আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

বেনাপোলে এক লাফে বেড়েছে দ্বিগুন পেঁয়াজের দাম

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
এম এ রহিম, বেনাপোল (যশোর)

Image

আবারও ভারত বাংলাদেশে ৩মাসের জন্য পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। এর ফলে যশোরের শার্শা ও বেনাপোলে একলাফে পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেছে দ্বিগুন। ইচ্ছামত দাম নিচ্ছেন ব্যাবসায়িরা। রাতারাতি গুদামগুলো থেকে পেঁয়াজ গায়েব করে দিয়েছে অসাধু ব্যাবসায়িরা।

ফলে ক্রেতাদের মধ্যে বাড়ছে নাভিশ্বাস। ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি পেঁয়াজ। দাম আরো বাড়াবে বলে জানান বিক্রেতারা।

ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে বন্যাসহ বিভিন্ন কারণে পেঁয়াজের দাম যায় বেড়ে। ফলে মসল্লার দাম নিয়ন্ত্রণে রাখাতে বৃহস্পতিবার থেকে আগামী মার্চ পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির সরকার। তবে প্রয়োজনে কেন্দ্রীয় সরকার রপ্তানির সুযোগ দিতে পারবে বলেও দেশটির ডিরেক্টরেট জেনারেল অব ফরেন ট্রেডের (ডিজিএফটি) আদেশে জানান হয়েছে। পূর্বের এলসির পেঁয়াজ ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত রফতানিতে থাকছে শিথিলতা।

গত অগাস্টে পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর ৪০ শতাংশ শূল্ক আরোপের মধ্য দিয়ে বিধিনিষেধ আরোপ শুরু করে ভারত। এরপর ২৮ অক্টোবর পেঁয়াজের ন্যূনতম রপ্তানি মূল্য প্রতি টন ৮০০ ডলারে বেঁধে দিয়ে আদেশ জারি করে ভারতের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়। যা ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত কার্যকর হওয়ার কথা ছিল।

এর মধ্যেই বৃহস্পতিবার জানানো হয়, ন্যূনতম রপ্তানিমূল্যের ওই সীমা আরও তিন মাস, অর্থাৎ মার্চ পর্যন্ত বহাল থাকবে। এরপর রপ্তানিই বন্ধ করার ঘোষণায় বাংলাদেশে দাম যায় বেড়ে।

পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় অনেকে পেঁয়াজ না কিনে খালি হাতে ফিরছে বাড়ীতে। বাজার মনিটরিংয়ের দাবী জানান তারা। ক্রেতা মফিজুর ও গোলাপ বেগম বলেন নিত্য প্রয়োজনীয় মসল্লা পেঁয়াজ। হঠাৎ রফতানি বন্ধসহ দাম বৃদ্ধিতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন তারা।

বিক্রেতা মশিশার রহমান ও মোমিন উদ্দিন বলেন, বেশীদামে মোকাম থেকে কিনতে হচ্ছে পেঁয়াজ। বড় বড়ৎ ব্যাবসায়িরা রাখি করে বাজারে ছাড়ছে না পেঁয়াজ। এজন্য বাড়ছে দাম। দেশি পেঁয়াজ বাজারে সরবরাহ বাড়লে ১৫দিনের মধ্যে দাম কমার আশা ব্যাবসায়িদের।

বেনাপোল স্বলবন্দর পরিচালক রেজাউল করিম জানান, ১ মাসের মধ্যে বন্দরে আসেনি কোন পেঁয়াজ। তবে ভোমরা দর্শনাপোর্ট দিয়ে পেঁয়াজ বেশী আমদানি হয়ে থাকে। দেশীয় পেঁয়াজ আমদানি বাড়লে দাম কমার আশা করেন তিনি।

এদিকে রাতারাতি আসাধু ব্যাবসায়িরা পেঁয়াজের দাম বাড়ালেও প্রশাসনের কোন নজরদারী না থাকায় ক্ষুদ্ধ ক্রেতারা।


আরও খবর



মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীদের হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
কক্সবাজার প্রতিনিধি

Image

মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাতের জেরে বাংলাদেশে ঢুকে পড়া দেশটির সেনা, সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্য (বিজিপি), শুল্ক কর্মকর্তাসহ ৩৩০ জনকে ফেরত পাঠানো প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) ভোরে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্ত থেকে বিজিবির কড়া পাহারায় কক্সবাজারের ইনানী নৌবাহিনীর জেটিঘাটে তাদের নিয়ে আসা হয়।

বিজিবির সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, বিজিবির সার্বিক তত্ত্বাবধানে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করার কথা রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে মিয়ানমারের নৌবাহিনীর একটি জাহাজ বাংলাদেশের সীমানায় এসে গভীর সাগরে অবস্থান নেয়। ইনানী জেটিঘাট থেকে পালিয়ে আসা বিজিপি সদস্য এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের ওই জাহাজে নিয়ে গিয়ে হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে গত ২ ফেব্রুয়ারি রাত থেকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সীমান্তের ওপারে বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সঙ্গে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির সংঘর্ষ শুরু হয়। যুদ্ধের মধ্যে বিদ্রোহীরা বিজিপির কয়েকটি সীমান্ত ফাঁড়ি দখল করে নিলে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা ৪ ফেব্রুয়ারি সকাল থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে শুরু করে। এ সময় তাদের নিরস্ত্র করে বিজিবি হেফাজতে রাখা হয় ঘুমধুমের একটি স্কুলে। পরে তাদের মধ্যে ১০০ জনকে সরিয়ে নেওয়া হয় টেকনাফে।

এর মধ্যেই বাংলাদেশের তরফ থেকে মিয়ানমারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয় দেশটি।


আরও খবর



শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে আসছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিন সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

