আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

ছাত্রদলের ঢাকা মহানগরের ৮টি ইউনিটে নতুন কমিটি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সংগঠনের সুপার ইউনিট খ্যাত আটটি ইউনিটের কমিটি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। মঙ্গলবার (১০ মে) ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনকুল শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ জুয়েল নতুন কমিটিগুলো ঘোষণা করেন।

এই ৮ টি ইউনিট হলো- ঢাকা মহানগর উত্তর ও পশ্চিম, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, সরকারি তিতুমীর কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, তেজগাঁও কলেজ ও সরকারি বাঙলা কলেজ।

* ঢাকা মহানগর উত্তর: সভাপতি মো. মেহেদী হাসান রুয়েল, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. রাজিব হোসেন, সহ-সভাপতি মো. সালাউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. রাসেল বাবু, যুগ্মসম্পাদক মো. মনিরুল ইসলাম (মনির), রবিউল ইসলাম রবি ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাগর আহমেদ বাবু।

* ঢাকা মহানগর পশ্চিম: সভাপতি আবুল কালাম আজাদ নাসির, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. তরিকুল ইসলাম রানা, সহ-সভাপতি গোলাম মাওলা গোলাপ, সাধারণ সম্পাদক জুয়েল হাসান রাজ, যুগ্মসম্পাদক মো. মঞ্জুরুল হাসান ইফাত ও আতিক মোহাম্মদ হাবীব চৌধুরী এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রবিন খান।

* শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়: সভাপতি আহমেদুল কবীর তাপস, সিনিয়র সভাপতি তারিকুল ইসলাম তারিক, সাধারণ সম্পাদক বি.এম. আলমগীর কবীর, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আব্দুস সামাদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ হোসেন।

* ঢাকা কলেজ: সভাপতি শাহিনুর রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন রাসেল, সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান রাসেল, ইব্রাহিম কার্দি, পিয়াল হাসান, সিরাজউদ্দিন বাবু, মেসকাত হোসেন তয়ন, সাধারণ সম্পাদক জুলহাস মৃধা, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী, যুগ্মসম্পাদক শাহাবউদ্দিন ইমন, আবু রাসেল ভূঁইয়া, মাহফুজুর রহমান খান, মাহিবুর রহমান টিপু ও মামুনুর রহমান মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক বোরহান উদ্দিন ইসরাক, প্রচার সম্পাদক ইমরান হোসেন রাজ এবং দপ্তর সম্পাদক তানভীর আহমদ মাদবর।

* সরকারি তিতুমীর কলেজ: সভাপতি আরিফুর রহমান এমদাদ, সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহফুজুর রহমান লিপকন, সহ-সভাপতি‌ আরিফুল ইসলাম মোল্যা, সেলিম রেজা, জসিম উদ্দিন মুন্সি রানা, সাধারণ সম্পাদক ইমাম হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক কাজী সাইফুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মিরাজ আল ওয়াসী, রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ ও শাহিন আল মাহমুদ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হামদে রাব্বি আকরাম।

* কবি নজরুল সরকারি কলেজ: সভাপতি সাইদুর রহমান সাইদ, সিনিয়র সভাপতি ইরফান আহমেদ ফাহিম, সহ-সভাপতি রোমান আহমেদ, মুজিবুল হক রিপন, মো. শামিম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক কাওসার হোসেন, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক কে এম সিরাজুল ইসলাম, যুগ্মসম্পাদক লিখিল চন্দ্র শ্রাবণ, কামরুল ইসলাম কানন, শওকত হোসেন সৈকত ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নাজমুল হাসান।

* তেজগাঁও কলেজ: সভাপতি মো. ফয়সাল দেওয়ান, সিনিয়র সহ-সভাপতি শামীম পালোয়ান, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল সোহাগ, তরুন মোর্শেদ, সাধারণ সম্পাদক মো. বেলাল হোসেন খান, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক এইচ এম মুনকির হোসেন সাগর, যুগ্মসম্পাদক মো. সেলিম হোসেন, সাদ্দাম হোসেন অনিক, হাসান মাহমুদ, এস আই জুয়েল শিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াছিন ভূঁইয়া, প্রচার সম্পাদক মোহাম্মাদ আলী ও দপ্তর সম্পাদক নাজমুল হাসান নাঈম।

