আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

বিএনপি করোনার চেয়েও ভয়াবহ ভাইরাসে আক্রান্ত : কাদের

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ এপ্রিল ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপি যে নেতিবাচক ভাইরাসে আক্রান্ত তা করোনার চেয়েও ভয়াবহ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি আজ রবিবার (৩ মার্চ) সকালে তার সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে একথা বলেন।

কাদের বলেন, করোনা মহামারিতে বিএনপি জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে ঘরে বসে মিডিয়ায় ঝড় তোলা আর সরকারের অন্ধ সমালোচনা ও মিথ্যাচারই করোনাকালে বিএনপির সফলতা বলে মনে করেন তিনি। তারা সরকারের কোনও উদ্যোগ চোখে দেখে না।

একবার লকডাউন নিয়ে অপপ্রচার, আবার করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে মিথ্যাচার, কখনো কখনে সরকারের ব্যর্থতা খোঁজা বিএনপির রোজনামচা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হয়েও দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নূন্যতম মূল্যবোধও তারা হারিয়ে ফেলেছে।

জনগণের সম্পদ বিনষ্ট আর নৈরাজ্য সৃষ্টির মাধ্যমে বিএনপি এবং তার সহযোগীরা যে তান্ডবলীলা চালিয়েছে তার জন্য বিএনপিকেই জনগণের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে বলে মন্তব্য করেন কাদের।

তিনি বলেন আন্দোলনের নামে জনগণের উপর প্রতিশোধ নেওয়াই এখন বিএনপির কৌশল।

যারা কথা দিয়ে কথা না রেখে দূরপাল্লায় দ্বিগুণ ভাড়া আদায় করছে, তাদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন দুর্যোগের মধ্যে জনগণের দুর্ভোগ বাড়াবেন না।

করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার দ্রুত বেড়ে যাওয়ায় সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা এবং মাস্ক পড়া জরুরি কর্তব্য বলে মনে করে সেগুলো পালন করার আহবান জানান তিনি।

কাদের বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সরকার ইতিমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে কিন্তু এখনো অনেকেই মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধির প্রতি অনিহা দেখাচ্ছে, যা প্রকারান্তরে ভয়াবহ পরিস্থিতি নিয়ে আসতে পারে। নিজেদের সুরক্ষায় সবাই সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করাই এখন মূল কাজ।

রমজান এলেই এক শ্রেণীর ব্যবসায়ী নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বাড়িয়ে দেয়, যা শাস্তি যোগ্য অপরাধ এবিষয়ে সংশ্লিষ্টদের উদ্দেশে করে বলেন অহেতুক মূল্য বৃদ্ধি ও মজুদদারিতা নিয়ন্ত্রণে সরকার সতর্ক রয়েছে।

করোনা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় আগামী সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউনের ঘোষণা আসতে পারে বলে জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।


আরও খবর



২৫ মার্চ রাতে ভবনে আলোকসজ্জা নয়

প্রকাশিত:সোমবার ২২ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ মার্চ ২০২১ | ৭৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসে রাত ৯টা থেকে ৯টা ১ মিনিট পর্যন্ত সারাদেশে প্রতীকী ব্ল্যাক আউট পালন করা হবে। তবে কেপিআই এবং জরুরি স্থাপনাগুলো এ কর্মসূচির আওতামুক্ত থাকবে।

এদিন রাতে সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত এবং বেসরকারি ভবন ও স্থাপনায় কোনো আলোকসজ্জা করা যাবে না।

আজ সোমবার (২২ মার্চ) সরকারি এক তথ্য বিবরণীতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ২৫ মার্চ রাতে সব সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত এবং বেসরকারি ভবন ও স্থাপনায় কোনো আলোকসজ্জা করা যাবে না। তবে ২৬ মার্চ সন্ধ্যা থেকে আলোকসজ্জা করা যাবে।

২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসের জাতীয় কর্মসূচি বাস্তবায়নে সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কর্মসূচিগুলো বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তথা সর্বসাধারণকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।


আরও খবর



নিয়মিত পর্নোগ্রাফি দেখতেন রফিকুল ইসলাম: পুলিশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ | ১৩৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মাদানী নিয়মিত পর্নোগ্রাফি ভিডিও দেখাসহ রাষ্ট্রবিরোধী নানা কার্যক্রম পরিচালনা করতেন। তার বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন

বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলে রফিকুল ইসলাম মাদানীর মোবাইল ফোনে আপত্তিকর এডাল্ট কনটেন্ট বা অশ্লীল ভিডিও পেয়েছে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার ইলতুৎমিশ মঙ্গলবার (১৩ এপিল) বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মাদানী নিয়মিত পর্নোগ্রাফি ভিডিও দেখাসহ রাষ্ট্রবিরোধী নানা কার্যক্রম পরিচালনা করতেন। তার বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২ এর ৮(৫) (ক) ধারা যুক্ত করা হবে।

এর আগে গত ৭ এপ্রিল নেত্রকোণার নিজ বাড়ি থেকে মাদানীকে আটক করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে গাজীপুরের গাছা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করে র‌্যাব। এরপর থেকে তিনি গাজীপুর জেলা হাজতে রয়েছেন।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি গত ২৫ জানুয়ারি হতে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে তার বক্তব্যের মাধ্যমে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে অপমান, হেয়প্রতিপন্ন ও মানহানিকর বক্তব্য প্রদান করেন। তার এসব বক্তব্যের ভিডিও ইউটিউব ও ইসলামিক জীবন নামের ফেসবুক পেইজ থেকে আপলোড করা হয়।


আরও খবর
হেফাজতের ২৩ মামলা তদন্তে সিআইডি

মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21




১ এপ্রিল থেকে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলবে ট্রেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | ৯১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
করোনাভাইরাসের প্রকোপ আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ায় যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখন প্রতিটি ট্রেনের ৫০ ভাগ টিকিট বিক্রি করা হবে

করোনার প্রাদুর্ভাব ফের বাড়তে থাকায় আগামী ১ এপ্রিল থেকে সব ট্রেনে ৫০ ভাগ যাত্রী পরিবহন করা হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ রেলওয়ের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের প্রকোপ আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ায় যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখন প্রতিটি ট্রেনের ৫০ ভাগ টিকিট বিক্রি করা হবে। যার ২৫ ভাগ কাউন্টারে এবং ২৫ ভাগ অনলাইনে বিক্রি করা হবে। আসনবিহীন কোনো টিকিট থাকবে না।

এ কারণে অযথা কাউন্টারে ভীড় না করার জন্য বলা হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। এতে আরও বলা হয়েছে, এ ছাড়া, যাত্রীদেরকে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। মাস্ক ছাড়া কোনো যাত্রীকে স্টেশনে প্রবেশ বা ট্রেনে ভ্রমণ করতে দেওয়া হবে না।

এর আগে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর গত বছরের মে মাসে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কারিগরি কমিটি স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন ও ট্রেনে যাত্রী পরিবহনের নির্দেশিকা জারি করে। এতে অর্ধেক আসন খালি রাখা, যাত্রীর শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা, প্রতিবার যাত্রার আগে বাস ও ট্রেন জীবাণুমুক্ত করা, চালক-শ্রমিকদের জীবাণুমুক্ত থাকাসহ ১৪ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল।


আরও খবর



উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে জর্ডান

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হঠাৎ করেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে জর্ডান। দেশটির সাবেক যুবরাজ হামজা বিন হুসেইন জানিয়েছেন, সরকারের সমালোচকদের ওপর দমনপীড়নের অংশ হিসেবে তাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। নিজের আইনজীবীর মাধ্যমে দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় এমন দাবি করেছেন তিনি।

কথিত অভ্যুত্থানচেষ্টার অভিযোগে বেশ কয়েকজন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাকেও গ্রেফতারের খবর পাওয়া গেছে। 'গৃহবন্দি' প্রিন্স হামজা বিন হোসেন জর্ডানের বর্তমান বাদশাহ দ্বিতীয় আবদুল্লাহ-এর সৎ ভাই। ভিডিও বার্তায় তার দাবি, সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তার বাড়ি থেকে বের হওয়া এবং কারও সঙ্গে যোগাযোগের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। দেশের নেতাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অযোগ্যতা এবং হয়রানির অভিযোগ তোলেন তিনি।

সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে অবশ্য প্রিন্স হামজাকে গৃহবন্দি রাখার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। তবে বাহিনীর একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রিন্স হামজাসহ উচ্চপদস্থ কয়েকজন কর্মকর্তা সামরিক অভ্যুত্থানচেষ্টার সঙ্গে জড়িত। এ ঘটনায় তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

