আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম

আজকের রাশিফল: মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজকের রাশিফল মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২, চন্দ্র সারা দিন মকর রাশিতে সঞ্চার করার পর সন্ধ্যা নাগাদ কুম্ভ রাশিতে প্রবেশ করে যাবে। আজ ধনিষ্ঠা নক্ষত্রের প্রভাব থাকবে। এমন পরিস্থিতি গ্রহ গোচর অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে যে মিথুন রাশির জাতকরা ভবিষ্যতে লাভ করতে পারেন। আবার সিংহ রাশির জাতকরাও ভাগ্যের সঙ্গ পেতে পারেন। কোনও কোনও রাশির জাতকদের অত্যন্ত সাবধানে থাকতে হবে, আবার কেউ কেউ সুসংবাদ পেতে পারেন। আজকের দিনটি কোন রাশির জাতকদের কেমন কাটবে? তাঁদের লাভ হবে না-লোকসান? জেনে নিন আজকের রাশিফল।

মেষ দৈনিক রাশিফল:

আজকের রাশিফলে গণেশ বলছেন যে, মেষ রাশির জাতকরা একাধিক কাজে ব্যস্ত থাকবেন। ধন লাভ হওয়ায় আনন্দিত হবেন। আবার কাউকে দিয়ে থাকা টাকাও ফিরে পেতে পারেন। মনে ধর্মীয় আবেগ থাকবে। কোনও ধর্মীয় স্থানের যাত্রা করতে পারেন। তবে কোনও কারণে জটিলতায় ভুগতে পারেন মেষ রাশির জাতকরা। সিদ্ধান্ত নিতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। অচেনা ব্যক্তিদের থেকে সতর্ক থাকুন। এঁদের কাছ থেকে কোনও সহযোগিতা গ্রহণ করবেন না। বাড়ির কোনও বরিষ্ঠ ব্যক্তির কাছ থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা লাভ করবেন।

আজ ৮২ শতাংশ ক্ষেত্রে ভাগ্য আপনার সঙ্গে। বজরংবলীর পুজো করুন।

বৃষ দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন যে, বৃষ রাশির জাতকরা স্বস্তিতে থাকবেন। কাজে মনোনিবেশ করবেন, এর ফলে ভালো পরিণাম উঠে আসবে। তবে কাজের চাপের কারণে পরিবার ও ব্যক্তিগত জীবনে নজর দেওয়ার সময় কমে যাবে। পরিবারের সদস্যরা আনন্দিত না-হলেও কর্মক্ষেত্রে আপনার যোগ্যতার দ্বারা প্রভাবিত হবেন। ব্যবসায় আজ কোনও আটকে থাকা কাজ পূর্ণ হবে। বাড়ির কোনও বয়স্ক সদস্য অসুস্থ থাকলে আপনার দুশ্চিন্তা বাড়বে। তাঁদের যত্ন নিন। একটি কাজ পূর্ণ করার পর অপর কাজে মনোনিবেশ করুন, তা না-হলে কোনও কাজেই মনোনিবেশ করতে পারবেন না।

ভাগ্য ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে আপনার সাহায্য করবে। মঙ্গলবারের উপবাস ও হনুমান চালিসা পাঠ করুন।

মিথুন দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন যে, মিথুন রাশির জাতকদের জন্য় আজকের দিনটি অনুকূল। অন্যের সাহায্য করলে আপনার সম্মান ও যোগাযোগ বৃদ্ধি পাবে। আজকের সিদ্ধান্তের ফলে ভবিষ্যতে লাভের সম্ভাবনা রয়েছে। আর্থিক বিষয়ে আপনার আজকের পরিকল্পনা লাভপ্রদ হবে। জমি-সম্পত্তি ও গাড়ি সংক্রান্ত কোনও সমস্যা দেখা দিতে পারে। এ বিষয়ে মনোনিবেশ করুন। অপ্রয়োজনীয় ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করুন। তা না-হলে আর্থিক পরিস্থিতি প্রভাবিত হতে পারে।

ভাগ্য ৮৭ শতাংশ ক্ষেত্রে আপনার সাহায্য করবে। দুর্গা সপ্তশতী পাঠ করুন ও গণেশকে দুর্বা অর্পণ করুন।

