আজঃ শনিবার ১৫ জুন ২০২৪
শিরোনাম

আবারও ক্যাটরিনার মা হওয়ার গুঞ্জন

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

বহু দিন ধরেই গুঞ্জন চলছে মা হতে চলেছেন ক্যাটরিনা কাইফ। এর মধ্যে অভিনেত্রী লন্ডনে গিয়ে নিজের পরিবারের সঙ্গে বেশ কয়েক দিন সময় কাটিয়েছেন। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার এ গুঞ্জনের মধ্যেই গত শনিবার লন্ডন থেকে দেশে ফিরেছেন এ অভিনেত্রী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে জানা যায়, বিমানবন্দরে ছবিশিকারিদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছেন ক্যাটরিনা। তার পরনে ছিল কালো শার্ট, কালো প্যান্ট আর লম্বা কালো কোট। চোখে কালো রোদচশমা। এভাবেই বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে এসে গাড়িতে ওঠেন ক্যাট। কিন্তু কোথায় তার স্ফীতোদর! তা হলে কি অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর স্রেফ গুঞ্জন?

ছবিশিকারিদের তোলা ভিডিও দেখে নেটাগরিকরা বলছেন, মোটেই অন্তঃসত্ত্বা নন অভিনেত্রী। আর এক দলের অবশ্য দাবি, ক্যাটরিনা এমনভাবে পোশাক পরেছেন যে স্ফীতোদর ঢাকা পড়েছে। সাধারণত কালো পোশাক পরলে শরীরের ভাঁজ বোঝা যায় না। তাই কি ক্যাটরিনা কালো রং বেছে নিয়েছেন? তবে সবটাই এখন জল্পনা। ক্যাটরিনার এই সাজও পছন্দ করেছেন অনেকেই। অভিনেত্রীর এক অনুরাগী ভিডিওতে মন্তব্য করেন, ক্যাটরিনা অন্তঃসত্ত্বা নন বোঝাই যাচ্ছে। কিন্তু সব সময়ের মতোই তাকে সুন্দর লাগছে।

লন্ডন থেকে ছুটি কাটিয়ে ফিরেছেন অভিনেত্রী। বাকি সবটাই জল্পনা। দীপিকা পাড়ুকোন মা হতে চলেছেন, এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পরেই ক্যাটরিনার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়। এমনও অনেকে বলেন, লন্ডনেই হয়তো সন্তানের জন্ম দেবেন তিনি। বিয়ের সময়েও গোপনীয়তা বজায় রেখেছিলেন ক্যাটরিনা। সন্তানধারণের ক্ষেত্রেও অন্যথা হবে বলে মনে করেননি নেটাগরিকরা। কিন্তু সেসব আশায় জল ঢেলে দিলেন ক্যাটরিনা নিজেই।

উল্লেখ্য, শ্রীরাম রাঘবনের মেরি ক্রিসমাস ছবিতে শেষ দেখা গিয়েছিল অভিনেত্রীকে। আগামী দিনে তার হাতে রয়েছে জি লে জরা


আরও খবর



গাজায় ইসরায়েলি হামলা: ৬৪ ফিলিস্তিনি নিহত

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায়  ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ৬৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও অনেকে। শনিবার (১৮ মে) গাজায় অবস্থানরত আলজাজিরার প্রতিনিধি এ তথ্য জানিয়েছেন।

শুক্রবার (১৭ মে) হামাসের ইসরায়েলের সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী তাদের হামলা জোরদার করেছে।

সংবাদ সংস্থা ওয়াফা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শনিবার সন্ধ্যায় রাফার মধ্যাঞ্চলের জাবালিয়া আল-বালাদ এলাকার আবু হাশেম’ ভবনে ইসরায়েলি বোমা হামলার পর উদ্ধারকর্মীরা সেখান থেকে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

গাজার উত্তরাঞ্চলে কামাল আদওয়ান হাসপাতালের কাছে একটি আবাসিক ভবনে ইসরায়েলি হামলায় ২৮ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আরও ডজন খানেক ফিলিস্তিনি আহত হয়েছে।

উত্তর গাজার জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের দরজায় জড় হওয়া ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে অন্তত ১২ ফিলিস্তিনি নিহত ও ২৫ জন আহত হয়েছে।

জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের পশ্চিমে ফালুজাহে পানি নিতে আসা ফিলিস্তিনিদের ওপর আর্টিলারি হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে আট জন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছে।

মধ্য গাজার নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলি হামলায় পাঁচ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

