আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

আলেমের মুখোশধারীদের গ্রেপ্তার করছে সরকার : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | ১১২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সরকার কোনো ভালো মানুষকে গ্রেপ্তার করছে না, আলেমের মুখোশধারীদের গ্রেপ্তার করছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ ।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাজধানীতে সরকারি বাসভবন থেকে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা ও এটুআই আয়োজিত 'ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে স্থানীয় সাংবাদিকদের ভূমিকা' শীর্ষক অনলাইন কর্মশালা উদ্বোধনে এ মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আলেমের মুখোশ পড়ে সহিংসতা চলায় তারা কখন ভালো কাজ করতে পারে না। সরকার কোনো আলেম বা ধর্মীয় নেতাকে গ্রেপ্তার করছে না, দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেপ্তার করছে। যে সমস্ত দুষ্কৃতিকারী ২৬ থেকে ২৮ মার্চ সমগ্র দেশে তান্ডব চালিয়েছে, নিরীহ মানুষের ঘরবাড়ি-সহায়-সম্পত্তি, যানবাহন জ্বালিয়ে দিয়েছে, ভূমি অফিসে আগুন দিয়ে সাধারণ মানুষের জমির দলিলপত্র পুড়িয়েছে, ফায়ার স্টেশন-রেল স্টেশনে হামলা করে ক্ষতি করেছে এবং যারা মানুষের ওপর আক্রমণ চালিয়েছে, তাদের এবং তাদের নির্দেশদাতাদের সরকার গ্রেপ্তার করছে।

তিনি আরও বলেন, কোনো ভালো আলেম এসব অপরাধের সাথে যুক্ত ছিলো না, আলেমের মুখোশধারীরাই এসবে যুক্ত এবং সরকার তাদেরকেই গ্রেপ্তার করছে।


আরও খবর



বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩০ লাখ ৪২ হাজার ছাড়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | ১০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন বিশ্বের ১৪ কোটি ২৬ লাখ ৯০ হাজার ৬৭১ জন মানুষ। এর মধ্যে মারা গেছেন ৩০ লাখ ৪২ হাজার ৮৪৩ জন। আর স্বস্তির খবর এই যে, এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন ১২ কোটি ১১ লাখ ৯২ হাজার ৯২৬ জন।

মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন তিন কোটি ২৪ লাখ ৭৫ হাজার ৪৩ জন। মৃত্যু হয়েছে পাঁচ লাখ ৮১ হাজার ৫৪২ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৫০ লাখ ৪৩ হাজার ৪৬৩ জন।

আক্রান্তে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন ১ কোটি ৫৩ লাখ ১৪ হাজার ৭১৪ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ৮০ হাজার ৫৫০ জন। আর সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৩১ লাখ ৩ হাজার ২২০ জন।

আক্রান্তে তৃতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ৩৯ লাখ ৭৭ হাজার ৭১৩ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে তিন লাখ ৭৫ হাজার ৪৯ জনের। তবে ১ কোটি ২৪ লাখ ৬০ হাজার ৭১২ জন সুস্থ হয়েছেন।

ফ্রান্সে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫২ লাখ ৯৬ হাজার ২২২ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ১ হাজার ১৮০ জন।

এদিকে তালিকায় পঞ্চম স্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ লাখ ১০ হাজার ৬৯০ জন। ভাইরাসটিতে মারা গেছেন এক লাখ ৫ হাজার ৯২৮ জন। এরই মধ্যে ৪৩ লাখ ৩৩ হাজার ৫৯৮ জন সুস্থ হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস বিশ্বের দুই শতাধিক দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে।


আরও খবর



হোটেল থেকে তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শনিবার ০১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ মে ২০২১ | ১১৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কক্সবাজার শহরের আবাসিক হোটেল থেকে উদ্ধার হওয়া তরুণীর পরিচয় শনাক্ত করেছে পুলিশ। শনিবার (১ মে) দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে তার মৃতদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

