আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

বাড়িতেই সিজার করা সেই পশু ডাক্তার গ্রেফতার

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | ৭৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নেত্রকোনার বারহাট্টায় প্রসূতিকে সিজার করা সেই পশু চিকিৎসক আবুল কাশেমকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে নেত্রকোনা আদালতে সোপর্দ করলে বিজ্ঞ বিচারক জেল হাজতে পাঠান।বিকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বারহাট্টা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফুল হক।

তিনি আরও জানান, এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার রাতেই থানায় মামলা হয়েছে। মৃত প্রসূতির স্বামী মহসিন মিয়া বাদী হয়ে থানায় মামলাটি করেন। অভিযুক্ত পশু চিকৎসক একই উপজেলার জীবনপুর গ্রামের বাসিন্দা। ওসি বলেন, রাতেই ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

এর আগে উপজেলা প্রশাসন নিজ উদ্যোগে অভিযোগ ছাড়াই বৃহস্পতিবার তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে সন্ধ্যায় ওই এলাকা পরিদর্শন করেন।

গত বুধবার চন্দ্রপুর গ্রামে বাবার বাড়িতে শরীফা আক্তার নামের প্রসূতির সিজার করলে নবজাতকসহ তিনি মারা যান। শরীফা বারহাট্টা সরকারি কলেজ থেকে এবার এইচএসসি পাস করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বছর সুনামগঞ্জ জেলার তাহেরপুর এলাকায় বিয়ে হয় তার। সন্তান প্রসবের সময় ঘনিয়ে এলে ঈদের আগে গত সপ্তাহে চন্দ্রপুর বাবার বাড়িতে নিয়ে আসা হয় তাকে। চন্দ্রপুর গ্রামের বাবার বাড়ি দক্ষিণপাড়ায় পশু ডাক্তারের করা সিজারের পর নবজাতকসহ মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

পরদিন বৃহস্পতিবার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোস্তাফিজুর রহমানকে প্রধান করে তিন সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন- সহকারী কমিশনার (ভূমি) সানজিদা চৌধুরী ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. শিহাব উদ্দিন। প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাজহারুল ইসলাম এ তদন্ত কমিটি গঠন করেন। কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান তদন্ত কমিটির সদস্যরা। সেখানে উপস্থিত এলাকাবাসী, ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন তারা।


আরও খবর



সুন্দরবনের আত্মসমর্পণকারী দস্যুরা পেল র‌্যাবের ঈদ উপহার

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৯৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মো: নূর আলম(বাচ্চু),মোংলা প্রতিনিধি:

সুন্দরবনে আত্মসমর্পণকারী ২৮৪ জন জলদস্যুদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছে র‌্যাব-৮। শনিবার (৩০ এপ্রিল) বেলা ১১টায় ফুয়েল জেটি সংলগ্ন এলাকায় এই উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

র‌্যাব-৮র অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোঃ জামিল হাসান ও উপঅধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম ঈদের এই উপহার বিতরণ করেন।

উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, তেল, ঘি, সেমাই, চিনি, দুধ, লবণ, বাদাম, কিসমিস, জিরা, মসল্লা ও পেয়াজসহ অন্যান্য রসদ।

এসময়ে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আত্মসমর্পণকারী জলদস্যুরা পুনর্বাসিত হয়ে স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন। সরকারের পক্ষ থেকে আত্মসমর্পণকারী সকল দস্যুদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত চাঞ্চল্যকর ও গুরুতর অপরাধের মামলা ব্যতিত অন্যান্য সকল সাধারণ মামলা সহানুভূতির সাথে বিবেচনা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ১ নভেম্বর সুন্দরবনকে দস্যুমুক্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


আরও খবর



স্বামীকে হত্যা করে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখেছিলেন স্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | ৫৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লক্ষ্মীপুরে বৃদ্ধ মিলন হোসেন (৬০) হত্যার রহস্য উদঘাটন হয়েছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন স্ত্রী জাহানারা বেগম। পরে বাগানে নিয়ে মরদেহের গলায় রশি পেঁচিয়ে ও পেছন দিক থেকে দুই হাত সুপারিগাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন।

রোববার (২৪ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১টার দিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চন্দ্রগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুল আউয়াল সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আবদুল আউয়াল সরকার জানান, মিলনের মরদেহ উদ্ধারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হত্যার রহস্য উদঘাটন করা হয়েছে। নিহতের ছোট ছেলে সাফায়েত হোসেন মাহবুব বাদী হয়ে মামলা করেন। এতে নিহতের স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেন। পরে রোববার বিকেলে আদালতেও তিনি হত্যার ঘটনা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

তিনি আরও জানান, জবানবন্দির প্রতিবেদন এখনো পাইনি। ঘটনার বিস্তারিত বলা যাচ্ছে না। অন্য কেউ জড়িত আছে কি না তা বলতে পারছি না।

