আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

আগাম আলু তুলতে ব্যস্ত কৃষকেরা

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলার কৃষকেরা আগাম আলু তুলতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ফলন একটু কম হলেও চড়া দামে বিক্রি করে লাভবান হবেন এমনটাই আশা করছেন আলু চাষিরা। দেশের বাজারে এই প্রথম নতুন আলু উঠতে শুরু করেছে। এ আলু ঢাকা, চট্টগ্রাম, বরিশাল, খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের সরবরাহ করা হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কৃষক মমিনুর রহমান জানান, ২ বিঘা জমিতে আলু লাগিয়েছি ভালো দামের আশায়। তবে জমি উঁচু হওয়ায় আশ্বিনা বৃষ্টিপাতে তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। এখন সেই জমির আলু তুলছি। যা ১০ থেকে ১২ বস্তা আলু হবে। এতে খরচ বাদে দ্বিগুণ টাকা আয় হবে। স্থানীয় কৃষকরা জানান, আগাম আলুর মৌসুমে বৈরী আবহাওয়ায় কারণে আগাম আলু চাষিরা বিপাকে না পড়লে ইতোমধ্যে ৩০ শতাংশ জমির আলু বাজারে চলে আসত। এখন আলু তোলা শুরু হয়েছে।

আর কদিন গেলে উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে আলু উত্তোলন শুরু হবে। তবে বাজার দর ঠিক থাকলে আলু চাষিরা লাভবান হবেন। আলু উত্তোলনের পর ওই জমিতে পুনরায় নমলা আলুসহ  সাথী ফসল হিসেবে ভুট্রা, মিষ্টি কুমড়া, কাঁচামরিচ ও শীতকালীন সবজি চাষ করা হয়। পরবর্তীতে ওই ফসলগুলোতে সার প্রয়োগের প্রয়োজন হয় না।

কিশোরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার মো. হাবিবুর রহমান জানান, চলতি বছর ৬ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন আলু উঠতে শুরু করেছে। বর্তমান আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় আলুর বাম্পার ফলনের আশা করা হচ্ছে। কৃষকরা ভাল দাম পেলে আগামীতে আগাম আলু চাষে উৎসাহিত হবেন। মাঠ পর্যায়ে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা প্রতিনিয়ত কৃষকদের পরামর্শ দিচ্ছেন।

 

নিউজ ট্যাগ: আগাম আলু

আরও খবর



বিবাহ বিচ্ছেদ হচ্ছে অনুপম রায়ের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | ৮৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টুইট করে বিবাহ বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করলেন সঙ্গীতশিল্পী অনুপম রায়। জানালেন, স্বামী-স্ত্রী নয়, পিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে বন্ধু হিসেবেই থাকবেন। তিনি জানান, পিয়ার সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক মনে রাখার মতোই ছিল। কিন্তু ব্যক্তিগত মতানৈক্য এবং ভাবনার ফারাকের জন্য স্বামী-স্ত্রী হিসাবে তাঁরা আর থাকতে পারছেন না।

ঘটনাচক্রে এটি অনুপমের দ্বিতীয় বিবাহবিচ্ছেদ। টুইটে অনুপম কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন, বন্ধু, পরিবার এবং শুভানুধ্যায়ীদের যাঁরা বরাবর পিয়া এবং তাঁর পাশে থেকেছেন এবং তাঁদের প্রত্যেকটি পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়েছেন। সেই সমানুভূতি এবং সমর্থন যাতে ভবিষ্যতেও থাকে, তার জন্য তিনি অনুরোধ জানিয়েছেন। এই বিবাহবিচ্ছেদকে সম্মানের সঙ্গে দেখার কথাও বলেছেন।

টুইটে বিবাববিচ্ছেদের খবর জানানো অবশ্য নতুন কোনও বিষয় নয়। সাম্প্রতিক অতীতে এমনই বিবৃতি দিয়ে নিজেদের আলাদা করে পথে চলার কথা ঘোষণা করেছিলেন, আমির খান এবং কিরণ রাও। আমিরও লিখেছিলেন, বন্ধু এবং সহকর্মী হিসাবে কিরণের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক থাকবে। এই পথে হাঁটলেন অনুপমও।

