আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

বিকেলের নাস্তায় কিমা স্যান্ডউইচ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ জুলাই ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লকডাউনে সবাই যখন বাড়িতে বিকেলের নাস্তা নিয়ে চিন্তা? এমন কিছু তৈরি করতে হবে, যা হবে পরিবারের সবার জন্য পুষ্টিকর এবং সুস্বাদু। এমনই একটি চটজলদি রেসিপি চিকেন কিমা স্যান্ডউইচ।

উপকরণ:

মুরগির মাংসের কিমা ২০০ গ্রাম

ছোট সাইজের পেঁয়াজ ২টি(কুচি)

আদা বাটা ১ চা চামচ

মরিচ বাটা ১ চা চামচ

শুকনা মরিচ গুঁড়া ১/২ চা চামচ

হলুদ -সামান্য

সয়াবিন তেল আড়াই চামচ

ধনেপাতা কুচি-১ চা চামচ

মাখন ৮ চা চামচ

পাউরুটি ৮ পিস

লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালী

প্রথমে মাখন, পাউরুটি, ধনেপাতা বাদে বাকি সব উপকরণ একটু পানি দিয়ে তেলে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে।

কিমা সেদ্ধ হলে পানিটা কড়াইতেই শুকিয়ে নেবেন।

পানি শুকিয়ে এলে ধনে পাতা মিশিয়ে দিন। এবার এটা ঠাণ্ডা করুন। পাউরুটির ওপরে মাখন লাগান।

একটার ওপরে পুর দিয়ে আরেকটি পাউরুটির স্লাইস চাপা দিন।

পুর দেওয়া হলে ছুরি দিয়ে তিনকোনা করে কেটে নিন। পাউরুটির চারপাশের শক্ত অংশ ফেলে দিতে হবে। চাইলে সঙ্গে শসা কুচি দিতে পারেন। এবার স্যান্ডউইচ মেকারে, কিছুক্ষণের জন্য বেক করে পরিবেশন করুন।

নিউজ ট্যাগ: কিমা স্যান্ডউইচ

আরও খবর
যেভাবে রান্না করবেন মেজবানি মাংস

বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১




অবশেষে চূড়ান্ত বিচ্ছেদ ঘটলো বিল ও মেলিন্ডা গেটসের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিল গেটস ও মেলিন্ডার বিচ্ছেদ আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ওয়াশিংটনের কিং কাউন্টি সুপিরিয়র কোর্টের এক আইনজীবী তাদের ডিভোর্স পেপারে স্বাক্ষর করেছেন। এর মধ্য দিয়ে তাদের দীর্ঘ ২৭ বছরের সংসার জীবনের ইতি ঘটলো। সোমবার (২ আগস্ট) তাদের ডিভোর্স পেপারে স্বাক্ষর করেন আইনজীবী।

গেল মে মাসের ৩ তারিখ তারা বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন। একসঙ্গে তারা দুজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি জানান। ওই ঘোষণার তিন মাস পর তাদের আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হলো। অবশ্য নাম পরিবর্তনের জন্য আদালতে কেউ-ই আবেদন করেননি।

ওই সময়ে টুইটার বার্তায় বিল-মেলিন্ডা বলেছিলেন, নিজেদের সম্পর্কের ওপর নিরীক্ষা ও চিন্তা-ভাবনার পর আমরা আমাদের সংসারের ইতি টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যুগল হিসেবে আমরা আর থাকতে পারব বলে আমাদের মনে হয় না।

১৯৮০-এর দশকের শেষ দিকে মেলিন্ডা বিল গেটসের মাইক্রোসফট কোম্পানিতে যোগ দিলে দুজনের পরিচয় হয়। পরে তারা প্রণয়ে জড়ান, সেই প্রণয় ১৯৯৪ সালে বিয়েতে গড়ায়। তাদের এ ২৭ বছরের দীর্ঘ সংসারে ঘর আলো করে আসে তিন সন্তান।

এই যুগল ২০০০ সালে গঠন করেন দাতব্য সংস্থা বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন। তারা দুজনই এর যৌথ পরিচালক। বিবাহ বিচ্ছেদ হলেও তারা বিশ্বাস করেন একসঙ্গে এই ফাউন্ডেশন চালিয়ে নিতে পারবেন।

