আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

আপত্তিকর পোস্টের জন্য ক্ষমা চাইলেন মিস ইউনিভার্স

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | ১২৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পুরুষের নগ্ন ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে প্রকাশের ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২০ তানজিয়া জামান মিথিলা। ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড আইডি থেকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে ক্ষমা চান তিনি। অবশ্য পরে সেই স্ট্যাটাসটি হাইড করে ফেলেন।

মিথিলা গণমাধ্যমকে জানান, আমি যেটাই করেছি ভুল করেছি। আমি মাফ চাইছি। মানুষ ভুল করে এটাই স্বাভাবিক। কেউ ভুল করে যদি মাফ চায় তারপর তো আর প্যাঁচানোর কিছু নাই। মানুষ ছোট থাকতে বা অনেকে না বুঝে ভুল করে ফেলে। মানুষ যদি কারও কাছে মাফ চায় সেখানে আমরা মাফ করে দিতেই পারি।

যে পুরুষের ভিডিওচিত্র ধারণ করা হয়েছিল তাকে কাছের বন্ধু বলে দাবি করেছেন মিথিলা। তিনি বলেন, ও যদি বিষয়টাকে হয়রানি মনে না করে তাহলে মানুষ কেন আমাকে বিচার করবে যে, আমি হয়রানি করেছি তাকে। তারপরও আমি মাফ চেয়েছি।

আগামী ১৬ মে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিতব্য মিস ইউনিভার্স ২০২০ প্রতিযোগিতার মূল মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন মিথিলা।


আরও খবর



ভারতে এক দিনে করোনায় আক্রান্ত ২ লাখ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৭৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে দুই লাখ ৭৩৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৩৮ জনের। গত বছর সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক লাখ ৭৩ হাজার ১২৩ জন

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় নভেল করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়ে গেছে। আজ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভারতে করোনা শনাক্ত হওয়া মোট রোগীর সংখ্যা এক কোটি ৪০ লাখ ছাড়িয়েছে। বার্তা সংস্থা এপির বরাত দিয়ে দ্য নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড এ তথ্য জানিয়েছে।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে এক ডজনেরও বেশি হোটেল এবং বিয়ের হলগুলোকে কোভিড-১৯ হাসপাতালে রূপান্তর করার আদেশ দেওয়া হয়েছে।

নয়াদিল্লির সরকারি স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এস কে সারিন বলেছেন, সংক্রমণের এই হার উদ্বেগজনক।

ভারতের বড় শহর ও অর্থনৈতিক রাজধানী মুম্বাইয়ে করোনাভাইরাসের বিস্তার নিয়ন্ত্রণে লকডাউন দেওয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার রাত থেকে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মহারাষ্ট্র রাজ্যের বেশির ভাগ শিল্প, ব্যবসা ও জনসমাগম বন্ধ করা হয়েছে এবং ১৫ দিনের জন্য মানুষের অবাধ চলাচল সীমাবদ্ধ করা হয়েছে। তবে ট্রেন ও উড়োজাহাজ পরিষেবা চালু রয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে অভিবাসী শ্রমিকেরা মুম্বাই ছেড়ে যাওয়ার কারণে ট্রেন স্টেশনে উপচেপড়া ভিড় ছিল।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে দুই লাখ ৭৩৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৩৮ জনের। গত বছর সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক লাখ ৭৩ হাজার ১২৩ জন মারা গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনা শনাক্তে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত এবং মৃত্যুর দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে। করোনা শনাক্তে ব্রাজিলের অবস্থান তৃতীয় ও মেক্সিকো চতুর্থ স্থানে রয়েছে। তবে ভারতের ১৪০ বিলিয়ন জনসংখ্যার মধ্যে করোনা শনাক্তের প্রকৃত সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে কারণ দেশটির করোনা শনাক্ত পরীক্ষার কার্যক্রম সীমিত।

ভাইরোলজিস্ট শহীদ জামিল বলেছেন, সাম্প্রতিক স্থানীয় ও রাজ্য নির্বাচনের বিশাল রাজনৈতিক সমাবেশ এবং হিন্দুদের বড় উৎসব কুম্ভমেলায় উত্তরের শহর হরিদ্বারের গঙ্গা নদীতে স্নান করা ছিল করোনা সংক্রমণ বিস্তারের বড় কারণ।

ভারত তার টিকা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গতকাল বুধবার ৩০ লাখের বেশি ডোজ দিয়ে মোট টিকা ১১৪ মিলিয়ন ছাড়িয়েছে।

মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট এবং আরও বেশ কয়েকটি রাজ্যের হাসপাতালে রোগীদের উপচেপড়া ভিড় ছিল। বেশ কয়েকটি হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডারের ঘাটতি রয়েছে বলে জানা গেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চলের শ্মশান ও সমাধিস্থলগুলোতে শেষকৃত্যের জন্য আগত লাশের সংখ্যা সামাল দিতে হিমশিম খেতে হয়েছে।


