আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

৫৬ রানেই গুটিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | ৬৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টস জিতে বোলিং নেওয়ার সুবিধাটা বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগিয়েছে ইংল্যান্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ইনিংসের শুরু থেকেই চেপে ধরেছে ইংলিশ বোলাররা। সেই বাধা কাটিয়ে উঠতে পারেনি তারা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ গুটিয়ে গেল অল্প রানে। ইংল্যান্ডকে মাত্র ৫৬ রানের লক্ষ্য দিল কাইরন পোলার্ডের দল।

আজ শনিবার দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে ১৪.২ ওভারে ৫৫ রান গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এটি তৃতীয় সর্বনিম্ন দলীয় স্কোর। সর্বনিম্ন স্কোর ৩৯, দ্বিতীয় সর্বনিম্ন ৪৪ রান। দুটিই কেরছিল নেদারল্যান্ডস।

এদিন ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ ১৩ রান করেন ক্রিস গেইল। অন্যরা ছিল আসা-যাওয়ায়।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দ্বিতীয় ওভারে হারিয়ে ফেলে গুরুত্বপূর্ণ ওপেনার এভিন লুইসকে। মঈন আলীর অফ স্টাম্পের বাইরের বল মোকাবিলা করতে গিয়ে লিভিংস্টোনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান লুইস।

পরের ওভারে সাজঘরে ফেরেন লেন্ডল সিমনস। ক্রিস ওকসের বলে ৬ রানে ক্যাচ তুলে দেন সিমনস। ৯ রানে দুই উইকেট হারানো উইন্ডিজ ২৭ রানের মাথায় হারায় মারকুটে ব্যাটার শিমরন হেটমায়ারকে। টিকতে পারেননি ক্রিস গেইল। ১৩ বলে ১৩ রান করে ফেরেন গেইল।

দ্রুত চার উইকেট হারানোর পর শুধু হতাশাই দেখেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইংল্যান্ডের হয়ে বল হাতে সর্বোচ্চ চারটি উইকেট নিয়েছেন আদিল রশিদ। দুটি করে নেন মঈন আলী ও মিলস।


আরও খবর
মেসির সামনেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন এমবাপে

বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১




মুরাদের প্রায় ৪০০ অডিও-ভিডিওর লিংক ইন্টারনেটে!

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডা. মুরাদ হাসানের অমর্যাদাকর, অশ্লীল ও আপত্তিকর উক্তির ৩৮৭ অডিও-ভিডিওর লিংক চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৫টির লিংক ফেসবুক ও ২টি ইউটিউব অপসারণ করা হয়েছে।

বুধবার বিটিআরসির আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব জানান, বিটিআরসি ফেসবুকে ২৭২ লিংক এবং ইউটিউবে ১১৫ লিংক চিহ্নিত করে তা অপসারণের আবেদন জানানো হয়েছে। এর মধ্যে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ১৫টি এবং ইউটিউব কর্তপক্ষ ২টি লিংক অপসারণ করেছে।

গতকাল মঙ্গলবার ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের মৌখিক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে  বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ সরাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

আদালতে আইনজীবী সুমন জানান, জরুরিভিত্তিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর অশ্লীল অডিও-ভিডিওগুলো অপসারণ করা প্রয়োজন। অপসারণ না করলে অল্প বয়সের ছেলেমেয়েরা এই ধরনের গালাগালি এবং অশ্লীল কথা বার্তা শুনে মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়বে। তাই প্রতিমন্ত্রীর অশ্লীল অডিও-ভিডিও দ্রুত সরাতে বিটিআরসির প্রতি নির্দেশনা প্রার্থনা করছি।

এরপর আদালত রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমারকে বিটিআরসির চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে ওই অডিও-ভিডিওগুলো সরানোর পদক্ষেপ নিতে বলেন। এ বিষয়ে বুধবার অগ্রগতি আদালতকে জানাতে নির্দেশ দেন।


