আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

চসিকের অভিযানে পুলিশ-হকার সংঘর্ষ

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

Image

চট্টগ্রামের নিউমার্কেট মোড় থেকে ফলমন্ডিতে পুনর্দখল ঠেকাতে অভিযানে চালিয়েছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক)। এ সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন এক হকার। এছাড়া অসংখ্য হকার, পুলিশ সদস্য এবং সিটি করপোরেশনের কয়েকজন কর্মকর্তা আহত হয়েছেন।

সোমবার দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত চালানো অভিযানে নেতৃত্ব দেন চসিকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহরীন ফেরদৌসী, চৈতী সর্ববিদ্যা, মো: সাব্বির রহমান সানি।

অভিযান সম্পর্কে ম্যাজিস্ট্রেট চৈতী সর্ববিদ্যা জানান, রাস্তা, নালা ও ফুটপাত দখল করা প্রায় তিনশ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছি আমরা। অবৈধ দখলদাররা বাধা দিলে আমরা পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি। পুনর্দখল ঠেকাতে মনিটরিং চলমান থাকবে।

পথচারীরা জানায়, ফুটপাত ও সড়ক দখল হয়ে যাওয়ায় সেগুলো উচ্ছেদ করে চসিকের গাড়িতে তোলা হচ্ছিল। অভিযান তদারকিতে সিটি কর্পোরেশনের টিমকে বাধা দেন হকাররা। পুলিশ এগিয়ে এলে তাদের লক্ষ্য করেও হকাররা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন। এ সময় পুলিশও তাদের ওপর কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে।

উচ্ছেদকালে অবৈধ দখলদারদের আকস্মিক হামলায় ৩ পুলিশ ও চসিকের পরিচ্ছন্ন বিভাগের ৪ কর্মী আহত হন। দখলদাররা ২টি ডাম্প ট্রাক, ১টি পিকআপ ও চসিকের বিদ্যুৎ উপ-বিভাগের ১টি এরিয়াল লিফট ভাংচুর করে।  এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে চসিক।

অভিযানকালে সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেটদের সহায়তা প্রদান করেন।


আরও খবর



কুবিতে 'শিক্ষকদের হেনস্তা', থানায় জিডি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

Image

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) উপাচার্যের কার্যালয়ে 'শিক্ষকদের হেনস্তা ও হুমকি-ধমকির' অভিযোগে  দুইজন কর্মকর্তা ও সাতজন 'সাবেক শিক্ষার্থীর' নামে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনির্বাচিত শিক্ষক সমিতি সভাপতি ড. মো. আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানায় এ অভিযোগ করেন তারা।

অভিযুক্ত কর্মকর্তারা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ জাকির হোসেন, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মো. দেলোয়ার হোসেন। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পদে চাকরির আবেদন করা ও ছাত্রলীগের পদপ্রার্থীরা হলেন মো. ইমরান হোসাইন, অনুপম দাস বাধন, রকিবুল হাসান রকি, আমিনুর রহমান, ইমাম হোসাইন মাসুম, রাকিব, জাহিদুল ইসলাম সহ অজ্ঞাতনামা ২০ থেকে ৩০ জনের নামে এ অভিযোগ দায়ের করা হয়।

অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, বিকাল ৪ টায় নবনির্বাচিত শিক্ষক সমিতির নেতাকর্মীরা উপাচার্যের সাথে দেখা করতে গেলে জাকির হোসেন ও ইমরান হোসাইনের নেতৃত্বে কয়েকজনকে নিয়ে শিক্ষকদের কে শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত ও হেনস্তা করার চেষ্টা করে। এসময় তারা আমাদের সাথে মারমুখী আচরণ শুরু করে এবং প্রাণনাশমূলক হুমকি ধমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন শুরু করে। একপর্যায়ে জাকির উপাচার্যের উপস্থিতিতে শিক্ষকদের "থাপ্পড় দিয়ে দাঁত ফেলে দিব" বলে হুমকি দেয়। তখন উপাচার্য ও প্রক্টরিয়াল বডির কাছে নিরাপত্তা চাইলে আমাদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হন।

অভিযোগপত্রে আরও বলা হয়, উপাচার্য আমাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা না করেই নিজ বাসভবনে চলে যান। বর্তমানে আমি সহ আমাদের শিক্ষকগণ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগিতেছি। ভবিষ্যতে আমাদের যেকোনো সময় ক্ষতিসাধন করার আশঙ্কা করছি। বিষয়টি উপস্থিত শিক্ষকদের সাথে পরামর্শ করে শিক্ষকদের স্বাক্ষর সহ থানায় সাধারণ ডায়েরি করলাম।

এসময় প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষক থানায় উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত শিক্ষকদের স্বাক্ষরসহ সংযুক্তি দিয়ে এ অভিযোগ দায়ের করেন।

