আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

ব্যর্থতার দায়ে বিএনপির সবার পদত্যাগ করা উচিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ এপ্রিল ২০২১ | ১০৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সরকারের বিরোধিতার নামে অন্ধ সমালোচনা করা বিএনপির রাজনীতি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হকের ৫৯তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার সকালে তাঁর সমাধিস্থলে আওয়ামী লীগের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এ মন্তব্য করেন তিনি।

এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, বিএনপির কাছে এখন কোনো ইস্যু নেই। তারা আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ। তাই একটি দায়িত্বশীল বিরোধীদল হিসেবে ব্যর্থতার দায়ে তাদের টপ টু বটম পদত্যাগ করা উচিত।

বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতির প্রতি জনগণের কোনো আস্থা নেই উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি নিজের দলকে চাঙা রাখতে যখন যা খুশি তাই বলে যাচ্ছে। তাদের রাজনীতি হচ্ছে সরকার বিরোধিতার নামে অন্ধ সমালোচনা করা।

এ সময় শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হক প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হকের রাজনীতির মূলমন্ত্র ছিল সাধারণ মানুষের ভাগ্যোন্নয়ন করা। ক্ষমতায় গেলে অনেকেই জনগণের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য কাজ করেন না। তবে শেরেবাংলা ও বঙ্গবন্ধু ছিলেন ব্যতিক্রম। তাঁদের পথ অনুসরণ করেই বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একই কাজ করে যাচ্ছেন। এ কে ফজলুল হক অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী ছিলেন বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এখন সাধারণ মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে দিবারাত্রি পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী সাহসী নেতৃত্বের মাধ্যমে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করে যাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

করোনার এই পরিস্থিতিতে ঘরে ঘরে সচেতনতার দুর্গ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলমত নির্বিশেষে সবাইকে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে।

নিউজ ট্যাগ: ওবায়দুল কাদের

আরও খবর



বনানীতে সমাহিত হবেন ওয়াসিম

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলা চলচ্চিত্রের সোনালি দিনের নায়ক ওয়াসিমকে রাজধানীর বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হবে। এর আগে বাদ জোহর সেখানেই তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর শাহাবউদ্দিন মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গুরুতর অসুস্থ হয়ে বেশ কিছুদিন শয্যাশায়ী ছিলেন এ চিত্রনায়ক। তিনি কিডনী রোগসহ নানা জটিলতায় ভুগছিলেন।

ওয়াসিমকে বনানী কবরস্থানে সমাহিতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। তিনি বলেন, ওয়াসিম ভাইকে এখন গোসল করানো হচ্ছে। এরপর তার মরদেহ ফ্রিজিং গাড়িতে রাখা হবে।

আজ রবিবার জোহরের নামাজের পর গুলশান আজাদ মসজিদে ওয়াসিমের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বনানী কবরস্থানে দ্বিতীয় জানাযা শেষে সেখানেই সমাহিত করা হবে তাকে।


আরও খবর



ফতুল্লায় গ্যাসের চুলার পাইপ লাইনের বিস্ফোরণ, শিশুসহ দগ্ধ ১১

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি বাড়িতে গ্যাসের চুলার পাইপ লাইন বিস্ফোরণে কয়েকজন নারী ও এক শিশুসহ ১১ জন দগ্ধ হয়েছেন। দগ্ধদের মধ্যে ৫ জনকে ঢাকা মেডিকেলের শেখ হাসিনা বার্ণ এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে। অপর ৬ জনকে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) ভোরে সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার তল্লা এলাকায় মডেল গার্মেন্টসের দক্ষিণ পাশে স্থানীয় মফিজুল ইসলামের তিন তলা বাড়ির তৃতীয় তলায় ভাড়াটিয়ার ফ্ল্যাট বাসায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোসহ দগ্ধদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন জানান, ওই বাড়ির তৃতীয় তলায় গার্মেন্টস শ্রমিক কয়েকটি পরিবার বসবাস করেন। রাতে একটি পরিবারের লোকজন চুলার বার্ণার বন্ধ না করেই ঘুমিয়ে পড়েন। এতে চুলা থেকে গ্যাস বের হয়ে রান্নাঘরসহ অন্যান্য ঘরে ছড়িয়ে জমাট বেঁধে থাকে। ভোরে রান্নার জন্য চুলায় আগুন জ্বালালে গ্যাসের পাইপ লাইনের বিস্ফোরণ ঘটে।

তিনি আরও জানান, এসময় তিন মাস বয়সের একটি শিশুসহ ছয়জন নারী ও চারজন পুরুষ আগুনে দগ্ধ হন। তাদের মধ্যে শিশুটিসহ পাঁচজনকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলের শেখ হাসিনা বার্ণ এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয় এবং ছয়জনকে সদরের জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়।


আরও খবর



পাকিস্তানে যাওয়া নিয়ে যা বলছেন মামুনুল হকের ভগ্নিপতি

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ এপ্রিল ২০২১ | ১০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আমি ১৯৮৩ সালে দাওরা হাদিস শেষ করার পর উচ্চ শিক্ষা অর্জনের জন্য পাকিস্তান গমন করি। দারুল উলূম করাচী মাদ্রাসায় ৩ বছর মেয়াদী ইফতা কোর্স সম্পন্ন করার পর করাচীতে আমার পীরের আদেশে তার প্রতিষ্ঠিত

