আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ব্যাখ্যা দিতে আইজি প্রিজন্স ও সুরক্ষা সচিব সুপ্রিম কোর্টে

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

আদালতের আদেশ অমান্য করার ব্যাখ্যা দিতে আপিল বিভাগে হাজির হয়েছেন আইজি প্রিজন্স ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ এস এম আনিসুল হক ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের সচিব সচিব আবদুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হবে।

এর আগে, গত ২০ নভেম্বর প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে ৬ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ তাদের সশরীরে হাজির হয়ে আদালত অবমাননার ব্যাখ্যা দিতে তলব করেন। সেদিন আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মো. ইব্রাহিম খলিল। বিবাদীদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাড. শফিকুল ইসলাম। 

আরও পড়ুন>> সন্ত্রাসীদের তালিকা করে গ্রেফতারের নির্দেশ ইসির

পরে ব্যারিস্টার ইব্রাহিম খলিল সাংবাদিকদের বলেন, গত বছরের ৭ এপ্রিল আপিল বিভাগ রিভিউ আবেদনের রায়ে ৬ জন কর্মকর্তাকে ভূতাপেক্ষ পদোন্নতি দিয়ে সিনিয়র জেল সুপার পদে পদোন্নতি দেওয়ার নির্দেশ দেন। তবে দেড় বছর পেরিয়ে গেলেও আপিল বিভাগের রায় বাস্তবায়ন না করায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের সচিব আবদুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী ও আইজি প্রিজন্স ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ এস এম আনিসুল হকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন করা হয়।

এই আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ৬ নভেম্বর পদোন্নতির রায় বাস্তবায়নের জন্য বিবাদীদের দুই সপ্তাহ সময় দেন আপিল বিভাগ। দুই সপ্তাহ পার হয়ে যাওয়ার পর বিবাদীদের পক্ষ থেকে আদালতকে জানানো হয়, আবেদনকারীদের পদোন্নতি দেওয়ার সুযোগ নেই। পরে শুনানি শেষে আপিল বিভাগ তাদের তলব করেন।


আরও খবর



নগরবাসীর নিরাপত্তায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে ডিএমপি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) ৫০টি থানার ৩৪ হাজার জনবল নিয়ে ঢাকায় বসবাস করা নগরবাসীর নিরাপত্তার জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ পুলিশের মোট জনবল দুই লাখ ১০ হাজারের বেশি। সেই হিসাবে একজন পুলিশ ৮২৫ জন মানুষকে নিরাপত্তা দিচ্ছে।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদের উত্থান হয়েছিল, সে জন্য আমরা কাউন্টার টেররিজম ইউনিট গঠন করেছিলাম। আমরা সাইবার ইউনিট তৈরি করেছিলাম, ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার গড়ে তুলেছিলাম, আমরা ট্রাফিক নিয়ন্ত্রের জন্য ট্রাফিক ইউনিট করেছি যা ডিএমপির কমিশনারের অধীনে কাজ করে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে ডিএমপির ৪৯তম প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে সুধী সমাবেশ ও আলোচনাসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাজারবাগ এসে মনে পড়ে যায় সেই ২৫ মার্চের কথা। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চ যে ডাক দিয়েছিলেন সেই ডাকে পুলিশ বাহিনী নিজের জীবনবাজি রেখে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছিল। অনেক পুলিশ সদস্য সেদিন শহীদ হয়েছিলেন। 

আরও পড়ুন>> সৌদি আরবসহ ব্রিকসের নতুন সদস্যপদ পেল ৫টি দেশ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন পুলিশ জনগণের পুলিশ হবে। আজকে কিন্তু পুলিশ জনগণের পুলিশ হয়েছে। জনগণের জন্য তারা সব সময় কাজ করে যাচ্ছে। আরও বিশ বছর আগে পুলিশের কথা যদি চিন্তা করি, সে সময় মানুষ পুলিশকে ভয় পেত। আজকে কিন্তু পুলিশের ওপর আস্থা, বিশ্বাস রাখছে, কোনো প্রয়োজন হলে মানুষ পুলিশের কাছে যাচ্ছে। কোভিডের সময় আপনারা দেখেছেন মায়ের মরদেহ সন্তান ফেলে রেখে গেছে। পুলিশই তাদের শেষ কার্যটি করেছে।