থানায় অভিযোগের বিষয়ে ড. আবু তাহের বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যদি আমরা নিরাপদ না থাকি, তাহলে আমরা অবশ্যই রাষ্ট্রের কাছে নিরাপত্তা চাইবো। প্রশাসন আমাদের নিরাপত্তা দিতে পারে নাই। উপাচার্যের কাছে আমরা নিরাপত্তা চেয়েও আমরা নিরাপত্তা পাইনি এবং প্রক্টরিয়াল বডিও আমাদের নিরাপত্তা দেয়নি। এখন আমাদের শিক্ষকেরা নিরাপত্তাহীনতায় আছে। এজন্য আমরা রাষ্ট্রের কাছে নিরাপত্তা চেয়ে জিডি করেছি।

জিডির বিষয়ে সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া বলেন, আমরা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিব।

এদিকে শিক্ষকদের নিরাপত্তার বিষয়ে উপাচার্যের সাথে কথা বলতে চাইলে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য, সোমবার (১৯ ফেব্রুয়াবি) বিকাল সাড়ে ৪টায় নবনির্বাচিত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈনের সাথে দেখা করতে গেলে উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ ও প্রক্টরিয়াল বডির সামনেই উপাচার্যের ঘনিষ্ঠ কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরিপ্রার্থী সাবেক শিক্ষার্থীদের কাছে লাঞ্ছনার শিকার হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।


আরও খবর
জাবির ‘ডি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বিডিআর বিদ্রোহের পেছনে বিএনপির হাত ছিলো: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, এটা এখন প্রকাশ্য দিবালোকের মত স্পষ্ট যে চৌকষ সেনা কর্মকর্তাদের হত্যা করা বিডিআর বিদ্রোহের পেছনে বিএনপির হাত ছিলো।

রাজধানীর মিন্টো রোডে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি এমন দাবি করেন।

সম্প্রতি বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মঈন খান পিলখানা হত্যাকাণ্ডের পেছনে সরকারের হাতের ইঙ্গিত দিয়ে বক্তব্য দেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিপুল রায় নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর বিএনপি হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছে। তাই তারা প্রলাপ বকছে। তিনি বলেন, তারাই ষড়যন্ত্র করে বিডিআর বিদ্রোহ ঘটিয়েছে।

এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পিলখানা হত্যাকাণ্ডের প্রথম দিন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গতিবিধি সন্দেহজনক ছিলো। ঘটনার অনেক আগেই তিনি ক্যান্টনমেন্টের বাসা থেকে বেরিয়ে যান। বেগম জিয়া তো এতো সকালে ঘুম থেকেই উঠে না। তার সেসময়কার কল রেকর্ড সরকারের কাছে। বিডিআর বিদ্রোহে যারা মারা গেছেন তারা আওয়ামী পরিবারের সন্তান উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ মনে করিয়ে দেন, তৎকালীন পুলিশ মহাপরিদর্শকের মেয়ের জামাইও নিহত হয়েছেন এই বিদ্রোহে।

হাছান মাহমুদ বলেন, সমগ্র পৃথিবী যখন প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানাচ্ছে তখন বিএনপি এসব অযৌক্তিক কথা বলে নিজেদের অস্তিত্ব জানান দেয়ার চেষ্টা করছে।

সফররত যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনা প্রসঙ্গে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দুই দেশের সম্পর্ক আরো উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া নিয়ে গুরুত্বের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।


আরও খবর
শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে রণক্ষেত্র চবি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

Image

পূর্ব ঘটনার জের ধরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের নেতাকর্মীদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বিবাদে জড়ানো গ্রুপ দুটি হলো বিজয় এবং সিক্সটি নাইন। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সংঘর্ষ জড়ায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের নেতাকর্মীরা।

জানা যায়, গত ১২ ফেব্রুয়ারি জীববিজ্ঞান অনুষদের সামনে বিজয় গ্রুপের একজনকে সিক্সটি নাইন গ্রুপের কিছু কর্মী মারধরর করে। পূর্ব ঘটনার জের ধরেই রাতে দুই গ্রুপের নেতাকর্মীদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। রাতের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই দুপুরে আবারও সংঘর্ষে জড়ায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

এসময় ছাত্রলীগের বিজয় গ্রুপের নেতাকর্মীরা সোহরাওয়ার্দী মোড়ে এবং সিক্সটি নাইন গ্রুপের নেতাকর্মীরা শাহজালাল হলের সামনে অবস্থান নেয়। পরে উভয় গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের দেশীয় অস্ত্রের মহড়া দিতে দেখা যায়।

