আজঃ সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

বরিশাল থেকে ২১ রুটে বাস চলাচল বন্ধ

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | ১০০জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) ছাত্রদের ওপর হামলার ঘটনায় মামলায় দুই পরিবহন শ্রমিক গ্রেফতারের প্রতিবাদে এবং তাদের মুক্তির দাবিতে দক্ষিণাঞ্চলের ২১ রুটে বাস চলাচল বন্ধ করা হয়েছে।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে বরিশাল নগরের রূপাতলী বাস টার্মিনালের সামনে সুরভী চত্বরে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন পরিবহন শ্রমিকরা।

এসময় তারা সড়কে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিসহ টায়ার জ্বালিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

এতে বরিশাল থেকে দক্ষিণাঞ্চলের ২১টি রুটে যাত্রী পরিবহন বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছেন রূপাতলী মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাহী সভাপতি রফিকুল ইসলাম মানিক।

এদিকে এমন পরিস্থিতিতে দক্ষিণাঞ্চলে চলাচল যাত্রীদের ভোগান্তি চরমে। তাদের পায়ে হেঁটে বিকল্প যানে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে বলে জানা গেছে।

বরিশাল পটুয়াখালী মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাওছার হোসেন শিপন জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের মামলায় আমাদের দুই শ্রমিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের ষড়যন্ত্রমূলকভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু আমাদের কোনো লোক ছাত্রদের ওপর হামলা চালায়নি। আমরাও তাদের ওপর হামলার ঘটনার নিন্দা জানিয়েছি।

এদিকে  শ্রমিক জানান, তাদের কেউ কিছু করেননি। শিক্ষার্থীদের ঝামেলা হয়েছে বিআরটিসির স্টাফদের সঙ্গে। আমাদের শ্রমিকদের যদি না ছাড়া হয় তাহলে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট চলবে।

ইতোমধ্যে বরিশালের রূপাতলী থেকে সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

বরিশাল কোতয়ালি মডেল থানার ওসি নুরুল ইসলাম জানান, শ্রমিকরা বিক্ষোভ করছে। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও আন্দোলন করছে। আমরা উভয়পক্ষের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছি।

এদিকে শ্রমিকরা বিক্ষোভ শুরু করার পর হঠাৎ করেই শিক্ষার্থীদের মাধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। তারা হাতে লাঠিসোটা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূলফটকের সামনের মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।

শিক্ষার্থীরা জানান, শিক্ষা ও সন্ত্রাস একসঙ্গে হতে পারে না। সহপাঠীদের ওপর হামলার ঘটনায় আসামিদের নাম দিয়ে মামলা ও নামধারীদের গ্রেফতার না করা হলে আন্দোলন চলবে।

Share

আরও খবর



ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ স্থগিত চায় জাতিসংঘ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০২ মার্চ 2০২1 | ১২৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশি লেখক মুশতাক আহমেদের কারাগারে মৃত্যুর ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। দ্রুত এ ঘটনার স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ তদন্ত নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন সংস্থাটির মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল বাশেলেট। একই সঙ্গে তিনি বাংলাদেশের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পুনর্বিবেচনার আহ্বানও জানান তিনি।

আইনটির অধীনে আটকদের দ্রুত মুক্তির দাবি করে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক এই দূত সোমবার (১ মার্চ) এক বিবৃতিতে বলেন, আইনটির পুঙ্খানুপুঙ্খ বিশ্লেষণ জরুরি।

গত বছরের মে মাসে লেখক মুশতাককে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার করার পর নয় মাস তিনি কারাবন্দী ছিলেন। বার বার জামিন আবেদন করা হলেও তা প্রত্যাখ্যান করা হয়। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি কারাগারেই মারা যান তিনি। একই অভিযোগে এখন আটক রয়েছেন কার্টুনিস্ট আহমেদ কিশোর।

কার্টুনিস্ট কিশোরকে নির্যাতনের বিষয়ে মিশেল বাশেলেট উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, অভিযোগের তাৎক্ষণিক ও কার্যকর তদন্ত করতে হবে। একই সঙ্গে কিশোরের নিরাপত্তা এবং সুস্থতা নিশ্চিত করতে হবে।

এ সময় মানবাধিকারের প্রতি বাংলাদেশের বাধ্যবাধকতার বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকারকেই মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনা তদন্তের বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। অপর আটককৃতদের সঙ্গে অসদাচরণের যে অভিযোগ এসেছে তারও দ্রুত তদন্ত হওয়া উচিত।