মামুনুল হকের সঙ্গে পাকিস্তান যাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন তার ভগ্নিপতি মুফতি মুহাম্মাদ নেয়ামতুল্লাহ। সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি করেন তিনি। এতে মামুনুল হকের সঙ্গে পারিবারিক আত্মীয়তা ছাড়া আর কোনো ধরনের সর্ম্পক নেই বলে দাবি করে মুফতি নেয়ামতুল্লাহ।

তিনি বলেন, আমি ১৯৮৩ সালে দাওরা হাদিস শেষ করার পর উচ্চ শিক্ষা অর্জনের জন্য পাকিস্তান গমন করি। দারুল উলূম করাচী মাদ্রাসায় ৩ বছর মেয়াদী ইফতা কোর্স সম্পন্ন করার পর করাচীতে আমার পীরের আদেশে তার প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসায় শিক্ষক ও অধ্যক্ষ হিসাবে কর্মজীবন শুরু করি। পরবর্তীতে পীরের মৃত্যুর পর আমার মায়ের নির্দেশে আমি সে মাদ্রাসার দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে সপরিবারে বাংলাদেশে চলে আসি।

মুফতি নেয়ামতুল্লাহ বলেন, কর্মজীবনের শুরু থেকেই আমি কখনও কোনো ধরনের রাজনৈতিক কিংবা সাংগঠনিক কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম না। একজন শিক্ষাবিদ হিসাবে আমার একমাত্র কর্মব্যস্ততা হচ্ছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান এবং উত্তম চরিত্র গঠনের মাধ্যমে তাদেরকে সুনাগরিক হিসাবে গড়ে তোলা। এর বাইরে কোনো ধরনের কোনো কার্যক্রমের সঙ্গে আমি কখনোই যুক্ত ছিলাম না। শাইখুল হাদিস আল্লামা আজীজুল হক (রহ.) আমার শ্বশুর হওয়া সত্বেও আমি তার রাজনৈতিক নীতির সঙ্গে কখনো যুক্ত ছিলাম না, এখনও যুক্ত নই।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হরকাতুল জিহাদের (হুজি) নেতা মাওলানা তাজউদ্দিনের সঙ্গে কোনোধরণের সর্ম্পক নেই বলেও দাবি করেন মামুনুল হকের এ ভগ্নিপতি।

তিনি বলেন, ২১ আগস্ট ন্যাক্কারজনক গ্রেনেড হামলায় জনৈক তাজ নামক ব্যক্তির সঙ্গে যে সম্পর্কের কথা উল্লেখ করা হয়েছে তাকে আমি ব্যক্তিগতভাবে চিনি না, তার সঙ্গে কোনো সম্পর্কও আমার নেই।

মামুনুল হকের পাকিস্তান গমন নিয়ে মুফতি নেয়ামতুল্লাহ বলেন, ২০০৫ সালে মাওলানা মামুনুল হক যখন পাকিস্তানে যান, সে সময় আমি বাংলাদেশে আমার সদ্য প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসা পরিচালনা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছিলাম। তার সঙ্গে পাকিস্তানে একত্রে থাকার কোনো সুযোগই আমার হয়নি। মাওলানা মামুনুল হকের সঙ্গে আমার পারিবারিক আত্মীয়তা ছাড়া আর কোনো ধরনের সর্ম্পক নেই। ২০০৪ সালেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন, কিন্তু কোনো কিছুর সম্পৃক্ততা না থাকায় তারা আমাকে মুক্ত করে দেন।


আরও খবর



ভারতে মোট শনাক্ত ২ কোটি ছাড়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু হার বাড়ছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৫৭ হাজার ২২৯ জন। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ‌্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২ কোটি ২ লাখ ৭৫ হাজার ৫৪৩ জনে।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ‌্য মতে, মঙ্গলবার (৪ মে) সকাল পর্যন্ত ভারতে মহামারি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ২ লাখ ২২ হাজার ৩৮৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ৩ হাজার ৪৪৯ জন।  

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ জানুয়ারি ভারতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ‌্য মতে, সংক্রমণের দিক থেকে বর্তমানে বিশ্বে ভারতের অবস্থান দ্বিতীয়। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ।


আরও খবর



সারা দেশে শিলাবৃষ্টিসহ ঝড়ের আভাস

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ | ১৩৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ শুক্রবার সারা দেশে ঝড়-বৃষ্টির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। একইসঙ্গে বলা হচ্ছে শিলাবৃষ্টির শঙ্কার কথা। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) রাতে আবহাওয়া অধিদপ্তরের এক পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানায়।

পূর্বাভাসে হয়েছে, বর্তমানে পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে, যা উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এই অবস্থায় শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সন্ধ্যা নাগাদ ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু'এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝডড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একইসঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকবে। এসময় ঢাকায় দক্ষিণ-পশ্চিম/দক্ষিণ দিক থেকে বাতাসের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ৮ থেকে ১২ কিমি, যা অস্থায়ীভাবে ঘণ্টায় ৫০-৬০ কিমিতে উঠে যেতে পারে।

শনিবার নাগাদ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টির প্রবণতা হ্রাস পেতে পারে। আর বর্ধিত পাঁচদিনে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তনের আভাস রয়েছে।

বৃহস্পতিবার দেশে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে টাঙ্গাইলে, ২৯ মিলিমিটার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রাঙামাটি ও ফেনীতে, ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে ৩ মিলিমিটার ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


আরও খবর