আরও খবর



হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করুন: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শিক্ষার্থীদের প্রতি সংবেদনশীল হয়ে হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্তটি বাস্তবায়ন করুন। পরিবহন মালিক শ্রমিকদের তিনি বলেন, কথা দিয়েছেন কথা রাখুন। আপনাদের সিদ্ধান্ত আপনারাই কেন লংঘন করছেন? বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) তার বাসভবনে ভার্চুয়ালি এক ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

ঢাকা সিটিতে বেশকিছু পরিবহনের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ ভাড়ার যে সিদ্ধান্ত, তা বাস্তবায়ন না করার অভিযোগ রয়েছে। ওবায়দুল কাদের পরিবহন মালিক শ্রমিকদের হাফ ভাড়া বাস্তবায়নের অনুরোধ করেন।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে বিএনপি নেতাদের বিভিন্ন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আইন আদালতের প্রতি আস্থা নেই বলেই বিএনপি নেতারা খালেদা জিয়ার বিদেশে যাওয়ার বিষয়ে আইন কোন বাধা নয়, বাধা হচ্ছে সরকার বলে বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, প্রকৃতপক্ষে বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যে প্রমাণিত হয়েছে তারা দেশের আইন আদালতের কোনও তোয়াক্কা করে না। ওবায়দুল কাদের বিএনপি মহাসচিবের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, সরকার যদি অবৈধই হয় তাহলে এই অবৈধ সরকারের কাছে দাবী করছেন কেন?

তিনি বলেন, আর এই সরকার অবৈধই বা কি করে হয়?  সংসদে তো আপনাদেরও বৈধ প্রতিনিধিত্ব রয়েছে।


আরও খবর



মোটরবাইক নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মোটরবাইক নিষিদ্ধ করবে ভিয়েতনাম। ২০২৫ সালের পর রাজধানী হ্যানয়ের মূল জেলাগুলো থেকে মোটরবাইক নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। ২০৩০ সালের পর এই পরিকল্পনা গ্রহণে কথা ছিল। কিন্তু যানজট নিরসন ও কার্বন নির্গমন কমাতে হ্যানয় কর্তৃপক্ষ পাঁচ বছর আগেই এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) ভিএনএক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এই নিষেধাজ্ঞা তৃতীয় রিং রোডের মধ্যে সব জেলায় এবং তিনটি প্রধান সড়কে প্রযোজ্য হবে। হ্যানয় প্রশাসন এ বিষয়ে একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছে। তাছাড়া ২০৩০ সালের পর চতুর্থ রিং রোডের মধ্যে সব জেলায় মোটরবাইক নিষিদ্ধ করা হবে। দেশটি এই পরিকল্পনার ওপর মঙ্গলবার ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।

রাজধানী হ্যানয়ে প্রায় ৫৬ লাখ মোটরবাইক এবং ৬ লাখ অটোমোবাইল রয়েছে। গণপরিবহনের দুর্বল কার্যক্রমের কারণে হ্যানয়সহ ভিয়েতনামের প্রধান শহরগুলোতে ব্যক্তিগত যানবাহন ব্যবহারের প্রবণতা বেড়েছে।

বর্তমানে হ্যানয়ে ১৪০টি রুটে গণপরিবহন ব্যবস্থা চালু আছে। যা মোট চাহিদার মাত্র ৩১ শতাংশ। চলতি বছরের নভেম্বরে হ্যানয়ের পরিবেশ বিভাগ থেকে মোটরবাইক থেকে কি পরিমাণ কার্বন নির্গমন হয় তা মূল্যায়ন করেছে।

পাঁচ হাজার মোটর বাইকের ওপর কার্বনের পরিমাণ পরীক্ষা করা হয়। সে সময় একটি ডিভাইস দিয়ে একটি গাড়ির নিষ্কাশন ধোঁয়ায় কার্বন মনোক্সাইড, হাইড্রোকার্বন ও কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ পরিমাপ করা হয়।


আরও খবর



সাংবাদিককে মারধরের অভিযোগে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিক মো. রিশাদ হুদার ওপর হামলার ঘটনায় ধানমন্ডি থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নাজিম আহম্মেদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সাংবাদিক রিশাদ হুদা বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার ছেলে।

