আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

আলু দিয়ে হয়ে উঠুন আকর্ষণীয়

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১১৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কেউ কি জানেন যে, ত্বকের যত্নে আলু কতটা ভূমিকা পালন করে। শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্য যে, ত্বকের যত্নে আলুর বিকল্প কিছু নেই। এবার তাহলে আলুর ব্যবহারিতা সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

চোখের পরিচর্যা : আলু দিয়েও চোখের ক্লান্তি দূর করা যায়। এ জন্য প্রথমে পাতলা করে আলু চাকা করে কেটে নিয়ে চোখের উপর চাপা দিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিটের মতো রেখে শুয়ে পড়ুন। ডার্ক সার্কেল থেকে শুরু করে চোখের ফোলাভাব কমে যায় এবং চোখ ঝকঝকে হয়ে উঠে।

ব্রণের দাগ দূর করতে : ব্রণের দাগ ফিকে করার জন্যও আলুর উপর ভরসা রাখতে পারেন। আলু কুরিয়ে রস বের করে নিন। এবার এই রস সারা মুখে মাখিয়ে ১০-১৫ মিনিট রাখুন। শুকিয়ে যাওয়ার পর পানি দিয়ে ধুয়ে নিলেই হবে। এভাবে মাস দুই ব্যবহার করলেই সমস্ত দাগ দূর হয়ে যাবে।

ত্বকের রং উজ্জ্বলে করে তোলে : আলুর রসে এমন কিছু গুণাগুণ রয়েছে যা আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। আলু কুরিয়ে তিন টেবিলচামচ রসের সঙ্গে দুটেবিল চামচ মধু ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণটি মুখে ও গলায় মেখে ১০-১৫ মিনিট রাখুন। শুকিয়ে যাওয়ার পর ধুয়ে ফেলুন এবং আয়নায় দেখুন ত্বক কতটা উজ্জ্বল হয়েছে। ত্বকে এভাবে আলু ব্যবহার করার ফলে ত্বকের কালচেভাব দ্রুত দূর হয় এবং মধু ত্বকের আর্দ্রতা রক্ষা করে।

রোদে পোড়া ত্বকের পরিচর্যা : বাইরে বের হলে রোদে ত্বক পুড়ে। এটা স্বাভাবিক ব্যাপার। এ জন্য আলু পাতলা চাকা করে কেটে নিয়ে পোড়া অংশে লাগিয়ে রাখুন। এছাড়াও আলুর রস লাগিয়ে নিতে পারেন। ২০ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। এতে ত্বকের জ্বালাপোড়াভাব শীতল হবে ও পোড়াদাগও কেটে যাবে।


আরও খবর
যেভাবে বানাবেন শসার স্মুদি

সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১




সাকিবের জায়গায় সুনিলকে নেওয়ার কথা ভাবছে কেকেআর

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ১৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আইপিএলের চলতি মৌসুমে এখনও পর্যন্ত সে অর্থ সফল হতে পারেননি কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিন ম্যাচ খেলে ব্যাট হাতে ৩৮ রান এবং বল হাতে শিকার করেছেন ২ উইকেট। ব্যাটিংয়ে স্ট্রাইকরেট একশর নিচে আর বোলিংয়ে রান দিয়েছেন ওভারপ্রতি আটের ওপরে।

যার ফলে এখন সাকিবের জায়গায় সুনিল নারিনকে খেলানোর কথা ভাবছে কেকেআর টিম ম্যানেজম্যান্ট। মূলত নারিনের জায়গায়ই আসরের প্রথম ম্যাচ থেকে খেলছেন সাকিব। গত আসরে আশানুরুপ পারফরম্যান্স করতে না পারায় নারিনের বিকল্প খুঁজতে মরিয়া ছিল কলকাতা।

এবারের আসরে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ১০ রানে হারিয়ে ইতিবাচক শুরু করেছিল কলকাতা। সেই ম্যাচে ৪ ওভারে ৩৪ রান খরচায় ১ উইকেট নেন সাকিব। পরের ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের কাছে ১০ রানে হারে কলকাতা। সাকিবের পারফরম্যান্স ছিল ৪ ওভারে ২৩ রানে ১ উইকেট ও ৯ বলে ৯ রান।

