আজঃ শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

বাস-ট্রাক সংঘর্ষে সিরাজগঞ্জে নিহত ৫

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন বাসযাত্রী।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কে কামারখন্দের কোনাবাড়ি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসাদ্দেক হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা
Share

আরও খবর



আল জাজিরার প্রতিবেদনের মামলার আদেশ আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কাতারভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আল জাজিরায় প্রচারিত রাষ্ট্র ও সরকারবিরোধী প্রতিবেদনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট জুলকারনাইন সামি ও তাসনিম খলিলসহ চারজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা গ্রহণের বিষয় আদেশের জন্য আজ (২৩ ফেব্রুয়ারি) দিন ধার্য রয়েছে। ঢাকা মহানগর হাকিম আশেক ইমাম মামলা গ্রহণের বিষয় আদেশ দেবেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিচারক আশেক ইমাম এ দিন ধার্য করেন। বুধবার ঢাকা মহানগর আদালতে মামলাটি করেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি আবদুল মালেক ওরফে মশিউর মালেক।

মামলার আসামিরা হলেন- আল জাজিরা টেলিভিশনের ডিরেক্টর জেনারেল মোস্তেফা স্যোউয়াগ, শায়ের জুলকারনাইন ওরফে সামি, নেত্র নিউজের সম্পাদক তাসনিম খলিল ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী ডেভিড বার্গম্যান।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে একই উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ সরকার ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সুনামহানি করে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে অপপ্রচার চালিয়ে রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড চালিয়ে রাষ্ট্রদ্রোহিতামূলক অপরাধে লিপ্ত আছে। তারা যৌথভাবে তাদের অজ্ঞাতনামা সহযোগীদের নিয়ে ভুয়া মিথ্যা তথ্য-সম্বলিত প্রতিবেদন তৈরি করে গত ১ ফেব্রুয়ারি রাতে অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার্স মেন নামে বাংলাদেশ রাষ্ট্র ও সরকারবিরোধী একটি প্রতিবেদন প্রচার করে এবং উক্ত প্রতিবেদন ইউটিউবেও ব্যাপকভাবে প্রচার করা হয়। যা পরদিন বিভিন্ন মুদ্রিত ও অনলাইন পত্রিকায় ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়েছে।

এজাহারে আরও বলা হয়- আসামিরা ওই প্রতিবেদনে কোনো সুনির্দিষ্ট ও সুস্পষ্ট কোনো বক্তব্য না দিয়ে এবং তথ্য-উপাত্ত বা দলিলাদি উপস্থাপন না করেই ষড়যন্ত্রমূলক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে শুধু কিছু ব্যক্তিগত পারিবারিক অনুষ্ঠানাদি ও সাক্ষাৎকারের ছবি ব্যবহার করে, কণ্ঠস্বর সম্পাদনা করে একটি কাল্পনিক ভুয়া, মিথ্যা ও সাজানো তথ্যচিত্রের প্রতিবেদন তৈরি করে তথ্যপ্রযুক্তির অপব্যবহারের মাধ্যমে আল জাজিরা টেলিভিশনসহ ইউটিউবের মাধ্যমে সমগ্র বিশ্বে অপপ্রচার করেছে। যা দেশে-বিদেশে বাংলাদেশ সরকার ও রাষ্ট্রের সুনাম এবং মর্যাদার হানি ঘটিয়েছে। এ কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আসামিরা বাংলাদেশের দণ্ডবিধির ১২৪/১২৪(এ)/১০৯/৩৪ ধারায় অপরাধ করেছে।

নিউজ ট্যাগ: আল জাজিরা
Share

আরও খবর
অবশেষে জামিন পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোর

বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১




আমরা চাই সুষ্ঠুভাবে ভ্যাকসিন নেওয়া হোক: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই সুষ্ঠুভাবে ভ্যাকসিন নেওয়া হোক। আমরা বিভিন্ন রকমের জায়গা তৈরি করে দিয়েছি। এই সুন্দর পরিবেশ আমরা তৈরি করেছি

দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে জাতীয় পর্যায়ে চলমান ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রমে কেন্দ্রে গিয়ে নিবন্ধনের সুবিধা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহীদের আগে থেকেই সুরক্ষা (https://surokkha.gov.bd/) ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিবন্ধন করতে হবে। এরই মধ্যে এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন। তিন লাখের বেশি মানুষ এরইমধ্যে ভ্যাকসিন নিয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতর আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রত্যন্ত এলাকার মানুষ, বিশেষ করে যাদের স্মার্টফোন নেই, তাদের জন্য ভ্যাকসিন প্রয়োগ কেন্দ্রে এসে নিবন্ধনের সুযোগ রেখেছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। কিন্তু নিবন্ধন না করে অনেকেই ভ্যাকসিন নিতে আসায় বিভিন্ন কেন্দ্রে অতিরিক্ত ভিড় তৈরি হচ্ছে।

ভ্যাকদিন প্রয়োগ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে চালাতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই সুষ্ঠুভাবে ভ্যাকসিন নেওয়া হোক। আমরা বিভিন্ন রকমের জায়গা তৈরি করে দিয়েছি। এই সুন্দর পরিবেশ আমরা তৈরি করেছি। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে যারা অনস্পট রেজিস্ট্রেশন করছেন, তাদের সংখ্যাই বেশি। আর যারা রেজিস্ট্রেশন করছেন, তারাই ঢুকতে পারছেন না। বয়স্ক লোকেরা যাচ্ছেন, তাদের কষ্ট হচ্ছে। যারা ভ্যাকসিন দিচ্ছেন, সেই ডাক্তার-নার্সদের কষ্ট হচ্ছে। আমরা এই পরিস্থিতি চলতে দিতে চাই না। রেজিস্ট্রেশন যেহেতু সফলভাবে চলছে, ১০ লাখের বেশি রেজিস্ট্রেশন হয়েও গেছে, এ কারণে অনস্পট রেজিস্ট্রেশন আর করব না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, এখন থেকে যারা নিবন্ধন করে আসবেন, শুধু তাদেরই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। ভবিষ্যতে যদি ভ্যাকসিন প্রয়োগ কেন্দ্রে নিবন্ধনের প্রয়োজন পড়ে, তখন আবার সেটি বিবেচনায় নিয়ে জানানো হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে অনেক সমালোচনা ছিল। তবে এখন আর কোনো সমালোচনা নেই। মানুষের ভ্যাকসিন নেওয়ার আগ্রহ অনেক বেড়েছে। আমি এখন দেখছি যেসব জায়গায় আগে ভিড় কম ছিল, এখন অনেক ভিড়। অনেক লোক যাচ্ছে, মানুষের কনফিডেন্স বাড়ছে। ভ্যাকসিন নিয়েও নানা কথাবার্তা ছিল। মানুষের সমস্ত কথাবার্তা ভুল প্রমাণিত করে, সবার কথার তোয়াক্কা না করে এখন সবাই ভ্যাকসিনের ওপরে আস্থা নিয়ে ভ্যাকসিন নিতে যাচ্ছে।

Share

আরও খবর



না ফেরার দেশে এইচ টি ইমাম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
১৯৩৯ সালে জন্মগ্রহণকারী এইচ টি ইমামের বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। দেশের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ সচিব তিনি। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা হোসেন তৌফিক  ইমাম (এইচ টি ইমাম) আর নেই। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) গতকাল বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ১টায় তাঁর মৃত্যু হয়। কিডনি জটিলতাসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন অসুস্থতা নিয়ে প্রায় মাসখানেক আগে এইচ টি ইমাম সিএমএইচে ভর্তি হন।

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ১টায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া।

১৯৩৯ সালে জন্মগ্রহণকারী এইচ টি ইমামের বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। দেশের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ সচিব তিনি। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন তিনি। ২০১৪ সাল থেকে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন হোসেন তৌফিক ইমাম। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় এইচ টি ইমাম প্রবাসী সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এইচ টি ইমাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। পরবর্তীকালে তিনি লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিকস থেকে উন্নয়ন প্রশাসনে ডিগ্রি লাভ করেন।