দক্ষিণ গাজার খান ইউনিস শহরে একটি বাড়িতে হামলা চালিয়ে চারজনকে হত্যা করেছে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী। খান ইউনিসের পূর্বে আবাসান আল-কাবিরা শহরের আল-ফারাহিনে হামলায় অন্তত তিনজন নিহত হয়েছে। উত্তরপশ্চিম রাফাহে একটি গাড়িতে ড্রোন হামলায় একজন নিহত হয়েছে।

ইসরায়েরি সামরিকবাহিনী উত্তর গাজায় নতুন করে হামলা চালাবে। তাই সেখানে থেকে ফিলিস্তিনিদেরকে অবিলম্বে সরে যাওয়ার আদেশ দিয়েছে। তারা রাফায় তাদের স্থল অভিযানও আরও বাড়াচ্ছে।

ইউনাইটেড ন্যাশনস রিলিফ অ্যান্ড ওয়ার্কস এজেন্সি ফর প্যালেস্টাইন রিফিউজি ইন দ্য নেয়ার ইস্ট (ইউএনআরডব্লিউএ) এর প্রধান ফিলিপ লাজারিনির মতে, ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী ৬ মে থেকে রাফাহতে তাদের স্থল অভিযান শুরু করার পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ৮ লাখ ফিলিস্তিনিকে রাফাহ ছেড়ে পালাতে বাধ্য করেছে। উত্তর গাজায় জোরপূর্বক আরও ১ লাখ ফিলিস্তিনিকে বাস্তুচ্যুত করা হয়েছে।


আরও খবর



কাঁচামরিচের ডাবল সেঞ্চুরি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

এক সপ্তাহ আগেও বাজারে কাঁচামরিচ ১২০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি হতো। সপ্তাহের ব্যবধানে সেটির দাম বেড়ে এখন ২০০ টাকা পৌঁছেছে। কোথাও কোথাও দাম ২২০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। বিক্রেতারা বলছেন, বাজারে কাঁচামরিচের সরবরাহ কম থাকায় দাম বেড়েছে।

শুক্রবার (২৪ মে) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সব বাজারেই কাঁচামরিচ প্রতি কেজি ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, তবে যে সব মরিচের মান কিছুটা ভালো সেই দুই এক জাতের মরিচ ২২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আসন্ন ঈদুল আজহার বাকি প্রায় এক মাস। এর আগেই বাজারে কাঁচামরিচের দাম বেড়ে গিয়ে ২০০ টাকায় দাঁড়িয়েছে। গতবার (২০২৩) ঠিক এই সময়ে ঈদুল আজহার আগে কাঁচামরিচের দাম বেড়ে ৭০০ টাকায় ঠেকেছিল। ব্যবসায়ীরা বলছেন, এই সময়ে দেশে কাঁচামরিচের কিছুটা ঘাটতি থাকে, সে কারণে দাম বেড়ে যায়। তখন আমদানি করে কাঁচামরিচের ঘাটতি মেটানো হয়।

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কিছুদিনের বৃষ্টির কারণে কাঁচামরিচের দাম বেড়েছে। কারণ দেশের মরিচ গাছগুলো বৃষ্টি হলেই পচে যায়। এছাড়া কিছুদিনের তীব্র গরমে মরিচ গাছগুলো আগেভাগেই নষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমানে মরিচের মৌসুম শেষ হয়ে আশায় গাছগুলো শুকিয়ে যাচ্ছে। সব মিলিয়ে বাজারে কাঁচামরিচের সরবরাহ আগের তুলনায় কম হচ্ছে, ফলে দাম বেড়েছে।

রাজধানীর মালিবাগের একটি কাঁচাবাজারের খুচরা কাঁচামরিচ বিক্রেতা শহিদুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিন আগেই কাঁচামরিচ ১২০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি করেছি। তারপর থেকেই কাঁচামরিচের দাম বেড়ে গেছে, এখন প্রতি কেজি কাঁচামরিচ বিক্রি করছি ২০০ টাকায়। যদিও এই কাঁচামরিচের মান খুব ভালো না, তবুও পাইকারি বাজার থেকে এই মরিচ বাড়তি দাম দিয়েই কিনে আনতে হয়েছে। পাইকারি বাজারে কাঁচামরিচ খুব কম পাওয়া যাচ্ছে, আগের মতো সরবরাহ নেই পর্যাপ্ত। সে কারণেই বাজারে বাড়তি দাম চলছে কাঁচামরিচের। নতুন করে মরিচ ওঠার আগ পর্যন্ত এ দাম বাড়তি থাকবে।