সংস্থাটি বিশ্বজুড়ে সংক্রামক রোগের বিরুদ্ধে লড়াই এবং শিশুদের টিকার আওতায় আনতে সহায়তা করে আসছে। বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্য, দারিদ্র্য দূরীকরণসহ বিভিন্ন কাজে ৫৩.৮ বিলিয়ন ডলার খরচ করে এই সংগঠনটি।

আরেক ধনকুবের ওয়ারেন বাফেটের সঙ্গে মিলে এই দম্পতি গিভিং প্লেজ নামে একটি উদ্যোগ শুরু করেন, যেটির লক্ষ্য বিলিয়নিয়ারদের সম্পদের একটি বড় অংশ দাতব্য কাজে লাগানো। প্রসঙ্গত, প্রভাবশালী সাময়িকী ফোর্বসের বিচারে বিল গেটস এখন বিশ্বের চতুর্থতম সম্পদশালী ব্যক্তি। তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১৫২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।



আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




রাঙামাটির কামারদের হাসিবিহীন ব্যস্ততা!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | ১৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

রাঙামাটি থেকে শহিদুল ইসলাম হৃদয়:

ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের আসন্ন ঈদুল আজহা অর্থাৎ কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে হাসিবিহীন ব্যাস্ত সময় পার করছে রাঙামাটির কামাররা। কোরবানির পশু জবাইয়ের কাজে ব্যবহারযোগ্য বিভিন্ন ধারালো অস্ত্র তৈরি ও আগুনের শিখায় লোহা পুড়িয়ে উক্ত উপকরণের পুরাতন ধাতব সমূহ সানাই বা ধার দিতে মানুষ নিয়ে আসে স্থানীয় এই কামারীদের কাছে।

রাঙামাটি শহরের রিজার্ভ বাজার, তবলছড়ি, বনরুপার মূল তিন পয়েন্টে এই কামার শিল্পীরা ধারাবাহিকভাবে কাজ করে গেলেও গত বছরের তুলনাই এবছর খুব অল্প সংখ্যক মানুষ দা, ছুরি, বটি ক্রয় বা ধার দিতে আসছে বলে জানিয়েছেন এখানকার কামাররা।

রিজার্ভ বাজার এলাকার কামারীদের সাথে কথা বললে তারা বলেন, দেশে করোনা পরিস্থিতির কারণে মধ্যবিত্ত এমনো অনেক পরিবার অংশ নিতে পারছেনা এবারের কোরবানিতে। যদিও বা বিগত বছরের তুলনায় এবছর ব্যবসা কম তারপরও আমরা মোটামুটি কাজ পাচ্ছি।

প্রতি বছর কোরবানির এই সময়টাতে জেলার মোট ৩০ টি দোকানের প্রতিটি দোকানে প্রায় ৩ থেকে ৪ জন করে শ্রমিক রেখে আমরা পশু জবাই ও নিত্য প্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহৃত এসব ধারালো অস্ত্রগুলো তৈরি করি। এবারে শ্রমিকদের মজুরি দিতে পারবোনা বলেই আমরা অতিরিক্ত কোনো শ্রমিক রাখিনি।

তারা বলেন, বর্তমান পরিস্থিতির কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়া সকলের কথা চিন্ত করে দা, ছুরি, বটি ইত্যাদির দাম আমরা কমিয়ে দিয়েছি। যেমন পশু জবাইয়ের ছুরি যেটা কিনা আগে ১০০০-১২০০ টাকা বিক্রি করতাম তা বর্তমানে ৬০০-৭০০ টাকায় বিক্রি করছি, পশুর চামড়া ছাড়ানো ও মাংস কাটার কাজে ব্যবহার করা ২৫০ টাকা দামের ছুরি এখন ১৫০ টাকা, দা ও বটি যেগুলো আগের দাম ছিলো ৭০০-৮০০ টাকা সেগুলো এখন আমরা নিচ্ছি ৪০০-৫০০ টাকা।

কোরবানির ঈদের আর মাত্র কয়েকদিন বাকি, সামনের দিন গুলোতে ভালো কিছুর আশায় নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ এসকল কামারীরা।


আরও খবর



কঠোর লকডাউন শিথিল, সড়কে চলছে গণপরিবহণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | ৯৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কঠোর লকডাউন শিথিল করায় টানা ১৪ দিন পর সড়ক-মহাসড়গুলোতে চলতে শুরু করেছে গণপরিবহণ।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন রুটে বাস চলতে দেখা গেছে। এছাড়া বিভিন্ন দোকানপাট খুলতে শুরু করেছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে খোলা হবে শপিংমলগুলোও।