তিনি জানান, শনিবার বিকেল শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের পেছনে মোটরসাইকেলের হর্ন দেওয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজিম আহম্মেদ ক্ষিপ্ত হন তার ওপরে। এ সময় গাড়ি থেকে নেমে তাকে গালিগালাজ করেন নাজিম। এর এক পর্যায়ে নাজিম ও তার সহযোগীরা মারধর শুরু করে রিশাদকে।

এ বিষয়ে শনিবার রাতেই শাহবাগ থানায় রিশাদ হুদা বাদী হয়ে নাজিম আহম্মেদকে প্রধান আসামি করে মামলা করেন। পরে অভিযুক্ত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজিমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এদিকে আহত সাংবাদিক রিশাদের চিকিৎসা চলছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। 


আরও খবর



কিডনি রোগ জীবন নাশা প্রতিরোধই বাঁচার আশা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানবদেহে সাধারণত এক জোড়া কিডনি থাকে। বড় কলাই আকৃতির কিডনি দুটি দৈর্ঘ্যে ৯-১২ সেন্টিমিটার; প্রস্থে ৫-৬ সেন্টিমিটার ও ৩-৪ সেন্টিমিটার মোটা হয়। মেরুদণ্ডের দুই পাশে কোমরের একটু উপরে এদের অবস্থান।

প্রাথমিক অবস্থায় বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদি কিডনি রোগের কোনো লক্ষণ দেখা যায় না। লক্ষণ যখন দেখা যায়, তখন কিডনি শতকরা ৭০ ভাগ কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। দুটি সহজ পরীক্ষায় কিডনি রোগ নির্ণয় করা যায়। ১. মূত্র পরীক্ষায় আমিষের উপস্থিতি দেখা ও ২. রক্ত পরীক্ষায় ক্রিয়োটিনিনের মাত্রা দেখা।

দীর্ঘমেয়াদি কিডনি রোগের কিছু লক্ষণ হলো, শরীর ফুলে যাওয়া, ক্লান্তিবোধ করা, মনোযোগহীনতা, ক্ষুধামান্দ্য ও ফেনাযুক্ত প্রস্রাব হওয়া।

কিডনির বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক যিনি কিডনির মেডিসিন বিষয়ক চিকিৎসা দিয়ে থাকেন, তাকে আমরা নেফ্রোলজিস্ট বলি। আর কিডনির বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক যিনি কিডনির সার্জিক্যাল রোগের চিকিৎসা দিয়ে থাকেন, তাকে বলি ইউরোলজিস্ট।

কাদের সতর্ক হতে হবে

১. আপনার যদি ডায়াবেটিস থাকে, চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

২. উচ্চ রক্তচাপ।

৩. স্থূলতা।

৪. ধূমপানের অভ্যাস।

৫. অধিক বয়স (৫০ বা তদূর্ধ্ব)।

৬. পরিবারে কারো কিডনি রোগ, ডায়াবেটিস বা উচ্চ রক্তচাপ থাকলে সতর্ক হতে হবে।

সুরক্ষায় মেনে চলুন ৮ নিয়ম

১. নিজেকে সবল ও কর্মব্যস্ত রাখুন।

২. রক্তের শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করুন।

৩. রক্তচাপ পর্যবেক্ষণ করুন।

৪. সুষম খাদ্য খান এবং ওজন নিয়ন্ত্রণ রাখুন।

৫. পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করুন।

৬. ধূমপান পরিহার করুন।

৭. চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবন থেকে বিরত থাকুন।

৮. আপনি যদি কিডনি ঝুঁকিতে থাকেন, তাহলে এক বা একাধিক কিডনি রোগ পরীক্ষার মাধ্যমে শনাক্ত করুন।

কে আক্রান্ত হবেন?

