকে ২২০ টাকা।

১১ নম্বর বাজারের মুরগি বিক্রেতা মো. রুবেল বাংলানিউজকে বলেন, ঈদ আর লকডাউনের কারণে বাজারে মুরগির দাম কমেছে। ক্রেতারা বাজারে খুব কম আসছেন। আমাদের বিক্রি নেই বললেই চলে। লকডাউন শেষে আরও বাড়তে পারে মুরগির দাম।

এসব বাজারে অপরিবর্তিত আছে গরু ও খাসির মাংস, মসলাসহ অন্যান্য পণ্যের দাম। বাজারে প্রতি কেজি খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা, বকরির মাংস ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা, গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকা।



আরও খবর
আজ ব্যাংক বন্ধ

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




৬ মাসেই বিলীন হয়ে যায় সিনোভ্যাকের টিকার অ্যান্টিবডি: গবেষণা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেকের কোভিড-১৯ টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার পর যে অ্যান্টিবডি তৈরি হয় তা প্রায় ছয় মাস সময় থেকেই মিলিয়ে যেতে শুরু করে। এমনকি এই অ্যান্টিবডির মাত্রা নির্ধারিত সর্বনিম্ন মানদণ্ডের নিচেও চলে যায়। তবে তৃতীয় একটি ডোজ দেওয়া হলে তা করোনার বিরুদ্ধে শক্তিশালী অ্যান্টিবডি তৈরি করে। চীনের বিজ্ঞানীদের ল্যাবে করা নতুন এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে বলে সোমবার খবর দিয়েছে রয়টার্স।

চীনা গবেষকরা রবিবার প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে সিনোভ্যাকের টিকা নেওয়া ১৮ থেকে ৫৯ বছর বয়সী সুস্থ প্রাপ্ত বয়স্কদের সংগৃহীত রক্তের নমুনা নিয়ে চালানো গবেষণায় এই ফল পাওয়ার কথা জানিয়েছে। তবে এই গবেষণা এখনও পিয়ার রিভিউড জার্নালে প্রকাশিত হয়নি।

গবেষণায় অংশ নেওয়া স্বেচ্ছাসেবীরা দুই থেকে চার সপ্তাহের ব্যবধানে সিনোভ্যাক বায়োটেকের টিকার দুই ডোজ নিয়েছেন। গবেষণায় বলা হয়েছে, দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর প্রায় ছয় মাস পর্যন্ত করোনাকে নিস্ক্রিয়কারী অ্যান্টিবডি যথাক্রমে ১৬ দশমিক ৯ শতাংশ ও ৩৫ দশমিক ২ শতাংশ ছিল।

গবেষণার এই ফল ৫০ জনের বেশি করে স্বেচ্ছাসেবীদের দুটি দলে পাওয়া গেছে। যদিও গবেষণায় অংশ নেওয়া অন্য ৫৪০ জন স্বেচ্ছাসেবীকে তৃতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছিল।

চীনা এই গবেষণায় কয়েকটি দলে ভাগ করা স্বেচ্ছাসেবীদের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার ছয় মাস পর তৃতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছিল। এতে দেখা যায়, তৃতীয় ডোজ দেওয়ার ২৮ দিন পর নিস্ক্রিয়কারী অ্যান্ডিবডির মাত্রা প্রায় ৩ থেকে ৫ গুণ বৃদ্ধি পায়; যা দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার  চার সপ্তাহ পর পাওয়া অ্যান্টিবডির তুলনায় অনেক বেশি।

দেশটির জিয়াংশু প্রদেশে সিনোভ্যাক এবং চীনের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের রোগ নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ এই গবেষণা পরিচালনা করেছে। তবে করোনার অতি-সংক্রামক ধরনগুলোর বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডির কার্যকারিতার ব্যাপারে গবেষণা করা হয়নি বলে সতর্ক করে দিয়েছেন গবেষকরা। এছাড়া তৃতীয় ডোজ দেওয়ার পর অ্যান্টিবডির টিকে থাকার সময়সীমার ব্যাপারে জানতে আরও গবেষণা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন তারা।

গত মাসে সিনোভ্যাকের মুখপাত্র লিউ পেইচেং রয়টার্সকে বলেছিলেন, টিকা নেওয়া লোকজনের সংগৃহীত রক্তের নমুনা নিয়ে চালানো গবেষণার প্রাথমিক ফলে দেখা গেছে, ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে নিস্ক্রিয়কারী অ্যান্টিবডির মাত্রা তিনগুণ পর্যন্ত হ্রাস পেয়েছে। তবে সিনোভ্যাকের টিকার তৃতীয় ডোজ প্রয়োগে শরীরে টেকসই অ্যান্টিবডি তৈরি করে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে থাইল্যান্ড করোনার বিরুদ্ধে সুরক্ষা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রথম ডোজ হিসেবে যারা সিনোভ্যাকের টিকা নিয়েছেন, তাদের দ্বিতীয় ডোজে অ্যাস্ট্রাজেনেকা দেওয়ার ঘোষণা দেয়। বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে চীনের টিকার সঙ্গে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ডোজের মিক্স আর ম্যাচের ঘোষণা দেয় থাইল্যান্ড।

