আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

চাঁদপুরের বাস দুর্ঘটনার ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ২৪৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কে বেপরোয়া গতিতে চলা যাত্রীবাহী বাস দুর্ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি দুর্ঘটনাকবলিত বাসের পেছনের অন্য আরেকটি বাস থেকে ধারণ করা হয়েছে। তবে কে তা ধারণ করেছেন তার পরিচয় ঘটনার একদিন পার হলেও এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার মৌতাবাড়ি এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে দুই নারী যাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

এদের একজন শাহরাস্তির নাওড়া গ্রামের বীভা রানী দাস এবং কুমিল্লার নিমসারের গীতা রানী দাস। এই দুজন পরস্পর আত্মীয়। এই দুর্ঘটনায় বাসের আরো বেশ কয়েকজন যাত্রী আহত হন।

পুলিশ জানিয়েছে, কুমিল্লা থেকে চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা বোগদাদ পরিবহনের বাসটি শাহরাস্তির মৌতাবাড়ি এলাকায় পৌঁছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়।

শাহরাস্তি থানার ওসি আব্দুল মান্নান জানান, খুব বেপরোয়া গতিতে চলার কারণে এমন দুর্ঘটনা ঘটে। বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা যায়নি।

দেশের বিশিষ্ট দারুশিল্পী সমীরণ দত্ত জানান, এই দুর্ঘটনায় তার বড়বোন নিহত হন। এর আগে আরেক দুর্ঘটনায় কয়েক বছর আগে তার বোনের স্বামীও নিহত হন।

অন্যদিকে স্থানীয়দের অভিযোগ, চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কে চলাচলকারী বোগদাদ পরিবহনের বাসগুলো প্রায় এমন বেপরোয়া গতিতে চলার কারণে দুর্ঘটনার শিকার হয়।



নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর



গণপরিবহন চালুর দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত:রবিবার ০২ মে 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ মে 2০২1 | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
স্বাস্থ্যবিধি মেনে মোট আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন ও পণ্য পরিবহন চলাচলের ব্যবস্থা করতে হবে, সড়ক পরিবহনশ্রমিকদের আর্থিক অনুদান ও খাদ্যসহায়তা দিতে হবে এবং সারা দেশে বাস ও ট্রাক টার্মিনালগুলোতে পরিবহনশ্রমিকদের

গণপরিবহন চালু করাসহ তিন দফা দাবিতে আজ রবিবার সকাল থেকে দেশের সব টার্মিনালে বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি পালন করছেন পরিবহনশ্রমিকেরা। তারা প্রশ্ন তুলেছেন, ব্যক্তিগত গাড়ি, সিএনজি, পিকআপ চললে গণপরিবহন চলবে না কেন।

ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, গণপরিবহন বন্ধ থাকায় সড়ক পরিবহনের সঙ্গে জড়িত প্রায় ৫০ লাখ শ্রমিক বেকার। এতে তাদের জীবিকা নির্বাহ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। পরিবার-পরিজন নিয়ে তারা দুর্বিষহ জীবন যাপন করছেন। পরিবহনশ্রমিকেরা রাস্তায় নেমে এলে তার দায়দায়িত্ব ফেডারেশন নেবে না।

আজ সকাল ১০টার দিকে গাবতলীতে ঢাকা জেলা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃত্বে পরিবহনশ্রমিকেরা বিক্ষোভে অংশ নেন। বিক্ষোভ শেষে গাবতলী ও এর আশপাশ এলাকায় পরিবহনশ্রমিকেরা মিছিল করেন।

ইউনিয়নের সভাপতি মো. আব্বাস উদ্দিন বলেন, তাদের তিনটি দাবি, এগুলো হলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে মোট আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন ও পণ্য পরিবহন চলাচলের ব্যবস্থা করতে হবে, সড়ক পরিবহনশ্রমিকদের আর্থিক অনুদান ও খাদ্যসহায়তা দিতে হবে এবং সারা দেশে বাস ও ট্রাক টার্মিনালগুলোতে পরিবহনশ্রমিকদের জন্য ১০ টাকায় ওএমএসের চাল দিতে হবে।