আরও খবর



আট অঞ্চলে তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকার পূর্বাভাস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে এবং আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে

ঢাকাসহ দেশের আট অঞ্চলে তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আজ মঙ্গলবার আবহাওয়া অধিদপ্তর এক পূর্বাভাসের মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এই কারণে মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে এবং আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

পূর্বাভাসে আরো বলা হয়েছে, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগসহ রাজশাহী ও পাবনা অঞ্চল এবং নীলফামারী জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে এবং সারা দেশে দিনের ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা সীতাকুণ্ডতে ৩৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন শ্রীমঙ্গলে ১৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।


আরও খবর



আরও দুই মামলায় খালেদের বিচার শুরু

প্রকাশিত:রবিবার ২১ মার্চ 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ মার্চ 20২১ | ১১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইনের পৃথক দুই মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া ওরফে ক্যাসিনো খালেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এর মধ্য দিয়ে মামলাটির আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো।

রবিবার (২১ মার্চ) ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলমের আদালত আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারের জন্য এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ১ জুন দিন ধার্য করেছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, রাজধানীর ফকিরাপুল ইয়ংমেনস ক্লাবে ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার পর গুলশানের নিজ বাসা থেকে খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে আটক করেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা। এ সময় তার বাসা থেকে একটি অবৈধ পিস্তল, ছয় রাউন্ড গুলি, ২০১৭ সালের পর নবায়ন না করা একটি শটগান ও ৫৮৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরদিন দুপুরে তাকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করা হয়। ওই দিনই র‌্যাব-৩ এর ওয়ারেন্ট অফিসার গোলাম মোস্তফা বাদী হয়ে গুলশান থানায় অস্ত্র, মাদক ও মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে তার বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করেন। এছাড়াও মতিঝিল থানায় মাদক ও মানিলন্ডারিংসহ নানা অভিযোগে তার বিরুদ্ধে আরও একাধিক মামলা রয়েছে।


আরও খবর



দেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫০

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ এপ্রিল 2০২1 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ এপ্রিল 2০২1 | ১১৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ছয় হাজার ৮৩০ জন, যা কিনা দেশের ইতিহাসে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। গতকাল দেশে প্রথমবারের মতো দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ছয় হাজার ছাড়িয়ে যায়। গতকাল শনাক্ত হন ছয় হাজার ৪৬৯ জন। আজ নতুন শনাক্ত হওয়াদের নিয়ে এ পর্যন্ত সরকারি হিসাবে শনাক্ত হয়েছেন ছয় লাখ ২৪ হাজার ৫৯৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫০ জন, এ নিয়ে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেলেন ৯ হাজার ১৫৫ জন।

শুক্রবার (২ এপ্রিল) করোনাবিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর এসব তথ্য জানায়।

এতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ৩০ হাজার ২৯৩টি, আর পরীক্ষা করা হয়েছে ২৯ হাজার ৩৩৯টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪৭ লাখ ২৮ হাজার ১১৩টি। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৫ লাখ ৭২ হাজার ৪৮৪টি, আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ লাখ ৫৫ হাজার ৬২৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ২৮ শতাংশ, এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২১ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৭ শতাংশ।

দেশে বর্তমানে ২২৬টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এরমধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ১২০টি পরীক্ষাগারে, জিন এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৩৩টি পরীক্ষাগারে এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৭৩টি পরীক্ষাগারে।

মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে পুরুষ ৪০ জন, আর নারী ১০ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেছেন ছয় হাজার ৮৮৭ জন এবং নারী দুই হাজার ২৬৮ জন। শতকরা হিসাবে পুরুষ ৭৫ দশমিক ২৩ শতাংশ এবং নারী ২৪ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

বয়স বিবেচনায় এদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ৩২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে চার জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুই জন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে আছেন একজন।

বিভাগ বিশ্লেষণে মৃত্যুবরণকারীদে মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৩৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের সাত জন, খুলনা বিভাগের তিন জন এবং রাজশাহী ও সিলেট বিভাগের আছেন দুই জন করে।

৫০ জনের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৪৯ জন এবং বাড়িতে মারা গেছেন একজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া দুই হাজার ৪৭৩ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন এক হাজার ৭৯৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৫৮৭ জন, রংপুর বিভাগের ২০ জন, খুলনা বিভাগের তিন জন, বরিশাল বিভাগের ১০ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৫ জন, সিলেট বিভাগের ৩৩ জন আর ময়মনসিংহ বিভাগের ৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন এক হাজার ৮০০ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৮৮৬ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ছয় লাখ ৫৩ হাজার ৬৪০ জন, ছাড়া পেয়েছেন ছয় লাখ ১৪ হাজার ৫৫১ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৩৯ হাজার ৮৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৫০০ জন, ছাড়া পেয়েছেন ১০৫ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন এক লাখ পাঁচ হাজার ৭৭৫ জন, ছাড়া পেয়েছেন ৯৩ হাজার ৪১৩ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১২ হাজার ৩৬২ জন।


