আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

আশ্রয়ণ প্রকল্পে অনিয়মে ৫ কর্মকর্তা ওএসডি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১৫৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আশ্রয়ণ প্রকল্পে অনিয়মের জন্য পাঁচ কর্মকর্তাকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়েছে। গত ৪ ও ৫ জুলাই এই পাঁচ কর্মকর্তাকে ওএসডি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে আদেশ জারি করা হয়।

ওএসডি হওয়া কর্মকর্তারা হলেন- বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত উপ-সচিব মো. শফিকুল ইসলাম। তিনি সিরাজগঞ্জের কাজিপুরের সাবেক ইউএনও। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে।

এছাড়া হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুবায়েত হাসান শিপলুকে ওএসডি করা হয়েছে। তিনি মুন্সীগঞ্জ সদরের সাবেক ইউএনও ছিলেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. লিয়াকত আলী সেখও ওএসডি হয়েছেন। তিনি বগুড়ার শেরপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দায়িত্বে ছিলেন।

এছাড়া বরগুনার আমতলীর ইউএনও মো. আসাদুজ্জামান এবং মুন্সীগঞ্জ সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) শেখ মেজবাহ-উল-সাবেরিনকে ওএসডি করা হয়েছে।

এই পাঁচ কর্মকর্তা ইউএনও ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়মে জড়িয়েছিলেন বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ইতোমধ্যে এক লাখ ১৮ হাজার ৩৮০ জন ভূমিহীনকে দুই কক্ষের ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। কিন্তু বিভিন্ন জায়গায় এই ঘর ভেঙে পড়েছে। ঘর নির্মাণ নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

উল্লেখ্য, আশ্রয়ণ হচ্ছে গৃহহীন পরিবারদের জন্য পুনর্বাসনের প্রকল্প। এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্নমূল, অসহায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পুনর্বাসন করা; ঋণ প্রদান ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহে সক্ষম করে তোলা এবং আয়বর্ধক কার্যক্রম সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র্য দূর করা। প্রথম পর্যায় শেষে এখন এই প্রকল্পের দ্বিতীয় পর্যায় চলছে।


আরও খবর
পরীর বাসায় মিলল আইস, এলএসডি

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




সহস্র বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতে চীনে বন্যা, মৃত ১২

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ১১১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চীনের হেনান প্রদেশে হাজার বছরের ইতিহাসের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত এবং বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট বন্যা, বাড়িঘর ও দেয়াল ধসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৫ জনে দাঁড়িয়েছে। বুধবার (২১ জুলাই) এক সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন।

চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা সিনহুয়া নিউজের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, প্রবল বর্ষণে আটকা পড়া মানুষদের উদ্ধারের জন্য প্রদেশটিতে সেনাবাহিনী পাঠিয়েছে সরকার। ৫ হাজার ৭০০ সেনা সদস্য হেনান প্রদেশে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে এবং ঝোংঝৌ থেকে ইতোমধ্যে ১ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়স্থলে নিয়েছেন।

ইয়োলো নদীর তীরবর্তী অঞ্চলে ঝেংঝৌয়ের রেল ও সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা বৃষ্টিতে নাজুক হয়ে গেছে। শহরটির পাতাল রেলের লাইন ডুবে গেছে এবং এতে অন্তত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও সরকারি বাহিনীর সদস্যরা এসব রেল লাইন থেকে ৫০০ জনেরও বেশি মানুষকে নিরাপদে উদ্ধার করেছেন বলে জানিয়েছে সিনহুয়া নিউজ। 


আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




খুলনায় করোনা ইউনিটে আরও ১২ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | ১০৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খুলনার চার হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৯ জন এবং উপসর্গ নিয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকাল পার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার এ তথ্য জানিয়েছেন।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে পাঁচজন, জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চারজন এবং গাজী মেডিকেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- রূপসার মাহবুর রসুল (৮০) ও মনোয়ারা বেগম (৬০)। এ ছাড়া উপসর্গে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২০১ জন। যার মধ্যে রেড জোনে ১৩৫ জন, ইয়ালো জোনে ২৬ জন, আইসিইউতে ২০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৩৮ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২১ জন।