জানা গেছে, সম্প্রতি দেশের উপজাতি নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাত করে তাদের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করেছিলেন প্রিন্স হামজা। এ ঘটনায় দেশটির সরকারের মধ্যে অভ্যুত্থানচেষ্টার আশঙ্কা জোরালো হয়। প্রতীয়মান হয় যে, বর্তমান বাদশাহ দ্বিতীয় আবদুল্লাহকে ক্ষমতাচ্যুত করার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই উপজাতি নেতাদের সঙ্গে ওই বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন তিনি। তবে কোনও ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত থাকার খবর অস্বীকার করেছেন প্রিন্স হামজা।

জর্জানের মিত্র ও আঞ্চলিক শক্তি হিসেবে পরিচিত সৌদি আরব এ ঘটনায় বাদশা আবদুল্লাহ-এর প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ও মিসরের পক্ষ থেকেও বর্তমান সরকারের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করা হয়েছে।

সৌদি রয়েল কোর্ট জানিয়েছে, দেশের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার জন্য বাদশা দ্বিতীয় আবদুল্লাহর গৃহীত সব পদক্ষেপের প্রতি রিয়াদের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেন, বাদশাহ আবদুল্লাহ যুক্তরাষ্ট্রের একজন গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার। তার প্রতি আমাদের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র পুরো বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছে এবং বিষয়টি নিয়ে জর্ডানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে অব্যাহত যোগাযোগ রাখছে বলেও জানান নেড প্রাইস। 


আরও খবর



বাসার দরজা ভেঙে অধ্যাপক তারেক শামসুর রেহমানের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | ১১১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
রাতে বাসায় একা ঘুমিয়ে ছিলেন অধ্যাপক রেহমান। অনেক সকাল হলেও ঘুম থেকে না ওঠায় বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। পরে পুলিশ গিয়ে ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে মৃত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. তারেক শামসুর রেহমান মারা গেছেন। শনিবার উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রজেক্টে নিজের ফ্ল্যাটে মৃত অবস্থায় তাকে পাওয়া যায়।  এ সময় বাসায় কেউ ছিলেন না। পুলিশ দরজা ভেঙে তার লাশ উদ্ধার করে। তার মৃত্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি।

রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রজেক্টের প্রকল্প পরিচালক মো. মোজাফফর আহমেদ তাঁর মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, রাতে বাসায় একা ঘুমিয়ে ছিলেন অধ্যাপক রেহমান। অনেক সকাল হলেও ঘুম থেকে না ওঠায় বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। পরে পুলিশ গিয়ে ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে মৃত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক সদস্য তারেক শামসুর রেহমান জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। আন্তর্জাতিক রাজনীতি, আন্তঃরাষ্ট্রীয় সম্পর্ক ও বৈদেশিক নীতি এবং তুলনামূলক রাজনীতি নিয়ে তার একাধিক গ্রন্থ রয়েছে। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রির অধিকারী অধ্যাপক রেহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। অধ্যাপনার পাশাপাশি ড. রেহমান নিয়মিত কলাম লিখতেন। প্রায় প্রতিটি জাতীয় দৈনিকে তার কলাম নিয়মিত ছাপা হতো।

তার উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলোর মধ্যে রয়েছে- ইরাক যুদ্ধ পরবর্তী আন্তর্জাতিক রাজনীতি, গণতন্ত্রের শত্রু-মিত্র, নয়া বিশ্বব্যবস্থা ও আন্তর্জাতিক রাজনীতি, বিশ্ব রাজনীতির চালচিত্র, উপআঞ্চলিক জোট, ট্রানজিট ইস্যু ও গ্যাস রফতানি প্রসঙ্গ, বাংলাদেশঃ রাষ্ট্র ও রাজনীতি, বাংলাদেশঃ রাজনীতির ২৫ বছর, বাংলাদেশঃ রাজনীতির চার দশক, গঙ্গার পানি চুক্তিঃ প্রেক্ষিত ও সম্ভাবনা, সোভিয়েত-বালাদেশ সম্পর্ক, বিশ্ব রাজনীতির ১০০ বছর ইত্যাদি।


আরও খবর