টার্মিনালে জমায়েত হওয়া পরিবহনশ্রমিকেরা বলেন, মার্কেট খুলে দেওয়া হয়েছে। অনেকে কেনাকাটা করতে যাচ্ছেন, পরিবহনশ্রমিকদের সন্তানেরা তাকিয়ে তাকিয়ে দেখছেন। গাড়ি না চললে শ্রমিকেরা টাকা পান‌ না। মালিকপক্ষ প্রতি সপ্তাহে চাল, ডাল, তেল, আলু দিচ্ছে। কিন্তু এই সাহায্য যথেষ্ট নয়, কত দিন মালিকপক্ষ সহায়তা দেবে, তা নিয়েও শঙ্কা আছে। শ্রমিকেরা বলছেন, সব পরিবহনের শ্রমিকেরা আবার সেই সহায়তা পাননি।

এদিকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন বিক্ষোভ কর্মসূচির অংশ হিসেবে ৪ মে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে দাবি আদায়ে অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে।


আরও খবর



মধ্যপ্রাচ্যসহ বহু দেশে উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১ | ৩২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে আজ বৃহস্পতিবার উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। একইসঙ্গে পশ্চিমা দেশগুলোতেও আজ ঈদুল ফিতর পালন করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইসহ অন্যান্য শহরে, অস্ট্রেলিয়ার সিডনি, ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও ফিলিপাইনে ঈদের নামাজের জামাত হয়েছে।

এ ছাড়া দক্ষিণ এশিয়ার দেশ পাকিস্তান ও আফগানিস্তানেও আজ বৃহস্পতিবার ঈদুল ফিতর পালন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। তবে বাংলাদেশে ও ভারতের অধিকাংশ মুসলমান আগামীকাল শুক্রবার ঈদুল ফিতর উদযাপন করবে।

দুবাইয়ের মুসল্লিরা ঈদের নামাজে অংশ নিতে খোলা ময়দানে সমবেত হন। অস্ট্রেলিয়ার সিডনির লাকেম্বা শহরতলিতে আজ বৃহস্পতিবার সকালে মুসলিমদের ঈদের জামাতে অংশ নিতে দেখা গেছে।

এ ছাড়া ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা ও অন্যান্য শহরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা ময়দানে ঈদের নামাজের জামাতে অংশ নেওয়ার দৃশ্য দেখা গেছে।

অন্যদিকে, আরব দেশগুলো যখন আজ ঈদের আনন্দ ভাগাভাগির প্রস্তুতি নিচ্ছে, ঠিক তখন মধ্যপ্রাচ্যেরই আরেক দেশ ফিলিস্তিন করছে অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই। ফিলিস্তিনের অলিগলিতে নেই কোনো উৎসবের আমেজ, দোকানপাট বন্ধ এবং রাস্তায় সুনসান নিরবতা। ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর দফায় দফায় বিমান হামলায় ধংসস্তুপে পরিণত হয়েছে এলাকাটি। আর তাই এ বছর ঈদ উৎসব থেকে বিরত রয়েছে ফিলিস্তিনবাসী।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী মহামারি নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপ চলছে। মহামারিকালীন তৃতীয় ঈদ এটি। সব দেশেই সরকারের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।



আরও খবর



বাংলাদেশ ২০ মিলিয়ন টিকা চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আপনার যখন অন্যান্য দেশকে করোনার টিকা দেবেন, তখন বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যেন দেওয়া হয়। যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ৬০ মিলিয়ন ডোজ অ্যাস্ট্রেজেনেকার টিকা সংরক্ষিত রয়েছে। তবে তারা সেটি ব্যবহার

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ১০ থেকে ২০ মিলিয়ন (দুই কোটি) টিকা চাওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৬ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এ কথা জানান।

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলার পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে ড. আব্দুল মোমেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে ৬০ মিলিয়ন ডোজ টিকা অতিরিক্ত রয়েছে। আমরা যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে ১০ থেকে ২০ মিলিয়ন টিকা চেয়েছি।

তিনি বলেন, বৈঠকে বলেছি, আপনার যখন অন্যান্য দেশকে করোনার টিকা দেবেন, তখন বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যেন দেওয়া হয়। যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ৬০ মিলিয়ন ডোজ অ্যাস্ট্রেজেনেকার টিকা সংরক্ষিত রয়েছে। তবে তারা সেটি ব্যবহার করছে না। আর আমাদের এখানে দ্বিতীয় ডোজ সম্পূর্ণ হচ্ছে না। সে কারণেই জরুরি ভিত্তিতে আমরা টিকা চেয়েছি।