কিন্তু রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচে হতাশ করেছেন সাকিব। বোলিংয়ে প্রথম দুই ওভারে ২৪ রান খরচ করায় তাকে দিয়ে ৪ ওভার করাননি অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান। পরে ব্যাট হাতে ওভারপ্রতি প্রায় ১২ রানের চাহিদায় সাকিব খেলেন ২৫ বলে ২৬ রানের মন্থর ইনিংস।

অবশ্য শুধু সাকিব একা নন, কলকাতার একাদশে থাকা অন্য তিন বেশি অধিনায়ক মরগ্যান, মারকুটে অলরাউন্ডার রাসেল ও পেসার প্যাট কামিনসও আহামরি কোনো পারফরম্যান্স দেখাতে পারেননি। যে কারণে এখন চতুর্থ ম্যাচের আগে নিজেদের একাদশ নিয়ে ভাবতে বসেছে কলকাতা।

সেক্ষেত্রে স্পিনিং অলরাউন্ডার ও মারকুটে টপঅর্ডার সুনিল নারিনকে একাদশে নেয়ার ইঙ্গিতই দিলেন দলের কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। তবে বাদ দেয়া হবে কাকে, এ বিষয়ে কিছু বলেননি তিনি। কিন্তু দলের মধ্যে স্পিনিং অলরাউন্ডার একমাত্র সাকিবই থাকায়, কোপটা হয়তো তার ওপরেই পড়বে।

ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে ম্যাচের পর ম্যাককালাম বলেছেন, আমাদের প্রথম ম্যাচের সময় সীমানার কাছে দাঁড়িয়ে ছিল নারিন। সে তখন শতভাগ ফিট ছিল না। তবে এখন সে আমাদের ভাবনায় আছে। ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে হয়তো তাকে খেলানো যেত। তবে আমরা সাকিবকে নিয়েই খেলেছি। কারণ সে আগের দুই ম্যাচ ভাল করেছে এবং তার ব্যাটিংও আমাদের জন্য কার্যকর।


আরও খবর



সাকিবের বক্তব্য অযৌক্তিক নয়

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ মার্চ ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সম্প্রতি সাকিব আল হাসানের একটি খোলামেলা সাক্ষাৎকার বেশ নাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনকে। বিসিবি কর্মকর্তাদের সমালোচনা করে বড় আলোচনার জন্ম দিয়েছেন তিনি। এই ইস্যুতে সাকিব পাশে পেয়েছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাকে। সাকিবের বক্তব্য অযৌক্তিক নয় বলেও মনে করেন তিনি। 

একটি সংবাদমাধ্যমকে মাশরাফী বলেন, এটি খুবই সাধারণ বিষয় যে একজন ক্রিকেটার অবসরে গেলে বিসিবি সভাপতির শীর্ষ পদে যাওয়ার আকাঙ্ক্ষা করতেই পারেন। সেরা সভাপতি হওয়ার আকাঙ্ক্ষা করতেই পারেন। এর মধ্যে বিতর্ক হওয়ার মতো কোনো কারণ দেখছি না। সাকিব বিসিবি সভাপতি হতে চাইতেই পারে। যে কোনো ক্রিকেটারই বলতে পারে এটি। 

সাকিবের সঙ্গে বিসিবি কর্মকর্তাদের দ্বন্দ্বের বিষয়ে সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, সাকিব কেন বারবার বোর্ডের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিচ্ছেন? আর বোর্ড-ই বা কেন সাকিবের প্রতিপক্ষ হয়ে যাচ্ছে বারবার?

আর বোর্ডকে দেওয়া সাকিবের  চিঠি সংবাদমাধ্যমে আসা প্রসঙ্গে  মাশরাফী বলেন, ক্রিকেট বোর্ডকে দেওয়া সাকিবের চিঠি কেন গণমাধ্যমে এলো? সাকিব তো এই চিঠি ফাঁস করেনি বা তার সোশ্যাল মিডিয়ার পেজে আপলোড করেননি। তা হলে নিশ্চয়ই বোর্ডের ভেতর থেকে বিষয়টি প্রকাশ হয়েছে। এটি কি কোনো বোর্ডের পেশাদারিত্ব প্রকাশ পাচ্ছে?