বৃহস্পতিবার দুপুরে অনুপমের এই ঘোষণার প্রায় আধঘণ্টা বাদে পিয়াও ইনস্টাগ্রামে বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে হুবহু একই বক্তব্য প্রকাশ করেন। যদিও কিছু দিন আগে তাঁদের বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে কোনও আভাস পাওয়া যায়নি। নেটমাধ্যমে ১৪ অক্টোবর প্রিয় লিখে অনুপমকে নিয়ে পিয়া পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে ছবি দিয়েছিলেন। সেখানে পুজোর মেজাজেই তাঁদের দুজনকে দেখা গিয়েছিল। হয়তো পিয়া-অনুপমের গভীর বন্ধুত্বই এই বিচ্ছেদকে সহজ করেছে।

৬ ডিসেম্বর ২০১৫ সালে পিয়াকে বিয়ে করেন অনুপম। প্রায় ৬ বছরের মাথায় বিয়ে ভাঙল। অনুপমের স্ত্রী পিয়া নৃবিজ্ঞানে পিএইচডি করেছেন গ্রেটার নয়ডার শিব নাডার বিশ্ববিদ্যালয়ে। কলেজে পড়ার সময় অনুপমের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয়েছিল তাঁর। এই বন্ধুত্ব পরবর্তীতে এসে গড়ায় ভালবাসার সম্পর্কে। তার পরই বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। তত দিনে অনুপমের প্রথম বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে।

পিয়ার সঙ্গে বিয়ের পর অনুপমের পেশাদার জীবন কিংবা ব্যক্তিগত জীবনে কোনও বদল আসেনি। একাধিক জনপ্রিয় ছবিতে গান গেয়েছেন, সুরারোপ করেছেন অনুপম। প্রকাশিত হয়েছে কবিতার বই। অন্য দিকে, পিয়া পড়াশোনার সঙ্গে নানা সামাজিক কাজকর্মে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছিলেন। এমনকী অনুপমের পরিচালনায় রবীন্দ্রনাথের গানের একক একটি অ্যালবামও প্রকাশিত হয়েছিল পিয়ার।

নিউজ ট্যাগ: অনুপম রায়

আরও খবর
সায়ন্তিকার গাড়িতে ট্রাকের ধাক্কা

বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১




পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের শেয়ারের দরপতনের দিনে দাপট দেখাল বিমা, প্রকৌশল এবং বস্ত্র খাত। এই তিন খাতের শেয়ার দাম বাড়ায় সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার (৫ ডিসেম্বর) পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান হয়েছে।

এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ২৯ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ১৪৭ পয়েন্ট।

আজ লেনদেন হওয়া অধিকাংশ শেয়ারের দাম বাড়ায় সূচক বাড়লেও লেনদেন কিছুটা কমেছে। বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমায় শেয়ার বিক্রির প্রবণতায় কমেছে। আর তাতে লেনদেন কম হয়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের ৫২ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৪৯টির, কমেছে ২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে একটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের। আর প্রকৌশল খাতের ৪২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৩৪টির, কমেছে চারটির আর অপরিবর্তিত রয়েছে চারটির। এছাড়াও বস্ত্র খাতের ৫৮টি কোম্পানির মধ্যে দাম কমেছে ৮টির আর বেড়েছে ৪১টির। একই দিন অপরিবর্তিত ছিল নয়টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

অপর দিকে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রায় সব কয়টি শেয়ারের দাম কমেছে। এর ফলে বুধ, বৃহস্পতি এবং রোববার টানা তিনদিন পুঁজিবাজারে উত্থান হলো।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, রোববার বাজারে সূচকের তেজিভাবের মধ্য দিয়ে পুঁজিবাজারের লেনদেন শুরু হয়। লেনদেনের প্রথম সোয়া ঘণ্টায় ডিএসইর প্রধান সূচক বাড়ে ৪৮ পয়েন্ট। এরপর হঠাৎ করেই শুরু হয় শেয়ার বিক্রির প্রভাব, যা অব্যাহত ছিল সোয়া ১২টা পর্যন্ত। এই সময়ে সূচক ৫০ পয়েন্টের বেশি কমেছিল। তবে তারপর থেকে সূচক বৃদ্ধি হতে শুরু করে, যা অব্যাহত ছিল দিনের বাকি লেনদেন পর্যন্ত।

