আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

আওয়ামী লীগ নেতা মায়ার ছেলে দীপু মারা গেছেন

প্রকাশিত:শনিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২3 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২3 | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার বড় ছেলে সাজেদুল হোসেন চৌধুরী (দিপু) মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শনিবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৫টা ২৭ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থা খারাপ হওয়ায় পরদিন তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়।

দীপু চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নুরুল আমিন রুহুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. হুমায়ুন কবির।


আরও খবর



পঞ্চগড়-দিনাজপুরে তাপমাত্র নামল ৫.৫ ডিগ্রিতে

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রার কবলে পড়েছে দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড় ও দিনাজপুর। তাপমাত্রা ৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি নামায় সেখানে বইছে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ। ফলে ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন এই দুই জেলার মানুষ।

রবিবার সকাল ৬টায় পঞ্চগড়ে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। একই সময়ে দিনাজপুরেও রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা।

পঞ্চগড়ের প্রথম শ্রেণির আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ তাপমাত্রা রেকর্ডের তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এটি চলতি মৌসুমের সর্বনিম্ন। এর আগে গত শুক্রবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

দিনাজপুরের আবহাওয়া অফিস বলছে, তাপমাত্রার পারদ নেমে যাওয়ায় জেলায় বেড়েছে শীতের তীব্রতা। এতে কনকনে শীতে জনজীবনে নেমে এসেছে জনদুর্ভোগ। চলমান শৈত্যপ্রবাহের কারণে দিনাজপুরের তাপমাত্রা ওঠানামা করলেও ১০ ডিগ্রির নিচে থাকছে প্রায়শই।

ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন রয়েছে সীমান্ত জনপদ পঞ্চগড়। কনকনে শীত, ঘন কুয়াশা আর হিমশীতল বাতাসে নাকাল সর্ব উত্তরের সীমান্ত জেলা পঞ্চগড়ের মানুষ। আঞ্চলিক সড়ক ও গ্রামীণ সড়কগুলোতে হেডলাইট জ্বালিয়ে চলতে হচ্ছে যানবাহনগুলোকে। শীতের তীব্রতায় জর্জরিত শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধরা। চরম দুর্ভোগে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষ। কাজকর্ম কমে যাওয়ায় অভাব অনটনের মধ্য দিয়ে কাটছে তাদের সংসার।

তেঁতুলিয়ায় বাতাসের গতিবেগ রয়েছে ঘণ্টায় ৩ থেকে ৫ কিলোমিটার এবং বাতাসে আর্দ্রতা ১০০ শতাংশ।

সামর্থ্যবান পরিবারের মানুষ বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হলেও জীবিকার তাগিদে বের হতে হচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষ। শীত উপেক্ষা করে কাজে বের হলেও তেমন কাজ পাচ্ছে না তারা।

এদিকে শীতের তীব্রতায় বাড়ছে নিউমোনিয়া, অ্যাজমা, হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়াসহ শীতজনিত বিভিন্ন রোগ। জেলা ও উপজেলা সদরের হাসপাতালগুলোতে বেড়েছে রোগীর চাপ। স্থান সংকুলান না হওয়ায় হাসপাতালের আউটডোরে চিকিৎসা নিচ্ছেন অনেকে।


আরও খবর
সারা দেশে কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




পরিচালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ফরাসি অভিনেত্রীর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

ফরাসি নির্মাতা বেনো জ্যাকোরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী জুডি গডরেচে। তার দাবি, ১৯৮৬ সালে তিনি যখন ১৪ বছরের কিশোরী, তখন পরিচালকের দ্বারা ধর্ষণের শিকার হন তিনি।

সম্প্রতি প্যারিসের জুভেইনিল প্রটেকশন ব্রিগেডে অভিযোগটি করা হয়েছে। অভিনেত্রীর আইনজীবী এএফপিকে এ কথা জানিয়েছেন। ২৫ বছরের বয়সের ব্যবধান থাকা সত্ত্বেও আশির দশকে জ্যাকো ও গডরেচের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তাদের সম্পর্ক ছয় বছর স্থায়ী হয়েছিল।

ফরাসি গণমাধ্যম লে মন্ডেকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নির্মাতার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জ্যাকো। বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) এ বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিক্রিয়া এএফপি জানতে চাইলে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি এই নির্মাতা।

জ্যাকো জানান, পত্রিকায় দেওয়া বিবৃতির বাইরে আর কোনো মন্তব্য করতে চান না তিনি। তবে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে ২০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে জ্যাকোর।

সম্প্রতি একটি টিভি শোতে উপস্থিত হয়ে জ্যাকোর সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা প্রকাশ করেন গডরেচে। দীর্ঘ ক্যারয়িারে ৫০টির বেশি চলচ্চত্রে অভিনয় করেছেন এই অভিনেত্রী।

এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সিনেমাগুলো হচ্ছে ‌দ্য ওভারনাইট, দ্য স্প্যানিশ অ্যাপার্টমেন্ট, দ্য ম্যান ইন দ্য আয়রন মাস্ক ইত্যাদি। এছাড়া বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে বিচারকের দায়িত্বও পালন করেন গডরেচে।

অপরদিকে সত্তরের দশকের মাঝামাঝি থেকে সিনেমা নির্মাণ করছেন জ্যাকো। ২০১২ সালে তার নির্মিত ফেয়ারওয়েল, মাই কুইন বার্লিন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী সিনেমা হিসেবে প্রদর্শিত হয়।


আরও খবর
ফের বিয়ে করছেন অনুপম রায়, পাত্রী কে?