১. পৃথিবীতে শতকরা ১০ জন মানুষ কিডনি রোগে ভুগছেন।

২. কিডনি রোগ সকল বয়সের এবং সকল জাতিকে আক্রান্ত করতে পারে।

৩. ৭৫ বৎসর বয়সের ৫০ শতাংশ মানুষ কমবেশি দীর্ঘমেয়াদি কিডনি জটিলতায় ভোগেন।

৪. ৬৫-৭৫ বয়সের প্রতি ৫ জনে একজন পুরুষ এবং প্রতি ৪ জনে একজন নারী কিডনি রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

৫. উচ্চ রক্তচাপ এবং বহুমূত্র রোগ দীর্ঘমেয়াদি কিডনি রোগের প্রধান কারণ।

আপনি কি ঝুঁকিতে আছেন? তাহলে দেখুন, আপনার কি উচ্চ রক্তচাপ আছে? আপনি কি বহুমূত্র রোগে ভুগছেন? আপনার পরিবারের কারও কি কিডনি রোগ আছে? আপনার দৈহিক ওজন কি বেশি? আপনার কি জাতিগতভাবে আফ্রিকান, হিসপানিক বা এশিয়ান বংশধর?

আপনার উত্তর এক বা একাধিক হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কিডনি রোগ একটি নীরব ঘাতক, যা আপনার সুস্থ জীবন-যাপন বাধাগ্রস্ত করে। এখানে কিছু সহজ উপায় বলা আছে যা আপনাকে কিডনি রোগ থেকে রক্ষা করবে।

কিডনি রোগ প্রতিরোধে করণীয়

কিডনি রোগ একটি নীরব ঘাতক। বাংলাদেশে প্রায় ২ কোটি লোক কোনো না কোনো কিডনি রোগে আক্রান্ত। কিডনি বিকল হয়ে প্রতি ঘণ্টায় পাঁচজনের মৃত্যু হচ্ছে। কিডনি বিকল রোগীর চিকিৎসা এত ব্যয়বহুল যে, এ দেশে শতকরা ৫ ভাগ লোকেরও দীর্ঘ মেয়াদি চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়ার সামর্থ্য নেই। সাধারণত ৭০ ভাগ কিডনি নষ্ট হওয়ার আগে রোগীরা বুঝতেই পারে না যে সে ঘাতক ব্যাধিত আক্রান্ত। এই ঘাতক ব্যাধি থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় অঙ্কুরেই কিডনি রোগ নির্ণয় ও কিডনি বিকল প্রতিরোধ করা।

কিডনি বিকল প্রতিরোধের ১০টি উপায়

১. ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও নেফ্রাইটিস কিডনি

বিকলের প্রধান কারণ।

২. ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীদের রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণ রাখা (HBAIC ৭ (সাত) এর নিচে)।

৩. উচ্চ রক্তচাপ আক্রান্ত রোগীদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে (১৩০/৮০এর নিচে)।

৪. ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ আক্রান্ত রোগীদের কিডনির কার্যকারিতা ও প্রস্রাবে মাইক্রো অ্যালবুমিন প্রতি ৬ মাস অন্তর পরীক্ষা করা।

৫. শিশুদের গলাব্যথা, জ্বর ও ত্বকে খোসপাঁচড়ার দ্রুত সঠিক চিকিৎসা করা উচিত।

৬. ডায়রিয়া, বমি ও রক্ত আমাশয়ের কারণে রক্ত, পানি ও লবণ শূন্য হয়ে কিডনি বিকল হতে পারে। তাই দ্রুত খাবার স্যালাইন খেতে হবে। প্রয়োজনে শিরায় স্যালাইন দিতে হবে

৭. ধূমপান বর্জন করুন, ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন ও নিয়মিত ব্যায়াম করুন।

৮. চিকিৎসকের পরামর্শ ব্যতীত এন্টিবায়োটিক ও তীব্র ব্যথার ওষুধ সেবন না করা।

৯. প্রস্রাবের ঘন ঘন ইনফেকশনের জন্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিতে হবে।

১০. পাঁচ রঙের সবজি খাবেন, বেশি করে ফল খাবেন, চর্বি জাতীয় খাবার ও লবণ কম খাবেন ও পরিমিত পানি পান করবেন।

লেখকঃ ডাঃ ফজলে এলাহী খাঁন

সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান (কিডনী বিভাগ)

আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ, নোয়াখালী ।

সভাপতি স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ(স্বাচিপ), নোয়াখালী জেলা।

নিউজ ট্যাগ: কিডনি রোগ

আরও খবর
করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১