খুলনার শহীদ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানান, হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন ৪৪ জন। তার মধ্যে আইসিইউতে রয়েছে ১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ছয়জন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ছয়জন। এ সময়ে কারও মৃত্যু হয়নি।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- খুলনার রূপসার শেখ ওলিয়ার রহমান (৭৫), বাগেরহাট মোল্লাহাটের তরিকুল ইসলাম (৭২), মোড়েলগঞ্জের মোকসেদ হাওলাদার (৫০) এবং একই এলাকার আবু জাকের মিয়া (৭৬)। এ ছাড়া চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৮ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১২ জন।



আরও খবর



৭ কোটি রুপিতে বিক্রি হচ্ছে কেজিএফ টু সিনেমার গান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১৩৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির তুমুল জনপ্রিয় তারকা যশ অভিনীত বহুল আলোচিত ছবি 'কেজিএফ'। ভারতের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে অন্যতম ব্যবসাসফল এ ছবিটির প্রথম কিস্তির পর দ্বিতীয় কিস্তি আসছে। এ বছরে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ছবিগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি 'কেজিএফ চ্যাপটার টু'।

বলিউড হাঙ্গামার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবিটির দক্ষিণের ভাষার গানগুলো কিনে নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বিশ্বখ্যাত ইউটিউব প্লাটফর্ম টি-সিরিজ এবং লাহাড়ি মিউজিক। তাদের কাছে ৭.২ কোটি রুপিতে বিক্রয় করা হচ্ছে 'কেজিএফ ২- অডিও সত্ত্ব।

খবরে আরও বলা হয়, এখন অনেক প্যান-ইন্ডিয়ান চলচ্চিত্র তৈরি হচ্ছে। তবে সেখানে খুব কম নামই রয়েছে যারা যশের মতো আঞ্চলিক সীমানা অতিক্রম করেছেন।

যশের মতো সুপারস্টারদের জন্য নির্মাতা থেকে শুরু করে বিতরণকারী এবং সঙ্গীত লেবেলগুলোর কাছেও চাহিদা থাকে আকাশ ছোঁয়া৷ এখন অব্দি দক্ষিণের গানগুলোর অডিও সত্ত্ব বিক্রি করা হয়েছে।

ছবির অন্য ভাষার গানগুলো নিয়ে এখনো কোনো কথাবার্তা হয়নি। দক্ষিণের ভাষার গানগুলোতে এমন সাফল্য পাওয়াকে ইন্ডাস্ট্রির জন্য ইতিবাচক দিক হিসেবে গ্রহণ করছে 'কেজিএফ চ্যাপ্টার টু' ছবির টিম।



আরও খবর
পরীমনির বাসায় শত শত মদের বোতল

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১

নায়িকা পরীমণি আটক

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




কানাডার ১৫৪ বছরের ইতিহাসে প্রথম আদিবাসী গভর্নর জেনারেল

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কানাডার ১৫৪ বছরের ইতিহাসে এক ঐতিহাসিক পদক্ষেপ নেওয়া হলো। মেরী সাইমন নামের একজন আদিবাসী মহিলাকে দেশটির ৩০তম গভর্নর জেনারেল হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাষ্টিন ট্রুডোর সুপারিশ অনুসারে কানাডার হেড অফ স্টেট রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ গভর্নর জেনারেল হিসেবে মেরী সাইমনের এই নিয়োগ অনুমোদন করেছেন।

যে আদিবাসী মানুষদের পরাজিত করে কানাডায় প্রথমে ফ্রান্স এবং পরে ফ্রান্সকে পরাজিত করে বৃটিশ উপনিবেশিক শক্তি বিজয়ী হয়েছিল, ১৫৪ বছর পর তার চাকা উলটে গিয়ে আদিবাসীদের সাথে কানাডিয়ানদের সম্পর্ক উন্নয়নে এক নতুন দিগন্তের সূচনা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো মঙ্গলবার কুইকের কানাডিয়ান মিউজিয়াম অফ হিস্ট্রি গ্যাটিনিউর এই ঘোষণা দেন এবং বলেন দ্বিতীয় রানী এলিজাবেথ এই অ্যাপয়েন্টমেন্টকে অনুমোদন দিয়েছেন।