এতে দিন শেষে আজ ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৭৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে দাম বেড়েছে ২৪৫টির, কমেছে ৭৯টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। ডিএসইর প্রধান সূচক ২৯ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৯৬৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। ডিএসইএক্স সূচক আগের দিনের চেয়ে ২ পয়েন্ট আর ডিএস-৩০ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়েছে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮৯৪ কোটি ৯৮ লাখ ২৬ হাজার টাকা। বৃহস্পতিবার লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২৪৫ কোটি ১৯ লাখ ৬ হাজার টাকা। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে ৩শ কোটি টাকা লেনদেন কমেছে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল বেক্সিমকো লিমিটেড, ওয়ান ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটিজ ব্যাংক, ডেল্টা লাইফ, পাওয়ার গ্রিড, ফরচুন সুজ, আইএফআইসি ব্যাংক, ওরিয়ন ফার্মা, সোনালী পেপার ও একমি পেস্টিসাইড লিমিটেড।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৪৭ পয়েন্ট বেড়ে ২০ হাজার ৪০১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৯৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৯৫টির শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ৭০টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ৬৩ কোটি ৩২ লাখ ৬৬ হাজার ৭০৫ টাকা।


আরও খবর
শেয়ারবাজারে মূল্যসূচকের বড় উত্থান

মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে

সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২১




ঢাকার সড়কে ঝরল আরও এক প্রাণ

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ | ৩১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায় লরির চাপায় লিমন নামে এক মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু হয়েছে। তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে বিমানবন্দর থানার উপ-পরিদর্শক আসাদ শেখ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আসাদ শেখ বলেন, শুক্রবার দিবাগত রাত ৩-৪টার মধ্যে বিমানবন্দর সড়কের লা মেরিডিয়ান হোটেল পার হয়ে পদ্মা গেটের সামনে একটি লরি মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালক লিমনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল সম্পন্ন করে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, নিহতের নাম লিমন। দুর্ঘটনার পর লরি চালক পালিয়ে যায়। তবে লরিটি আটক করে আমরা থানায় নিয়ে এসেছি। চালককে আটকের চেষ্টা চলছে।

নিহত লিমনের ফুফা মো. ইমাম হাসান বলেন, রাতে ধানমন্ডির জিগাতলার আত্মীয়র বাসা থেকে নিজের বাসা কাউলায় ফেরার সময় একটি লরি লিমনকে চাপা দেয়। তার মাথা ও বুকের ওপর দিয়ে লরি চলে যায়। উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, লিমন গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তার বাড়ি জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি থানার দমদমা গ্রামে। তার বাবার নাম মোজাম্মেল হক। লিমন পরিবারের সঙ্গে কাওলা এলাকায় থাকতেন।


আরও খবর



ওমিক্রন: দেশের সব প্রবেশপথে সতর্কবার্তা

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, সামাজিক প্রতিনিধি ও উন্নয়ন সহযোগী সবার প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ সহযোগিতা ও অংশগ্রহণের মধ্য দিয়েই করোনা নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধের কাজটি আরও বেগবান হবে

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ায় দেশের সব প্রবেশপথে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও পরিচালক (রোগ-নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম।

রোববার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে দেশের সার্বিক করোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে তিনি এ তথ্য জানান।

