আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

বছরের শুরুতে জন আব্রাহামের ‘বেদা’র ফার্স্ট লুকেই চমক

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

নতুন বছরের শুরুতেই ভক্তদের চমক দিলেন বলিউড অভিনেতা জন আব্রাহাম। নিজের পরবর্তী ছবি বেদা নিয়ে আসছেন এই অ্যাকশন হিরো। বেদার দুটি ছবি প্রকাশ করেছেন জন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা ছবির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ওর ত্রাতার প্রয়োজন ছিল, পেল অস্ত্র।

পোস্ট করা ছবির একটিতে দেখা যাচ্ছে বলিউডের এক উদীয়মান নায়িকাকে। তিনি বলিউডের নতুন বাবলি শর্বরী ওয়াঘ। বান্টি অউর বাবলি ২ সিনেমায় রানি-সাইফের পাশাপাশি নজর কেড়েছিলেন মহারাষ্ট্রের এই মেয়ে। বাজিরাও মস্তানি, সনু কে টিটু কি সুইটি সিনেমায় সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন শর্বরী। তার পর শুরু করেন অভিনয়। আমাজন প্রাইমের ওয়েব সিরিজ দ্য ফরগটেন আর্মি: আজাদি কে লিয়েতে দেখা গিয়েছিল শর্বরীকে। তার পরই বান্টি অউর বাবলি ২তে সুযোগ পান।

বেদা সিনেমায় শর্বরীকে বেশ লড়াকু মেজাজেই দেখা যাবে। যার মেন্টর হিসেবে দেখা যাবে জনকে। জন-শর্বরী ছাড়াও এই ছবি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

নিউজ ট্যাগ: জন আব্রাহাম

আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




জীবন ঝুঁকিতে ইমরানের স্ত্রী বুশরা বিবি

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের স্ত্রী বুশরা বিবির স্বাস্থ্যের গুরুতর অবনতি হয়েছে এবং বর্তমানে তিনি জীবন ঝুঁকিতে রয়েছেন বলে দাবি করেছেন বুশরা বিবির ছোট বোন মরিয়ম রিয়াজ ওয়াত্তু।

ওয়াত্তুর অভিযোগ, গৃহবন্দি বুশরা বিবির স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কোনো চিকিৎসককে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। সেই সঙ্গে কারা কর্তৃপক্ষের দেওয়া খাবারে বিষাক্ত কিছু ছিলো বলেও সন্দেহ করছেন তিনি।

আলোচিত তোশাখানা দুর্নীতি মামলায় ইমরান খানের সঙ্গে বুশরা বিবিও ১৪ বছর করাবাসের সাজা পেয়েছেন। রাজধানী ইসলামাবাদের আবাসিক এলাকা বানি গালায় নিজেদের বাসভবনে গৃহবন্দি অবস্থায় আছেন তিনি।

মরিয়ম রিয়াজ ওয়াত্তু বর্তমানে দুবাইয়ে শিক্ষাবিদ হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। বৃহস্পতিবার এক টুইটবার্তায় তিনি জানান, কয়েক দিন আগে বুশরার প্রথম পক্ষের মেয়ে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন।

সে (বুশরার মেয়ে) আমাকে জানিয়েছে যে, ৬ দিন আগে কারা কর্তৃপক্ষের দেওয়া খাবার খাওয়ার পর গলা এবং পাকস্থলিতে ব্যাপক জ্বালাপোড়া অনুভব করছেন বুশরা। তারপর থেকে কিছুই খেতে পারছেন না তিনি; ফলে শারীরিকভাবে খুবই দুর্বল ও অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

আমার বোনের ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ বা অন্য কোনো শারীরিক সমস্যা নেই। যখন (তোশাখানা মামলায়) তাকে গ্রেপ্তার করা হয়, তখন তার শারীরিক অবস্থা খুবই ভালো ছিল; কিন্তু অসুস্থ হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কোনো চিকিৎসক ডাকেনি আদিয়ালা কারা কর্তৃপক্ষ।