এই বিষয়ে জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমাদের উচ্চপদে মিস সিমনের মতো আরও নেতাদের দরকার। সত্যিকারের সমস্যাগুলি গ্রহণ এবং ইতিবাচক পরিবর্তন আনার অর্থ যা তারা বোঝেন।



আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




সিরাজগঞ্জে নদীগর্ভে বিলীন বসতভিটাসহ বিস্তীর্ণ ফসলি জমি

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | ১০৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যমুনা নদীর পানি কমার সাথে সাথে সিরাজগঞ্জের চৌহালী ও শাহজাদপুরের নদী তীরবর্তী এলাকায় দেখা দিয়েছে তীব্র নদী ভাঙ্গন। ইতোমধ্যেই নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে অন্তত ২০টি বসতভিটাসহ বিস্তীর্ণ ফসলি জমি। ভাঙ্গন রোধে বালি ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হলেও তা কাজে আসছে না।

সরেজমিন জেলার চৌহালী ও শাহজাদপুরের ভাঙন এলাকা ঘুরে, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, যমুনা নদীর পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হওয়া জেলার চৌহালী উপজেলার নদী ভাঙন পানি কমার সময়ে তীব্র আকার ধারণ করেছে। উপজেলার খাসপুকুরিয়া থেকে বাগুটিয়া পর্যন্ত তিন কিলোমিটার নদী তীরবর্তী এলাকায় তীব্র নদী ভাঙন অব্যাহত রয়েছে।

গত ৩ দিনের ভাঙনে অন্তত ১৫টি বসতভিটা ও বিস্তীর্ণ ফসলি জমি যমুনা নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে বিনাইন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চরবিনাইন কমিউনিটি ক্লিনিক, চরবিনাইন বাজার, হাফেজিয়া মাদরাসা ও চরণাকালিয়া তাঁত কারখানা। ভাঙন এলাকার মানুষেরা তাদের ঘড়-বাড়ি ভেঙ্গে অন্যত্র সরিয়ে নিচ্ছে।

এদিকে ভাঙন রোধে শনিবার (১০ জুলাই) ভাঙন এলাকায় বালি-ভর্তি জিও ব্যাগ ডাম্পিং শুরু করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। কিন্তু জিওব্যাগ ডাম্পিংয়েও থামছে না ভাঙন।

স্থানীয় রমজান আলী জানান, একমাস হল শুরু হওয়া নদী ভাঙ্গন কিছুতেই থামছে না, বসতবাড়ি ভেঙ্গে অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছি। ভিটাটুকু ভাঙতে ভাঙতে নদীতে বিলীন হয়েছে। কিন্তু পানি উন্নয়ন বোর্ড এখনো কাজ শুরু করেনি। গত ৩ দিন আগে জিও বস্তা ফেলা শুরু হয়েছে। কিন্তু এতে কাজ হচ্ছে না।

চৌহালী উপজেলা চেয়ারম্যান মো. ফারুখ সরকার জানান, বর্ষা মৌসুমের শুরুতে শুরু হওয়া নদী ভাঙনে বিস্তীর্ণ এলাকা নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে। দেরিতে হলেও ভাঙন রোধে কাজ শুরু করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এরই মধ্যেই ভাঙন কবলিত মিটুয়ানি উচ্চ বিদ্যালয় এলাকায় নদী তীরবর্তী ২০০ মিটার ও চরবিনাইনে ১০০ মিটার এলাকায় জিও-ব্যাগ নিক্ষেপ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড সিরাজগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম জানান, পাচিলসহ ওই অঞ্চলে ভাঙন রোধে জরুরি কিছু কাজ করা হয়েছে। তারপরেও আবার ভাঙন দেখা দিয়েছে। আমরা আবারও জরুরী কাজ শুরু করবো ভাঙন নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য।

নির্বাহী প্রকৌশলী আরও জানান, ভাঙ্গন রোধে স্থায়ীভাবে কাজ শুরু হবে অক্টোবর-নভেম্বরে। ওই কাজটি করা গেলে আর ভাঙন থাকবে না। এর আগে ভাঙন রোধ করা কষ্টকর। এর পরেও চেষ্টা করা হচ্ছে।

 


আরও খবর