জানা গেছে, ছেনুয়ারা নামে ২১ বছর বয়সী ওই তরুণী টেকনাফের মোছনী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা। কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুনীর-উল-গিয়াস বলেন, এ ঘটনায় হোটেলটির মালিক মোতাহের হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। হোটেলের কক্ষে তরুণীর সঙ্গে থাকা পলাতক যুবককে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

আর কীভাবে তরুণীর মৃত্যু হয়েছে; তা ময়না তদন্ত রিপোর্টের পর জানা যাবে এবং এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরও হয়েছে বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১০টার দিকে আবাসিক হোটেল সী পার্ল-২ এর একটি কক্ষ ভাড়া নেয় এক তরুণ ও এক তরুণী।

শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত কক্ষের ভিতরে তাদের কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে হোটেল কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হয়। পরে হোটেল কর্তৃপক্ষ একটি বিকল্প চাবি দিয়ে কক্ষটির তালা খুললে তরুণীটিকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়।

এসময় কক্ষের ভিতরে ওই তরুণ ছিলেন না। পরে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফ্যানের সঙ্গে বিছানার চাদর প্যাঁচানো অবস্থায় ওই তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার করে।


আরও খবর



একসঙ্গে ৯ সন্তানের জন্ম!

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ মে ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এক নারী একসঙ্গে ৯ সন্তানের জন্ম দিয়ে হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন। ডাক্তাররা বলেছিলেন, তার গর্ভে ৭ সন্তান রয়েছে। কিন্তু তাদের সেই ধারণা ভুল প্রমাণ করে ৯ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন মালির একজন নারী। দেশটির স্বাস্থ্য এমন খবর নিশ্চিত করেছে বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

৯ সন্তানের জন্ম দেয়া ওই নারীর নাম হালিমা সিসে। মরক্কো ও মালিতে আল্ট্রাসনো করার পর ২৫ বছর বয়সী এই নারীর গর্ভে ৭ সন্তানের অস্তিত্ব ধরা পড়ে। তবে ৭ নয় শেষ পর্যন্ত ৯ সন্তানের জন্ম দেন হালিমা। তার সন্তানকেই সিজার করে বের করা হয়েছে।

এমন অনন্য ঘটনায় পশ্চিম আফ্রিকার দেশটির মানুষজন এবং নেতাদের মধ্যে আলোচনার জন্ম হয়েছে। গত মার্চ মাসে ডাক্তাররা বলেন, হালিমার জন্ম বিশেষ যত্নের প্রয়োজন। তখন দেশটির অন্তর্বর্তীকালীন নেতা বাহ নদাও তাকে মরক্কো পাঠানোর নির্দেশ দেন। সেখানে ৫ মেয়ে ও ৪ ছেলের জন্ম দেন হালিমা।

মালির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফান্টা সিবি বলেছেন, ওই মা এবং শিশুরা এখন পর্যন্ত ভালো আছে। তিনি জানান, হালিমার সঙ্গে মালির ডাক্তাররাও মরক্কো গিয়েছিলেন। তারাই তাকে এ তথ্য জানিয়েছে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যের তারা দেশে ফিরবেন বলে জানিয়েছেন সিবি।

এদিকে মরক্কোর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাচিড কৌধারি বলেছেন, তার দেশের কোনও একটি হাসপাতালে একসঙ্গে এতগুলো শিশুর জন্ম হয়েছে বলে তার জানা নেই।


আরও খবর



ঈদের ছুটির দাবিতে পোশাক শ্রমিকরা রাস্তায়

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | ১০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তিন দিন নয়, ঈদ উপলক্ষে ১০ দিনের ছুটির দাবিতে আন্দোলনে নেমেছেন পোশাকশ্রমিকেরা। রাজধানীর মিরপুর ১০ থেকে ১৪ নাম্বার সড়ক পর্যন্ত রাস্তায় বিক্ষোভ করছেন তাঁরা। এতে রাস্তায় যানজট সৃষ্টি হয়। চলাচল বন্ধ না হলেও ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে চলাচলকারীদের।