আমার বোন এবং আমরা ভয় পাচ্ছি যে, এভাবে ধীরে ধীরে তাকে অসুস্থ করা হবে এবং পরে এক সময় ঘোষণা করা হবে যে শারীরিক অসুস্থতা ও মানসিক অবসাদে ভুগে তিনি মারা গেছেন; কিন্তু তিনি আমাদের কাছে বার্তা পাঠিয়েছেন যে তার বিশ্বাস এখনও দৃঢ় রয়েছে, আলহামদুল্লিাহ এবং আমাদের জাতির মুক্তির জন্য তিনি সব সহ্য করতে রাজি আছেন।

আমাদের দাবি, অবিলম্বে বুশরা ইমরান খানের স্বাস্থ্যের মেডিকেল পরীক্ষা করানো হোক এবং আমাদের পছন্দ অনুযায়ী কোনো একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হোক। কারা কর্তৃপক্ষের মনোনীত ডাক্তররা যদি এক্ষেত্রে আমাদের সঙ্গে থাকেন, আমাদের আপত্তি নেই। আমি এ ইস্যুতে পাকিস্তানের বিচার বিভাগের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

ইমরান খানের তৃতীয় স্ত্রী বুশরা বিবির জন্ম ১৯৪৯ সালে, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের ওয়াত্তু পরিবারে। এই পরিবারটি পাঞ্জাবের অন্যতম জমিদার পরিবার।

১৯৮৯ সালে কাস্টমস কর্মকর্তা খাওয়ার ফরিদ মানেকার সঙ্গে বিয়ে হয় বুশরার। এই দম্পতির ঘরে তিন মেয়ে এবং দুই ছেলে রয়েছে। ২০১৮ সালে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে মানেকা-বুশরা দম্পতির। তারপর ওই বছরই ইমরান খানের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি।

খাওয়ার ফরিদ মানেকার পরিবারের সদস্যরা পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএলএন) এবং পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। তবে মানেকা-বুশরা দম্পতির মেজো মেয়ে মেহেরু মানেকা পিটিআইয়ের একজন সক্রিয় কর্মী। ধারণা করা হচ্ছে, দুবাইয়ে তিনিই মরিয়ম রিয়াজ ওয়াত্তুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন।


আরও খবর



ফেসবুকে কমেন্ট করায় যুবক খুন

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
যশোর প্রতিনিধি

Image

যশোরে আকাশ হোসেন (২৮) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে স্থানীয় দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে শহরের শংকরপুর বটতলা মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। তিনি ঐ এলাকার তোতা মিয়ার ছেলে।

নিহত আকাশের স্ত্রী জানান, ফেসবুকে একটি পোস্টে কমেন্ট করা নিয়ে একই এলাকার তানভিরের সঙ্গে তার বিরোধ চলে আসছিল। তানভির তার স্বামী আকাশকে হোয়াটাসঅ্যাপে হত্যার হুমকি দেয়। রাতে তাকে ফোন কলে ডেকে নিয়ে এসে সাব্বির ও তানভিরসহ ১০ থেকে ১২ জন তাকে মারধর ও ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাইফুর রহমান জানান, তাকে রাত ১টা ৩৫ মিনিটে হাসপাতালে আনা হয়। পরীক্ষা নিরীক্ষা করে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের গলায় ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে পৌঁছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের নাম-পরিচয় জেনে অভিযানে মাঠে নেমেছে। আসামিদের আটকে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।


আরও খবর



টসের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার, ভারত মাঠে না ফিরলে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় আসরের ফাইনালে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ-ভারত। ম্যাচের শুরুতে ভারত এগিয়ে যাওয়ার পর নির্ধারিত সময়ের অতিরিক্ত মিনিটের গোলে ম্যাচে সমতা ফেরায় বাংলাদেশ। তাতে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। যেখানে ১১-১১ টাইব্রেকারে সমতা হলে টসের মাধ্যমে ফল নির্ধারিত হয়।