* সরকারি বাঙলা কলেজ: সভাপতি ইব্রাহিম হোসেন বিপ্লব, সিনিয়র সভাপতি মোকলেছুর রহমান, সহ-সভাপতি প্রদিপ কুমার হাওলাদার, তারিকুল ইসলাম তারেক, তানভীর মাহমুদ পাপ্পু, হাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মো. বেল্লাল হোসেন সোহাগ, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক মেহেদী হাসান মিলন, যুগ্মসম্পাদক মেহেদী হাসান সালাম, সোহাগ মাহমুদ, রিয়ান জোয়াদার, মো. শরীফুল ইসলাম শ্রাবণ ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল রেজা।

নতুন কমিটিগুলোকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি কেন্দ্রে জমা দিতে বলা হয়েছে।


আরও খবর



সরকারের ব্যাংক ঋণের নির্ভরতা আরও বাড়ছে

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী বাজেটে সরকারের ব্যাংক ঋণ নির্ভরতা আরও বাড়ছে। ঘাটতি বাজেট পূরণে ব্যাংক থেকে প্রায় ৯৪ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেবে সরকার। এটি চলতি অর্থবছরের সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকার বেশি।

পাশাপাশি এ বছর যে লক্ষ্যমাত্রা ছিল তার চেয়ে প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা বেশি ঋণ নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এজন্য ব্যাংক ঋণের লক্ষ্যমাত্রা সংশোধন করা হয়েছে। সম্প্রতি ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত বাজেট ব্যবস্থাপনা ও সম্পদ কমিটির বৈঠকে আগামী বছরের ব্যাংক ঋণের লক্ষ্যমাত্রা চূড়ান্ত করা হয়। ওই কমিটিতে চলতি অর্থবছরের সংশোধিত ঋণের আকারও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে পাওয়া গেছে এসব তথ্য।

সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, এভাবে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার পরিমাণ বাড়তে থাকলে বেসরকারি বিনিয়োগে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। সরকার বেশি ঋণ নিয়ে গেলে বেসরকারি উদ্যোক্তাদের শিল্প বিনিয়োগ বাধাগ্রস্ত হবে।

সূত্রমতে, আগামী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ঘাটতি বাজেটের আকার ২ লাখ ৪৪ হাজার ৮৬৪ কোটি টাকা। এটি জিডিপির ৫ দশমিক ৫ শতাংশ। দেশি ও বিদেশি ঋণ নিয়ে এ ঘাটতি পূরণ করা হবে। নিয়মতান্ত্রিকভাবে ঘাটতি পূরণে আগামী অর্থবছরে বিদেশ থেকে ঋণ নেওয়ার প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ লাখ ১৬ হাজার ৫২৩ কোটি টাকা। পাশাপাশি দেশের অভ্যন্তরীণ পর্যায় থেকে ঋণ নেওয়া হবে ১ লাখ ২৮ হাজার ৩৪১ কোটি টাকা। এর মধ্যে শুধু ব্যাংকিং খাত থেকে ঋণ নেওয়ার অংক ৯৩ হাজার ৮৮৯ কোটি টাকা।

অভ্যন্তরীণ ঋণ সংগ্রহের জন্য অর্থ বিভাগ প্রাধান্য দিচ্ছে স্বল্প সুদ ও মুনাফার নতুন নতুন ক্ষেত্র যুক্ত করা। পাশাপাশি আর্থিক খাতে চলমান সংস্কার কার্যক্রমগুলো বাস্তবায়নের ফলে অর্জিত দক্ষতার মাধ্যমে সরকারের অন্যান্য কার্মকাণ্ডে অর্থায়ন করা।

জানতে চাইলে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক অর্থ উপদেষ্টা ড. মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, আসন্ন বাজেটে সঞ্চয়পত্র খাত থেকে ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা কমিয়েছে এটি ভালো উদ্যোগ। কারণ এটি সবচেয়ে ব্যয়বহুল ঋণ। এর সুদের হার সব ঋণের চেয়ে বেশি। সে কারণেই ব্যাংক ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা বাড়ানো হয়েছে। তবে বাজেটে যে অর্থ ব্যয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয় বছর শেষে তা পুরোপুরি খরচ হয় না। ফলে ঋণের লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী পুরো ঋণ ব্যবহার হয় না। কিন্তু এরপরও ব্যাংক ঋণের যে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে সেটি পুরোপুরি নেওয়া হলে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি কমবে। সেটি হলে বেসরকারি বিনিয়োগ ও উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

