আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

আজকের রাশিফল: জেনে নিন কেমন কাটবে দিন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পুরনো জ্যোতিষশাস্ত্রের এমন একটি ধরন, যার মাধ্যমে বিভিন্ন সময়কাল নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। যেমন দৈনিক রাশিফল প্রতিদিনের ঘটনার ভবিষ্যকথন করে, তেমন সাপ্তাহিক, মাসিক তথা বার্ষিক রাশিফল যথাক্রমে সপ্তাহ, মাস এবং বছরের ভবিষ্যদ্বাণী করে। বৈদিক জ্যোতিষে ১২টি রাশি- মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কট, সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিক, ধনু, মকর, কুম্ভ ও মীন-এর ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। একই রকমভাবে ২৩টি নক্ষত্রেরও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়ে থাকে।

মেষ রাশি:

কাজের স্বীকৃতি পাবেন। পারিবারিক জটিলতা দূর হবে। কল্যাণকর কাজে যুক্ত থাকবেন। বিনিয়োগ তেমন লাভদায়ক হবে না। কোনো বন্ধুর পরামর্শ কাজে লাগবে। পারিবারিক শান্তি বজায় রাখুন।

বৃষ রাশি:

কোনো পরিকল্পনার অগ্রগতি হবে। ইতিবাচক সংবাদে আশাবাদী হবেন। কোনো যোগাযোগে লাভজনক কাজের সুযোগ পেতে পারেন। জীবনের প্রতি বাস্তব দৃষ্টিভঙ্গি থাকা প্রয়োজন।

মিথুন রাশি:

সামাজিক সম্মান বৃদ্ধি পাবে। আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার সুযোগ আসতে পারে। সঠিক পরিশ্রমের ভালো ফল লাভ হবে। কাজে বাধা এলেও দীর্ঘস্থায়ী হবে না। নিজের ওপর আস্থা রাখুন।

কর্কট রাশি:

কাজে সুনাম পাবেন। নিজ ভাবনাকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হবেন। বুদ্ধিবলে বিরূপ পরিস্থিতিকেও অনুকূলে নিয়ে আসতে পারবেন। মানসিক স্থিরতা নষ্ট করবেন না। সুস্থ থাকুন।

সিংহ রাশি:

পরিবেশ নিয়ে সমস্যা ও হতাশা দেখা দিতে পারে। ব্যয় বৃদ্ধির প্রবণতা বাড়তে পারে। শরীর ও মনের ওপর কিছুটা চাপ থাকবে। সাফল্য নির্ভর করবে আপনার দূরদর্শিতার ওপর।

কন্যা রাশি:

আশা-আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়নে পর্যাপ্ত সুযোগ পাবেন। আয়ের ক্ষেত্র প্রসারিত হবে। দীর্ঘমেয়াদি ও কম ঝুঁকিপূর্ণ ব্যবসায় ভালো করবেন। আর্থিক নিরাপত্তার স্থায়ী কিছু করার জন্য চেষ্টা করুন।

তুলা রাশি:

কর্মক্ষেত্রে প্রসার লাভ হবে। ব্যবসা-বাণিজ্যে অগ্রগতি আশা করা যায়। পেশাগত কাজে অগ্রগতি। পুরনো সমস্যা সমাধানের পথ খুঁজে পাবেন। আপনার আশাবাদী মনকে আরো উজ্জীবিত করুন।

বৃশ্চিক রাশি:

দিনের শুরুতে কিছু ভালো খবর পাবেন। মানসিক শক্তি বাড়বে। ভাগ্যের আনুকূল্য পাওয়া সহজ হবে। বৈদেশিক যোগাযোগে লাভবান হবেন। যেকোনো প্রতিবন্ধকতায় দৃঢ়তার সঙ্গে মোকাবেলা করুন।

ধনু রাশি:

নতুন কোনো পরিকল্পনা নিয়ে ভাবতে পারেন। পরিবেশ অনুকূলে নাও থাকতে পারে। কাছের কেউ অসুস্থ থাকতে পারে। অসতর্কতায় বিপদের আশঙ্কা। সীমাবদ্ধতাকে জয় করতে হবে।

মকর রাশি:

সামাজিক কাজে আগ্রহ বাড়বে। কর্মক্ষেত্রে সুনাম বজায় থাকবে। অন্যদের সঙ্গে মিলিতভাবে কাজ করে নিজের মধ্যে উদ্দীপনা আনার চেষ্টা করুন। যৌথ কাজে আনন্দ পাবেন। শরীরের যত্ন নেবেন।

কুম্ভ রাশি:

কর্মপ্রার্থীরা কোনো কাজের আশ্বাস পেতে পারেন। কোনো চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করতে হতে পারে। প্রত্যাশিত অর্থ লাভে বিলম্ব হতে পারে। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের চেষ্টা অব্যাহত রাখুন।

মীন রাশি:

ভালো কাজের আশ্বাস পাবেন। পারিবারিক জটিলতা দূর হবে। কল্যাণকর কাজে যুক্ত থাকবেন। ব্যবসায়ীদের উপার্জন বৃদ্ধি পাবে। প্রেমপ্রীতিতে সাফল্য আসবে। গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ভালোভাবে ভেবে দেখুন।


আরও খবর
যেভাবে বানাবেন শসার স্মুদি

সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১




শরীয়তপুরে জাজিরার মহিলা কওমী মাদ্রাসায় শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | ১৫৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শরীয়তপুর থেকে সাইফ রুদাদ

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার দড়ি কান্দি দারুল উলুম মহিলা মাদ্রাসায় ৮ বছর বয়সী দ্বিতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত বুধবার(০৭ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে মাদ্রাসাটির হিসাবরক্ষক আব্দুল হান্নান(৫৫) এর কক্ষে। জাজিরা থানায় বাদী হয়ে ছাত্রীর বাবা আমিনুল মাদবর(৪০) মামলা দায়ের করেছেন। মামলার আসামীরা হলেন, প্রধান অভিযুক্ত মাদ্রাসার হিসাব রক্ষক নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার তেলিগাতি গ্রামের মৃত মৌলভী মাঈন উদ্দিনের পুত্র আব্দুল হান্নান, সহায়তাকারী হিসেবে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি জিয়াউর রহমান(৪৫) নাসির দড়ি(৫০), আরিফ দড়ি(৩২) সাং দড়ি কান্দি, শরীয়তপুর।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, ঐ মাদ্রাসার এক শিক্ষক ৪ জন ছাত্রীকে খাবার নিয়ে আব্দুল হান্নানের কক্ষে পাঠায়, এসময় হান্নান দ্বিতীয় শ্রেণীর ঐ ছাত্রীকে রেখে বাকি ছাত্রীদের রুম থেকে বের করে দিয়ে ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ঐ ছাত্রীর মুখ চেপে ধরে কক্ষের ভেতরে থাকা খাটে নিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থান স্পর্শ করে ধর্ষণ চেষ্টা করে। ছাত্রী চিৎকার করলে তাকে ছেড়ে দিয়ে হান্নান হুমকি দেয় যদি কাউকে বলে তাহলে মারধর করবে। পরে ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ঐ শিক্ষার্থী তার বান্ধবী মারিয়াকে বিষয়টি জানালে মারিয়া তার মাকে জানায়। মারিয়ার মায়ের মাধ্যমে ধর্ষণ চেষ্টার শিকার শিক্ষাথীর মা বিষয়টি জানতে পারে।

ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি জিয়াউর, নাসির দড়ি, আরিফ দড়ি অভিযুক্ত হান্নানকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করে। এ নিয়ে বর্তমানে এলাকার অবস্থা উত্তপ্ত।

ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীকে মেডিকেল চেকআপ করার জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মেডিকেল চেকআপের বিষয়ে জানতে চাইলে ডা. রোকসনা বিনতে আকবর জানান, শনিবার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট হাতে আসবে, রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত কিছুই বলতে পারছি না।

নির্যাতনের শিকার ঐ শিক্ষার্থী জানান, আমি হুজুরকে খাবার দিতে গেলে সে দড়জা আটকিয়ে আমার মুখ চেপে ধরে বিছানায় নিয়ে আমার প্যান্ট খুলে কষ্ট দেয়। তারপর হুজুর বলে এ কথা কাউকে বললে মেরে কাইট্টা গাঙে ভাসায়া দিমু।

মামলার বাদী আমিনুল মাদবর বলেন, আমার মাইয়ার সাথে যে এ জঘন্য কাজ করছে তার ফাঁসি চাই।

মামলার ৪ নং আসামী আরিফ দড়ি আজকের দর্পণকে বলেন, ঘটনার পর হান্নানকে একটি রুমে আটকে রেখে পুলিশকে জানানোর চেষ্টা করি। এসময় রুমের জানালা দিয়ে হান্নান পালিয়ে যায়। আমরা হান্নানকে পালাতে সাহায্য করিনি।

এ বিষয়ে জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম সরকার মুঠোফোনে বলেন, ঐ মাদ্রাসার ছাত্রীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলার চারজন আসামীকে গ্রেফতারের অভিযান চলছে।


আরও খবর



ফের কোম্পানিগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফের নোয়াখালীর কোম্পানিগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারী ও উপজেলা আ.লীগের কমিটির অনুসারীদের মধ্যে এ সংঘর্ষ ঘটে। এ ঘটনায় কাদের মির্জার ছেলে তাশিক মির্জাসহ উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছ।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ থানার সামনে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহতদের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ অন্যান্য ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বিস্তারিত আসছে...