জাতীয় পরামর্শক কমিটির পাশাপাশি বিশেষজ্ঞরা বিধিনিষেধ আরও কঠোর করার পরামর্শ দিলেও ঈদ উদযাপন ও দরিদ্র মানুষের রোজগারের স্বার্থে তা শিথিল করেছে সরকার।

তবে ২৩ জুলাই ভোর থেকে ফের ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন শুরু হবে। তাতে জরুরি সেবা বাদে শিল্পকারখানাসহ সব ধরনের প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

আজ থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত আসনের অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের শর্তে বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ সব ধরনের গণপরিবহণ চলবে। স্বাস্থ্যবিধি মানার শর্তে খোলা থাকবে শপিংমল ও মার্কেট।

বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এক পত্রের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, এ সময়ে পর্যটন কেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্রে গমন ও জনসমাবেশ হয় এ ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান যেমন: বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান (ওয়ালিমা), জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি এবং রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান পরিহার করতে হবে।

করোনা মহামারি রোধে গত ১ জুলাই থেকে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। এই সময়ে গণপরিবহণ, অফিস, শপিংমল বন্ধ রাখা হয়। ঈদের সপ্তাহে সারাদেশে কুরবানির পশুর হাট বসানোরও অনুমতি দেওয়া হয়। 

তবে ২১ জুলাই ঈদ শেষে আবার ২৩ জুলাই সকাল ৬টা থেকে কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়ে চলবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত। এই সময়ে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাব মোতায়েন থাকবে। বন্ধ থাকবে গণপরিবহণ, অফিস, শপিংমল, কলকারখানা।


আরও খবর



দেশের করোনার হটস্পট এখন ফরিদপুর

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ১২৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের করোনার হটস্পট এখন ফরিদপুর। গত ২৪ ঘন্টায় একক জেলা হিসেবে সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখলো জেলাটি। ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটিতে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনায় ১৬ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ৫ জন মারা গেছেন।

বর্তমানে হাসপাতালটিতে ৪০৬ জন ভর্তি রয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি হয়েছেন ৪৪ জন রোগী। প্রতিনিয়ত রোগীর চাপ বাড়াতে হাসপাতালে সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে ডাক্তার ও নার্সরা। গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় ৯৬০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে সর্বোচ্চ ৩০৫ জনের দেহে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৭৩ শতাংশ।

ফরিদপুরে এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার ৬৬৭ জন রোগীর করোনা শনাক্ত হয়। সরকারি হিসেবে এ পর্যন্ত ৩০৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা: ছিদ্দীকুর রহমান বলেন, গত ২৪ ঘন্টায় ফরিদপুর পিসিআর ল্যাবে ৯৬০ জনের নমুনা পরীক্ষার করে শনাক্ত হয়েছে ৩০৫ জন। করোনার বিধিনিষেধ না মানার কারণে ফরিদপুরে বেড়েছে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যু।


আরও খবর



খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৪৬ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা বিভাগে আরও ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৪৩৫ জনের। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডাক্তার ফেরদৌসী আক্তার।

এ নিয়ে খুলনা বিভাগে করোনায় মোট ২ হাজার ২৬৩ জন মারা গেছেন। করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮৯ হাজার ৬৮৩ জনের।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, মৃত্যু ও আক্রান্তের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে কুষ্টিয়া জেলা এবং দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে খুলনা জেলা। ২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়ায় মারা গেছেন সর্বোচ্চ ১৮ জন, করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৫৩ জনের। এ সময় খুলনা জেলায় মারা গেছেন ৯ জন, আক্রান্ত হয়েছেন ৪৬৯ জন। এছাড়া বাগেরহাটে মারা গেছেন ২ জন, আক্রান্ত ১০১, সাতক্ষীরায় মারা গেছেন ১ জন, আক্রান্ত ৭৯ জন, যশোরে মৃত্যু ২, আক্রান্ত ২২৬ জন, নড়াইলে মারা গেছেন ২ জন, আক্রান্ত ৫৪ জন, মাগুরায় মারা গেছেন ২ জন, আক্রান্ত ৪১ জন, ঝিনাইদহে মারা গেছেন ২ জন, আক্রান্ত ৭৩ জন, চুয়াডাঙ্গায় মারা গেছেন ৪ জন, আক্রান্ত ৮৫ জন এবং মেহেরপুরে মারা গেছেন ৪ জন ও আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪ জন। 


আরও খবর