টসে বাংলাদেশকে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতে ভারত। এরপরই টসের নিয়ম ঘিরে নাটকীয়তা শুরু হয়। শেষ পর্যন্ত ফলাফল স্থগিত করে টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষ। এতে আবারও মাঠে নামতে যাচ্ছে দুই দল। যদিও বাংলাদেশ ম্যাচের পর থেকেই মাঠে অবস্থান করছে। আর ভারত মেতেছিল শিরোপা উদযাপনে।

ম্যাচ স্থগিত করার পর রেফারি জানিয়েছে ৩০ মিনিটের মধ্যে ভারতকে মাঠে নামতে হবে। এই সময়ের মধ্যে সিদ্ধান্ত মেনে মাঠে না নামলে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করবে ম্যাচ রেফারি।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) কমলাপুর স্টেডিয়ামে সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী চ্যাম্পিয়নশীপের ফাইনালে ভারত ১-০ গোলে এগিয়ে। ৯০ মিনিটের খেলা শেষ। ভারতের শিরোপা উদযাপনের অপেক্ষা। সেই মুহূর্তে সাগরিকা গোল করে বাংলাদেশকে ম্যাচ ফেরান।

রেফারি চার মিনিট ইনজুরি সময় দেন। ৩ মিনিটে আফিদা খন্দকারের থ্রো ইন থেকে বাংলাদেশের সাগরিকা বক্সের আগে জটলায় বলের নিয়ন্ত্রণ নেন। নিজ প্রচেষ্টায় বক্সে বল নিয়ে কোনাকুনি শটে গোল করেন সাগরিকা। যার গোলে বাংলাদেশ প্রথম পর্বের ম্যাচে ভারতকে হারিয়েছিল।

টুর্নামেন্টের বাইলজ অনুযায়ী নির্ধারিত সময় সমতা থাকলে খেলা সরাসরি টাইব্রেকারে গড়ায়। সেখানেও ১১-১১ এ সমতা হয়। এরফলে টসের মাধ্যমে বিজয়ী নির্ধারণ করা হয়। টস ভাগ্যে জয় হয় ভারতের। হারের পর এই টস নিয়ে অসন্তোষ ছিল বাংলাদেশি খেলোয়াড়দের মধ্যে।


আরও খবর



শেষ ছুটির দিনে জমজমাট বইমেলা

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

শনিবার ছিল এবারের বইমেলার শেষ ছুটির দিন। এদিন জমজমাট বইমেলায় শিশু প্রহর ছিল আগ্রহের অন্যতম কেন্দ্র। সিসিমপুরের পরিবেশনা শেষে বিভিন্ন স্টল ঘুরে বই কেনে ক্ষুদে পাঠকরা। অভিভাবকরা বলছেন, প্রযুক্তিনির্ভর সময়ে শিশুদের বই পড়ায় আগ্রহী করে তুলতে বইয়ে নতুনত্ব আনা প্রয়োজন।

কয়েক বছর ধরেই বইমেলায় শিশু প্রহর নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ শিশুদের। সিসিমপুরের জনপ্রিয় চরিত্র হালুম, ইকরি, শিকু ও টুকটুকির সাথে হৈ-হুল্লোড়ে মাতে শিশুরা। এবারের মেলার শেষ শিশুপ্রহরেও ব্যতিক্রম দেখা যায়নি।

শিশু চত্বরে নানা রঙের বইয়ের পসরা সাজিয়েছেন প্রকাশকেরা। হাজারো রঙিন বইয়ের মধ্যে সন্তানকে কী বই পড়তে দেবেন, তা নিয়েও কিছুটা বিভ্রান্তিতে অভিভাবকরা।