এক প্রশ্নের উত্তরে ড. আব্দুল মোমেন বলেন, আমরা যুক্তরাষ্ট্রের কাছে জরুরিভাবে চার মিলিয়ন টিকা চেয়েছি। যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত বলেছেন, তিনি এটা জোরালোভাবে দেখছেন। টিকা উৎপাদনে রাশিয়া একটি প্রোপোজাল দিয়েছে। সে অনুযায়ী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কাজ করছে।

তিনি বলেন, চীনা রাষ্ট্রদূত আমাদের জানিয়েছেন, তাদের টিকা আগামী ১২ মে ঢাকা এসে পৌঁছাবে। তবে এ টিকা আনার খরচ আমরা বহন করছি। আমাদের বিমান দিয়ে এ টিকা নিয়ে আসা হচ্ছে।  আর রাশিয়া ও চীনে এখন দীর্ঘ ছুটি রয়েছে। সে কারণে টিকা পেতে দেরি হচ্ছে। তবে আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করছি।


আরও খবর



আবদুল মতিন খসরুর সম্মানে আজ সুপ্রিম কোর্ট বসছেন না

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ১০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
প্রধান বিচারপতি বলেন, আপিল বিভাগের সকল বিচারপতির সঙ্গে এ বিষয়ে আমি আগেই আলোচনা করেছি। সব বিচারপতি একবাক্যে বলেছেন কোর্ট বন্ধ রাখার জন্য। কোর্ট বসবে না

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে তার প্রতি সম্মান জানিয়ে আজ বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগে ভার্চ্যুয়ালি বিচারকার্য পরিচালিত হবে না। বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগের ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন এ কথা বলেন।

এর আগে অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচার কাজ বন্ধ রাখার জন্য প্রধান বিচারপতিকে অনুরোধ জানান। তখন প্রধান বিচারপতি বলেন, আপিল বিভাগের সকল বিচারপতির সঙ্গে এ বিষয়ে আমি আগেই আলোচনা করেছি। সব বিচারপতি একবাক্যে বলেছেন কোর্ট বন্ধ রাখার জন্য। কোর্ট বসবে না।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (১৪ এপ্রিল) ৪টা ৫০ মিনিটে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে আবদুল মতিন খসরু ইন্তেকাল করেন।


আরও খবর



জাতিসংঘের মাদকদ্রব্য বিষয়ক কমিশনের সদস্য হলো বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বুধবার ২১ এপ্রিল 20২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ এপ্রিল 20২১ | ১০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতিসংঘের মাদকদ্রব্য বিষয়ক কমিশনের (সিএনডি) সদস্য হিসেবে আগামী তিন বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছে বাংলাদেশ। জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের (ইকোসক) সহযোগী সংস্থা সিএনডিয়ের এ নতুন পরিষদ ২০২২ সালের জানুয়ারি মাসে দায়িত্বভার গ্রহণ করবে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার নিউইয়র্কস্থ জাতিসংঘ সদরদফতর ইকোসকের ব্যবস্থাপনা সভায় সদস্য রাষ্ট্রসমূহের প্রত্যক্ষ ভোটে এ নির্বাচন হয়। এতে বাংলাদেশ ছাড়াও সৌদি আরব, দক্ষিণ কোরিয়া এবং ইরান এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল থেকে সংস্থাটির কার্যকরী পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছে।

নির্বাচনে জয়লাভের পর জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেন, সিএনডিয়ের এ নির্বাচনটি ছিল অত্যন্ত প্রতিযোগিতাপূর্ণ। বাংলাদেশ এতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৩ ভোট পায়। এই বিজয় বহুপাক্ষিক ফোরামে বাংলাদেশের নেতৃত্বের ওপর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আস্থারই বহিঃপ্রকাশ।

তিনি আরো বলেন, আমরা বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের মাদক ও মাদকজাতীয় দ্রব্যের ক্রমবর্ধমান অবৈধ ব্যবহার নিয়ে ভীষণ উদ্বিগ্ন। সংশোধনমূলক দৃষ্টিকোণ থেকে এসব সমাধান করা প্রয়োজন। মাদকদ্রব্যের অপব্যবহারের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক সহযোগিতা জোরদার করার ক্ষেত্রে কমিশনের সদস্য হিসেবে আমরা সর্বাত্মক প্রচেষ্টা গ্রহণ করব।

নিউজ ট্যাগ: জাতিসংঘ সিএনডি

আরও খবর