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




শামীম ওসমানের ডাকে সাড়া দিলেন না নারায়ণগঞ্জের ডিসি-এসপি

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

মাদক-সন্ত্রাস ও ভূমিদস্যুতার বিরুদ্ধে করণীয় ঠিক করতে আয়োজিত নারায়ণগঞ্জের এক সভায় শামীম ওসমানের আমন্ত্রণে সাড়া দেননি স্থানীয় জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও পুলিশ সুপার (এসপি)। এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

শনিবার (২৭ জানুয়ারী) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ইসদাইরে সামছুজ্জোহা ক্রীড়া কমেপ্লেক্সে আয়োজিত সভায় শামীম ওসমান বলেন, বিগত ৪০ বছরে এমন একটি সমাবেশ নারায়ণগঞ্জে হয়নি। যেখানে নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের লোকজনের উপস্থিতি ছিল। আমি নির্বাচনের প্রচারণার সময়ই বিভিন্ন স্থানে বলেছি, আমার প্রথম কাজ হবে নারায়ণগঞ্জ থেকে মাদক, সন্ত্রাস ও ভূমিদস্যুতা দূর করা। ‘‘প্রত্যাশা’’ নামক সংগঠনের মাধ্যমে এই কাজটি করব বলেছিলাম। আজকের এই সমাবেশ সে জন্যই করা। আজকে নারায়ণগঞ্জের সকল এলিট শ্রেণির মানুষ এখানে আছে। কিন্তু নারায়ণগঞ্জের এসপি এবং ডিসি এখানে আসেন নাই। নারায়ণগঞ্জের প্রশাসনকে আমি বারবার এই সমাবেশের কথা বলেছি। তবুও তারা আজকে এখানে আসে নাই। তারা হয়তো জানেন না, যেখানে একজন সংসদ সদস্য থাকেন সেখানে অবস্থানটা কোথায়?

তিনি বলেন, আমি এই প্রশ্ন জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর সামনে উপস্থাপন করব। যারা জনগণের ট্যাক্সের টাকায় বেতন নেন, তারা কেন আজকে এখানে আসেন নাই। আমি সেই প্রশ্ন সেখানেই করব। আমরা অনেক কিছুই জানি। নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিকরা কিন্তু আমাদের জানান। আপনারা কেউ হতাশ হবেন না। এটা আমাদের নারায়ণগঞ্জ। আমরাই ঠিক করব আমাদের নারায়ণগঞ্জ।

শামীম ওসমান আরও বলেন, হিসেব করে দেখেছি, যদি প্রতিটি ইউনিয়ন ও সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ড থেকে এক হাজার লোক করে নেওয়া হয়, তাহলে সাড়ে চার লাখ লোক হয়। প্রত্যাশার মাধ্যমে এত সংখ্যক লোক যদি একত্রিত হয়, তাহলে নারায়ণগঞ্জ থেকে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, ভূমিদস্যুতা, ইভিটিজিংয়ের মতো অপরাধ দমন করতে খুব বেশি সময় লাগবে না।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আরিফ আলম দীপু, নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন, নারায়ণগঞ্জ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ফজলুল হক রুমন রেজা, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনুসহ সকল শ্রেণিপেশার মানুষ।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বাংলাদেশে ৯ আইকনিক মসজিদ স্থাপনে সৌদির সম্মতি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশে নয়টি আইকনিক মসজিদ স্থাপনের বিষয়ে সম্মতি দিয়েছে সৌদি সরকার। এক্ষেত্রে অর্থায়ন করবে দেশটি। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা ইউসেফ ঈসা আল দুহাইলান এ সম্মতির কথা জানান। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্য জানানো হয়েছে।

ধর্মমন্ত্রী বাংলাদেশে সৌদি সরকারের অর্থায়নে প্রস্তাবিত আইকনিক মসজিদ স্থাপনের বিষয়ে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে আন্তরিক আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আইকনিক মসজিদ নির্মাণে সৌদি সরকারের আগ্রহের বিষয়টি খুবই ইতিবাচকভাবে নিয়েছেন এবং তিনি সৌদি সরকারকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী ৮টি বিভাগে ৮টি আইকনিক মসজিদ নির্মাণের পাশাপাশি কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানী ঢাকাতে একটি সুবৃহৎ মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী তাৎক্ষণিকভাবে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়কে ঢাকার পূর্বাচলে প্রয়োজনীয় জায়গা বরাদ্দের জন্য আদেশ দিয়েছেন বলে ধর্মমন্ত্রী উল্লেখ করেন।