Share

আরও খবর



হাসবেন্ডকে ঘর জামাই করে রাখতে চান সারা

প্রকাশিত:বুধবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বলিউড অভিনেত্রী সারা আলি খানের জীবনের বেশির ভাগ সময় মা অমৃতা সিংহের সাথে কেটেছে। সাইফ আলি খানের সঙ্গে অমৃতার যখন বিচ্ছেদ হয়, সারার বয়স তখন মাত্র ৯ বছর। এর পর মায়ের আদর্শেই ধীরে ধীরে বেড়ে ওঠেন এ অভিনেত্রী।

মাকে একা রেখে কোথাও যেতে রাজি নন সারা আলি খান। এমনকি বিয়ের পরেও মায়ের সাথেই থাকতে চান এ অভিনেত্রী। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি সারা জীবন আমার মায়ের সাথে থাকবো বলে ঠিক করেছি। এই কথাটি বললে মা আমার ওপর রেগে যায়। কারণ আমার বিয়ে নিয়ে অনেক কিছু ভেবে রেখেছে সে। কিন্তু বিয়ের পরেও তো মা আমার সাথে এসে থাকতে পারে, তাই না?

মা যেমন সবচেয়ে ভালো বন্ধু ঠিক তেমনই মাকে যমের মতো ভয় পান সারা। তার কথায়, মায়ের সাথে সময় কাটাতে আমার খুব ভালো লাগে। কিছুদিনের জন্য দূরে গেলেও মাকে মিস করি। মায়ের থেকে আমি কিছু লুকিয়ে রাখি না। কিন্তু আবার মাকেই সব থেকে বেশি ভয় পাই।

পরিবারের সাথে নিজেকে সবসময় জড়িয়ে রাখেন সারা আলি খান। ব্যস্ত রুটিনে সামান্য ফাঁক পেলেই মা এবং ভাই ইব্রাহিম আলি খানের সাথে সময় কাটান এ অভিনেত্রী।

নিউজ ট্যাগ: সারা আলি খান
Share

আরও খবর
মা হচ্ছেন শ্রেয়া ঘোষাল

বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১




মা আ.লীগ করায় খালেদা জিয়াকে মা ডাকেন ছাত্রদল নেতা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | ১১০জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বেবি ইয়াছমিনের ছেলে এম রিফাত বিন জিয়াকে। তাঁকে পদ দেওয়ায় নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে তোলপাড় চলছে। তবে পদ বাঁচাতে রিফাতের দাবি, আওয়ামী লীগ করায় তিনি নিজের মাকে মা বলে ডাকেন না।

২৪ ফেব্রুয়ারি ২১ সদস্যের এই আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। কমিটি ঘোষণার পরই তোপের মুখে পড়েন আহ্বায়ক এম রিফাত বিন জিয়া। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২১ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটির ১৪ জনই পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে এক বিবৃতিতে রিফাত বলেন, 'আমার মা আ.লীগের রাজনীতিতে জড়িত হওয়ার কারণে আমি মা ডাকা থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছি। বিএনপি চেয়ারর্পাসন বেগম খালেদা জিয়া এখন আমার মা। জিয়া পরিবার আমার পরিবার।

রিফাত বিন জিয়া আরো জানান, ১৯৭৯ সাল থেকে আমার বাবা বিএনপি রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত থাকার কারণে এরশাদবিরোধী আন্দোলনের সময় একাধিক বার কারাবরণ করেছিলেন তিনি। নবগঠিত সরাইল উপজেলা ছাত্রদলকে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল করতে আমাকে নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, দীর্ঘ ১২ বছর ধরে ছাত্রদলের রাজনীতিতে সক্রিয় আছি। ২০১৮ সালে পাকশিমুল ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম।

আজ কেন এতো প্রশ্ন? তিনি মনে করেন তার মত যোগ্য নেতৃত্বে আসলে ভয় পাওয়া স্বাভাবিক। এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার করা হচ্ছে। তিনি মিথ্যা অপপ্রচারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। পাশাপাশি রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার ঘোষণা দেন।

Share

আরও খবর