আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

আগামীকাল প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে চলচ্চিত্র ‘ছিটমহল’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামীকাল দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে চলচ্চিত্র ছিটমহল। এই ছবির গল্পে ছিটমহলবাসীদের ৬৮ বছরের বঞ্চনার জীবনকে পেছনে ফেলে নতুন করে বাঁচার কাহিনি তুলে ধরা হয়েছে। রূপগাওয়াল খ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা এইচ আর হাবিবের পরিচালনায় এই ছবিতে নিজেকে একেবারে নতুনভাবে উপস্থাপন করেছেন পিয়া। দর্শকদের সঙ্গে ছবিটি উপভোগ করতে কাল যমুনা ব্লকবাস্টারের সন্ধ্যা সাতটার শোতে থাকবেন তিনি।

নতুন এই ছবির মুক্তি নিয়ে পিয়া বলেন, ২০১৫ সালে শুটিং শুরু হয়ে আমরা কাজটা ভালোভাবেই শেষ করেছি। সবকিছুই রেডি ছিল। তবে প্যানডেমিক পরিস্থিতি, লকডাউন ও নির্মাতার ব্যক্তিগত কিছু কারণ- সব মিলে হল পর্যন্ত পৌঁছাতে অনেকটা সময় লেগে গেল। এই ছবির মধ্য দিয়ে অনেকদিন বাদে বড়পর্দায় ফিরছি। আশা করি ভিন্নধর্মী চরিত্রে অভিনয় ও ছবির গল্পে নির্মিত এই সিনেমাটি দর্শক টানবে।

ছিটমহল ছবিতে কাজ করতে রাজি হওয়া নিয়ে পিয়া বলেন, আমি যেহেতু মডেলিং করি, লোকজন আমাকে সব সময় ওয়েস্টার্ন গেটআপে দেখেই অভ্যস্ত। তাই আমি চেয়েছে দর্শক যেন আমাকে অন্যভাবে আবিষ্কার করতে পারেন। এই ছবিতে একেবারেই অন্য ধরনের চরিত্র আমার। সাধারণ এক বিধবা নারী, কোনো মেকআপ নেই। তাছাড়া ছবির গল্পই বিগ ফ্যাক্টর।

ছবিটি নির্মাণে এইচ আর হাবিব গল্পকে প্রাধান্য দিয়ে শিল্পী নির্বাচনেও মুনশিয়ানা দেখিয়েছেন। ছিটমহল কেন্দ্রিক এই ছবির অন্যতম প্রধান কলাকুশলীরা হলেন পিয়া জান্নাতুল, শিমুল খান, মৌসুমি হামিদ, আরমান পারভেজ মুরাদ, ডন, মীরাক্কেল খ্যাত সজল, এইচ আর হাবিব, এবিএম সোহেল রশিদ, উজ্জ্বল কবির হিমু প্রমুখ। পুরো সিনেমাটির শুটিং হয়েছে পঞ্চগড়ে ছিটমহলের মধ্যেই। ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কমন্ হোম এটাচার আর ছবিটি পরিবেশনা করছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।


আরও খবর



জাতীয় দলে ফেরার বিষয়ে আশাবাদী সরফরাজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভালো খেলে জাতীয় দলে ফেরার বিষয়ে আশাবাদী পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তিনি বর্তমানে পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে খেলছেন।

সোমবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা জানিয়েছেন। সরফরাজ আহমেদ বলেন, জাতীয় দলে ফিরে আসা অসম্ভব নয়। আশা করি ভালো খেলে আবারও জাতীয় দলে ফিরে আসব।

সতীর্থ মোহাম্মদ হাফিজের অবসর নিয়ে সরফরাজ বলেন, হাফিজ ভাই আমাকে সমর্থন করেন। তার অভাব দল বুঝতে পারবে এবং আমি তার ভবিষ্যতের জন্য শুভকামনা করি।

প্রসঙ্গত, ৪১ বছর বয়সি পাকিস্তান দলের অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ সোমবার ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন।

নিউজ ট্যাগ: সরফরাজ আহমেদ

আরও খবর
মাঠে ফিরছেন মাশরাফি, বোলিংয়ে ঢাকা

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




রাজশাহীতে করোনায় আরও ৪ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একদিনে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে করোনায় একজন এবং উপসর্গ নিয়ে তিনজন মারা গেছেন। মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বুধবার সকাল ৯টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়।