সাবেক সিনিয়র অর্থ সচিব মাহবুব আহমেদ বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়নে ঋণের প্রয়োজন আছে। তবে ঋণ গ্রহণের সময় কম সুদে যেখানে পাওয়া যায় সেটি দেখতে হবে। পাশাপাশি কোন প্রকল্পের জন্য, কেন ঋণ নিচ্ছি এগুলো এখন বুঝতে হবে। যেন সমস্যায় পড়তে না হয়।

সূত্র আরও জানায়, আগামী বছর অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। এই প্রবৃদ্ধি অর্জনের অন্যতম নিয়ামক হচ্ছে বিনিয়োগ। প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যে আগামী অর্থবছরে ১৩ লাখ ৯০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। এর মধ্যে বেসরকারি খাতে বিনিয়োগের লক্ষ্য ১০ লাখ ৯৯ হাজার কোটি টাকা। এটি জিডিপির ২৪ দশমিক ৯ শতাংশ। এছাড়া সরকারি বিনিয়োগের লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ২ লাখ ৯১ হাজার ২৪৮ কোটি টাকা। এটি জিডিপির ৬ দশমিক ৬ শতাংশ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, বেসরকারি বিনিয়োগের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে হলে পর্যাপ্ত ব্যাংক ঋণের প্রয়োজন। কিন্তু সরকার নিজেই ব্যাংক থেকে বেশি ঋণ গ্রহণ করলে নির্ঘাত বেসরকারি খাতে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে বাধ্য। বিনিয়োগের কাক্সিক্ষত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা নিয়েও সংশয় থাকবে।

এদিকে ব্যাংক ঋণ নির্ভরতা আগামী বছরে বাড়ছে শুধু তাই নয়, চলতি অর্থবছরেও লক্ষ্যমাত্রার বেশি ঋণ নিতে যাচ্ছে সরকার। চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৭৬ হাজার ৪৫২ কোটি টাকা। কিন্তু অর্থবছরের শেষ দিকে এসে ঋণের লক্ষ্যমাত্রা বাড়িয়ে ৮৭ হাজার ২৮৮ কোটি টাকা নির্ধারণ করেছে। অর্থাৎ লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১০ হাজার ৮৩৬ কোটি টাকা বেশি নেওয়া হবে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, শ্রীলংকার অর্থনীতি বিপর্যস্ত হওয়ার নেপথ্যে রয়েছে বড় অংকের বিদেশি ঋণ গ্রহণ। কিন্তু অর্থ মন্ত্রণালয় ঋণ গ্রহণ প্রসঙ্গে সতর্ক অবস্থানে আছে। তার মতে, চলতি অর্থবছরে বিদেশি ঋণের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কম ঋণ নেওয়া হচ্ছে। বছরের শুরুতে বিদেশি ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ লাখ ১২ হাজার ১৮৮ কোটি টাকা। এটি কমিয়ে সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৮০ হাজার ২১২ কোটি টাকা। অর্থাৎ বিদেশি ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা কমছে ৩২ হাজার ৭৬ কোটি টাকা। তিনি আরও বলেন, আগামী বছরে সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণ কম নেওয়া হবে। কারণ সঞ্চয়পত্রের ঋণের বিপরীতে সরকারকে বেশি মাত্রা সুদ পরিশোধ করতে হয়। একই ঋণ ব্যাংক থেকে নেওয়া হলে সুদ কম গুনতে হবে। যে কারণে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা বাড়ানো হয়েছে।


আরও খবর
ফের বাড়লো স্বর্ণের দাম

মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২




শঙ্কা উড়িয়ে ঢাকায় শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সব শঙ্কা দূর করে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ঢাকায় এসেছে শ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দল। এক ঘণ্টা দেরিতে রবিবার (৮ মে) দুপুর ১২.১৫ মিনিটের দিকে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামে শ্রীলঙ্কা দলকে বহনকারী বিমানটি।

তীব্র অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক সংকটে দিশেহারা শ্রীলঙ্কা। নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য ও পণ্যসামগ্রীর তীব্র ঘাটতির ফলে বেশ বিপাকে পড়েছে দ্বীপ দেশটি। বিপর্যয়ে পড়া শ্রীলঙ্কার ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্টের নেতৃত্বাধীন জোট সরকারে ভাঙন ধরেছে। জোট থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন সংসদ সদস্যরা। দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। সব মিলিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়, শেষ মুহূর্তে বাংলাদেশ সফরে আসবে তো লঙ্কানরা?