গত শনিবার রাতে একটি সংবাদমাধ্যমের ফেসবুক লাইভে সাকিব বলেছিলেন, শুধু কথা হচ্ছে আমি টেস্ট খেলতে চাই না। আমি নিশ্চিত বিসিবিকে আমি যখন চিঠি দিয়েছি, যাঁরাই বলছেন যে, আমি টেস্ট খেলতে চাই না বা টেস্ট খেলব না, তাঁরা আমার চিঠিটা পড়েননি। এটা হচ্ছে একদম বড় কথা। আমি আমার চিঠিতে কোথাও উল্লেখ করিনি আমি টেস্ট খেলতে চাই না। আমি শুধু উল্লেখ করেছি আমি বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্য এই সময়টাতে আইপিএল খেলতে চাই। আমি এটুকুই বলেছি শুধু।


আরও খবর



হেফাজত নেতা জুবায়ের পাঁচদিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | ৪৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০১৩ সালে পল্টন থানায় হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসিম তার পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন

২০১৩ সালে হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় করা মামলায় সংগঠনটির ঢাকা মহানগরীর সহ-সভাপতি মাওলানা জুবায়ের আহমদের পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। ২০১৩ সালে পল্টন থানায় হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসিম তার পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় রাজধানীর লালবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ- ডিবি লালবাগ।

মাওলানা জুবায়ের আহমদ হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগরীর সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতেন। এছাড়া তিনি মুফতি আমিনীর জামাতা হিসেবেও পরিচিত।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৫ মে ঢাকা অবরোধ করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। এ অবরোধ কর্মসূচির নামে লাঠিসোটা, ধারালো অস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে রাজধানীর মতিঝিল, পল্টন ও আরামবাগসহ আশপাশের এলাকায় যানবাহন ও সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় ব্যাপক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে হেফাজতের কর্মীরা। এ ঘটনায় পল্টন থানায় মামলা করা হয়।


আরও খবর



কাস্টিং কাউচের শিকার প্রাচী দেশাই

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বলিউডে কাস্টিং কাউচের শিকার হননি এমন শিল্পী খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। আর এই বাজে বিষয়টির সম্মুখীন হয়েছিলেন অভিনেত্রী প্রাচী দেশাই।

ঘটনাটি বলেছেন অভিনেত্রী নিজেই। প্রাচী দেশাই জানান, একটি বড় বাজেটের ছবিতে কাজ করার প্রস্তাব আসে তার কাছে। পরিচালক নিজে ফোন করেন তাকে। কিন্তু বিনিময়ে কম্প্রোমাইজকরতে বলা হয় প্রাচীকে। প্রাচী অস্বীকার করেন। পরিচালক ফের তাকে ফোন করে কাস্টিংয়ের বিনিময়ে শয্যাসঙ্গিনী হওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন। কিন্তু প্রাচী ফিরিয়ে দেন সেই প্রস্তাব। ফিরিয়ে দেন ছবির অফারও।

২০০৬ সালের কথা। ধারাবাহিক কসম সের মধ্যে দিয়ে অভিনয়ে আত্মপ্রকাশ করেন প্রাচী। তখন তার ক্যারিয়ার গ্রাফ ছিল ঊর্ধ্বমুখী। প্রথম ধারাবাহিকেই রাম কাপুরের বিপরীতে অভিনয় এবং শো সুপার হিট।

এর দবছরের মধ্যেই রক অন ছবিতে কাজের অফার পান তিনি। পরবর্তীতে ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন মুম্বাই, বোল বচ্চন, আজহার সহ একের পর এক ছবি করেন তিনি।

নিউজ ট্যাগ: প্রাচী দেশাই

আরও খবর
বনানীতে সমাহিত হবেন ওয়াসিম

রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১




চলে গেলেন রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হক

প্রকাশিত:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মিতা হকের মেয়ে ফারহিন খান জয়িতা গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত (৩১ মার্চ) তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়

করোনাভাইরাসে মারা গেলেন দেশের নন্দিত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হক। আজ রবিবার (১১ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মিতা হকের মেয়ে ফারহিন খান জয়িতা গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত (৩১ মার্চ) তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মিতা হকের জন্ম ১৯৬২ সালের সেপ্টেম্বরে ঢাকায়। তিনি প্রয়াত অভিনেতা খালেদ খানের স্ত্রী। ১৯৯০ সালে বিউটি কর্নার থেকে প্রকাশিত হয় মিতা খানের প্রথম রবীন্দ্রসংগীতের অ্যালবাম আমার মন মানে না


আরও খবর