থানা পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার দিঘলী ইউনিয়নের দক্ষিণ খাগুড়িয়া গ্রামে শুক্রবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় জাহানারা তার স্বামী মিলনকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে বাড়ির পেছনের বাগানে নিয়ে সুপারিগাছের সঙ্গে বেঁধে রাখেন। পরের দিন সকালে বাড়ির লোকজন গলায় রশি ও গাছের সঙ্গে বাঁধা অবস্থায় মিলনের মরদেহ দেখতে পায়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জাহানারাসহ পুলিশ পরিবারের চার সদস্যকে আটক করে। পরে নির্ভরযোগ্য তথ্যের ভিত্তিতে জিজ্ঞাসাবাদে জাহানারা হত্যার ঘটনা স্বীকার করেন। নিহত মিলন দক্ষিণ খাগুড়িয়া গ্রামের মৃত আনোয়ার মিয়ার ছেলে।

নিউজ ট্যাগ: স্বামীকে হত্যা

আরও খবর



জমি লিখে না দেওয়ায় ছেলের হাতে মা খুন!

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে জমি লিখে দেওয়ায় ছেলের হাতে খুন হতে হয়েছে এক বৃদ্ধা মাকে। শনিবার (১৪ মে) সকালে হরিপুর উপজেলার গেদুড়া ইউনিয়নের বনগাঁও উত্তরপাড়া গ্রামে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহত ৭০ বছর বয়সী আনসারী বেগম পারুল ওই এলাকার আফতাব উদ্দীনের স্ত্রী।

এদিন সন্ধ্যায় আফতাব উদ্দিন বাদী হয়ে হরিপুর থানায় অভিযুক্ত দুই ছেলে এজাবুদ্দিন বাবু ও রফিকুল ইসলামসহ পুত্রবধূ মোছা. রুম্পা, জামাল উদ্দিন, জিএম, সাইদুর রহমান, নজরুল ও অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জনের নামে মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মামলার বাদী আফতাব কিছুদিন আগে তার অভিযুক্ত দুই সন্তানকে শর্তসাপেক্ষে নিজের ১৭ লাখ টাকা দিয়ে একটি এসকেবেটার (ভেকু) ক্রয় করে দেয়। পরে শর্ত অনুযায়ী ওই টাকা দুই ছেলের কাছ থেকে ফেরত চাইলে তারা টালবাহানা শুরু করে। এক সময় আফতাব উদ্দিন বিরক্ত হয়ে অপর দুই ছেলেকে বসত ভিটায় দুই বিঘা জমি খাস কবলা রেজিস্ট্রি করে দেয়। রেজিস্ট্রি দেওয়ার পর থেকে টাকা না ফেরত দেওয়া দুই ছেলেসহ আসামিরা মা-বাবার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এমনকি বাকি জমিটুকু নিজেদের নামে লিখে চায়।

শুক্রবার (১৩ মে) রাতে এনিয়ে মা-বাবার সঙ্গে দুই ছেলের বাকবিতণ্ডা হয়। এরপর সবাই খাওয়া-দাওয়া করে নিজ নিজ ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। শনিবার সকালে নিজ বাড়ি হতে আনুমানিক ৫০০ গজ দূরে আম-লিচুর বাগানে রক্তাক্ত অবস্থায় আনসারী বেগম পারুলের লাশ দেখতে পাওয়া যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হরিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, এবিষয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত তিনজন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ঠাকুরগাঁও খুন

আরও খবর



সেলস ম্যানেজার পদে চাকরি দেবে বোম্বে সুইটস

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বোম্বে সুইটস অ্যান্ড কোম্পানি লিমিটেডে সেলস ম্যানেজার’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২৫ মে পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: বোম্বে সুইটস অ্যান্ড কোম্পানি লিমিটেড

বিভাগের নাম: ফ্রোজেন ফুড

পদের নাম: সেলস ম্যানেজার

পদসংখ্যা: নির্ধারিত নয়

শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতক/এমবিএ

অভিজ্ঞতা: ০৫-০৭ বছর

বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম

প্রার্থীর ধরন: পুরুষ

বয়স: ৩৫-৪৫ বছর

কর্মস্থল: যে কোনো স্থান

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ২৫ মে ২০২২

নিউজ ট্যাগ: চাকরির খবর

আরও খবর



জব্দকৃত স্বর্ণ স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা দেবে চট্টগ্রাম কাস্টম

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবৈধ আমদানি অথবা চোরাচালানের মাধ্যমে আমদানিকৃত স্বর্ণবারসহ স্বর্ণালংকার আটকের ঘটনা প্রায় দেখা যায়; যা পরবর্তী সময়ে রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা হয়। রাষ্ট্রের যেই সংস্থা আটক করুক না কেন, এসব স্বর্ণের শেষ গন্তব্য হয় বাংলাদেশ ব্যাংকে। তবে দীর্ঘদিন ধরে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ চট্টগ্রাম এলাকায় আটককৃত স্বর্ণ বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে অস্থায়ীভাবে জমা দেয়া হলেও তা স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দেয়া হয়নি। এবার এসব স্বর্ণ স্থায়ীভাবে ঢাকার জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস।