ঢাকার মেয়রদের কাছে দাবি জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তাদের কাছে (দুই মেয়র) জোর দাবি জানাব,আমাদের ট্রাফিক সার্জেন্টরা ভয়ানক অসুবিধায় থাকেন। তাদের জন্য যদি মাঝে মাঝে বিশ্রামের জন্য ব্যবস্থা করে দেন। এই আহ্বানটি রাখছি।

তিনি বলেন, ডিএমপি আরও এগিয়ে যাবে, তাদের সেবার পরিধি বাড়াবে। আরও দক্ষতায় সব কিছু মোকাবিলা করবে এই আস্থা ও বিশ্বাস রাখি।


আরও খবর
জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ মৃত্যু

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




খুলনায় মুখে সুপার গ্লু ও টেপ লাগিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

খুলনার পাইকগাছা উপজেলার রাড়ুলি গ্রামে রোববার গভীর রাতে চোখ-মুখে সুপার গ্লু আঠা দিয়ে এক গৃহবধূকে (৪৫) দলবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে। এছাড়া কানের দুল ও স্বর্ণালংকারসহ কিছু মালামাল নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, ওই গৃহবধূর স্বামী ও ছেলে-মেয়ে রোববার রাতে বাড়ির বাইরে ছিলেন। রাত তিনটার দিকে মই বেয়ে বাড়ির ছাদে উঠে শাবল দিয়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর ঢোকে দুর্বৃত্তরা। এরপর গৃহবধূর চোখে ও মুখে সুপার গ্লু আঠা দিয়ে তাঁকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে কানের দুল ও গলার চেনসহ কিছু মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায় তারা।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. মো. কনক হোসেন জানান, স্বর্ণালংকার নেওয়ার সময় ভুক্তভোগীর কানের কিছু অংশ ছিড়ে গেছে। এছাড়া শরীরে আঘাতের একাধিক চিহ্ন রয়েছে। চোখে আঠা লাগানো ছিল। চক্ষু ডাক্তার তাঁর চোখে ড্রপ দিয়েছেন। অন্যান্য চিকিৎসাও দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে সার্জারি বিভাগে ভর্তি রয়েছেন তিনি। তাঁকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নেওয়া হবে।

খুলনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইদুর রহমান জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত এবং তাদের আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এলাকাবাসী জানায়, ভুক্তভোগীর স্বামী কাঁচামাল ব্যবসায়ী। তিনি ব্যবসায়িক কাজে রোববার রাতে গড়ুইখালী বাজারে ছিলেন। তাঁর ছেলে-মেয়ে লেখাপড়ার কারণে বাড়ির বাইরে থাকে।


আরও খবর



প্রথম নারী হিসেবে সচিব খোরশেদা ইয়াসমীনের দুদকে যোগদান

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

প্রথম নারী হিসেবে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সচিব হিসেবে যোগ দিয়েছেন খোরশেদা ইয়াসমীন এনডিসি। এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে তাকে পদোন্নতি দিয়ে দুদকের সচিব হিসেবে পদায়ন করা হয়।

সচিব হিসেবে দুর্নীতি দমন কমিশনে যোগদানের আগে খোরশেদা ইয়াসমীন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ে যুগ্মসচিব এবং উপসচিব হিসেবে কর্মরত ছিলেন। প্রশাসনে মাঠ পর্যায়ে তিনি টাঙ্গাইল জেলায় এবং ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০২০ সালে এনডিসি কোর্স সম্পন্ন করেন। দুদকের নতুন সচিব বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের ১৩তম ব্যাচের সদস্য।

শিক্ষাজীবনে দুদক সচিব খোরশেদা ইয়াসমীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে অনার্স ও মাস্টার্স করেন। পরে অস্ট্রেলিয়ার নিউক্যাসেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিবেশ বিজ্ঞানে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন।

খোরশেদা ইয়াসমীন পল্লবী মডেল হাইস্কুল থেকে এসএসসি এবং আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। ব্যক্তিজীবনে খোরশেদা ইয়াসমীন একমাত্র পুত্র সন্তানের জননী। তার স্বামী অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা।


আরও খবর
জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ মৃত্যু

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




৪৮ লাখ টাকার চুক্তিতে পরীক্ষায় বসেছিলেন তারা

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীতে বাংলাদেশ রেলওয়ের টিকিট কালেক্টর পদের নিয়োগ পরীক্ষা চলাকালে জালিয়াতির অভিযোগে তিন পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে।