রাজধানীর কারওয়ান বাজার থেকে কাঁচাপণ্যের সঙ্গে কাঁচামরিচও কিনে এনে খুচরা বিক্রি করেন আলমগীর হোসেন নামের এক বিক্রেতা। তিনি বলেন, দীর্ঘদিনের ব্যবসার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি যে, বছরের এই সময়ে এসে কাঁচামরিচের দাম বেড়ে যায়। কারণ এ সময় কাঁচামরিচের উৎপাদন তেমনভাবে হয় না, ফলে বাজারে সরবরাহ কম হয়। ক্ষেতের গাছগুলো এখন শুকিয়ে যাওয়ার পথে, এছাড়া কয়েকদিন বৃষ্টি হয়েছে যাতে করে গাছগুলো পচে গেছে। পাশাপাশি গত কিছুদিনের তীব্র গরমে আগেভাগেই কাঁচা মরিচের গাছগুলো শুকিয়ে নষ্ট হয়ে গেছে। তাই বাজারে বাড়তি দাম যাচ্ছে কাঁচামরিচের।

রাজধানীর মহাখালী বাজারে অন্যান্য বাজারের সঙ্গে কাঁচামরিচ কিনেছেন বেসরকারি চাকরিজীবী সাইদুর রহমান। তিনি বলেন, কয়েকদিন আগেও এক পোয়া কাঁচামরিচ কিনেছি ৩০ টাকায়, আজ সেটাই কিনলাম ৫০ টাকা। সবকিছুর দাম বাড়তি যাচ্ছে, সেখান থেকে আমাদের ছাড় দেয়নি কাঁচামরিচও। এটারও এখন বাড়তি দাম। ২০০ টাকা কেজি কিনে খেতে হচ্ছে। বাজারে আর কিছু দাম বাড়তে বাকি থাকল না। গত বছর কোরবানি ঈদের আগে কাঁচা মরিচ ৭০০ টাকা কেজি ছিল, এবছর এ সময়ে এসে কেবল ২০০ টাকা ঠেকেছে। না জানি কত টাকায় গিয়ে ঠেকে কাঁচামরিচের দাম।


আরও খবর



নৃ-গোষ্ঠীর দুই শিশু ও মা-বাবাকে পাশবিক নির্যাতন, মায়ের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রেদওয়ানুল হক মিলন, ঠাকুরগাঁও

Image

ঠাকুরগাঁওয়ের পৌর শহরের পরিষদ পাড়ার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর দুই শিশুকে পাশবিক নির্যাতনের পর এক শিশুর বাবা-মাকেও মধ্যযুগীয় নিপীড়ন চালানোর অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতনের পরে ওই এক শিশুর মা দায়নি ঋষির (৪২) মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তবে এটি আত্নহত্যা নয়, হত্যা বলে দাবি নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের। আর ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার বলছেন, অপরাধী যেই হউক ছাড় পাবে না।

বুধবার (২২ মে) সকালে পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ড পরিষদ পাড়ার একটি লিচু গাছে ওই নারীর লাশ ঝুলে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত দায়নি বিষু ঋষির স্ত্রী। তাদের ঘরে দুই ছেলে ও এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

নিহতের স্বজন ও স্থানীয়দের অভিযোগ, গত সোমবার পরিষদ পাড়ার লিটনের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় লিটনসহ তার লোকজন পরদিন চোর সন্দেহে দয়ান ঋষির ছোট ছেলে রাজেন (১৩) ও একই গ্রামের মৃত যোগেন এর ছেলে সঞ্জিত (১৫) কে তারা বাসায় আটক করে রাখে। কিন্তু তাঁরা চুরি করেনি তার পরেও ছেড়ে না দিয়ে মারপিট করতে থাকে। এরপর বিষু ঋষিকেও ধরে নিয়ে যায় তাঁরা। তবে বিষু ঋষিকে ছেড়ে দিলেও রাজেনকে ছাড়েননি। এরপর রাজেনকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে আরও মারপিট করে। রাজেন মারপিটের ঠেলায় বলে, এলাকার সঞ্জিত এর নাম বলে সে চুরি করেছে। এরপর সঞ্জিতকে খুঁজে বের করে। পরে দুজনকে একদল উচ্ছৃংখল যুবকের হাতে তাদের তুলে দেন লিটন। পরে লিটনের আত্মীয় আমজাদসহ কয়েকজন মিলে ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর দোলন কুমার মজুমদারের সাথে দেখা করে চুরির বিষয়টি অবগত করেন। এসময় কাউন্সিলর তাদের পুলিশ প্রশাসনের সহযোগীতা নেয়ার পরামর্শ দেন।