আরও খবর



রাজশাহীতে গুলি করে ও কুপিয়ে যুবককে হত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার দুর্গম চরে গতকাল বুধবার রাতে গুলি করে ও কুপিয়ে এক যুবককে হত্যা করা হয়েছে। রাত সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার চকরাজাপুর ইউনিয়নের চৌমাদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই যুবকের নাম ইব্রাহিম হোসেন (২৮)। তিনি ওই গ্রামের হাজি দেওয়ানের ছেলে। পুলিশ রাতেই লাশ উদ্ধার করেছে।

পদ্মা নদীর ওপারে চৌমাদিয়া গ্রামটির অর্ধেক অংশ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার মধ্যে পড়েছে। এই চরে প্রায় এক মাস ধরে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। এরই জের ধরে হত্যাকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটেছে বলে এলাকাবাসীর ভাষ্য। এর আগে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ওই দিন চারজন গুলিবিদ্ধ হন। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হন আরও চারজন।

পুলিশ জানিয়েছে, চৌমাদিয়া গ্রামের সেলিম দরজি ও দিদার বেপারীর জমি আছে পার্শ্ববর্তী কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানা এলাকার মধ্যে। এক মাস আগে সেলিম আগুন দিয়ে কলাবাগানের ভেতরে থাকা ঘাস পুড়িয়ে দিয়েছিলেন। তখন দিদারের গমখেতে আগুন ধরে যায়। বিষয়টি নিয়ে টানা কয়েক দিন উত্তেজনার পর ২৮ ফেব্রুয়ারি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এরপর গতকাল রাতে খুন হন ইব্রাহিম।

বাঘা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল বারী বলেন, রাতে চৌমাদিয়া বাজারে মোশাররফ হোসেন নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিলেন ইব্রাহিম হোসেন। এ সময় প্রতিপক্ষের লোকজন অতর্কিত তাঁদের ওপর হামলা চালায়। ইব্রাহিমকে প্রথমে গুলি করা হয়। এরপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে কোপানো হয়। খবর পেয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) স্থানীয় সীমান্ত ফাঁড়ির সদস্যরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। এ সময় তাঁরা মোশাররফকে উদ্ধার করে ক্যাম্পে নিয়ে যান। গুরুতর আহত ইব্রাহিমকে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক ইব্রাহিমকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাত ১২টার দিকে পদ্মা নদী পার হয়ে চৌমাদিয়া যাচ্ছিলেন বাঘা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মামুনুর রশীদ। ২৮ ফেব্রুয়ারির সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তিনি। তিনি বলেন, আগের মামলার আসামিদের ধরতে তিনি চরে গিয়েছিলেন। আসামিদের বাড়ি থেকে ১০ হাত দূরেই ভারতীয় সীমান্ত। ধরতে গেলেই তাঁরা ভারতের সীমানায় ঢুকে পড়েন।

স্থানীয় চকরাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আজিজুল আলম বলেন, ঘটনার পর থেকে পুরো চরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। একসময় এখানে লালচান ও পান্না বাহিনীর উত্থান ঘটেছিল। এখন আরেকটি নতুন বাহিনী গড়ে উঠেছে, যারা এলাকায় অস্থিরতা সৃষ্টি করছে।

নিউজ ট্যাগ: রাজশাহী

আরও খবর



মোদির আগমনকে ঘিরে সাতক্ষীরায় নিরাপত্তা জোরদার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | ৬৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন ঘিরে পুরো সাতক্ষীরায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সকালে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জেলা প্রশাসক জানান, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ঘিরে জেলায় এর মধ্যে সব ধরনের নিরাপত্তার প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। হ্যালিপ্যাড থেকে যশোরেশ্বরী কালিমন্দির পর্যন্ত সড়কের দুই ধারে সৌন্দর্য বর্ধন করা হয়েছে। এছাড়া যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরসহ সংস্কার করা হয়েছে কালিমন্দির সংলগ্ন সড়ক। নির্মাণ করা হয়েছে ৪টি হ্যালিপ্যাড। এছাড়া, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশ্রামের বিষয়টিও মাথায় রেখে স্থানীয় ভূমি অফিসকেও সাজানো হচ্ছে নতুন আঙ্গিকে।