জাতিসংঘের ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, মুশতাকের মৃত্যুর পর বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশের হামলায় ৩৫ জন আহত এবং সাতজন আটকের খবর উদ্বেগজনক। মৃত্যুতে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেয়ায় রুহুল আমিন নামে একজনকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এ নিয়ে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে আলাপে তিনি এবং তার দপ্তর প্রস্তুত রয়েছে জানিয়ে বাশেলেট আরও বলেন, সরকারের সমালোচনার শাস্তি দিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের দুর্বলভাবে সংজ্ঞায়িত বিধানগুলোর বিষয়ে জাতিসংঘের বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থাগুলো দীর্ঘদিন ধরে উদ্বেগ জানিয়ে আসছে। জরুরি ভিত্তিতে আইনটির প্রয়োগ স্থগিত করা এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের প্রয়োজনীয়তার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ করতে এর বিধানগুলো পর্যালোচনা করা দরকার।

নিউজ ট্যাগ: জাতিসংঘ
Share

আরও খবর



লাইভে এসে সিনেমা ছাড়ার কারণ জানালেন শাকিল খান

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৫২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

১৯৯৭ সালে আমার ঘর আমার বেহেশত সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে চিত্রনায়ক শাকিল খানের। ১০ বছরেরও কম সময় দারুণ জনপ্রিয়তা পান এই অভিনেতা।

তবে দীর্ঘদিন ধরে সিনেমা থেকে দূরে রয়েছেন তিনি। বর্তমানে ব্যবসা ও সংসার নিয়েই তার ব্যস্ততা।

শাকিল খানের স্ত্রী শারমিন হোসেন একজন নারী উদ্যোক্তা। তার একটি বুটিক হাউজ রয়েছে। ক্রেতাদের অনুরোধে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) স্বামীকে তিনি তার ব্যবসায়ীক ফেসবুক পেজ থেকে লাইভে আসেন। আর স্ত্রীর লাইভে সিনেমা থেকে দূরে থাকার কারণ জানান শাকিল খান এবং ব্যবসা করতে স্ত্রীকে উৎসাহও দেন তিনি।

লাইভে এক দর্শক শাকিল খানকে প্রশ্ন করেন, তিনি কেনো এখন আর সিনেমায় অভিনয় করেন না? উত্তরে বিয়ের ফুলখ্যাত এই অভিনেতা হলেন, কারণ দেখাতে হলে অনেক কথা বলতে হয়। আপনারা জানেন, এক সময় সিনেমা ছিল বাংলাদেশে বিনোদনের সবচেয়ে বড় একটি মাধ্যম। কিন্তু এমন একটা সময় এলো, যখন সিনেমা নিয়ে মানুষের খারাপ ধারনা তৈরি হলো ও নির্মাণের মান খারাপ হলো। ঠিক তখনই আমি পেছনে চলে গেলাম। কারণ, আমি সবসময় চেয়েছি মানুষের কাছে সুন্দর কিছু উপস্থাপন করতে। চিন্তা ছিল সুন্দর ও ভালো কাজ উপহার দেওয়ার।

সিনেমায় ফেরা প্রসঙ্গে শাকিল খান বলেন, এখনো যে ভালো কিছু উপহার দেওয়ার ইচ্ছা নেই, বিষয়টি তা নয়। সামনে ভালো কিছু এলে চিন্তাভাবনা করবো। তবে জানি না সেটা কখন। অপেক্ষায় থাকতে হবে।

ব্যবসায় স্ত্রীকে উৎসাহ দিয়ে এই তারকা বলেন, আমি মনে করি সবার কিছু না কিছু করা দরকার। ওকে (স্ত্রী) নিয়ে আমি গর্ববোধ করি। অনেকে আমাকে বলেন ভাবি কাজ করেন-তাতে কী? আমি মনে করি এখন সকল নারীদের কাজ করার উচিৎ। তারা কাজ করলে দেশ এগিয়ে যাবে। পরিবার নিয়ে যাতে ভালো থাকতে পারি সবাই সেই দোয়া করবেন।

পরিবারকে নিয়ে অবসর কাটাতে কক্সবাজারে গিয়েছেন শাকিল খান। সমুদ্রের পার থেকে সস্ত্রীক ফেসবুক লাইভে যুক্ত হন তিনি।

নিউজ ট্যাগ: শাকিল খান
Share

আরও খবর



স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১২৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় উন্নীত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এ বিষয়ে বাংলাদেশ জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ পেয়েছে।

জাতিসংঘের এ সংক্রান্ত পাঁচ দিনব্যাপী এক বৈঠক শেষে এ তথ্য জানানো হয়।

গত ২২-২৬ ফেব্রুয়ারি নিউইয়র্কে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে এলডিসি স্ট্যাটাস পর্যালোচনা করে বাংলাদেশ, নেপাল ও লাওসকে এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় উত্তরণের সুপারিশ করা হয়।

পাঁচ দিনব্যাপী বৈঠকে বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের সূচক পর্যালোচনা করা হয়। বাংলাদেশের এলডিসি থেকে উত্তরণে সব ধরনের সূচকের অগ্রগতি হয়েছে।

বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় এখন ১ হাজার ৮২৭ মার্কিন ডলার। তবে কোনো দেশ উন্নয়নশীল দেশ হতে হলে জাতিসংঘের মান অনুযায়ী মাথাপিছু আয় ১ হাজার ২৩০ মার্কিন ডলার হতে হবে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে আছে। অন্যদিকে, মানবসম্পদ সূচকেও এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। মানবসম্পদ সূচকে প্রয়োজন ৬৬ পয়েন্ট। আর বাংলাদেশের রয়েছে ৭৫ দশমিক ৩ পয়েন্ট। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের অগ্রগতি হয়েছে। এসব অগ্রগতি পর্যালোচনা শেষে বাংলাদেশকে এলডিসি থেকে উত্তরণে চূড়ান্ত সুপারিশ করেছে জাতিসংঘ।

Share

আরও খবর
স্বর্ণের দাম আরেক দফা কমলো

শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১




মংলায় এসেছে ভারতের যুদ্ধজাহাজ কুলিশ ও সুমেদা

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | ৪৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সফরে থাকা ভারতীয় নৌবাহিনীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা কমডোর মহাদেভু গোভেরধান রাজু টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিনের সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন

তিন দিনের সফরে আজ সোমবার (৮ মার্চ) ভারতের দু'টি যুদ্ধজাহাজ মংলায় এসেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ভারতীয় নৌবাহিনীর আই এন এস কুলিশসুমেদা নামে এ যুদ্ধজাহাজ দু'টি এসেছে। ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

জানা যায়, জাহাজ দু'টিকে স্বাগত জানানোর সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনের প্রতিনিধিসহ বাংলাদেশে নৌবাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। ১৮ জন কর্মকর্তা ও ১৬০ জন নাবিকসহ ভারতীয় নৌবাহিনীর জাহাজ কুলিশ এর নেতৃত্বে আছেন কমান্ডার সঞ্জীব অগ্নিহোত্রী। ২০ জন কর্মকর্তা ও ১৩০ জন নাবিকসহ অপর যুদ্ধজাহাজ সুমেদার নেতৃত্বে আছেন কমান্ডার গৌরব দুর্গাপাল।

এদিন সফরে থাকা ভারতীয় নৌবাহিনীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা কমডোর মহাদেভু গোভেরধান রাজু টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিনের সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন। এছাড়া মংলা নৌ-ঘাঁটিসহ খুলনার দর্শনীয় স্থান পরিদর্শনও করবেন তিনি। এছাড়া বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সাথে পেশাগত আলোচনা এবং মংলা ও খুলনায় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হবে। উভয় বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে প্রীতি খেলাধুলা এবং জাহাজে সফরের ব্যবস্থা থাকবে। ১০ মার্চ যাত্রা করার সময় উভয় নৌবাহিনী একটি যৌথ মহড়া পরিচালনা করবে।

Share

আরও খবর
ঢাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু

সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১




জুভেন্টাসের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে রোনালদো

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলর লড়াইয়ে জুভেন্টাসের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পর্তো। বুধবার রাতে প্রথম লিগের ম্যাচটির বিশেষ দৃষ্টি ছিল পর্তোর অধিনায়ক পেপে ও জুভের সবচেয়ে বড় তারকা রোনালদোর দিকে। পর্তুগাল জাতীয় দল ও রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক সতীর্থ পেপের বিপক্ষে মাঠের লড়াইয়ে হারতে হলো ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে।

সিআর সেভেনের জন্মভূমির মাঠ স্তাডিও ডো ড্রাগাওতে স্বাগতিকদের হয়ে একটি করে গোল করেছেন মেহদি টারেমি ও মৌসা মারেগা। অন্যদিকে অতিথিদের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন ফেডরিকো চিয়েসা।

ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যায় পর্তো। জুভেন্টাসের মিডফিল্ডার রদ্রিগো বেনটাচুরের ভুলে পর্তুগীজ চ্যাম্পিয়নদের হয়ে গোল তুলে নেন ইরানিয়ান ফরোয়ার্ড টারেমি।

গোল শোধে মরিয়া হয়ে উঠলেও সফলতা মিলছিলনা ইতালিয়ান দল জুভেন্টাসের। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় পেপে নেতৃত্বাধীন দলটি। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমেই আবারও গোল পায় পর্তো। ৪৬ মিনিটে উইলন মানাফার বাড়ানো বল পেয়ে গোল আদায় করেন মালিয়ান ফরোয়ার্ড মারেগা।

একাধিক সুযোগ পেয়ে কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় দুই দল। তবে ৮৬ মিনিটে আদ্রিয়েন রাবিয়োতের পাসে ব্যবধান কমান চিয়েসা। ইতালিয়ান মিডফিল্ডারের এই গোলটি আগামী ১১ মার্চ দ্বিতীয় লেগে নিশ্চিত কাজে লাগবে জুভেন্টাসের। প্রতিপক্ষের মাঠে একটি গোল পাওয়ায় শেষ আট নিশ্চিত করতে বাড়তি সুবিধা পাবে আন্দ্রেয়া পিরলোর শিষ্যরা।

Share

আরও খবর