কিন্তু বাড়ির মালিক লিটন কাউন্সিলরের কথা না শুনে চুরি ঘটনায় কয়েক লক্ষ টাকা ও কয়েক ভরি স্বর্ণ অলংকার খোয়া গেছে দাবি করে আটকৃতদের কয়েক দফায় বেধরক মারপিট করে লিটনসহ তার লোকজন।

তারা আরো অভিযোগ করে বলেন, ওই দুই কিশোর ও বিষু ঋষিকে ছেড়ে দেয়ার পর ওই দিন রাতে অজ্ঞাতরা রাজেনের মা দায়নি ঋষিকে বাড়ি থেকে ডেকে নেয় চুরির বিষয়টি সমাধানে। সে বাসায় না ফিরলে অনেক খোঁজাখুঁজি করেন স্বজনরা। পরে বুধবার সকালে স্বজনরা তার লাশ গাছের ডালে ঝুলতে দেখে।

রাজেন ও সঞ্জিত জানায়, ২০-২৫জন আমাদের শহরের গোবিন্দ নগর বড়বাড়ি এলাকায় নিয়ে গিয়ে লোহার রড, গাছের ডাল দিয়ে অনবরত পেটাতে থাকে আর বলে বলআমরা টাকা চুরি করছি। শরীর থেকে রক্ত ঝরছিল তাও মারছিল। সঞ্জিত বলে সহ্য করতে না পেরে বলি রাজেনের মাকে চুরির টাকা গয়নাপাতি রাখতে দিয়েছি। এরপর রাজেনের মাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে তার ওপর পাশবিক নির্যাতন করে। টাকা স্বর্ণ অলংকার তাদের কাছে উদ্ধার করতে না পেরে থানা নিয়ে যায়।

পরিবারের অভিযোগ লিটন ও তাঁর ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা দায়নিকে হত্যা করে গলায় শাড়ি পেছিয়ে গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে। এ হত্যার সাথে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানান তাঁরা।

আদিবাসী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাবুল টিজ্ঞা জানান, দায়নি ঋষিকে পিটিয়ে হত্যার পর গাছে ঝুলিয়ে রাখা রয়েছে। আর কত নির্যাতন হলে বা মারা গেলে আদিবাসী নিরিহ মানুষগুলোর ওপর নির্যাতন বন্ধ হবে? কেউ অপরাধ করলে পুলিশ-প্রশাসন আছে। তাই তাই বলে এভাবে নির্মমভাবে নির্যাতন করতে হবে। তাঁরা তো চুরির সময় ধরা পড়েনি। সন্দেহজনক ধরা হয়েছে। তবে এটা স্বাভাবিক মৃত্যু নয়। আর কত নির্যাতিত হলে আমরা বিচার পাবো?

এ বিষয়ে ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর দোলন কুমার মজুমদার জানান, চুরির ঘটনায় দুই কিশোরকে আটকের পর মারপিট করা হয় সেই বিষয়টি জানানো হলে পুলিশের সহযোগীতা নেয়ার পরামর্শ দিলেও তারা শুনেনি। পরে সকালে জানতে পারি এক কিশোরের মা গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে। নিশ্চই বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবেন পুলিশ।

আর পুলিশ সুপার (এসপি) উত্তম প্রসাদ পাঠক বলেন, ইতিমধ্যে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা এটা এই মুহূর্তে বলা সম্ভব নয়। তবে অপরাধী যেই হউক সে ছাড় পাবে না।


আরও খবর



উপজেলা নির্বাচন

পাথরঘাটায় চেয়ারম্যান প্রার্থী এনামুলকে ইসিতে তলব

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
Image

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি:

নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলা পরিষদের দোয়াত কলম প্রতীকের চেয়াম্যান প্রার্থী এনামুল হোসাইনকে তলব করেছে ইসি।

কেনো তার প্রার্থীতা বাতিল করা হবে না, ২৭ মে সকাল সাড়ে ১০টায় ইসিতে উপস্থিত হয়ে ব্যাখ্যা দিতে নোটিশ পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

নোটিশে বলা হয়েছে, ২৪ মে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ ও ভিডিও ফুটেজে প্রার্থী এনামুল হোসাইন নেতা কর্মী ও সমর্থকদের অর্থ বিতরণ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশিত হয়। উপজেলা পরিষদ নিবাচনে আচরণ বিধিমালা, ২০১৬ এর বিধি ৭ এর (খ), (গ), (ঘ) ও ১১ (২) এবং ২১ এর (১) লঙ্ঘন হওয়ায় পাথরঘাটা উপজেলা পরিষদ নিবাচনে চেয়ারম্যান পদে তার প্রার্থীতা কেনো বাতিল এবং আইনানুগ অন্যান্য কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে না।