কোনো কোনো অভিভাবক প্রশ্ন তুলছেন বইয়ের মান নিয়ে। তারা বলছেন, চমকপ্রদ মলাটে বই ছাপালেও খুব একটা বৈচিত্র্য নেই, বইয়ের বিষয়বস্তুতেও নেই নতুনত্ব।

তাদের মতে, বর্তমানে শিশুরা দৃশ্যনির্ভর জগতে বাস করে। তাই যুগের সাথে তাল মিলিয়ে বৈচিত্র্যপূর্ণ বই প্রকাশ করতে প্রকাশকদের প্রতি আহ্বান তাদের।

বেশিরভাগ স্টলেই দেখা গেছে কমিকস বই, বর্ণমালা, ধারাপাত, রূপকথা বা গোয়েন্দা গল্পের বইয়ের প্রাধান্য। এদিকে প্রতিবারের মতো এবারও তরুণ লেখকদের গল্প, কবিতা, উপন্যাস, বিজ্ঞান, অনুবাদ সাহিত্যসহ বিভিন্ন বইমেলায় সাড়া ফেলেছে।

জমে উঠেছে বাঙালির প্রাণের মেলা অমর একুশে বইমেলা। যেখানে একটা বড় অংশ জুড়েই থাকেন তরুণ পাঠক ও সাহিত্যিকরা। বরাবরের মতোই এবারও তরুণ লেখকদের উল্ল্যেখযোগ্য বই এসেছে।

প্রকাশকরা বলছেন, তরুণদের বইও ভালো বিক্রি হচ্ছে। তবে লেখার মান উন্নয়নে তাগিদ দিচ্ছেন তারা। তরুণ লেখকদের অভিযোগ-অনেক ক্ষেত্রে সুযোগ পাচ্ছেন তারা। লেখার গুনগন মান যাচাইয়ে প্রকাশকদের কাছে সহাযোগিতা চান নবীনরা।

এর আগে ১৫ ফেব্রুয়ারি দীর্ঘ প্রতীক্ষা ও টানাপোড়েনের পর উদ্বোধন করা হয় ৩৮তম অমর একুশে বইমেলার। ওই দিন বিকেলে গণভবন থেকে ভার্চ্যুয়ালি বইমেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার-২০২১ প্রদান করেন।

এবারের অমর একুশে বইমেলা২০২২ এর মূল প্রতিপাদ্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় মেলাকে ভিন্ন মাত্রা দিয়েছে।


আরও খবর
একুশে বইমেলার সময় বাড়লো ২ দিন

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ফাগুন জেগেছে জীর্ণ ধরায়, বিশ্ব মেতেছে ভালোবাসায়

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ঋতুরাজ বসন্তের আগমনে নিষ্পত্র শাখায় এখন নবীন কিশলয়। অজস্র পলাশ, শিমুল, কৃষ্ণচূড়ার রক্তিম আভায় বৃক্ষরাজি হয়ে উঠেছে আগুনরঙা। তার আঁচ লেগেছে মনেও। সেই আঁচ আরও বাড়িয়ে দিয়েছে ভালোবাসা দিবস আর সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উৎসব সরস্বতী পূজো। সব মিলিয়ে আজ আনন্দ-উৎসবে মাতোয়ারা হবে সারাদেশ। অমর একুশে বইমেলায় আজ ঢল নামবে বাসন্তী সাজে যুগলদের। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলায় আজকের উৎসব উদযাপনে উঠে আসবে আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহী রূপ। ভালোবাসা দিবস ও বসন্তকালকে বরণ করে নিতে রাজধানীতে আজ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজনের সাথে থাকবে সরস্বতী পূজোর আয়োজনও।