সে শঙ্কা উবে গেছে দিমুথ করুণারত্নের নেতৃত্বে শ্রীলঙ্কার ১৮ সদস্যের টেস্ট দল বাংলাদেশে পা দেওয়ায়। সকাল সাড়ে ১১টায় ঢাকায় পৌঁছানো কথা থাকলেও এক ঘণ্টা দেরিতে পৌঁছে তারা। বিমানবন্দর থেকে সোজা টিম হোটেলে উঠবে সফরকারীরা। আজ সেখানে তাদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা হওয়ার কথা আছে। পরীক্ষার ফল নেগেটিভ সাপেক্ষে ৯ আর ১০ মে অনুশীলনে নামবে তারা। আগামী ১১ ও ১২ মে বিকেএসপিতে দুই দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে শ্রীলঙ্কা দল। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ বিসিবি একাদশ।

বাংলাদেশ আর শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই ম্যাচের সিরিজটি আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ। যেখানে সিরিজের প্রথম ম্যাচ মাঠে গড়াবে আগামী ১৫ মে, চট্টগ্রামে। দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ২৩ মে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা আছে। সিরিজ শেষ করে ২৮ মে দুপুর ১২.৫৫টায় বাংলাদেশ ছাড়বে সফরকারীরা।

এক নজরে বাংলাদেশ সফরের জন্য শ্রীলঙ্কার ১৮ সদস্যের স্কোয়াড-

দিমুথ করুণারত্নে, কামিল মিশারা, ওশাদা ফার্নান্দো, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, কুশল মেন্ডিস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, কামিন্দু মেন্ডিস, নিরোশান ডিকওয়েলা, দীনেশ চান্দিমাল, রমেশ মেন্ডিস, চামিকা করুনারত্নে, সুনিন্দা লক্ষণ, কাসুন রাজিথা, বিশ্ব ফার্নান্দো, আসিথা ফার্নান্দো, দিলশান মাদুশঙ্কা, প্রবীণ জয়াউইকরামা ও লাসিথ এম্বুলদেনিয়া।


আরও খবর



এবার ওয়েব সিরিজে কারিশমা

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টালিউডের যিশু সেনগুপ্তের বৃহস্পতি একেবারে তুঙ্গে। দক্ষিণী সিনেমা বা বলিউডেও বেশ সরব। কয়েকটি সিনেমায় কাজ করেছেন। কাজ চলেছে আরও কয়েকটির। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এ খবর জানিয়েছে। সম্প্রতি পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় পরিচালিত যিশু অভিনীত বাংলা সিনেমা অভিযান’ ‍মুক্তি পায়। সিনেমাটিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। কিছুদিন আগে হায়দ্রাবাদে কাজ করে এসেছেন এক দক্ষিণী সিনেমার।

বলিউডে পর পর ছবি করছেন যিশু। এ ব্যস্ততার মাঝেই এক হিন্দি ওয়েব সিরিজের খবর দিলেন যিশু। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে তার নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে ক্ল্যাপারবোর্ডসহ একটি ছবি পোস্ট করে সিরিজের প্রথম দিনের শুটিং শেষ করেছেন বলে জানিয়েছেন যিশু। বলিউড পরিচালক অভিনয় দেও পরিচালিত ব্রাউন’ ওয়েব সিরিজে যিশু সেনগুপ্তের পাশে দেখা যাবে নব্বই দশকের অন্যতম সুপারহিট নায়িকা কারিশমা কাপুরকে। সঙ্গে রয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী হেলেন ও সোনি রাজদান।

বলিউডের বিদ্যা, কঙ্গনাদের মতো দাপুটে অভিনেত্রীদের পর কারিশমা কাপুরের সঙ্গে কাজ করছেন যিশু সেনগুপ্ত। সড়ক ২’ ছবিতে আলিয়া ভাটের সঙ্গেও দেখা গিয়েছিল তাঁকে। তবে শুধু বলিউডের ছবি নয়। দক্ষিণী ছবিতেও অভিনয় করে নজর কেড়েছিলেন যিশু।

