আজঃ মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

আন্তর্জাতিক প্রোগ্রামিংয়ে দেশসেরা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ অক্টোবর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ অক্টোবর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

Image

বিশ্বব‍্যাপী মর্যাদাপূর্ণ আই-ইইই এক্সট্রিম আন্তর্জাতিক প্রোগ্রামিং কম্পিটিশনের ১৭তম আসরে বাংলাদেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের র‍্যাংকিংয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি)।

এবার বাংলাদেশ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট, কুয়েট, নর্থ-সাউথ, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়সহ প্রায় ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে।

জানা যায়, বিশ্বের মোট সাত হাজার ৯১টি দল এবারের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইআইটি থেকে ১২টি টিম অংশ নেয় এবং গ্লোবাল র‍্যাংকিংয়ে ১৯২তম স্থান অর্জন করে। যা দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শীর্ষ স্থান দখল করে।

এছাড়াও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ৬০৪ তম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ৬৮২ তম, লিডিং ইউনিভার্সিটি ৮৭৬ তম, ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস ১২৭৯তম, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি ২৯৮২তম স্থান অর্জন করে।

আরও পড়ুন>> অবরোধে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে হামলা

শিক্ষার্থীদের এ সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়ে ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজির (আইআইটি) পরিচালক অধ্যাপক এম শামীম কায়সার বলেন, প্রথমত আমি অনেক খুশি। আমাদের দিক থেকে আমরা চেষ্টা করছিলাম আমাদের শিক্ষার্থীরা যাতে প্রোগ্রামিং- ইন্ডাস্ট্রিতে ভালো করতে পারে। ওদের প্র্যাকটিসের জন্য আমাদের একটা ল্যাব ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকে যাতে তারা ঠিকমতো প্র্যাকটিস এবং পড়াশোনা করতে পারে। যদিও তাদের চাহিদার তুলনায় তা অপ্রতুল।

তিনি আরো বলেন, আমরা হয়তো তাদের আরো ভালো কম্পিউটার দিতে পারতাম কিন্তু ল্যাবের জনবল সংকটের জন্য লোক রাখতে পারি না। তারপরও সীমিত রিসোর্স এর মধ্যে ভালো করছে এটা আমাদের জন্য অনুপ্রেরণার উৎস। এই সাফল্যের উপর ভিত্তি করে তাদের আমরা আরো বেশি সুযোগ-সুবিধা দেয়ার চেষ্টা করবো।

উল্লেখ্য, ১৯৬৩ সালে প্রতিষ্ঠিত ইন্সটিটিউট অব ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ার্স (আই-ইইই) বিশ্বের ইঞ্জিনিয়ারদের সর্ববৃহৎ সংগঠন। সংগঠনটি ২০০৬ সাল থেকে প্রতিবছর ২৪ ঘন্টাব্যাপী প্রোগ্রামিং প্রতিযোগীতা আয়োজন করছে। এই বছর প্রতিযোগীতাটির ১৭তম আসর অনুষ্ঠিত হয়।


আরও খবর
আরও ৩ দিনের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




যুক্তরাজ্যে নতুন মন্ত্রিসভা ঘোষণা

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ব্রিটেনে পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিরোধী লেবার পার্টির ব্যাপক জয়ের পর বেশ দ্রুততার সঙ্গেই ক্ষমতা হস্তান্তর ঘটছে। শুক্রবার রাজা চার্লসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ান কনজারভেটিভ দলের নেতা ঋষি সুনাক। এর কিছুক্ষণ পরেই রাজার সঙ্গে দেখা করেন কিয়ার স্টারমার। এ সময় তাকে সরকার গঠনের আমন্ত্রণ জানান রাজা।

নতুন প্রধানমন্ত্রী হয়ে লন্ডনের ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে প্রথম ভাষণে তিনি বলেন, ইটের ওপর ইট গেঁথে দেশের অবকাঠামো পুনর্গঠন করা হবে। খেটে খাওয়া পরিবারগুলো যাতে জীবন চালাতে পারে সেই ব্যবস্থা করতে হবে।

বিবিসির প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে, বাকিংহাম প্যালেস থেকে ফিরেই মন্ত্রিসভা গঠনের কাজ শুরু করেছেন নতুন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী কিয়ার স্টারমার। এরই মধ্যে বেশ কয়েকজনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। লেবার এমপি অ্যাঞ্জেলা রেনারকে উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হচ্ছেন ডেভিড ল্যামি। আর দেশটির প্রথম নারী চ্যান্সেলর হিসেবে ঘোষণা হয়েছে রাসেল রিভসের নাম।

দেশটির নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে ইয়ভেট কুপারকে মনোনীত করা হয়েছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জন হিলি, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওয়েস স্ট্রিটিং ও আইন মন্ত্রী হিসেবে শাবানা মাহমুদের নাম ঘোষণা হয়েছে। আর শিক্ষামন্ত্রী হচ্ছেন ব্রিজেট ফিলিপসন এবং এড মিলিবেন্ড মনোনীত হয়েছেন জ্বালানি মন্ত্রী হিসেবে।

অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন র‍্যাচেল রিভস্। অনেক বড় চ্যালেঞ্জ নিতে হবে সে ব্যাপারে অবগত আছেন জানিয়ে র‍্যাচেল বলেন, খুব বেশি টাকা-পয়সা রেখে যাচ্ছেন না পূর্বসূরীরা।

এদিকে ব্রিটেনে সংসদের নিম্নকক্ষ হাউস অফ কমন্সে মোট আসন সংখ্যা ৬৫০ টি। সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে ৩২৬টি আসনে বিজয়ী হতে হয়। প্রাপ্ত ফলাফল থেকে জানা যাচ্ছে, লেবার পার্টি ৪১২টি আসনে জয় পেয়েছে। আর কনজারভেটিভ পার্টির ঘরে গেছে ১২১টি আসন।

২০১৯ সালের তালিকা থেকে টোরিরা ২৫০টি আসন খুইয়েছে এবার। আর লেবাররা গত নির্বাচনের তুলনায় ২১১টি আসন বেশি পেয়ে নিরঙ্কুশ বিজয় নিশ্চিত করেছে। এছাড়া লিবারেল ডেমোক্র্যাটরা ৭১টি আসন পেয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। এর বাইরে স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির নয়টি আর রিফর্ম ইউকে চারটি আসন নিজেদের দখলে রাখতে সমর্থ হয়েছে।


আরও খবর
আজ নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মদিন!

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




জেলে থাকা আসামিদের বড় অংশ মাদকে আসক্ত : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, জেলখানায় থাকা আসামিদের বড় একটি অংশ মাদকে আসক্ত। যারা বিভিন্ন অপকর্ম করে জেল খাটছেন। বিভিন্ন সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান মাদকাসক্ত নিরাময়ে কাজ করছে। আমাদের সন্তানেরা কী করে তা আমাদের অভিভাবকদের খেয়াল রাখা উচিত।

রোববার (১৪ জুলাই) রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, মাদকাসক্তি সারা বিশ্বে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমাদের দেশে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের মাধ্যমে জনসচেতনতা বাড়ানো হচ্ছে। আমরা মাদক উৎপাদন করি না। কিন্তু ভৌগোলিক কারণে এর প্রভাব আমরা ফেস করে আসছি। মাদকাসক্তি নিয়ে যদি আমরা কাজ না করি তাহলে এর ব্যাপ্তি আরও ছড়াবে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী যেমন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কাজ করছেন। তেমনি মাদকের বিরুদ্ধেও জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। মাদকের থাবা থেকে আসক্তদের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনতে বেশকিছু নিরাময়কেন্দ্রে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। পুনর্বাসনের জন্য জাতীয় গাইডলাইন প্রণয়ন করা হয়েছে। আমরা চাই আসক্তদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে। মাদক সরবরাহ রোধে বিজিবি, র‍্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সক্ষমতা জোরদার করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পাশের যে দেশগুলো থেকে মাদক আসছে, আমরা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। আমাদের অভিযোগের বিরুদ্ধে তারাও কাজ করছে। ভারত আমাদের আশ্বস্ত করেছে। মিয়ানমারকে বহুবার অনুরোধ করা হলেও তারা সেটি নিয়ন্ত্রণে নিতে পারছে না তাদের অভ্যন্তরীণ যুদ্ধ বিগ্রহের কারণে। আমরা আশা করি, তারাও আমাদের সহায়তা করবে। নিয়মিত বৈঠক চলছে। আমাদের সবাইকে মাদকের বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। মাদক কারবারিদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি বেনজির আহমেদ ও সুরক্ষা সেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. মশিউর রহমান।


আরও খবর
মেট্রোরেল চলাচল পুরোপুরি বন্ধ

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




রোববার জাতীয় রপ্তানি ট্রফি দেবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য জাতীয় রপ্তানি ট্রফি পাবে ৭৭ রপ্তানিকারক। এছাড়া, সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রপ্তানি ট্রফি পাবে একটি প্রতিষ্ঠান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল রোববার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এসব ব্যাবসায়ীর হতে এ রপ্তানি ট্রফি তুলে দেবেন।

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটুর সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মাহবুবুল আলম।

শনিবার (১৩ জুলাই) রাজধানীর টিসিবি ভবন সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু।