আরও খবর



বাতাসে করোনা ছড়ানোর শক্তিশালী প্রমাণ পেলেন বিশেষজ্ঞরা

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | ১৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
বাতাসের মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া গবেষণা দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ডের তৃষ গ্রিনহাফ। তার নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞরা গবেষণা পর্যালোচনা শেষে তা প্রকাশ করেছেন এবং বাতাসের মাধ্যমে এই ভাইরাস ছড়ায়

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাতাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে বলে শক্তিশালী প্রমাণ পেয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার বিজ্ঞানীদের সমন্বয়ে একটি টিম গবেষণা চালিয়ে এর প্রমাণ পেয়েছেন বলে ব্রিটিশ চিকিৎসাবিষয়ক ম্যাগাজিন দ্য ল্যানচেটে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

অন্যদিকে ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআই ওই প্রতিবেদনকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, করোনার এসএআরএস-কোভ-২ বাতাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার এমন সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং দৃঢ় প্রমাণ পাওয়া গেছে। করোনা রোগীদের সুস্থ করে তোলার জন্য চিকিৎসকরা যেসব প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন তা বাতাসের কারণে ব্যর্থ হয়। বাতাসে করোনাভাইরাস ব্যাপক বিস্তার ঘটে। ফলে করোনা আক্রান্ত রোগীরা অনিরাপদ হয়ে পড়েন।

কো-অপারেটিভ ইনস্টিটিউট ফর রিসার্চ ইন এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস (সিআইআরইএস) এবং ইউনিভার্সিটি অব কলোরাডো বৌলডারের এক রসায়নবিদ হোসে লুইস জিমেনেজ বলেছেন, বাতাসের করোনাভাইরাস ছড়ানোর বড় ধরনের তথ্যপ্রমাণ পেয়েছেন। তবে বড় বড় ড্রপলেট বা হাঁচি কাশির যেসব বিন্দু আকারে জলীয়বাষ্প বেরিয়ে যায়, তার মাধ্যমে এই সংক্রমণ ছড়ানোর পক্ষে প্রমাণ কম।

তিনি আরও দাবি করেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পরার বিষয়ে বিশ্বজুড়ে আনুমানিক নির্ভরশীলতার ওপর নির্ভর করে বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার চেয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও অন্য স্বাস্থ্যসেবাবিষয়ক এজেন্সিকে সংক্রমণ বিষয়ে বিজ্ঞানসম্মত বর্ণনা প্রচার করা খুব জরুরি। বিজ্ঞানসম্মত বর্ণনা প্রচার করলে বাতাসের মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ কমিয়ে আনা সম্ভব।

বাতাসের মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া গবেষণা দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ডের তৃষ গ্রিনহাফ। তার নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞরা গবেষণা পর্যালোচনা শেষে তা প্রকাশ করেছেন এবং বাতাসের মাধ্যমে এই ভাইরাস ছড়ায়, তার পক্ষে যুক্তি হিসেবে ১০টি পয়েন্ট উত্থাপন করেন। এর শীর্ষে রয়েছে স্কাগিট চোইর প্রাদুর্ভাবের মতো সুপার স্প্রেডার। এতে একজন মাত্র আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে ৫৩ জন আক্রান্ত হতে পারে। ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক, অভিন্ন কোনো তল স্পর্শ করা বা অন্য কোনো কিছুর মাধ্যমে এই সংক্রমণ ব্যাখ্যা করা যায় না।

গবেষণা দলের বিশেষজ্ঞরা দাবি করছেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ অধিক হারে ইনডোর বা আবদ্ধ ঘরের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ার হার বেশি। ঘরের বাইরে বা আউটডোরে এই সংক্রমণের হার কম। ফলে ইনডোরে ভেন্টিলেশন বা বাতাস যাতায়াতের পথ খোলা রাখার মাধ্যমে এ সংক্রমণকে অনেকাংশে কমিয়ে রাখা যায়।

গবেষণায় বিশেষজ্ঞরা দেখতে পেয়েছেন, নীরব সংক্রমণে আক্রান্ত কোনো ব্যক্তি থেকে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। এমনভাবে আক্রান্ত হওয়ার শতকরা হার মোট সংক্রমণের মধ্যে শতকরা কমপক্ষে ৪০ ভাগ। বিশ্বজুড়ে বাতাসের মাধ্যমে এই নীরব সংক্রমণ করোনা ছড়িয়ে পড়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম।


আরও খবর