অভীক বড়ুয়ার সিটি অব ডেথ’ বইয়ের উপর ভিত্তি করে তৈরি হবে ওয়েব সিরিজ ব্রাউন’। এদিকে ক্ল্যাপারবোর্ড হাতে ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে কারিশমাও লিখেছেন, নতুন শুরু ব্রাউন’।” ২০২০ সালে ওয়েব সিরিজ মেন্টালহুডে’ শেষবার দেখা গিয়েছিল কারিশমা কাপুরকে।

নিউজ ট্যাগ: কারিশমা কাপুর

আরও খবর



২৩ এপ্রিল: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৩ এপ্রিল ২০২২ | ৭০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ ২৩ এপ্রিল, ২০২২, শনিবার। ৯ বৈশাখ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ। গ্রেগরীয়ান বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১১৩তম (অধিবর্ষে ১১৪তম) দিন।

একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ইতিহাস:

১৬৬১ সালের এই দিনে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে দ্বিতীয় চার্লস ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের রাজা হিসাবে অভিষিক্ত হন।

১৬৩৫ সালের এই দিনে যুক্তরাষ্ট্রে বোস্টন ল্যাটিন স্কুল নামে প্রথম পাবলিক স্কুল প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৭৯৫ সালের এই দিনে ভারতের ব্রিটিশ গভর্নর ওয়ারেন হেস্টিংস রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ থেকে বেকসুর খালাস পান।

১৮২৭ সালের এই দিনে আইরিশ গণিতজ্ঞ ও পদার্থবিদ উইলিয়াম রোয়ান হ্যামিল্টন আলোকরশ্মির তত্ত্ব প্রদান করেন।

১৮৯৬ সালের এই দিনে নিউ ইয়র্ক শহরে জনসমক্ষে প্রথম চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়।

১৯২০ সালের এই দিনে মোস্তফা কামাল আতাতুর্ক তুরস্কের নেতা নির্বাচিত।

১৯২০ সালের এই দিনে তুরস্কের স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালে ঐদেশের এক কক্ষবিশিষ্ট জাতীয় সংসদ আংকারা শহরে প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯২৩ সালের এই দিনে গদানস্ক উপসাগরের তীরে পোলীয় বন্দর গদানিয়া প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯২৭ সালের এই দিনে তুরস্ক একমাত্র দেশ, যেখানে শিশু দিবসকে জাতীয় ছুটির দিন হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

১৯৩২ সালের এই দিনে লন্ডনে শেক্সপিয়র মেমোরিয়াল থিয়েটার উদ্বোধন করা হয়।

১৯৬১ সালের এই দিনে ১৯৪০ এর দশকের সেনাপতির পোষাক পরে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট চার্লস দ্য গল ফ্রান্সের সামরিক বাহিনী ও সাধারণ মানুষের কাছে আবেদন জানান, তারা যেন আলজিয়ার্সে উদ্ভূত অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার বিরোধিতা করেন।

১৯৬৮ সালের এই দিনে নিউ ইয়র্কের কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটির ছাত্ররা এই দিনে ইউনিভার্সিটি বন্ধ করে দিয়ে ভিয়েতনাম যুদ্ধের প্রতিবাদ করে।

১৯৬৮ সালের এই দিনে ব্রিটেনে প্রথম দশমিক মুদ্রা চালু হয়।

১৯৭১ সালের এই দিনে ভারতে প্রথম সুপার এক্সপ্রেস টেলিগ্রাফ সার্ভিসের উদ্বোধন করা হয়।

১৯৭১ সালের এই দিনে বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি হানাদার ও রাজাকাররা প্রায় তিন হাজার হিন্দু হত্যা করেছিল জোতিভাঙ্গা নামক এলাকায়।

১৯৭৭ সালের এই দিনে বাংলাদেশ সংবিধানের ৫ম সংশোধনী গৃহীত হয়।

১৯৮৮ সালের এই দিনে লিবিয়ায় বিস্ফোরক ভর্তি ট্রাক বিস্ফোরণে ৫৪ জন নিহত হন।

১৯৯০ সালের এই দিনে ২৬ বছরের মধ্যে প্রথম চীনের সরকার প্রধান, প্রধানমন্ত্রী লি পেং সোভিয়েত ইউনিয়ন সফরে যান।

