আজঃ শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

চট্টগ্রামে শেখ হাসিনার ৭৭তম জন্মদিন উপলক্ষে শিশু-কিশোরদের মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

দেশরত্ন শেখ হাসিনার ৭৭ তম জন্মদিন উদযাপন পরিষদ, চট্টগ্রাম কর্তৃক আয়োজিত চট্টগ্রাম জিইসি কনভেনশন সেন্টারে শিশু-কিশোররা চিত্রাঙ্কন, কবিতা আবৃত্তি ও উপস্থিত বক্তৃতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে হাজার হাজার শিশুর মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর ) বিকালে দেশরত্ন শেখ হাসিনার ৭৭তম জন্মদিন উদযাপন পরিষদ, চট্টগ্রাম এর সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ টি এম পেয়ারুল ইসলামের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে সম্মেলনের উদ্বোধন হয়।

এ আয়োজনে নগরের ৯০টি স্কুলের মোট ৩ হাজার শিক্ষার্থীদের নিয়ে এ চিত্রাংকন, কবিতা আবৃত্তি ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় শেখ হাসিনার ৭৭তম জন্মদিন উপলক্ষে শিশু-কিশোরদের নিয়ে মোমবাতি জ্বালিয়ে জম্মদিনের শুভেচ্ছা জানানো হয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে।

উক্ত আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. অনুপম সেন, চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রসেফর ড. আনোয়ারুল আজিম আরিফ, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, ড. জীনবেধি ভিক্ষু, অধ্যাপক ড. সেকান্দর চৌধুরী, অতিরিক্ত বিভাগী কমিশনার মুহাম্মদ আনোয়ার পাশা, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাব্বির ইকবাল, নির্বাহী কর্মকর্তা মো: দিদারুল আলম, রাশেদ রউফ, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আবু তৈয়ব, কাউন্সিলর হাসান মাহমুদ হাসনী, ড. নিছার উদ্দিন আহমদ মঞ্জু, কাউন্সিলর আতাউল্লাহ চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম চিশতী, দিলোয়ারা ইউসুফ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আসলাম খান, এইচ এম আলী আবরাহা, বোরহান উদ্দিন মোঃ এমরান, আব্দুল আলীম, ফারহান আফরিন জিনিয়া, সুরাইয়া বেগমসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী বক্তব্যে এ টি এম পেয়ারুল ইসলাম বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার দেশে গণতন্ত্র ও উন্নয়নের এক নতুন যাত্রা শুরু করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতার স্বপ্নকে বাস্তবে রূপায়ণের লক্ষ্যে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে শিল্পসমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার পথে অগ্রসর হচ্ছেন। এজন্য তিনি স্মার্ট বাংলাদেশ ঘোষণা করেছেন এবং বাংলাদেশকে সমৃদ্ধির কাঙ্কিত গন্তব্যে নিয়ে যেতে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের চলমান ধারা অব্যাহত রেখে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই ঘোষিত রূপকল্পের বাস্তবায়ন সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ  করেন

ড. অনুপম সেন বলেন, শিশু কিশোর মেলার সবাইকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। তোমরা নবীন প্রজম্ম। তোমরা এখানে এসেছ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে জানতে। বঙ্গবন্ধুকে বুকে ধারণ করতো হবে। অনেক কিছুর বিনিময়ে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে তোমরাই আগামী দিনের কারিগর। তোমরাই একদিন এ দেশের পরিচালনা করবে। এ মানবিক মানুষ হবে।

অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৭ তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে  আইনজীবী অডিটরিয়ামে সমিতির সভাপতি ও সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের আহবায়ক এ.এস.এম. বজলুর রশিদের সভাপতিত্বে এবং সমিতির সহ সাধারণ সম্পাদক ও সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব মোহাম্মদ ইমরানের সঞ্চালনায় গণতন্ত্রের মানসকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৭তম জন্মদিন বর্নাঢ্য সাজে গান ও সংগীতের মূর্ছনায় এবং জয় বাংলা ধ্বনিতে উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে স্টিয়ারিং কমিটির নেতৃবৃন্দ ও সমিতির সাবেক সভাপতি যথাক্রমে মো. মুজিুবল হক, শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু মোহাম্মদ হাশেম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে মনতোষ বড়ুয়া, অশোক কুমার দাশ, মো. আবদুর রশীদ, আইয়ুব খান, এ.এইচ.এম. জিয়াউদ্দিন, সাবেক মহানগর পিপি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী, সাবেক সহসাধারণ সম্পাদক কাজী মুহাম্মদ নাজমুল হক, সাবেক সহসভাপতি এম এ নাসের চৌধুরী, সাইবার ট্রাইব্যুনাল পিপি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, চন্দন বিশ্বাস প্রমুখ।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কার্যনির্বাহী পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ সেকান্দর চৌধুরী, সহসভাপতি আবদুল হক, অর্থ সম্পাদক মোশারফ হোছাইন, পাঠাগার সম্পাদক মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য রানা মিত্র, জামশেদ আলম, ইসরাত জাহান মুকুল, সাজেদা বেগম সাজুসহ বিপুল সংখ্যক আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন- জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে সমৃদ্ধিশালী দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমার পরিচিতি লাভ করেছি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অদম্য গতিতে এগিয়ে চলছে। এই অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার জন্য অনেক অপশক্তি ষড়যন্ত্র করছে। এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ নেতারা সকলের প্রতি উদাত্তকন্ঠে আহবান জানান। বক্তব্য শেষে জন্মদিনের কেক কেটে জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন করা হয়।


আরও খবর



বিএনপি কর্মীদের তাণ্ডব ছিল পূর্ব পরিকল্পিত: ডিবিপ্রধান

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেছেন, মহাসমাবেশ ঘিরে ২৮ অক্টোবর বিএনপির হামলা-ভাঙচুর ও পুলিশকে মারধরের ঘটনা ছিল পূর্বপরিকল্পিত। সিনিয়র নেতাদের নির্দেশে তারা এসব সহিংস ঘটনা ঘটিয়েছেন।

রোববার রাজধানীর মিন্টু রোডের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। হামলা-ভাঙচুর ও বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আরও ৬ জনকে গ্রেফতারে পর তাদের বিষয়ে তিনি বিস্তারিত তুলে ধরেন।

ডিবি প্রধান বলেন, শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তারা হলেন- বিএনপি কর্মী ইসমাইল পাটওয়ারী, শ্যামপুর থানার সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ আল সাঈদ রনি, শ্যামপুর থানার ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য সচিব এসএম মুরাদ হোসেন মামু ও যুবদলের কর্মী মাকসুদুর রহমান মাসুদ এবং মোস্তফা কামাল সুমন ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী আল আমিন (২৯)।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশে নেতাকর্মীরা ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় যানবাহনে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর চালায়। এ ঘটনাগুলো ছিল পূর্বপরিকল্পিত। যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তারা সবাই এ বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

হারুন অর রশীদ আরও বলেন, ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে ইসমাইল লাঠি হাতে ও তার পাশে একজন অস্ত্র হাতে নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে ব্যাপক মারধর করেছেন।

এদিকে রনি, মুরাদ ও মাসুদ সিসিটিভি ও গাড়ি ভাঙচুর এবং প্রধান বিচারপতির বাসভবনে ও পুলিশের ওপর হামলার কথা স্বীকার করেছেন।


আরও খবর



বাণিজ্যিকভাবে বস্তা পদ্ধতিতে মেহেরপুরে আদা চাষ শুরু হয়েছে

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আব্দুল আলিম, মেহেরপুর

Image

বাণিজ্যিকভাবে বস্তায় আদা চাষ শুরু হয়েছে। বাড়ির আশেপাশে পরিত্যাক্ত জমিতে আদা চাষ করে আশার আলো দেখছেন মেহেরপুরের আদা চাষিরা। কৃষি প্রযুক্তির এই আধুনিকায়নে কৃষকের প্রতি ইঞ্চি জায়গা ব্যবহারে এই পদ্ধতিতে আদা চাষ করতে আগ্রহী হয়ে উঠেছে চাষীরা।

কৃষি অফিসের উদ্যোগে পরিত্যাক্ত প্রতি ইঞ্চি জায়গা চাষের আওতায় আনতে বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ শুরু হয়েছে। সেই লক্ষে পরীক্ষামূলক মেহেরপুর সদর উপজেলার আমঝুপি গ্রামে দুজন চাষী তাদের বাড়ির পাশে পরিত্যাক্ত জায়গায় ৮০০টি বস্তায় চাষ আদা করেছে।