শাখা ছাত্রলীগের উপ গ্রুপ বিজয়ের একাংশের নেতা সাখাওয়াত হোসাইন বলেন, শিক্ষা ও গবেষণা বিভাগের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী  রাশেদকে পূর্বের ঘটনার জের ধরে আজকের চলমান পিঠা উৎসবে তারা মারধর করে। সেই মারধর থেকে রূপ নেয় সংঘর্ষে। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সংঘর্ষ চলছে। তবে এখনো কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি। পরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তায় পরিস্থিতি স্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ড. নুরুল আজিম সিকদার বলেন, দুই গ্রুপের মাঝে তুচ্ছ বিষয়ে সংঘর্ষ ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি। পরে পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি স্থিতিশীল করার চেষ্টা করেছি। আশা করি পরিস্থিতি স্থিতিশীল করা যাবে।


আরও খবর
জাবির ‘ডি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বিআইডব্লিউটিএ’র গুদামে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৭ ইউনিট

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

নারায়ণগঞ্জের বরফকল এলাকায় বিআইডব্লিউটিএর গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৭টি ইউনিট।শনিবার ৩ (ফেব্রুয়ারি) দুপুর দেড়টায় সদর উপজেলার ডিসি বাংলার অপরপাশে বরফকল এলাকায় এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন মণ্ডলপাড়া ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক ফখরুদ্দিন আহমেদ। তিনি জানান, আগুনের খবর পেয়ে মণ্ডলপাড়া ও হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ৭টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ করছে। দেড়টার দিকে বিআইডব্লিউটিএর স্তুপ করে রাখা ডেজিং পাইপে আগুনের সূত্রপাত হয়। প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। আগুন নিয়ন্ত্রনে আসার পর তদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা যাবে।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় বাসিন্দা সাকিল ও রহিম জাহান, দুপুর দেড়টার দিকে হঠ্যাৎ বিআইডব্লিউটিএর গোডাউনে আগুন দেখতে পেয়ে আমরা ছুটে আসি। এই গোডাউনের ভিতর মূলত ডেজিং করার পাইপ স্তপ করে রাখা হয়েছে। পাইপ থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রনে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা কাজ করছে।


আরও খবর



আজকের দর্পণে সংবাদ প্রকাশের পর

কৈখাইন-চামুদরিয়া সড়ক সংস্কার কাজ শুরু, জনমনে স্বস্তি

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মো.আমজাদ হোসেন, আনোয়ারা

Image

দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান ঘটিয়ে অবশেষে শুরু হয়েছে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় পরৈকোড়া ইউনিয়নের কৈইখাইন চামুদরিয়া শাহ্ আলী রজা (রহঃ) সড়কের সংস্কার কাজ। ফলে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে জনসাধারণ।

এর আগে দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে খানাখন্দে ভরে ছিলো সড়কটি। সড়কে ছোট-বড় গর্তে পড়ে প্রায়ই বিকল হতো যানবাহন, ঘটতো নানা দুর্ঘটনা। তাছাড়া এই গুরুত্বপূর্ণ সড়ক দিয়ে প্রতিদিনই যাতায়াত করছেন হাজারো শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগণ।

এ নিয়ে ২০২৩ সালের ৩০শে জানুয়ারী জাতীয় দৈনিক "আজকের দর্পণ পত্রিকায়" পাঁচ কিলোমিটার সড়কে পাঁচ হাজার গর্ত! শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে আসে। অবশেষে গত বুধবার সকালে ইউনিয়ন পরিষদ হতে ওষখাইন দরবার শরীফ পর্যন্ত সড়ক সংস্কারের কাজ শুভ উদ্বোধন করেন পরৈকোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল হক চৌধুরী বাবুল। এসময় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, কৈখাইন-চামুদরিয়া শাহ্ আলী রজা (রহঃ) সড়কে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে কানুশাহ্ (রহঃ) মাজার পর্যন্ত মানুষের যাতায়াতের দুর্ভোগ লাঘব করতে ২ কোটি ৮২ লাখ টাকা ব্যায়ে শুরু হয়েছে সড়ক সংস্কারের কাজ। দীর্ঘদিন কাপেটিং হওয়া সড়কটির বেশিরভাগ অংশ জুড়েই ছিলো ছোট-বড় গর্ত। ফলে এই ইউনিউনের বেশির ভাগ মানুষই ওই সড়ক পথে যাতায়াত করতে দুর্ভোগ পোহাতে হতো। সড়ক সংস্কারের কাজ শুরু হওয়া এ ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ উচ্ছ্বসিত হয়েছেন।

পরৈকোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল হক চৌধুরী বাবুল বলেন, সাবেক ভূমিমন্ত্রী আলহাজ্ব সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ মহোদয়ের আন্তরিক প্রচেষ্টায় কৈখাইন চামুদরিয়া শাহ্ আলী রজা (রহঃ)সড়কের সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় সকলের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে। আশা করি খুব দ্রুততার সাথে সড়কের কাজ শেষ হবে।


আরও খবর