কর্কট দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন, কর্কট রাশির জাতকরা কোনও জরুরি কাজ পূর্ণ করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাবেন। আপনারা ভাগ্যের সঙ্গ লাভ করবেন। কোনও নতুন বস্তু কিনে আনতে পারেন। সন্তানের সাফল্যের ফলে মনের মধ্যে শান্তি ও আনন্দ আসবে। পাশাপাশি মনের বোঝাও হাল্কা হবে। কোনও নিকটাত্মীয় বা বন্ধুদের সঙ্গে কথা কাটাকটি হতে পারে। নিজের ভাষা নিয়ন্ত্রণে রাখুন। আর্থিক বিষয়ে বুদ্ধিমত্তার প্রয়োগ করে কাজ করুন। তা না-হলে লোকসানের সম্ভাবনা রয়েছে। কর্মক্ষেত্রে পরিবর্তন করতে হবে।

আজ ৭৩ শতাংশ ক্ষেত্রে ভাগ্যের সঙ্গ পাবেন। শিব চালিসা পাঠ করা লাভপ্রদ।

সিংহ দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন যে, সিংহ রাশির জাতকদের এমন কোনও অচেনা ব্যক্তির সঙ্গে দেখা হবে, যাঁরা আপনার ভাগ্যোন্নতি ঘটাবে। ব্যবসায়িক গতিবিধি বৃদ্ধি হবে। পাশাপাশি কোনও ভুল স্থানে লগ্নি করবেন না। যুবকরা স্বস্তিতে থাকবেন, কারণ তাঁদের বড়সড় সমস্য়ার সমাধান হবে। আপনার তিক্ত কথায় কেউ হতাশ হতে পারে, তাই সংযত হন। ব্যস্ততার কারণে কোনও জরুরি অনুষ্ঠানে অধিক সময় ব্যয় করতে পারবেন না।

ভাগ্য ৮৫ শতাংশ ক্ষেত্রে আপনার সঙ্গ দেবে। মঙ্গলবার থেকে হনুমান বাহুকের পাঠ শুরু করুন ও ২১ দিন পর্যন্ত করে যান।

কন্যা দৈনিক রাশিফল:

গণেশ জানাচ্ছেন যে, কন্যা রাশির জাতকরা ব্যবসার ওপর নিজের নেতিবাচক চিন্তাভাবনাকে প্রভাব বিস্তার করতে দেবেন না। তা না-হলে সমস্যায় পড়তে পারেন। কোনও নিকটাত্মীয় বা বন্ধুর সঙ্গে কোনও কারণে সংশয় উৎপন্ন হতে পারে। ছাত্ররা নিজের পড়াশোনায় মনোনিবেশ করতে পারবেন। শিক্ষা সংক্রান্ত কোনও বাধা দূর হবে। পরিশ্রম অনুযায়ী উচিত ফলাফল লাভ করবেন।

আজ ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে ভাগ্য আপনার সঙ্গ দেবে। হনুমান চালিসা পাঠ করুন।

তুলা দৈনিক রাশিফল:

গণেশ জানাচ্ছেন যে, তুলা রাশির জাতকদের আর্থিক পরিস্থিতি আপনার পক্ষে থাকবে। বাড়ির বয়স্ক সদস্যের কোনও কথাকেই উপেক্ষা করবেন না। এর ফলে বাড়ির পরিবেশ নষ্ট হতে পারে। ব্যবসায়িক দিক দিয়ে সময় লাভজনক। বেশ কয়েকদিনের ব্যস্ততার কারণে ক্লান্তি অনুভব করবেন। এ কারণে আজকের দিন শান্তি ও স্বস্তিতে কাটান। কোনও সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে ভালো ভাবে চিন্তাভাবনা করে নেবেন।

আজ ৯৫ শতাংশ ক্ষেত্রে ভাগ্য আপনার সঙ্গ দেবে। বজরংবলীকে মিষ্টি পান নিবেদন করুন।

বৃশ্চিক দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন, বৃশ্চিক রাশির জাতকরা কোনও কাজের পরিকল্পনায় অধিকাংশ সময় কাটাবেন। তবে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী হয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নিয়ে বসবেন না, কারণ খারাপ পরিণাম পেতে পারেন। ব্যবসায় পরিবর্তনের সম্ভাবনা সৃষ্টি হচ্ছিল, তা আজ পূর্ণ হবে। শেয়ার বাজার ও বেটিং থেকে দূরে থাকুন।, তা না-হলে কাছের মানুষই আপনাকে প্রতারিত করতে পারে। ধর্মীয় গতিবিধির সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের সঙ্গে দেখা হওয়ায় আপনার চিন্তাভাবনায় আশ্চর্যজনক পরিবর্তন দেখা দেবে। আধ্যাত্মিক গতিবিধিতে রুচি বৃদ্ধি করুন।