আজ শনিবার দুপর ২টার দিকে রাজধানীর ডেমরায় অবস্থিত সামসুল হক খান স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন ভোলার চরফ্যাশনের নীলকমল গ্রামের মো. শাহজাদা, গাইবান্ধার পলাশবাড়ী ছুট গ্রামের মো. রুবেল ও মাগুরার মোহাম্মদপুরের শিরগ্রামের মো. শিহাব।

জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দার (এনএসআই) ঢাকা উইংয়ের তথ্যের ভিত্তিতে তাদের আটক করে ডেমরা থানা-পুলিশ। রেলওয়ে কর্তৃপক্তা অভিযানে পুলিশকে সহায়তা করে। আটকদের কাছ থেকে মাস্টারকার্ড, ব্লুটুথ ও ইলেকট্রনিক সার্কিট জব্দ করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, মাস্টারকার্ডের মাধ্যমে সিমকার্ড ব্যবহার করে ব্লুটুথ হেডফোনের মাধ্যমে অপর প্রান্ত থেকে উত্তরপত্রের সমাধান করে পরীক্ষার্থীকে পাঠানো হতো। আটকের সময় শিহাবের কান থেকে একটি ক্ষুদ্র ম্যাগনেটিক হিয়ারিং ডিভাইস পাওয়া যায়। পরে বিশেষ যন্ত্রের মাধ্যমে সেই ডিভাইস বের করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা প্রত্যেকে একটি চক্রকে ১৬ লাখ টাকা করে চুক্তিতে পরীক্ষায় বসেছিলেন বলে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন। এই চক্রের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার শাহাদাত আলী বলেন, নিয়োগ পরীক্ষায় অনেক পরীক্ষার্থী অনিয়মের চেষ্টা করেন এবং ধরা পড়েন। সে অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নিয়ে থাকে। কেউ প্রক্সি দিতে চেষ্টা করেন, কেউবা ইলেকট্রনিক ডিভাইসের মাধ্যমে জালিয়াতির চেষ্টা করেন। এসব অনিয়ম ধরা পড়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এ ক্ষেত্রে কোনো ব্যত্যয় ঘটবে না।


আরও খবর



দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

তিন দিনের সফর শেষে জার্মানির মিউনিখ থেকে ঢাকায় ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১ টা ৫ মিনিটে তাকে বহনকারী ফ্লাইটটি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

এর আগে, রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি নিয়মিত ফ্লাইটে জার্মানির মুনচেন ফ্রাঞ্জ জোসেফ স্ট্রস বিমানবন্দর থেকে রওনা হন প্রধানমন্ত্রী। জার্মানিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া তাকে বিদায় জানান।

টানা চতুর্থ মেয়াদের সরকার গঠনের পর গত মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন ২০২৪-এ যোগ দিতে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় মিউনিখ পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্মেলনে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি বেশ কয়েকজন বিশ্ব নেতা ও আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।

সফরে প্রধানমন্ত্রী জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎজ, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি, নেদারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে, আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ, কাতারের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আল-থানি এবং ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেটে ফ্রেডেরিকসেনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। এসময় তিনি রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ও গাজায় হামলা বন্ধের আহ্বান জানান। 

আরও পড়ুন>> মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন শেষে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী

পাশাপাশি ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বর্তমান পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ ও উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী লর্ড ক্যামেরন এবং জার্মান ফেডারেল অর্থনৈতিক সহযোগিতা ও উন্নয়ন মন্ত্রী সভেনজা শুলজেও শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ ছাড়া উইমেন পলিটিক্যাল লিডারের (ডব্লিউপিএল) প্রেসিডেন্ট সিলভানা কোচ-মেহরিন, সিনিয়র ম্যানেজিং ডিরেক্টর, ডেভেলপমেন্ট পলিসি অ্যান্ড পার্টনারশিপ অ্যাক্সেল ভ্যান টর্টসেনবার্গ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক পেড্রোস আধানম গেব্রিয়াসিস, মেটার গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্সের প্রেসিডেন্ট এবং যুক্তরাজ্যের সাবেক উপ-প্রধানমন্ত্রী ড. স্যার নিক ক্লেগও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাদাভাবে সাক্ষাৎ করেন।

সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিউনিখের বার্গারহাউস গার্চিং হোটেলে জার্মানি ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংবর্ধনায়ও যোগ দেন।


আরও খবর
জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪৮৬ মৃত্যু

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