র‌্যাব-৬, সাতক্ষীরা (সিপিসি-১) এর কোম্পানি কমান্ডার সিনিয়র (এএসপি) মো. বজলুর রশিদ এবং (এএসপি) এইচ এম শফিকুর রহমান জানান, র‌্যাবের নেতৃত্বে আগামী ২৭ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সাতক্ষীরা আগমন উপলক্ষে সাতক্ষীরা টু শ্যামনগরগামী মহাসড়কে ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট, রোবাস্ট পেট্রোলিং, ফিঙ্গার প্রিন্টের মাধ্যমে তথ্য যাচাই এবং বিশেষ অভিযান পরিচালনা শুরু করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বর্তমানে সাতক্ষীরা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের পক্ষ থেকে ওই মন্দির এলাকায় নিরাপত্তার ব্যাপারে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাবের গোয়েন্দা কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হয়েছে। নিরাপত্তার বিষয়টি দেখছেন এসএসএফ।

উল্লেখ‌্য, আগামী শনিবার (২৭ মার্চ) নরেন্দ্র মোদি সাতক্ষীরার শ্যামনগরের ইশ্বরীপুর যশোরেশ্বরী কালি মন্দিরে পূজা দিতে আসছেন। তিনি সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে শ্যামনগর এ. সোবাহান মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে নবনির্মিত হ্যালিপ্যাডে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারযোগে অবতরণ করবেন।

এরপর তিনি সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে যশোরোশ্বরী দেবি মন্দির পূজা দেওয়ার জন্য প্রবেশ করবেন। সেখানে তিনি মাত্র ২০ মিনিট থাকার পর ১টা ১০ মিনিটে মন্দির ত্যাগ করবেন। এরপর তিনি ১০টা ১৫ মিনিটে হেলিকপ্টারযোগে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। সেখানে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধ পরিদর্শন ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন।


আরও খবর



‘হেফাজত নেতা পার্লারের নারী নিয়ে রিসোর্টে গিয়েছিলেন’

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | ১২৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হেফাজতের নেতা মামুনুল হক পার্লারে কাজ করা নারী নিয়ে সোনারগাঁয়ের রিসোর্টে বিনোদনের জন্য গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

তিনি বলেন, ওই নারীকে মামুনুল হক বউ হিসেবে পরিচয় দিলেও নিজের বউয়ের কাছে বলে বলেছে অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে এই পরিচয় দিয়েছেন।

রবিবার (৪ এপ্রিল) জাতীয় সংসদের অধিবেশনের সমাপ্তি ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একথা জানান। এসময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন।

সোনারগাঁয়ের রিসোর্টে হেফাজত নেতা মামুনুল হক এক নারী নিয়ে অবস্থান এবং সেখানে হেফাজতের ভাঙচুরের ঘটনা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এদের চরিত্রটা কী তা বলতে চাই না। গতকালই আপনারা দেখেছেন। ধর্ম ও পবিত্রতার কথা বলে অপবিত্র কাজ করে ধরা পড়ে।

সোনারগাঁয়ে একটি রিসোর্টে হেফাজতের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ধরা পড়লো। তা ঢাকার নানা রকম চেষ্টা করেছে তরা। পার্লারে কাজ করা এক নারীকে বউ হিসেবে পরিচয় দেয়। আবার নিজের বউয়ের কাছে বলে অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে আমি এটা বলেছি। যারা ইসলাম ধর্মে বিশ্বাস করে তারা এরকম মিথ্যা কথা বলতে পারে, অসত্য কথা বলতে পারে? তারা কী ধর্ম পালন করবে, মানুষকে কী ধর্ম শেখাবে।

কয়েকদিন আগুন দিয়ে পুড়িয়েছে, এখন সুন্দরী নারী নিয়ে বিনোদন করতে গেলেন। ইসলাম পবিত্র ধর্ম, সেই পবিত্র ধর্মকে এরা কলুষিত করছে। বিনোদনের এসব অর্থ আসে কোথা থেকে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সবচেয়ে দুঃখজনক বিষয় আমরা যখন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছি তখন এসব ঘটনা ঘটানো হলো। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এত বড় একটা সম্মান, বিভিন্ন দেশের অতিথিরা আসছেন, শুভেচ্ছা বার্তা দিচ্ছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আসা বিরোধিতা করে তারা। আজ হেফাজতে ইসলাম এটা করছে তারা দেউবন্ধ (ভারতে) যায় না? এসব ঘটনা ঘটনা ঘটালো দেউবন্ধ যাবে কী করে। আমরা কওমি মাদ্রাসার সনদ দিয়েছি, আমরা সম্মান দিচ্ছি তারপরও তারা এ ধরনের ঘটনা ঘটালো কী করে। এদের কোনো রাজনৈতিক কোনো আদর্শ নেই, কোনো আদর্শ নিয়ে এরা চলে না।


আরও খবর