আজ ৯৫ শতাংশ ক্ষেত্রে ভাগ্য আপনার সঙ্গে রয়েছে। বজরংবলীর পুজো করুন এবং গুড় ও ছোলার ভোগ নিবেদন করুন।

ধনু দৈনিক রাশিফল:

আজকের রাশিফল অনুযায়ী গণেশ বলছেন যে, ধনু রাশির জাতকদের সঞ্চয় কমবে। কিছু নিকটাত্মীয়ের সঙ্গে দেখা হওয়ায় মন আনন্দিত হবে। পরিজনদের সঙ্গে যাত্রার অনুষ্ঠান করবেন। গ্রহগোচরের ফলে আপনার কার্যক্ষমতা ও ক্ষমচতা বৃদ্ধি হতে পারে। উন্নতির পথ প্রশস্ত হবে। ব্যবসা সংক্রান্ত কোনও সিদ্ধান্ত নেবেন না। কাজের ক্ষেত্রে সঙ্গীর সাহায্য় লাভ করবেন। কখনও কখনও অতি আত্মবিশ্বাস আপনার কাজে বাধা সৃষ্টি করতে পারে।

ভাগ্য আজ ৬৪ শতাংশ ক্ষেত্রে আপনার সঙ্গে থাকবে। সন্ধ্যাবেলা নীম গাছে জল নিবেদন করুন ও চামেলির তেলের প্রদীপ প্রজ্জ্বলিত করুন।

মকর দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন যে, মকর রাশির জাতকদের আজকের দিনটি মানসিক দিক দিয়ে সন্তোষজনক। পরিবারে জীবনসঙ্গীর পূর্ণ সহযোগিতা আপনাকে স্বস্তি প্রদান করবে। ব্যবসায়িক গতিবিধি পূরণ করার জন্য ধার নিতে পারেন। তাড়াহুড়ো না-করে শান্তিতে কাজ সম্পন্ন করার চেষ্টা করুন। অধিক আলোচনা করে লাভ নেই, বরং কোনও সুযোগ হাত ছাড়া হতে পারে।

ভাগ্য ৮২ শতাংশ ক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করবে। অসহায়দের সাহায্য করুন।

কুম্ভ দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন, কুম্ভ রাশির জাতকরা পারিবারিক প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে মনোনিবেশ করবেন। ভাইদের সঙ্গে জমি-সম্পত্তি সংক্রান্ত বিবাদ কারও হস্তক্ষেপে মীমাংসা করে নিন, তা না-হলে বিবাদ বাড়তে পারে। জীবনের প্রতি ইতিবাচক দৃষ্টিকোণ রাখুন। ভারসাম্যযুক্ত চিন্তাভাবনা আপনার একাধিক কাজের সূচনা করবে। ব্যবসায়ীদের জন্য দৌড়ঝাপের পরিস্থিতি থাকবে। রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখুন ও শান্তিতে কথাবার্তা বলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করুন।

৭৫ শতাংশ ক্ষেত্রে ভাগ্যের সঙ্গ পাবেন। বজরংবলীর পুজো করুন ও জলে গুড় এবং তিল প্রবাহিত করুন।

মীন দৈনিক রাশিফল:

গণেশ বলছেন যে, মীন রাশির জাতকদের ব্যবসায়িক গতিবিধি আগের মতোই চলতে থাকবে। কাজের চাপ থাকবে। যার ফলে পারিবারিক জীবনে মনোনিবেশ করতে পারেবন না। নিকটাত্মীয়ের পরামর্শ নেওয়ায় স্বস্তি পেতে পারেন। জীবনসঙ্গীর সহযোগিতা লাভ করবেন। তাঁর বুদ্ধিমানী ও পরামর্শে আপনার লাভ হবে। সৃজনশীল কাজে রুচি বাড়বে। মুদিখানার দোকান রয়েছে যাঁদের তাঁদের ভালো উপার্জন হতে পারে। কোনও অনুষ্ঠান বা ধর্মীয় স্থানে যেতে করতে পারেন।