সৌদি রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর এ আকাঙ্ক্ষার কথা জেনে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এবং বাংলাদেশে ৯টি আইকনিক মসজিদ স্থাপনে সম্মতি দেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

পরে ধর্মমন্ত্রী সৌদি সরকারের অর্থায়নে প্রস্তাবিত অ্যারাবিক ল্যাঙ্গুয়েজ ইনস্টিটিউট স্থাপনের বিষয়টি রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। তিনি জানান, ঢাকার বসিলায় ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিগ্রহণকৃত জায়গায় এরাবিক ল্যাঙ্গুয়েজ ইনস্টিটিউট স্থাপনের জন্য স্থান নির্বাচন করা হয়েছে এবং এরই মধ্যে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে নকশা তৈরি করা হয়েছে। তিনি রাষ্ট্রদূতকে নকশাটি দেখার অনুরোধ জানান। সৌদি রাষ্ট্রদূত মনোযোগ সহকারে নকশাটি দেখেন এবং তার পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন। তিনি এখানে খেলাধুলার জন্য স্পোর্টস সেন্টার রাখার ব্যাপারে গুরুত্ব আরোপ করেন।

এ বছর হজ প্রক্রিয়াকরণের বিষয়ে সৌদি রাষ্ট্রদূত সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, পূর্বে হজ এজেন্সিগুলো নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে সমস্যা ছিল। এছাড়া, মধ্যস্বত্বভোগীরা হজযাত্রীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করত। কিন্তু হজ প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজড করার ফলে আমরা পুরো প্রক্রিয়াটিকেই খুব সহজেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারছি। এর ফলে হজযাত্রীদের কষ্ট অনেকাংশে কমেছে।

সভায় ধর্ম সচিব মু. আ. হামিদ জমাদ্দার ও অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মু. আ. আউয়াল হাওলাদারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



রাজপথে ফ্রিস্টাইল কর্মসূচি সরকার মেনে নেবে না : ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বিএনপির কালো পতাকা মিছিলকে অবৈধ হিসেবে উল্লেখ করে অনুমতি না নিয়ে রাজপথে ফ্রিস্টাইল কর্মসূচি সরকার মেনে নেবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ বুধবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এই হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, অনুমতি ছাড়া ফ্রিস্টাইল কর্মসূচি দেওয়ার সুযোগ নেই। অনুমতি নিবে না, আর রাস্তায় ফ্রিস্টাইল কর্মসূচি করবে আমরা মেনে নেব তা মনে করার কোনো কারণ নেই। 

আরও পড়ুন>> বইমেলাকে কেন্দ্র করে সুনির্দিষ্ট হুমকি নেই : ডিএমপি

ওবায়দুল কাদের বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেউ ত্রুটিপূর্ণ বলেনি। খোদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও নয়। নির্বাচনের ফলাফলের পর যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ কয়েকজন মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। সর্বশেষ সংসদ অধিবেশনে মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত উপস্থিত ছিলেন। সংসদের প্রথম অধিবেশনেও যুক্তরাষ্ট্রের উপস্থিতি লক্ষ্য করি। এর মানে কি দাঁড়ায়? আমাদের নির্বাচন ত্রুটিপূর্ণ বলেনি। তারা একসঙ্গে কাজ করার আগ্রহ দেখিয়েছে।

দ্রব্যমুল্য নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকার শুধু কথা নয়, কাজও করে যাচ্ছে। সরকার দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী প্রয়োজনীয় নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে দিয়েছেন। সে অনুসারে কাজ শুরু করে দিয়েছে। রাতারাতি নিয়ন্ত্রণ হয়ে যাবে না। সরকার শুধু কথা বলছে এমন নয়। সরকার অ্যাকশনে আছে। মন্ত্রী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, যারা আইন ভঙ্গ করবে তারা যেই হোক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রসঙ্গে দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, পরীক্ষিত ও ত্যাগীদের গুরুত্ব ও অগ্রাধিকার দিবে আওয়ামী লীগ।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা জিএম কাদেরের সংসদের কার্যকারিতা নিয়ে বক্তব্যের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে ওবায়দুল কাদের বলেন, পার্লামেন্ট ফাংশনাল না হলে তিনি কেন এলেন? স্পিকারকে ধন্যবাদ জানাতে গিয়ে তিনি যা বলেছেন মনে হয় তুলকালাম কাণ্ড ঘটাবেন। নিয়ম লংঘন করে তিনি কথা বলেছেন। উনার কথা বলার যথেষ্ট সুযোগ ছিল সামনে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল হোসেন, মির্জা আজম, সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ কেন্দ্রীয় ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।


আরও খবর