জানা যায়, একই দিনে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে মিছিল নিয়ে পথসভায় অংশগ্রহণ করার দায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী এনামুল হোসেনকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করেন পাথরঘাটা সহকারী কমিশনার (ভূমি) খান সালমান হাবিব।

এবিষয় পাথরঘাটা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দোয়াত কলম প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী এনামুল হোসেনের সাথে তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

উল্লেখ, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদের তৃতীয় ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৯মে। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছে ৭ জন। তারা হলেন, মোস্তফা গোলাম কবির (কাপ পিরিচ), মোঃ রফিকুল ইসলাম রিপন মোল্লা (আনারস), নুর আফরোজা হেপি (মোটরসাইকেল), আকন মোঃ সহিদ (চিংড়ি মাছ), মোঃ হাফিজুর রহমান (ঘোড়া), মোঃ এনামুল হোসাইন (দোয়াত কলম), হেমায়েত হোসেন ভুট্টো (হেলিকপ্টার)।


আরও খবর



মিঠাপানির মাছ আহরণে বাংলাদেশ বিশ্বে দ্বিতীয়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

মিঠাপানির মাছ আহরণে চীনকে টপকে বাংলাদেশ বিশ্বে তৃতীয় থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মো. আব্দুর রহমান। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা জানান মন্ত্রী।

মো. আব্দুর রহমান বলেন, জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) এক প্রতিবেদন অনুযায়ী মিঠাপানির মাছ আহরণে বাংলাদেশ চীনকে টপকে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে। বদ্ধ জলাশয়ে চাষ করা মাছ উৎপাদনে পঞ্চম স্থানের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছে। ক্রাস্টাশিয়ান্স উৎপাদনে বিশ্বে অষ্টম এবং সামুদ্রিক মাছ উৎপাদনে ১৪তম স্থান অধিকার করেছে।

মন্ত্রী জানান, দ্য স্টেট অব ওয়ার্ল্ড ফিশারিজ অ্যান্ড অ্যাকোয়াকালচার ২০২২-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী চীনের মিঠাপানির মৎস্য উৎপাদন ছিল ১ দশমিক ৪৬ মিলিয়ন টন এবং অবস্থান ছিল বিশ্বে দ্বিতীয়। অপরদিকে বাংলাদেশের উৎপাদন ছিল ১ দশমিক ২৫ মিলিয়ন টন এবং অবস্থান ছিল বিশ্বে তৃতীয়। গত দুই বছরে দেশের মিঠাপানির মৎস্য উৎপাদন ১ দশমিক ২৫ মিলিয়ন টন থেকে বেড়ে ১ দশমিক ৩২ মিলিয়ন টনে উন্নীত হয়েছে। চীনের উৎপাদন ১ দশমিক ৪৬ মিলিয়ন টন থেকে কমে ১ দশমিক ১৬ মিলিয়ন টন হয়েছে। এ কারণে দ্য স্টেট অব ওয়ার্ল্ড ফিশারিজ অ্যান্ড অ্যাকোয়াকালচার ২০২৪-এর প্রতিবেদনে চীনকে টপকে দ্বিতীয় অবস্থানে উন্নীত হয়েছে বাংলাদেশ।

মাছ চাষে অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার হচ্ছে, এ বিষয়ে কোনও উদ্যোগ নেওয়া হবে কিনা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, এটি একটি চ্যালেঞ্জ। তবে এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় মন্ত্রণালয় তৎপর রয়েছে। মাছের উৎপাদন বাড়ানোর জন্য দেশীয় প্রজাতির মাছের জাত উদ্ভাবন করা হচ্ছে, অভয়াশ্রম করা হচ্ছে। উন্মুক্ত জলাশয়ে পোনা অবমুক্ত করা হচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, কারেন্ট জাল গোটা বাংলাদেশকে ছেয়ে ফেলেছে। কারেন্ট জাল দিয়ে মাছের রেণু পোনা পর্যন্ত ধরা হচ্ছে। আমরা দেশে কারেন্ট জাল নিষিদ্ধ করেছিলাম। কিন্তু উৎপাদনকারীরা কোর্টে রিট করেছে। আমরা এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছি।

মাছ রফতানির বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ইতোমধ্যেই আমরা মাছ রফতানি করছি। তবে ভবিষ্যতে রফতানি আয় বৃদ্ধির জন্য আরও নিরাপদভাবে মাছ প্রসেসিংয়ের পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব সাঈদ মাহমুদ বেলাল হায়দর, অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল কাইয়ূম, মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালক সৈয়দ মো. আলমগীর।


আরও খবর