আজ ৬০ শতাংশ ক্ষেত্রে ভাগ্য আপনার সহায় হবে। হনুমানকে বোঁদের লাড্ডুর ভোগ নিবেদন করুন।


আরও খবর



যারা দুর্নীতি করেছে তাদের সবার তথ্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আছে: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যারা দুর্নীতি করেছে তাদের সবার তথ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আছে। দুর্নীতিবাজরা বিচারের আওতায় আসছে। শুক্রবার (৩১ মে) বেলা সাড়ে ১১টায় ধানমন্ডিতে ব্রিফিংয়ে তিনি এই কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকার নির্বিকার নয়। প্রধানমন্ত্রীর কাছে সব খবর আছে। প্রধানমন্ত্রী অফিসের কিছু লোককেও শাস্তি দিয়েছেন। খালেদা জিয়ার আমলে তারা কি কাউকে শাস্তি দিয়েছিল? তখন প্রধানমন্ত্রীর অফিস ছিল দুর্নীতি আখড়া।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, আফজাল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, উপ দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য সাহাবুদ্দিন ফরাজী, আনিসুল ইসলাম প্রমুখ।

নিউজ ট্যাগ: ওবায়দুল কাদের

আরও খবর



সুন্দরবন থেকে ১৩২ কেজি হরিণের মাংস উদ্ধার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
তারিক লিটু, কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি

Image

খুলনার কয়রা উপজেলার আওতাধীন সুন্দরবনে ১৩২ কেজি হরিণের মাংস রেখে পালিয়েছে শিকারীরা। এ সময় একটি নৌকাও জব্দ করে বন বিভাগ।

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে সুন্দরবন পশ্চিম বনবিভাগের আওতাধীন শাকবাড়ীয়া ক্যাম্পের চালকি খাল এলাকায় অভিযান চালানো হয়।

বনবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, অভিযান টের পেয়ে শিকারিরা সুন্দরবনের ভেতরে পালিয়ে যায়।

কাশিয়াবাদ ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা নির্মল চন্দ্র মন্ডল বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাশিয়াবাদ ও শাকবাড়ীয়া ক্যাম্পের যৌথ অভিযানে রাত সাড়ে ৩টার দিকে চালকি খাল এলাকা থেকে ১৩২ কেজি হরিণের মাংসসহ একটি নৌকা জব্দ করা হয়েছে। এ সময় দু'জন শিকারী সুন্দরবনের ভেতরে পালিয়ে গেলে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে বনবিভাগের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর



চট্টগ্রামে কর্মরত নারী সাংবাদিকের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

Image

নারীদের সুরক্ষার জন্য নারী সাংবাদিকদের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে। ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্র। তখন থেকেই সদস্যরা দেশের নারীদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমানে বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক চট্টগ্রাম কেন্দ্রের পরিধি বাড়ছে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের প্রতিকূলতার মধ্যেও সাংবাদিকতা করে যাচ্ছেন।

গতকাল শনিবার (১৫ জুন) বিকেলে নগরীর কাজীর দেওড়িতে অবস্থিত রেড সিলি রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক চট্টগ্রাম কেন্দ্রের এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় চট্টগ্রামে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোকপাত করেন।

চট্টগ্রাম নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভানেত্রী ও দৈনিক বাংলার ব্যুরো চিফ ডেইজি মওদুদ ও চট্টগ্রাম নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সেক্রেটারি ও চট্টগ্রামের দীপ্ত টিভির ব্যুরো প্রধান লতিফা আনসারী রুনা, দৈনিক আজাদী পত্রিকার সিনিয়র সাংবাদিক ইয়াসমিন ইউসুফ ও শামীম আরা লুসি, সময় টিভির জিন্নাত-উল-ফেরদৌস, বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের শারমিন মুনমুন সুমি ও দৈনিক আজকের দর্পণ পত্রিকার মনীষা আচার্য চট্টগ্রামে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এতে সংগঠনের বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করণসহ সমস্যা থেকে উত্তরনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, নারীর সাংবাদিকরা নতুন প্রযুক্তি আয়ত্ত করার মধ্য দিয়ে নিজেদের দক্ষ করে গড়ে তুলছে। বর্তমানে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে শুরু করে ঝুঁকিপূর্ণ যেকোনো কাজে নারীরা মাঠে ময়দানে থেকে রিপোর্টিং করছে। নারী সাংবাদিকদের এগিয়ে নিতে এ সংগঠন। চট্টগ্রামর নারী সাংবাদিকতায় নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। পাশাপাশি নারী সাংবাদিকদের নিজেদের দক্ষতা বাড়ানোর প্রতি গুরুত্বারোপ করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: চট্টগ্রাম