আজ শনিবার সকাল থেকে শ্রমিকেরা এই বিক্ষোভ শুরু করেন। তারপর থেকে রাস্তায় অবস্থান নিয়েছে কাফরুল থানা পুলিশ। পুলিশ বলছে, তারা শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলেছে এবং মালিক পক্ষের সঙ্গেও কথা বলার চেষ্টা করছে।

আন্দোলনরত শ্রমিকেরা বলছেন, ঈদের বাকি আর মাত্র চার-পাঁচদিন। এখনও বেতন হয়নি, বোনাস হয়নি। দ্রুত বেতন-বোনাসের দাবিসহ তিন দিনের পরিবর্তে ১০ দিন ঈদের ছুটি চান শ্রমিকেরা। তাঁরা বলছেন, এত কম ছুটিতে বাড়ি গিয়ে ফিরতে অসুবিধা হবে তাঁদের। এসব দাবিতে রাস্তায় আন্দোলন করছেন শ্রমিকেরা। তাঁরা আমাদের দাবি মানতে হবেসহ নানা ধরনের স্লোগান দিচ্ছেন।

কাফরুল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু আজিজ বলেন, সকাল থেকেই শ্রমিকেরা রাস্তায় নেমেছেন। তারপর আমরা তাঁদের সঙ্গে কথা বলি। তাঁদের দাবি, তিন দিনের স্থলে তাঁদের ১০ দিনের ছুটি দিতে হবে। তাঁরা বলছেন, তাঁদের তিন দিনের ঈদের ছুটি দেওয়া হয়েছে। এই ছুটির মেয়াদ না বাড়ালে তাঁরা সড়ক ছাড়বেন না।

কেন শ্রমিকেরা ১০ দিনের ছুটি দাবি করছেন, তাঁরা কি কিছু জানিয়েছেন এ ব্যাপারে- এমন প্রশ্নে আবু আজিজ বলেন, শ্রমিকদের দাবি, করোনা পরিস্থিতিতে তাঁরা অনেকদিন গ্রামের বাড়িতে যান না। এদিকে এখন দূরপাল্লার বাস চলছে না। ফলে যাঁদের গ্রামের বাড়ি দূরে, তাঁদের তিন দিনের মধ্যে বাড়িতে যেতে-আসতে সমস্যা হবে। ফলে ছুটি বেশি দেওয়ার দাবি তাঁদের।

থানার পরিদর্শক (অপারেশন) জাহানুর আলম বলেন, ১০ দিনের ছুটি না দিলে তাঁরা বিক্ষোভ করেই যাবেন বলে বলছেন। কাফরুল এলাকার হামিম গার্মেন্টসহ কয়েকটি গার্মেন্ট শ্রমিকেরা এই বিক্ষোভ করছেন। এ ছাড়া তাঁদের মধ্যে কেউ কেউ দ্রুত বেতন-বোনাস দেওয়ারও দাবি জানাচ্ছে। এখন রাস্তা মোটামুটি ক্লিয়ার আছে। যদিও শ্রমিকেরা এখনও রাস্তায় অবস্থান করছেন।

নিউজ ট্যাগ: পোশাক শ্রমিক

আরও খবর



দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বেড়েছে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | ৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈদকে সামনে রেখে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বেড়েছে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়। মঙ্গলবার (৪ মে) সকালে দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ফেরিঘাটে গিয়ে যাত্রীদের চাপের চিত্র দেখা যায়।

যাত্রী শরিফুল ইসলাম বলেন, আর কয়েক দিন পর ঈদ। তাই বাড়িতে চলে যাচ্ছি। সরকার লকডাউন বাড়িয়েছে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত। পরে যদি না যেতে পারি তাই আগে চলে যাচ্ছি।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিসির দৌলতাদিয়াঘাট কার্যালয়ের সহকারী মহাব্যবস্থাপক মো. ফিরোজ শেখ বলেন, ঈদকে সামনে রেখে ঢাকা থেকে পরিবার-পরিজন নিয়ে মানুষ দেশের বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে। তবে এ নৌরুটে দিনে ছোট ৬টি ও দিনরাত মিলে ১৫টি ফেরি চলাচল করছে।


আরও খবর