মধুমাস চৈত্রের ঋতু বসন্ত। মধ্যযুগের কবি মুকুন্দরাম চক্রবর্তী বলেছেন, মধুমাসে মলয় মারুত মন্দ মন্দ। মালতীর মধুকর পিয়ে মকরন্দ। অর্থাৎ- মধুমাসে মৃদুমন্দ বাতাস বয়, মৌমাছিরা ফুলের মধু খায়। প্রকৃতির মতো মানুষের মনেও এ সময় নতুন করে জাগে আনন্দভাব। এ ভাব প্রণয়ের। বৈষ্ণব পদাবলিতে বিদ্যাপতি, চণ্ডীদাসের মতো কবিরা এ ঋতু ঘিরে প্রেমরসের কবিতা লিখেছেন।

বসন্ত ভালোবাসার ঋতু। অনুভব আর আবেগের ঋতু। পশ্চিমের ভ্যালেনটাইনস ডে বা ভালোবাসা দিবসের ধারণা এসে মিলেছে আমাদের বসন্তে। বাংলা একাডেমি পঞ্জিকা সংশোধনের পর এখন পহেলা ফাল্গুন আর ভালোবাসা দিবস একই দিনে উদযাপিত হয়।

বসন্ত শুধু প্রেমের ঋতুই নয়। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে বাঙালির দ্রোহের ইতিহাসও। এমনই এক বসন্তে বাঙালি ভাষার জন্য আন্দোলন করেছিল। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি দিনটি ছিল ৮ ফাল্গুন। সেদিন মাতৃভাষার মর্যাদা রাখতে জীবন দিয়েছিলেন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার, শফিউর। ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই এসেছিল বাষট্টির শিক্ষা আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান, একাত্তরের অসহযোগ আন্দোলন আর ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধ। সেদিক থেকে দেখতে গেলে বসন্তে রোপিত হয়েছিল বাংলাদেশের জন্মের বীজ। তেমনি আশির দশকে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন চূড়ান্ত রূপ নিয়েছিল এক বসন্তে। ১৯৮৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রাণ দিয়েছিলেন জাফর, জয়নাল, মোজাম্মেল, আইয়ুব, কাঞ্চন, দিপালীরা। সেই আন্দোলনের পথ বেয়ে নব্বইয়ে বাংলাদেশ পেয়েছিল গণতন্ত্রের স্বাদ।

বরাবরের মতো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ, টিএসসি, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নামবে তারুণ্যের ঢল। প্রেম ও বিদ্রোহের মিশেলে দিনটিকে বরণ করতে শাহবাগের ফুলের দোকান আর আজিজ মার্কেটের শাড়ি ও পাঞ্জাবির দোকানে গত কয়েক দিন ধরে দেখা গেছে ভিড়। ফুল, কার্ড, চকলেট বিনিময়ের পাশাপাশি কবিতা ও ছন্দমিশ্রিত বার্তায় আজ ভরে যাবে মুঠোফোনের ইনবক্স; ফেসবুক এবং হোয়াটসঅ্যাপে থাকবে গহিন পরানের উষ্ণতা। টিএসসি, চারুকলা, শিল্পকলা একাডেমি, রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, বলধা গার্ডেন, বেইলি রোডের ফাস্টফুডের দোকান, ধানমন্ডি লেক ও রবীন্দ্র সরোবরে ছড়িয়ে থাকবে ভালোবাসা ও বসন্তের মিছিল। রাজধানীর বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা আয়োজনে আজ বসন্ত উদযাপন করবে। এবারের বসন্ত নতুন জীবনীশক্তিতে প্রকৃতি ও প্রাণকে ভরিয়ে তুলুক। বসন্তের দোলা লাগুক বনে, মনে। উল্লসিত মন গেয়ে উঠুক-

ফাগুন জ্বেলেছে দারুণ আগুন

ছাইয়ের মধ্যে জেগেছে প্রাণ,

আমার হৃদয় পলাশ রেঙেছে

জীবন বাঁধন হয়েছে ম্লান।


আরও খবর
২৯ ফেব্রুয়ারি: ইতিহাসের এই দিনে

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আজকের রাশিফল: বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