আরও খবর



বিএনপি নেতা ইশরাকের ১০ দিনের রিমান্ড চায় ডিবি

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

বাইডেনের ভুয়া উপদেষ্টাকাণ্ডে রাষ্ট্রদোহীর অভিযোগে রাজধানীর পল্টন থানার মামলায় বিএনপি নেতা ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের দশ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। বুধবার (২৯ মে) মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও ডিবি পুলিশ পরিদর্শক মো. কবির হোসেন হাওলাদার এ তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, গত ১৯ মে ইশরাকের বিরুদ্ধে হওয়া ১২ মামলায় জামিন চেয়ে আবেদন করেন তার আইনজীবী মো. তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন ১১ টি মামলায় জামিন দিলেও পল্টন থানার রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় নামঞ্জুর করেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। কারাগারে থাকা অবস্থায় গত ২৬ মে মামলার ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনসহ আরো কোন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি জড়িত আছে কি না তাদের তথ্য সংগ্রহসহ গ্রেপ্তারের জন্য আসামীর দশ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। এ বিষয়ে আগামীকাল বৃহস্পতিবার আসামি ইশরাকের উপস্থিতিতে রিমান্ড শুনানির জন্য দিন ধার্য রয়েছে।

মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে রাষ্ট্রদ্রোহীতার অভিযোগে গত ২৯ অক্টোবর মহিউদ্দিন শিকদার নামে এক ব্যক্তি বাদী হয়ে রাজধানীর পল্টন থানায় মামলা করেন। মামলায় মিয়ান আরেফিসহ অবসরপ্রাপ্ত লে. জেনারেল হাসান সারওয়ার্দী এবং বিএনপি নেতা ইশরাক হোসেনকে আসামি করা হয়েছে। এ মামলায় গ্রেপ্তারের পর গত ৩০ অক্টোবর মিয়ান আরেফিকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।গত ৩১ অক্টোবর সাভার থেকে হাসান সারওয়ার্দী গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির পূর্বঘোষিত মহাসমাবেশ উপলক্ষে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যলয়ে সারাদেশ থেকে বিএনপির নেতা কর্মীরা জড়ো হতে শুরু করে। বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে বিক্ষুদ্ধ বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে শুরু করে। একপর্যায়ে বিক্ষুদ্ধ নেতা কর্মীরা কাকরাইল মোড় থেকে আরামবাগ মোড় পর্যন্ত পুলিশের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় এবং বিএনপির নেতাকর্মীরা প্রধান বিচারপতি বাসভবনসহ সরকারী স্থাপনা, ও সরকারী গাড়ীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অগ্নি সংযোগ করে। সংঘর্ষের ফলে পুলিশের ৪১ জন সদস্য আহতসহ একজন পুলিশ সদস্য নিহত হয়। একপর্যায়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ৩ টার সময় মহাসমাবেশ স্থগিত ঘোষণা করে।

এরপর পূর্বপরিকল্পনা মতে এজাহারনামীয় আসামী ইশরাকের যোগসাজসে মিয়ান আরেফি নিজেকে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উপদেষ্টা পরিচয় দিয়ে বিএনপির নয়াপল্টনস্থ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে।

পরবর্তীতে বাংলাদেশের আমেরিকান দূতাবাস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান যে প্রেসিডেন্টের জো বাইডেনের উপদেষ্টা পরিচয়দানকারী ব্যক্তি মিয়ান আরাফী আমেরিকান নাগরিক হলেও সে জো বাইডেনের কোন উপদেষ্টা নয় এবং সে আমেরিকান সরকারের কেউ নয়। আসামি মিয়ান আরেফি, আসামি হাসান সারওয়ার্দী এবং আসামী মো. ইশরাফ হোসেনসহ পরস্পর যোগসাজসে প্রতারণা করে আসামিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উপদেষ্টা পরিচয় প্রদান করে সহায়তা করে। আসামি ইশরাকের বিরুদ্ধে মামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার প্রাথমিকভাবে সাক্ষ্য প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী ডাকল ‘আয় আয়’, ছুটে এলো খরগোশের দল