সূত্রে জানা যায়, কাস্টম ও বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কর্তৃক আটককৃত এবং রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্তকৃত স্বর্ণবার ও স্বর্ণালংকার স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দান এবং বিষয়টি ঝুঁকিপূর্ণ ও স্পর্শকাতর হওয়ায় এ কার্যক্রমে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সহায়তা ও পরিবহন কাজে হেলিকপ্টার ব্যবহারের অনুমতির জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালকে অনুরোধ করার জন্য চট্টগ্রাম কাস্টম কমিশনার এনবিআর চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছে।

ওই চিঠিতে বলা হয়, দীর্ঘদিন ধরে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ চট্টগ্রাম এলাকায় আটককৃত স্বর্ণ বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে অস্থায়ীভাবে জমা দেয়া হলেও তা স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দেয়া হয়নি। বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে অস্থায়ীভাবে জমাকৃত স্বর্ণবার ও স্বর্ণালংকার ১৮টি লট/জিআর ভুক্ত এক হাজার ৭৭৩ পিস স্বর্ণবার প্রতিটি ১০ তোলা হিসেবে ১৭ হাজার ৭৩০ তোলা বা ২০৬ কেজি ৮০ গ্রাম এবং ৮০ গ্রাম স্বর্ণালংকারের (চেইন ১৮টি ও কানের দুল আট জোড়া) ইনভেন্ট্রি চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস ইতোমধ্যে শেষ করেছে। ইনভেন্ট্রিকৃত এসব স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য ১১৫ কোটি টাকা। এসব অস্থায়ীভাবে জমাদানকৃত স্বর্ণ বাংলাদেশ ব্যাংকে স্থায়ীভাবে জমাদান করলে তা সরকারের রাজস্ব আহরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। একই সঙ্গে চিঠিতে কমিশনার চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস, কাস্টম গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর অথবা জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের প্রতিনিধি সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করার পরামর্শ দেন।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস গ্রুপ ৮-বি ও কাস্টোডিয়ান শাখার দায়িত্বে থাকা এবং উক্ত কাজের সমন্বয়কারী এন্ট্রি মানি লন্ডারিং বিশেষজ্ঞ উপ-কমিশনার নূর-উদ্দিন মিলন বলেন, চট্টগ্রাম এলাকায় যেসব স্বর্ণ জব্দ বা উদ্ধার করা হয়, সেগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে জমা দেয়া হয়। আমাদের ধরণা ছিল, বাংলাদেশ ব্যাংকের যে কোনো শাখায় জমা দিলেই হয়। যার রাষ্ট্রের অনুকূলে চলে যাবে। কিন্তু ব্যাপারটা এমন নয়। বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রাম শুধু কাস্টোডিয়ান মাত্র, তারা এ স্বর্ণ কোনো কাজে লাগাতে পারবে না। ফলে শতকোটি টাকা অধিক মূল্যে এসব স্বর্ণ রাষ্ট্রের কোনো উপকারে আসছে না।

এদিকে দীর্ঘ বছর ধরে বাংলাদেশ ব্যাংকের চট্টগ্রাম শাখার কাস্টম কর্তৃক আটককৃত স্বর্ণবার ও স্বর্ণালংকার পড়ে আছে। তাই এ স্বর্ণগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দেয়ার সিদ্ধন্ত হয়েছে। তবে বিষয়টি ঝুঁকিপূর্ণ ও একই দিনে জমাদানের বিধান রয়েছে। তাই উক্ত কাজে র‌্যাব ও র‌্যাবের হেলিকপ্টার চাওয়া হয়েছে। তারপর বাংলাদেশ ব্যাংক স্বর্ণগুলো নিলাম করে সরকারের রাজস্ব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের হিস্যা বুঝিয়ে দেবে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম কমিশনার মো. ফখরুল আলম বলেন, স্বর্ণগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে পড়ে থাকায় রাষ্ট্র রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাই এগুলো কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ঢাকা শাখায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে চট্টগ্রাম শাখার শুধু ২০৬ কেজি নয়, আর অধিক পরিমাণ স্বর্ণ জমা রয়েছে। মামলা ও আইনি জটিলতা থাকায় সেগুলোর কোনো কার্যক্রম করা যাচ্ছে না। যে স্বর্ণগুলোর কোনো প্রকার আইনি জটিলতা নেই, শুধু সেই স্বর্ণগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে। এতে সরকারের রাজস্ব খাতে ১১৫ কোটি টাকা যোগ হবে।

নিউজ ট্যাগ: বাংলাদেশ ব্যাংক

আরও খবর
ফের বাড়লো স্বর্ণের দাম

মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২