জাতীয় রপ্তানি ট্রফি নীতিমালা-২০১৩ অনুসরণে প্রাথমিক ও চূড়ান্ত বাছাই কমিটির মাধ্যমে মোট ৩২ খাতের রপ্তানিকারকদের মধ্য থেকে ২০২১-২০২২ অর্থবছরের জন্য রপ্তানি আয়, আয়গত প্রবৃদ্ধি, নতুন পণ্যের সংযোজন, নতুন বাজারে প্রবেশ, কমপ্লায়েন্স প্রতিপালন ইত্যাদি মূল্যায়নপূর্বক ট্রফি বিজয়ী প্রতিষ্ঠান নির্বাচন করেছে। প্রতিটি খাতের জন্য কৃতি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানকে স্বর্ণ, রোপ্য ও ব্রোঞ্জ ট্রফি প্রদান করা হবে। এছাড়া, সব খাতের মধ্য থেকে সর্বোচ্চ রপ্তানি আয় অর্জনকারী প্রতিষ্ঠানকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রপ্তানি ট্রফি শিরোনামে ১টি বিশেষ ট্রফিসহ (স্বর্ণ) মোট ২৯টি স্বর্ণ, ২৭টি রৌপ্য এবং ২১টি ব্রোঞ্জ ট্রফি দেওয়া হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী রপ্তানিতে ২০২১২২ অর্থবছরে সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রপ্তানি ট্রফি পাচ্ছে হামীম গ্রুপের প্রতিষ্ঠান রিফাত গার্মেন্টস লিমিটেড। তৈরি পোশাক খাতের এ প্রতিষ্ঠান ২০১৮১৯ এবং ২০২০২১ অর্থবছরের রপ্তানির জন্যও বঙ্গবন্ধু রপ্তানি ট্রফি পেয়েছিল। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রপ্তানি ট্রফি সরকারের দেওয়া সর্বোচ্চ পুরস্কার।

এছাড়া এবার বিভিন্ন পণ্য ও খাতভিত্তিক জাতীয় রপ্তানি ট্রফির জন্য নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানের মধ্যে হামীম গ্রুপের আরাক প্রতিষ্ঠান হামীম ডেনিম লিমিটেড জাতীয় রপ্তানি ট্রফি পাচ্ছে।


আরও খবর



শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থামিয়ে অপেক্ষা করা উচিত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

Image

কোটা সংস্কার আন্দোলনে থাকা শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থামিয়ে অপেক্ষা করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

শনিবার (১৩ জুলাই) বিকেলে ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন্সে আয়োজিত সুধী সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতি একটি স্পষ্ট নির্দেশনা দিয়েছেন, হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেছেন। ছাত্রদের বলা হয়েছে- তারা যেন তাদের কথা উচ্চতর আদালতে বলে, তাহলে বিচারপতিদের বিচার করতে সুবিধা হবে। কাজেই আমি মনে করি তাদের অপেক্ষা করা উচিত। আন্দোলন থামানো উচিত।

পৃথিবীর সব জায়গাতেই কোটা রয়েছে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেমন আমাদের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জন‍্য কিছু কোটা রয়েছে এবং সংবিধানেও সেটি বলা আছে। এই নৃগোষ্ঠীদের কোটা যদি বন্ধ করে দেওয়া হয় তাহলে এরা কোনো দিন মূল স্রোতে একত্রিত হতে পারবে না।

তিনি আরও বলেন, রাস্তাঘাট বন্ধ না করে তারা কোর্টে এসে তাদের কথা বলুক। রাস্তাঘাট বন্ধ করলে লাভ কী হবে আমি জানি না। দুর্ভোগ বাড়বে জনগণের। আমি মনে করি, আপনারা প্রধান বিচারপতির পরামর্শ মতো আদালতে এসে আপনাদের কথা বলুন।


আরও খবর



দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে আরেক ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ২

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
শাকিল মোল্লা, রাজবাড়ী

Image

রাজবাড়ীর কালুখালীতে দাঁড়িয়ে থাকা ফলবাহী একটি ট্রাকে পেছন থেকে অন্য ট্রাক ধাক্কা দেয়ায় উভয় ট্রাকের দুই হেলপার নিহত হয়েছেন।

শনিবার (৬ জুলাই) সকাল ৬টায় রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের কালুখালী ফায়ার সার্ভিসের পূর্বপাশে কালীবাড়ি নামকস্থানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কুষ্টিয়া জেলার খাজানগর গ্রামের ফেলু হোসেনের ছেলে লিটন হোসেন (৩৫) ও রাজশাহী জেলার চারঘাট গ্রামের আনসারের ছেলে আনিছুর (৩৫)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন পাংশা হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন-উর-রশীদ।

তিনি জানান, রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের ফায়ার সার্ভিস পূর্বপাশে কালীবাড়ি নামকস্থানে মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ফলবাহী ট্রাক ইঞ্জিন নষ্ট হওয়ার কারণে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। সকাল ৬টার দিকে রাজবাড়ী থেকে কুষ্টিয়াগামী একটি ফলের খালি ঝুড়ি ভর্তি ট্রাক ওভারটেক করতে গেলে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাককে স্বজোরে পেছন থেকে ধাক্কা দিলে চলমান ট্রাকের হেলপার আনিসুর ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

এ সময় দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের হেলপার লিটন হোসেন গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্তব্যরত চিকিৎসক কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে করলে সেখানে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

ওসি হারুন-উর-রশীদ বলেন, ওভারটেক করার সময় পেছন থেকে এক ট্রাকে অন্য ট্রাক ধাক্কা দেয়ায় উভয় ট্রাকের হেলপার নিহত হয়েছেন। উভয় ট্রাকের চালক পলাতক রয়েছে। তাদেরকে আটকের চেষ্টা চলছে।


আরও খবর