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কণ্ঠ শুনেই ছুটে এলো খরগোশের দল। শনিবার (১৫ জুন) গণভবনে কৃষক লীগের তিন মাসব্যাপী বৃক্ষরোপণ অভিযানের উদ্বোধন উপলক্ষে গণভবন প্রাঙ্গণে বৃক্ষ রোপণ শেষে খরগোশের ঘরের সামনে গেলে এমন দৃশ্য দেখা যায়। এসময় প্রধানমন্ত্রী আয় আয় বলে ডাক দিলে ছুটে আসে খরগোশের দল।

এদিকে গণভবনে কৃষক লীগের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, কৃষি অর্থনীতি উন্নত করে আমরা শিল্পায়নে যাব। এজন্য ১০০টা অর্থনৈতিক অঞ্চল করেছি। এর বাইরে যত্রতত্র জমি নষ্ট করে শিল্প করা যাবে না। আমাদের জনসংখ্যা বাড়ছে, ফসল উৎপাদন বাড়াতে হবে। আমরা আমাদের ফসল উৎপাদন করবো, যাতে কারও কাছে হাত পাততে না হয়। আমাদের খুব তিক্ত অভিজ্ঞতা ৭৪ সালের। নগদ টাকায় কেনা খাদ্যও কিন্তু আসতে দেয়নি। কৃত্রিমভাবে সেখানে একটা দুর্ভিক্ষ সৃষ্টি করা হয়েছিল। সেটা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে যেভাবেই হোক মানুষের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করতে। সেটাতেও যখন সফল হয়নি, তারপরই তো ১৫ আগস্ট ঘটালো। এখনো কিছু লোকের সেই চেষ্টাটা আছে।

কৃষিতে ভর্তুকির বিষয়ে তিনি বলেন, সারের দাম আমরা কমিয়ে দিয়েছি। এখনো ব্যাপক পরিমাণ ভর্তুকি দিচ্ছি। যেহেতু দেশের মানুষের খাদ্য চাহিদার বিষয়, সে ক্ষেত্রে আমরা কখনো কার্পণ্য করি না, বাজেটে সব সময় আমরা ভর্তুকি দেই।

গাছ লাগানোর গুরুত্ব তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ জলবায়ুর ক্ষতি করে না। কিন্তু জলবায়ু অভিঘাতে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত। গাছ আমাদের প্রাণ, শ্বাস-প্রশ্বাস দেয়। ফল ও ঔষধি গাছের উপকারিতা অনেক। এজন্য গাছ লাগাতে হবে। নদীর পাড়, উপকূলে এবং ঘরবাড়িতে গাছ লাগান। তবে ফসলি জমি নষ্ট করা যাবে না। শহরে ছাদেও ছোট ছোট গাছ লাগাতে পারেন। উপকূলীয় অঞ্চলে সবুজ বেষ্টনি তৈরি করা। কৃত্রিম উপায়ে বৃক্ষরোপণ করা। ঘূর্ণিঝড়সহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে মানুষকে বাঁচাতে আমাদের ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট করতে হবে।

মাটির গুণ রক্ষায় পরামর্শ দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, বারবার একই ফসল করতে করতে মাটির গুণ নষ্ট হয়ে যায়। এজন্য মাঝখানে আরেকটা করলে মাটি পুষ্টি ফিরে পায়। যেমন- আমরা বারবার ধান করছি, এটার মাঝখানে আরেকটা করতে পারলে মাটির পুষ্টি বাড়বে।

শেখ হাসিনা বলেন, পেঁয়াজ নিয়ে এত ঝামেলা। আমরা কেন উৎপাদন করি না? ৪০ শতাংশ আমরা জোগান দেই। এটা আরও বাড়বে। পেঁয়াজ উৎপাদন করে কৃষাণী অনেক টাকা আয় করে। ভুট্টাও চাষ হতো না, সেটাও করছি। আগে সবজি শীতকালে পাওয়া যেত, কিন্তু এখন আমরা গবেষণা করে বারোমাসি সবজির জাত উদ্ভাবন করেছি। এখন এটার ফল পাওয়া যাচ্ছে।

কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বিশ্বনাথ সরকার বিটুসহ মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, আওয়ামী লীগের নেতা, সরকারের পদস্থ কর্মকর্তা ও কৃষক লীগের নেতারা অংশ নেন।


আরও খবর