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার একটি নতুন ভ্যারিয়েন্ট, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন হিসেবে চিহ্নিত করেছে এবং এটি প্রতিরোধে বিভিন্ন দেশ নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে। এজন্য স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে দেশের সব পোর্ট অব এন্ট্রিতে (স্থল, সমুদ্র, বিমান ও রেলওয়ে) সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে গঠিত কারিগরি ও পরামর্শক কমিটি বিভিন্ন উৎস থেকে পাওয়া এ সম্পর্কিত তথ্য-উপাত্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও বৈঠক করছে। দেশের সবার জন্য মঙ্গলজনক হয় এমন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, সামাজিক প্রতিনিধি ও উন্নয়ন সহযোগী সবার প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ সহযোগিতা ও অংশগ্রহণের মধ্য দিয়েই করোনা নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধের কাজটি আরও বেগবান হবে।

অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও আত্মতুষ্টিতে ভোগার কোনো কারণ নেই। ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি (নিয়মিত মাস্ক পরিধান, সাবান পানি নিয়ে নিয়মিত হাত ধোয়া ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা) মেনে চলতেই হবে।


আরও খবর



‘ওয়াই-ফাই পাসওয়ার্ড জয় বাংলা, তাই উনি ব্যবহার করবেন না’

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৬৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
পরে আইনমন্ত্রী আলোচনায় অংশ নিয়ে বলেনলেন, ওয়াই-ফাইয়ের কোড জয় বাংলা; এ জন্য উনি (রুমিন) তা ব্যবহার করবেন না।

জাতীয় সংসদের কক্ষে মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক না থাকার অভিযোগ তুলেছেন বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা। এর পরিপ্রেক্ষিতে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তাকে ওয়াই-ফাই ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে বলেছেন, এখানে তো ওয়াই-ফাই থাকার কথা। আর এই কথার জের ধরে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ওয়াই-ফাইয়ের কোড (পাসওয়ার্ড) জয় বাংলা; তাই উনি ব্যবহার করবেন না। এ কথা বলার পর পরই অধিবেশন কক্ষে সরকারি-বেসরকারি দলের সংসদ সদস্যদের মধ্যে হাসির রোল পড়ে।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) একাদশ জাতীয় সংসদের ১৫তম অধিবেশনে এই ঘটনাগুলো ঘটে। জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা ও উপনেতা (পারিতোষিক ও বিশেষাধিকার) বিল-২০২১ পাসের আলোচনায় অংশ নিয়ে রুমিন ফারহানা বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার দাবি জানান।

ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারা অনুযায়ী সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিতে পারে। রুমিনের পর দুজন এমপি বক্তব্য দেন। তারপর সাংসদের বক্তব্যের জবাব দিতে ওঠেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। এ সময় সংসদকক্ষে ছিলেন না রুমিন। রুমিনের উদ্দেশে আইনমন্ত্রী বলেন, উনি চলে গেছেন। আমার বক্তব্য উনার শোনার দরকার নেই। উনার বক্তব্য আমার কানে ঢুকিয়ে উনি চলে গেছেন। কিছু সময় পর বিলটির সংশোধনী প্রস্তাব উত্থাপন করতে গিয়ে রুমিন আইনমন্ত্রীর কথার জবাব দেন। তিনি বলেন, থ্রিজি, ফোরজি, ফাইভজির কথা শুনি। কিন্তু সংসদে নেটওয়ার্ক থাকে না মাননীয় স্পিকার।

রুমিন জানান, তিনি ফৌজদারি কার্যবিধি মুঠোফোনে দেখতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সংসদকক্ষে নেটওয়ার্ক না থাকায় তা দেখা যাচ্ছিল না। এ কারণে তিনি বাইরে গিয়েছিলেন। পরে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী রুমিনকে সংসদের ওয়াই-ফাই ব্যবহারের পরামর্শ দেন। স্পিকার বলেন, ওয়াইফাই কানেক্ট করার চেষ্টা করুন। এখানে ওয়াইফাই থাকার কথা। পরে আইনমন্ত্রী আলোচনায় অংশ নিয়ে বলেনলেন, ওয়াই-ফাইয়ের কোড জয় বাংলা; এ জন্য উনি (রুমিন) তা ব্যবহার করবেন না।’ পরে আইনমন্ত্রী নিজের মুঠোফোনে ফৌজদারি কার্যবিধি বের করে পড়ে শোনান।


আরও খবর