জন্ম :

১৭৭৫ সালে এই দিনে প্রখ্যাত ইংরেজ আর্টিস্ট উইলিয়াম টার্নার জন্মগ্রহণ করেন।

১৭৯১ সালে এই দিনে আমেরিকার পঞ্চদশ রাষ্ট্রপতি জেমস বিউকানান জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৫৮ সালে এই দিনে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান পদার্থবিজ্ঞানী করেছিলেন মাক্স প্লাংক জন্মগ্রহণ করেন ।

১৮৬৭ সালে এই দিনে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ডেনিশ পদার্থবিজ্ঞানী জোহানেস ফিবিগের জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৯১ সালে এই দিনে রাশিয়ার প্রখ্যাত সংগীত রচয়িতা, সুরকার এবং পিয়ানোবাদক সের্গেই প্রোকোফিভ ইউক্রেনের একটি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৯৩ সালে এই দিনে মৃত্তিকাবিজ্ঞানী জ্ঞানেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৯৭ সালে এই দিনে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী কানাডিয়ান রাজনীতিবিদ ও ১৪ তম প্রধানমন্ত্রী লাস্টের বি. পিয়ারসন জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৯৯ সালে এই দিনে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইডিশ অর্থনীতিবিদ ও রাজনীতিবিদ বারটিল অহলীন জন্মগ্রহণ করেন।

১৯০২ সালে এই দিনে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আইসল্যান্ডিক লেখক ও কবি হাল্ডর লাক্সনেস্ জন্মগ্রহণ করেন।

১৯১৮ সালে এই দিনে ফরাসি লেখক মরিস দরুন জন্মগ্রহণ করেন।

১৯২৮ সালে এই দিনে আমেরিকান অভিনেত্রী, গায়িকা, ড্যান্সার ও কূটনীতিক শার্লি টেম্পল জন্মগ্রহণ করেন ।

১৯৪১ সালে এই দিনে আমেরিকার কম্পিউটার প্রোগ্রামার ও বিশ্বের প্রথম ই-মেইল প্রবর্তনকারী রেমন্ড স্যামুয়েল টমলিনসন জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৪১ সালে এই দিনে ফিনিশ সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও ৩৮ তম প্রধানমন্ত্রী পাভো লিপোনেন জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৫৪ সালে এই দিনে আমেরিকান পরিচালক, প্রযোজক ও সমাজ সেবী মাইকেল মুরে জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৫৫ সালে এই দিনে অস্ট্রেলিয়ান অভিনেত্রী জুডি ডেভিস জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৬২ সালে এই দিনে স্কটিশ অভিনেতা ও প্রযোজক জন হান্নাহ জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৬৮ সালে এই দিনে আমেরিকান সন্ত্রাসী, ওকলাহোমা শহরের হামলার ঘটনার সহ-অপরাধী টিমোথি ম্যাকভেই জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭৭ সালে এই দিনে ভারতীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান অভিনেতা কাল পেন্‌ জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৮৯ সালে এই দিনে চেক টেনিস খেলোয়াড় নিকলে ভাইডিসোভা জন্মগ্রহণ করেন।

মৃত্যু:

১৭১১ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন তৃতীয় চিল্ডেবেরট, তিনি ছিলেন ফ্রাঙ্কিশ রাজা।

১৬১৬ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন উইলিয়াম শেক্সপিয়র, তিনি ছিলেন বিশ্ববরেণ্য কবি ও নাট্যকার।

১৬১৬ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন মিগেল দে থের্ভান্তেস, তিনি ছিলেন স্পেনীয় ঔপন্যাসিক, কবি ও নাট্যকার।

১৮৫০ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন উইলিয়াম ওয়ার্ডসওয়ার্থ, তিনি ছিলেন একজন অন্যতম ইংরেজ রোমান্টিক কবি।

১৯১৫ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন রুপার্ট ব্রুক, তিনি ছিলেন ইংরেজ কবি।

১৯৫১ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন চার্লস জি. ডাওস, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আমেরিকান ব্যাংকার, রাজনীতিবিদ ও ৩০ তম ভাইস প্রেসিডেন্ট।