চাষীরা জানায় কৃষি অফিসের পরামর্শে প্রথমে একটি বস্তায় ৩ ঝুড়ি মাটি, ১ ঝুড়ি বালি, ১ ঝুড়ি গোবর সার ও ২৫ গ্রাম দানাদার কীটনাশক মাটির সঙ্গে ভালোভাবে মিশিয়ে বস্তায় ভরে তিন টুকরো অঙ্কুরিত আদা পুঁতে দিয়ে এই চাষ করা হয়েছে। এতে বস্তা প্রতি খরচ হয়েছে ২০-২৫ টাকা। ইতোমধ্যে আদার গুটি নিতে শুরু হয়েছে । চাষীরা আশা করছে ভাল লাভের।

আমঝুপি গ্রামের আদা চাষী জানান, আমার বাগানে দুই কাঠা জমি পড়ে ছিল কৃষি অফিসের পরামর্শে ৩০০ বস্তায় আদা চাষ করি। এ চাষে বেশি খরচ হয়নি মাত্র পাঁচ থেকে ছয় হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এতে যে আদা হবে বাজারে সর্ব নিম্ন দামো পায় তাও ৩০ হাজার টাকা আসবে।  

মেহেরপুর সদর উপজেলার আদা চাষী জানান, কৃষি অফিসের পরামর্শে আদা চাষ করে প্রতি বস্তায় এক কেজি করেও ফলন পাওয়া যায়। তবে বাজারে ১০০ টাকা কেজি দরেও বিক্রি হলেও চাষীরা ভাল লাভবান হবে। আমার এ আদা চাষ অনেকে দেখতে আসছে আমি আশা করি এবার আমার দেখাদেখি অনেকেই করতে উদ্ধবো হবে।

মেহেরপুর উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি অফিসার আশরাফুল ইসলাম জানান, পতীত জমির সৎ ব্যবহারের অনেক গুলো উপাদান আছে তার মধে সব থেকে ভালো চাষ আদা চাষ। একদিকে পতীত জমি অন্যদিকে ছায়াযুক্ত পতীত জমি যেখানে কোন আবাদ হয়না এমন এক জায়গায় এই জায়গা গুলো আবাদের আওতায় আনতে। আমরা কৃষি বিভাগ চাচ্ছি যে বাড়ির পতীত জমিতে আবাদ করতে পারি তারই একটি উদাহরণ আদা চাষ। আগামিতে কিভাবে লাভবান হতে পারি সেই সম্পর্কে তাদের আমরা পরামর্শ দিচ্ছি।


আরও খবর



নতুন চাকরি পেয়েছেন ডোনাল্ড

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

অ্যালান ডোনাল্ডের অধীনে বাংলাদেশের পেসাররা দারুণ করছিলেন। তবে অনেকটা অভিমান নিয়েই বাংলাদেশের চাকরিটা ছেড়ে গেছেন ডোনাল্ড। বিশ্বকাপের পর চুক্তি নবায়ন করতে চাননি ডোনাল্ড, আগ্রহী ছিল না বিসিবিও।

দেশে ফেরার দিন দশেকের ভেতরই নতুন চাকরি খুঁজে পেয়েছেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া ক্রিকেটের দল লায়ন্সের বোলিং কোচ হয়েছেন ডোনাল্ড। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবরটি জানিয়েছে লায়ন্স। 

এখানে পুরোনো সঙ্গীদেরও পাচ্ছেন ডোনাল্ড। বাংলাদেশের সাবেক হেড কোচ আরেক প্রোটিয়া রাসেল ডমিঙ্গো লায়ন্সের হেড কোচ হয়েছেন। এছাড়া ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে হাশিম আমলাকে। এতদিন এই দায়িত্বে থাকা জেপি ডুমিনি যোগ দিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় দলের কোচিং স্টাফে।

গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে মার্চের দিকে বাংলাদেশের পেসারদের দায়িত্ব নেন ডোনাল্ড। এরপর এক বছরে তাদের উন্নতিও ছিল চোখে পড়ার মতো। যদিও বিশ্বকাপে পুরো দলের মতো পেসাররাও খুব ভালো কিছু করতে পারেননি।

ক্রিকেটার হিসেবে সমৃদ্ধ ছিল ডোনাল্ডের ক্যারিয়ার। ৭২ টেস্টে ৩৩০ উইকেট নেন তিনি। ওয়ানডেতে ১৭৪ ম্যাচ খেলে ২৭২ উইকেট সাদা বিদ্যুৎ হিসেবে খ্যাত এই পেসারের। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও ১২শর বেশি উইকেটের মালিক তিনি।