এর আগে সর্বশেষ গত ৩১ ডিসেম্বর রামেক হাসপাতালে একজন করোনা সংক্রমণে মারা যান। এর পর ১ জানুয়ারি সকাল ৯টার পর থেকে ৪ জানুয়ারি সকাল ৯টা পর্যন্ত টানা মৃত্যুহীন ছিল করোনা ইউনিট।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে করোনা সংক্রমণে একজন রোগী মারা গেছেন। এ ছাড়া করোনা সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও তিনজন। এদের মধ্যে দুজন রাজশাহী এবং একজন নাটোর জেলার বাসিন্দা।

হাসপাতালের আইসিইউ এবং ২৯ ও ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে দুজন করে রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে তিন পুরুষ এবং দুই নারী রয়েছেন। তাদের দুজনের বয়স ৪১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। অন্য দুজন ষাটোর্ধ্ব।


আরও খবর
মোটরসাইকেলে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত-৪

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




দ্রুত এগিয়ে চলছে আশ্রয়ণ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ২৬৫জন দেখেছেন

Image

আবু বকর সিদ্দিক, শেরপুর (বগুড়া)

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় তৃতীয় পর্যায়ের আরো ৪৫ টি ভূমিহীন পরিবারের মাঝে ভূমিসহ ঘর বরাদ্দ দেওয়ার উদ্দেশ্যে উপজেলার ৪ টি ইউনিয়নে ৪৫টি ঘর নির্মাণের কাজ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ময়নুল  ইসলামের প্রত্যক্ষ তত্বাবধানে দ্রুত এগিয়ে চলেছে। সমানতালে তদারকি করছেন শেরপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শামসুন্নাহার শিউলীসহ সংশ্লিষ্টরা।  

সরেজমিনে উপজেলার মির্জাপুর, ভবানীপুর, গাড়ীদহ ও বিশালপুর ইউনিয়নের প্রকল্প এলাকাসমুহ ঘুরে দেখা যায়, বেশিরভাগ ঘরের নির্মাণ কাজ কোথাও ২০ ভাগ,  কোথাও ৩০ভাগ আবার কোথাও ৫০ ভাগ ইটের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করার জন্য যেমন রয়েছে উপজেলা প্রশাসনের তদারকি তেমনি ব্যস্ততা নির্মাণ কর্মীদের। এছাড়াও অতিরিক্ত আরো ১০০টি ঘর বরাদ্ধ পাওয়া গেছে যারমধ্যে থেকে ৩০টি ঘরের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। বিশালপুর ইউনিয়নের সুবিধাভোগীদের সাথে কথা বলে তাদের অনুভূতি জানতে চাইলে তার জানান, কবে স্বপ্নের ঘরে উঠবে সেই অপেক্ষায় আনন্দচিত্তে অপেক্ষা করছেন তারা।   

মুজিববর্ষে ‘বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনা  বাস্তবায়নে দেশের সব ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম অন্যান্য এলাকার মত শেরপুরেও চলমান। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শামসুন্নাহার শিউলীর দেয়া তথ্যানুযায়ী মুজিব বর্ষ উপলক্ষে সারাদেশে অর্ধলক্ষেরও বেশি পরিবারকে বিনামূল্যে দুই শতক জমি ও সেমিপাকা ঘর করে দেয়া হচ্ছে। গত বছর২০ জুন এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ  হাসিনা। শেরপুর উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে ৮ টি ইউনিয়নে ১৬৩ টি ঘর বরাদ্দ করা হয়েছে প্রতিটি নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছিল ১ লাখ ৭০ হাজার  টাকা, ২য় পর্যায়ে ৫ টি ইউনিয়নে ১৭ টি ঘর বরাদ্দ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় ধরা হইয়েছিলো ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা। তৃতীয় পর্যায়ে ৪৫ টি নির্মাণাধীন ঘরের প্রতিটি ঘরের ব্যয় ধরা হয়েছে ২লাখ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা।    

এ প্রসঙ্গে শেরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ময়নুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, তৃতীয় পর্যায়ের ৪৫টি ঘর এবং নতুন বরাদ্ধ পাওয়া ১০০টি ঘরের মধ্যে ৩০টি সহ মোট ৭৫টি ঘরের কাজ এগিয়ে চলেছে। মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিটি প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়নের জন্য আমি এবং আমার টিম সর্বদা সচেষ্ট। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষে প্রকৃত গৃহহীন সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের ঘর বুঝিয়ে দিবো ইনশাআল্লাহ।



আরও খবর
বগুড়ায় শক্তিশালী ৭ বিস্ফোরক উদ্ধার

শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১




সৌরভ গাঙ্গুলি করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি। আপাতত হাসপাতালে আছেন তিনি।