আজ মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর সফর নিয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হচ্ছে।

জার্মানির মিউনিখে তিন দিনের সরকারি সফর শেষে গতকাল সোমবার সকালে দেশে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ করে টানা চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পর এটাই ছিল তার প্রথম সরকারি বিদেশ সফর। ১৫ ফেব্রুয়ারি তিনি মিউনিখে যান।

জার্মানিতে অবস্থানকালে প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন; পাশাপাশি বিশ্বনেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

শেখ হাসিনা জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎজ, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি, নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট, আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ, কাতারের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আলথানি ও ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মিতে ফ্রেডিরিকসেনের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর, যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ ও উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন এবং জার্মানির ফেডারেল অর্থনৈতিক সহযোগিতা ও উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রী সভেনজা শুলজেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

মিউনিখের বার্গারহাউস গার্চিং হোটেলে জার্মানি ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেওয়া সংবর্ধনায়ও যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর
জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ মৃত্যু

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে হাছান মাহমুদের বৈঠক

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বুধবার (৭ ফেব্রুয়া‌রি) সন্ধ্যায় দিল্লির হায়দরাবাদ হাউসে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শে‌ষে সামা‌জিক যোগা‌যোগমাধ্যম এক্সে একটি পোস্ট করেছেন জয়শঙ্কর। যেখানে ড. হাছান মাহমুদকে স্বাগত জা‌নিয়ে তিনি লি‌খেছেন, আমাদের আজকের আলোচনা ভারত-বাংলাদেশের মৈত্রীকে শক্তিশালী করবে।

এর আগে দিল্লির সরদার প্যাটেল ভবনে ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গে বৈঠক করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ওই বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মন্ত্রী বলেন, উন্নয়ন ও অগ্রগতির স্বার্থে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও শান্তি বজায় রাখা প্রয়োজন এবং সে বিষয়ই সফরে প্রাধান্য পাচ্ছে।

মিয়ানমার ইস্যু নিয়ে এ সময় মন্ত্রী জানান, রোহিঙ্গাদের পূর্ণ অধিকারসহ তাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে পুনর্বাসন এবং মিয়ানমারে চলমান পরিস্থিতি নিয়েও একযোগে কাজ করার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের আমন্ত্রণে প্রথম দ্বিপাক্ষিক সফরে রয়েছেন হাছান মাহমুদ। মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে দিল্লির উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেন তিনি। সফরে বৃহস্পতি ও শুক্রবার বিবেকানন্দ ফাউন্ডেশনে বক্তৃতা এবং একাধিক দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের কথা রয়েছে মন্ত্রীর।


আরও খবর
জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ মৃত্যু

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল থেকে পাঁচ দালাল আটক

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

Image

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীদের দালাল চক্রের হাতে জিম্মি হয়ে হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে। বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালের হয়ে দালালরা রোগীদের সদর হাসপাতাল থেকে ভাগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন।

দালালদের এমন উৎপাতের কারণে বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) হাসপাতাল প্রাঙ্গণ থেকে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) লক্ষ্মীপুর কার্যালয়ের সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ৯ জনকে আটক করে।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাদের সোপর্দ করা হয়।এদের মধ্যে ৫ জন দোষী সাবস্ত হওয়ায় তাদের প্রত্যেকের ১০ দিন করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক। তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ওমর ফারুক (২৭), আমিনুল (২৩), রহমান আল আজাদ (৩৭), সুজন (২৩) ও আকরাম হোসেন (২৭)।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ক্যথোয়াইপ্রু মারমা।

তিনি বলেন, ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে ৫ জন দোষী সাবস্ত হয়েছে। তারা নিজেদের দোষ স্বীকার করেছে। তাদের প্রত্যেকের ১০ দিন করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, প্রান্তিক জনগণ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে এসে এদের হাতে বিভিন্ন ভাবে হয়রানির শিকার হতে হয়। যা আইনত অপরাধ।

নিউজ ট্যাগ: লক্ষ্মীপুর

আরও খবর



বিশ্ব ইজ‌তেমায় আরও এক মুস‌ল্লির মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
গাজীপুর প্রতিনিধি

Image

গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগতীরে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব আজ শুক্রবার বাদ ফজর থেকে শুরু হয়েছে। এতে অংশ নিতে আসা আরো এক মুসল্লি মারা গেছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ইজতেমায় মৃত্যু বেড়ে চারজনের দাঁড়ালো।

শুক্রবার ভোররাতে এখলাস উদ্দিন (৭০) নামে ওই মুসল্লি বার্ধক্যজনিত কারণে ইজতেমা ময়দানে মারা যান। আব্দুস সাত্তার নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া থানার কুমরি বাজার গ্রামের বাসিন্দা।

জানা যায়, ভোর ৩টা ১৫ মিনিটে ইজতেমা ময়দানে নির্দিষ্ট খিত্তায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে এখলাস উদ্দিনকে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিশ্ব ইজতেমার মিডিয়া সেলের প্রধান মো. হাবিবুল্লাহ রায়হান মৃত্যুর সংবাদ নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে ইজতেমা ময়দানে হঠাৎ বমির পর অসুস্থতা অনুভব করেন আব্দুস সাত্তারব (৭০)। তাঁকে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে বুধবার ইজতেমায় এসে ও আসার পথে দুই মুসল্লি অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন। তাঁরা হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জের চৌহদ্দীটোলা গ্রামের জামান মিয়া (৪০) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানার ধামাউরা গ্রামের ইউনুছ মিয়া। তাঁদের টঙ্গী শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ডা. ফারহানা তাসনিম নিতু বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তাঁরা মারা যান।


আরও খবর