আরও খবর
তীরে এসে তরি ডোবাল বাংলাদেশ

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩




প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষা

কুড়িগ্রামে ৯ পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা, বহিষ্কার ৩

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
মোঃ মাসুদ রানা, কুড়িগ্রাম

Image

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রক্সি ও ইলেকট্রনিক ডিভাইসের মাধ্যমে জালিয়াতি করে পরীক্ষা দেয়ার অভিযোগে কুড়িগ্রামে ৯ পরিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও ৩ জন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আটক পরীক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এদের মধ্যে বেশির ভাগই নারী পরিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এ তথ্য জানিয়েছেন কুড়িগ্রাম সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মাসুদুর রহমান।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কুড়িগ্রামে ৪৫টি কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২৬ হাজার ৮০৫ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন ২০ হাজার ৭১ জন এবং অনুপস্থিত ছিলো ৬ হাজার ৭৩৪ জন।

কুড়িগ্রাম সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদুর রহমান জানান,  ৯ পরিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। আগামীকাল শনিবার আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানো হবে।

কুড়িগ্রাম জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ নবেজ উদ্দিন সরকার বলেন, পরিক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ৯ পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া ৩ জন পরিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

 


আরও খবর



ভারতের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালের পিচ বদলের অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের আগে শুরু হয়েছে পিচ নিয়ে বিতর্ক। আইসিসির বেছে নেওয়া পিচ বদলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ভারতের বিরুদ্ধে। ফলে আগে যে পিচে ভারত-নিউজিল্যান্ড সেমিফাইনাল হওয়ার কথা ছিল সেই পিচে খেলা হবে না। পিচ বদল নিয়ে নাকি আইসিসিকে চিঠি লিখেছেন ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার পিচ প্রস্তুতকারক অ্যান্ডি অ্যাটকিনসন।

আজ প্রথম সেমিফাইনালে মুম্বাইয়ে মুখোমুখি হবে ভারত ও নিউজিল্যান্ড। আর সব ক্রিকেটপ্রেমীর এই ম্যাচে আলাদা নজর থাকবে। শক্তির বিচারে রোহিত শর্মার দল এগিয়ে থাকলেও সেমিতে চমক দেখাতে চায় কিউইরা। তবে সেমিফাইনালে নামার আগে পিচ পাল্টানোর গুরুতর অভিযোগ ভারতের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন>> সেমিফাইনালে ভারত-নিউজিল্যান্ডের সম্ভাব্য একাদশ

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ওয়াংখেড়ের ৭ নম্বর পিচে সেমিফাইনাল হওয়ার কথা ছিল প্রাথমিকভাবে। তবে পরে নাকি আইসিসির তরফ থেকে ভারত ও নিউজিল্যান্ডের দলকে হোয়াটসঅ্যাপ মারফত জানানো হয়, ৭ নয় বরং ৬ নম্বর পিচে হবে সেমিফাইনালের খেলা। এই পিচেই হয়েছিল গ্রুপ পর্বের দু'টি ম্যাচ - ইংল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ভারত বনাম শ্রীলঙ্কা।

সেমিফাইনালের উইকেট পাল্টানোয় ফাইনালেও একই কাজ হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করা হয় প্রতিবেদনে। আগামী রোববার আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ফাইনাল। এই মাঠে লিগ পর্বে অনুষ্ঠিত চার ম্যাচের তিনটিতে ভিন্ন ভিন্ন উইকেটে খেলা হয়েছে।

সংবাদমাধ্যমটি আরও দাবি করেছে, নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে অ্যাটকিনসনকে আইসিসির সিনিয়র ইভেন্টস ম্যানেজার জানিয়েছিলেন, ভারত-পাকিস্তান (১৪ অক্টোবর) ম্যাচটি পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ৭ নম্বর উইকেটে খেলার কথা। কিন্তু আসলে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় ৫ নম্বর উইকেটে।

অ্যাটকিনসন বিসিসিআইয়ের কাছে জানতে চান, এসব সিদ্ধান্ত কার? বিসিসিআই আঙুল তোলে গুজরাট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (জিসিএ) দিকে। এদিকে গুজরাট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের দাবি, তারা বিসিসিআইয়ের কথামতোই সব করছে এবং এসব অনুরোধ এসেছে সরাসরি ভারতের টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে। জিসিএ'র কাছে তার পাঠানো মেইলের কিছু অংশ ছেপেছে মেইল অনলাইন।


আরও খবর
তীরে এসে তরি ডোবাল বাংলাদেশ

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