১৯৬৮ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন বড়ে গোলাম আলী খাঁ, তিনি ছিলেন উপমহাদেশের খ্যাতনামা সঙ্গীতশিল্পী।

১৯৭৫ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন উইলিয়াম হার্টনেল, তিনি ছিলেন ইংরেজ অভিনেতা।

১৯৮১ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন জোসেপ প্লা ই কাসাডেভেল, তিনি ছিলেন কাতালান সাংবাদিক ও লেখক।

১৯৮৬ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন অটো লুডভিগ প্রেমিঙার, তিনি ছিলেন ইউক্রেনীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান অভিনেতা, পরিচালক ও প্রযোজক।

১৯৮৭ সালে এই দিনে কবি ও প্রাবন্ধিক সুফি জুলফিকার হায়দার মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৯০ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন পাউলেটে গডার্ড, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেত্রী ও সমাজসেবী।

১৯৯২ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন সত্যজিৎ রায়, তিনি ছিলেন বাংলা চলচ্চিত্র পরিচালক, সাহিত্যিক ও চিত্রকর।

১৯৯৩ সালের এই দিনে শ্রীলঙ্কার শীর্ষ বিরোধীদলীয় নেতা ললিত আথুলাথ মুদালি আততায়ীর গুলিতে নিহত হন।

১৯৯৭ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন ডেনিস কম্পটন, তিনি ছিলেন ইংরেজ ক্রিকেটার।

২০০৭ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন বরিস ইয়েল্টসিন, তিনি ছিলেন রাশিয়ান রাজনীতিবিদ ও ১ম রাষ্ট্রপতি।

২০১৪ সালে এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন পাট্রিক স্টান্ডফরড, তিনি ছিলেন ইংরেজ সুরকার ও শিক্ষক।

নিউজ ট্যাগ: ইতিহাসে এই দিনে

আরও খবর
১২ মে: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২




সম্রাটের জামিন বাতিল

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ১৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের জামিন বাতিল করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। সাতদিনের মধ্যে তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ মে)  হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজহারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে মঙ্গলবার সম্রাটের জামিন বাতিল চেয়ে দুদকের করা আবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে আদেশের জন্য বুধবার (১৮ মে) দিন ধার্য্য করেন আদালত।

এর আগে বিচারিক আদালতের দেওয়া জামিনের বিরুদ্ধে রিভিশন চেয়ে সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন করা হয়।

গত ১১ মে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান সম্রাটের অস্ত্র, মাদক ও অর্থপাচারের দুই মামলায় জামিন দেন। তিনটি শর্তে তাকে জামিন দেওয়া হয়। ওই দিন কারাগারে জামিনের কাগজ পৌঁছালে বিকালেই তাকে মুক্ত করে দেওয়া হয়। আগে থেকেই সম্রাট ঢাকা কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের আওতায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) হৃদরোগ বিভাগে ভর্তি ছিলেন। জামিনের পরও তিনি সেখানে ভর্তি আছেন।

ক্যাসিনোকাণ্ডে ২০১৯ সালের ৭ অক্টোবর সম্রাটকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তাকে নিয়ে কাকরাইলে তার কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। এসময় কার্যালয়ের ভেতর থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, পিস্তল ও বিরল প্রজাতির বন্যপ্রাণীর চামড়া উদ্ধার করা হয়। তখন থেকে প্রায় আড়াই বছর কারাগারে ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাবেক এই নেতা।

সম্রাটের জামিনের তিন শর্তের মধ্যে রয়েছে- আদালতের অনুমতি ছাড়া দেশত্যাগ করতে পারবেন না, পাসপোর্ট জমা দিতে হবে এবং স্বাস্থ্যগত পরীক্ষার প্রতিবেদন আগামী ধার্য তারিখে জমা দিতে হবে।

এর আগে ২০১৯ সালের ১২ নভেম্বর দুই কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সম্রাটের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন দুদকের উপপরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম।

এদিকে গত ১১ এপ্রিল মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় সম্রাটের জামিন মঞ্জুর করেন ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ তেসিন ইফতেখার। এ ছাড়া গত ১০ এপ্রিল অস্ত্র মামলায় ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ ফায়সাল আতিক বিন কাদের ও অর্থপাচার মামলায় ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন জামিন মঞ্জুর করেছিলেন।


আরও খবর