সিনোভ্যাকের দুই ডোজের টিকায় অ্যান্টিবডির স্থায়ীত্ব নিয়ে থাইল্যান্ডের এক গবেষণায় বিজ্ঞানীরা সন্দেহ প্রকাশ করায় দেশটির সরকার এই সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

থাইল্যান্ডের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দেশটির ৬ লাখ ৭৭ হাজার ৩৪৮ জন মেডিকেল কর্মীকে সিনোভ্যাকের টিকার দুই ডোজ নেওয়া ৬১৮ জন ফের করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানানোর পর ওই সিদ্ধান্ত আসে। সিনোভ্যাকের টিকা নেওয়ার পর গত এপ্রিল থেকে জুলাই পর্যন্ত ওই স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনায় আক্রান্ত হন এবং তাদের মধ্যে একজন নার্স মারাও যান।



আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ২২০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২০ জন মারা গেছেন। সোমবার (১২ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে, দেশে গত ৯ জুলাই ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২১২ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এরপর ১০ জুলাই ১৮৫ জন, ১ জুলাই ১৪৩ জন, ২ জুলাই ১৩২ জন, ৩ জুলাই ১৩৪ জন, ৪ জুলাই ১৫৩ জন, ৫ জুলাই ১৬৪ জন, ৬ জুলাই ১৬৩ জন এবং ৭ জুলাই ২০১ জনের মৃত্যুর তথ্য জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




কাঠালিয়ায় নতুন সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে দুইজনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার চেঁচরীরামপুর ইউনিয়নের মহিষকান্দি গ্রামে একটি নির্মানাধীন বাড়ির নতুন সেপটি ট্যাংকের সেন্টারিং খুলতে গিয়ে সিমিন্টের বিষক্ত গ্যাসে রাজমিস্ত্রীসহ দুই জনের মৃত্যু ও একজন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার মহিষকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রাজমিস্ত্রী আসাদুল ও প্রতিবেশি যুবক মজনুর মৃত্যু হয়, অন্য প্রতিবেশি যুবক শুভ গুরতর অসুস্থ্য হয়ে পড়েন।

প্রতক্ষ্যদর্শী ও মৃত্যু আসাদুলের স্বজনরা জানান, মহিষকান্দি গ্রামের মিরাজ খানের নির্মাণাধীন বাড়ির নতুন সেপটি ট্যাংকির সেন্টারিং মঙ্গলবার সকালে রাজমিস্ত্রী আসাদুল খুলতে যান। ট্যাংকির মুখ খুলে ভিতরে ঢুকে সেন্টারিং এর কাঠ খুলতে গেলে বিষক্ত গ্যাসে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। এ অবস্থা দেখে বাড়ির মালিকের ভাই পলাশ খান প্রতিবেশি যুবক মজনু ডেকে নিয়ে আসেন রাজমিস্ত্রীকে উদ্ধার করার জন্য। মজনু মিস্ত্রীকে উদ্ধার করতে ট্যাংকির ভিতরে ঢুকলে সেও অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। এ সময় অন্য প্রতিবেশি যুবক শুভ দুই জনকে উদ্ধার করার জন্য এগিয়ে আসে সেও অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। তিনজনকে উদ্ধার করে পাশ্ববর্তী জেলা পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে মজনু ও আসাদুলের মৃত্যু হয়। শুভকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। রাজমিস্ত্রী আসাদুলের (৩০) বাড়ী ভান্ডারিয়া উপজেলার গাজীপুর গ্রামে। মজনু (২৫) মহিষকান্দি গ্রামের শাহাদতের ছেলে ও শুভ খান (২২) একওই গ্রামের ইদ্রিস খানের ছেলে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

কাঠালিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ পুলক চন্দ্র রায় জানান, সেপটি ট্যাংকির কাজ করতে গিয়ে বিষক্ত গ্যাসে দমবন্ধ হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর
রাজাপুরে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




আজ থেকে চালু হচ্ছে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ১৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পবিত্র ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে নিরাপদে কোরবানীর পশু নিয়ে আসার জন্য আজ শনিবার (১৭ জুলাই) থেকে চালু হচ্ছে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন। বিশেষ এ ট্রেনে গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া পরিবহন করা হবে। আগামী ১৯ জুলাই পর্যন্ত এ ট্রেন চলাচল করবে।

আজ থেকে বিশেষ ট্রেন চালু হওয়ার বিষয়ে রেলওয়ে ঢাকা বিভাগীয় প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা শওকত জামিল মোহসী বলেন, শনিবার কোরাবানীর পশু নিয়ে তিনটি বিশেষ ট্রেন ঢাকায় প্রবেশ করবে। ইতোমধ্যে আমরা সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি।

তিনটি ট্রেনের মধ্যে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ বাজার ও ইসলামপুর থেকে দুটি এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে একটি পশুবাহী ট্রেন ঢাকায় আসবে। এসব ট্রেনের প্রত্যেকটিতে ৪০০টি পশু পরিবহনের ব্যবস্থা রয়েছে।

স্বল্প খরচে ব্যবসায়ীরা যাতে ঝামেলা ছাড়া রাজধানীতে কোরবানীর পশু বিক্রির জন্য নিয়ে আসতে পারেন এজন্য বাংলাদেশ রেলওয়ের পক্ষ থেকে এই বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।


আরও খবর