সোমবার সকালে প্রথম পরীক্ষায় সৌরভের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর দ্বিতীয় পরীক্ষায়ও একই ফল আসে। তবে সৌরভ আক্রান্ত হলেও তাঁর স্ত্রী ডোনা ও মেয়ে সানার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

মৃদু উপসর্গ হলেও শরীরে অস্বস্তি অনুভব করায় পরীক্ষা করিয়েছিলেন সৌরভ। চলতি বছরের শুরুতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন সৌরভ। তখন বেশ ভুগতে হয়েছে তাকে। হাসপাতালে থাকতে হয়েছিল পাঁচ দিন। অ্যাঞ্জিয়োপ্লাস্টি করে স্টেন্ট বসাতে হয়েছিল। পাঁচ দিন হাসপাতালে থাকার পরে বাড়ি ফেরেন।

কয়েক দিন পর আবারও হাসপাতালে ভর্তি হয় তাকে। এরপর পুরো দমে কাজ শুরু করেন সৌরভ। আইপিএলের বিভিন্ন ম্যাচ ও বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে মাঠে হাজির ছিলেন তিনি। সম্প্রতি বিরাট কোহলির সঙ্গে বিতর্কে জড়ান সৌরভ। এর মধ্যেই আক্রান্ত হলেন করোনায়।

 

নিউজ ট্যাগ: সৌরভ গাঙ্গুলি

আরও খবর
মাঠে ফিরছেন মাশরাফি, বোলিংয়ে ঢাকা

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




জনগণের টাকায় সরকার লবিস্ট পুষছে: রুমিন ফারহানা

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আর সব মন্ত্রী প্রথমে খুব কড়া ভাষায় আমেরিকাকে আক্রমণ করলেও এখন গলার স্বর নিচু। এখন নিজেদের সমস্যা খতিয়ে দেখার আলাপ হচ্ছে

সরকার দীর্ঘদিন ধরেই জনগণের করের কোটি কোটি টাকা খরচ করে যুক্তরাষ্ট্রে লবিস্ট ফার্ম পুষছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি রুমিন ফারহানা। তিনি বলেন, বাংলাদেশকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লবিং শিখিয়েছে আওয়ামী লীগ। এ দেশের রাজনীতিতে লবিস্ট কালচারের শুভসূচনা হয়েছে দলটির হাত ধরে। দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ২০০৫, ২০০৬ ও ২০০৭ সালে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ অ্যালক্যাড অ্যান্ড ফে নামের লবিং প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে ১২ লাখ ডলারের (১০ কোটি টাকার বেশি) বেশি দিয়েছে।

আজ রোববার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে রুমিন ফারহানা এই অভিযোগ করেন।

রুমিন বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আর সব মন্ত্রী প্রথমে খুব কড়া ভাষায় আমেরিকাকে আক্রমণ করলেও এখন গলার স্বর নিচু। এখন নিজেদের সমস্যা খতিয়ে দেখার আলাপ হচ্ছে। প্রয়োজনে লবিস্ট, ল ফার্ম নিয়োগের কথা হচ্ছে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, লবিস্ট ফার্ম নিয়োগ কোনো নতুন বিষয় নয়। জনগণের করের কোটি কোটি টাকা খরচ করে দীর্ঘদিন ধরেই আমেরিকায় লবিস্ট ফার্ম পুষছে সরকার।

বিএনপির এই সাংসদ দাবি করেন, একটি ফার্ম বিজিআরকে গত বছর সরকার ত্রৈমাসিক ৮০ হাজার ডলার করে দিয়েছে, বছরের যার পরিমাণ ৩ লাখ ২০ হাজার ডলার (আনুমানিক ২ কোটি ৭৮ লাখ টাকা)। বিজিআর ছাড়াও গত বছরের সেপ্টেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্রিডল্যান্ডার গ্রুপের সঙ্গে ৪০ হাজার ডলারে এক মাসের জন্য একটি চুক্তি করেন ওয়াশিংটনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম। এ ছাড়া কোনওয়াগো কনসালটিংয়ের সঙ্গে বাংলাদেশ এন্টারপ্রাইজ ইনস্টিটিউটের (বিইআই) মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকার এক মাসের জন্য আরেকটি চুক্তি করে। ৩৫ হাজার ডলার অগ্রিম দেওয়ার শর্তে চুক্তিটি হয়, যাতে সই করেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

রুমিন দাবি করেন, সরকার দেশ-বিদেশে কোনো সংকটে পড়লে নতুন কোনো কিছুকে ইস্যু বানিয়ে সেটা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। এবার নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পর বিএনপি লবিং করেছে, টাকা পাচার করেছে ইত্যাদি তথ্য দেওয়া হচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: রুমিন ফারহানা

আরও খবর