আজঃ মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

চ্যাম্পিয়ন হতে চেন্নাইর দরকার ২১৫ রান

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ মে ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

আইপিএলের চলতি আসরের ফাইনালে মাহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসকে ২১৫ রানের টার্গেট দিয়েছে হার্দিক পান্ডিয়ার গুজরাট টাইটান্স।

১৬তম আসরের ফাইনালে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ২১৪ রানের পাহাড় গড়েছে গুজরাট। দলের হয়ে ৪৭ বলে ৮ চার আর ৬টি ছক্কার সাহায্যে ৯৬ রান করে ফেরেন সুন্দর।

আরও পড়ুন: রিজার্ভ ডেতে গড়াল আইপিএল ফাইনাল

৩৯ বলে ৫৪ রান করেন ওপেনার ঋদ্ধিমান সাহা। ২০ বলে ৩৯ রান করে ফেরেন টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক শুভমান গিল। ১২ বলে ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া।

আরও পড়ুন: মুম্বাইকে হারিয়ে আইপিএলের ফাইনালে গুজরাট

আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গতকাল রোববারই ফাইনাল ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বৃষ্টির কারণে গতকাল খেলা হয়নি।

 


আরও খবর



নাগরিকদের লেবানন ছাড়তে ৭ দেশের নির্দেশনা

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ফিলিস্তিন ইসরায়েল যুদ্ধের উত্তেজনা ছড়িয়েছে লেবনানেও। দেশটির প্রতিরোধ গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর সাথে ইসরায়েলে হামলা-পাল্টা হামলা চলে আসছে। এমন পরিস্থিতিতে সাতটি দেশ তাদের নাগরিকদের লেবানন ছাড়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে। শনিবার (২৯ জুন) আনাদোলু এজেন্সির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৈরুতে অবস্থিত সৌদি দূতাবাস শনিবার লেবাননে অবস্থানরত দেশটির নাগরিকদের অবিলম্বে লেবাননের ভূখণ্ড ত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছে। এছাড়া যেকোনো পরিস্থিতিতে দূতাবাসের সাথে যোগাযোগ রাখার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়েছে সৌদি।

অস্ট্রেলিয়াও নিজেদের নাগরিকদের একই পরামর্শ দিয়েছে।অস্থিতিস্থীল পরিবেশের কথা উল্লেখ করে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাগরিকদের লেবানন ছাড়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। আপাতত দেশটি ভ্রমণ না করার অনুরোধ জানান তিনি।

একই অনুরোধ জানিয়েছে নেদারল্যান্ডসের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বাণিজ্যিক বিমান চালু থাকা অবস্থায় দেশটি থেকে নিজেদের নাগরিকদের দেশে ফেরার আহ্বান জানিয়েছে দেশটি। এ ছাড়া জার্মানি, কানাডা ও উত্তর মেসিডোনিয়া এবং কুয়েত একই আহ্বান জানিয়েছে। এ ছাড়া গত ২২ জুন কুয়েত তাদের নাগরিকদের যতদ্রুত সম্ভব লেবানন ছাড়ার অনুরোধ জানিয়েছে।

এর আগে লেবাননের প্রতিরোধ গোষ্ঠীর সঙ্গে ইসরায়েলের দফায় দফায় হামলা-পাল্টা হামলার বিষয়ে ইসরায়েলকে সতর্ক করে যুক্তরাষ্ট্র-জার্মানি। সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলে জানায়, ইসরায়েলের পরিকল্পনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি ও তুরস্ক উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। বার্লিন ও ওয়াশিংটন জানিয়েছে, যুদ্ধ আরও প্রসারিত হলে ফল কী হবে তা নিয়ে তারা উদ্বিগ্ন।

জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক সিনিয়র কর্মকর্তা মার্টিন গ্রিফিথস বলেন, যুদ্ধের পরিধি ও তীব্রতা বাড়লে তার ফল মারাত্মক হবে। আমি এটিকে ফ্লাশ পয়েন্ট হিসেবে দেখছি।

গত সাত অক্টোবর থেকে গাজায় হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েল। দেশটির এ হামলার পর থেকে সংঘাতে জড়িয়েছে লেবাননের হিজবুল্লাহও। অন্যদিকে এ হামলায় ইসরায়েলকে সহযোগিতা করে আসছে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ।

জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেয়ারবক বলেন, আরেকটি যুদ্ধ মানে আঞ্চলিক সংঘাতের সম্ভাবনা অভাবনীয় আকারে বেড়ে যাওয়া। ইসরায়েল ও লেবাননের মধ্যে যুদ্ধ হলে বিপদ বাড়বে বলেও জানান তিনি।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন বলেন, ইসরায়েল ও হিজবুল্লাহর মধ্যে যুদ্ধ হলে তা আঞ্চলিক যুদ্ধে রূপ নেবে। কূটনৈতিক পথে এ উত্তেজনা কমাতে হবে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



দক্ষিণ কোরিয়ায় ব্যাটারি প্ল্যান্টে ভয়াবহ আগুন, নিহত ২০

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

দক্ষিণ কোরিয়ায় একটি ব্যাটারি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ২০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আজ সোমবার এক প্রতিবদেনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

দেশটির দমলকর্মীরা জানান, একটি লিথিয়াম ব্যাটারি উৎপাদন কারখানায় আগুন লাগে। অগ্নিকাণ্ডের পর কারখানার ভেতরে প্রায় ২০টি মৃতদেহ পাওয়া গেছে।

রাজধানী সিউলের দক্ষিণে হোয়াসিয়ংয়ে ব্যাটারি প্রস্তুতকারক অ্যারিসেল পরিচালিত একটি কারখানায় সোমবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা। তবে এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে আগুন।

স্থানীয় দমকল কর্মকর্তা কিম জিন-ইয়ং বলেন, প্রায় ৩৫ হাজার ইউনিটের একটি গুদামের ভেতরে ব্যাটারি সেলের সিরিজ বিস্ফোরণের পর আগুনের সূত্রপাত হয়।


আরও খবর



শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলবে, সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পবিত্র ঈদুল আজহা ও গ্রীষ্মকালীন অবকাশ উপলক্ষে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে টানা ২০ দিনের ছুটি চলছে। তবে বিগত সময়ে শৈত্যপ্রবাহ ও তাপপ্রবাহের কারণে বেশ কিছুদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখায় যে শিখন ঘাটতি দেখা দিয়েছে, তা পূরণে এই ছুটি কমিয়ে এনে এক সপ্তাহ আগেই খুলে দেওয়া হতে পারে সব স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসা। একইসঙ্গে ঈদুল আজহার পর শনিবারে পুনরায় সাপ্তাহিক ছুটি ফিরিয়ে দেওয়া হতে পারে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। সূত্র বলছে, ঈদের ছুটি ঠিক থাকলেও গ্রীষ্মকালীন ছুটি কমিয়ে আনা ও শনিবারে ছুটি ফিরিয়ে দেওয়ার বিষয়ে আলাপ-আলোচনা চলছে। এন্সব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামীকাল মন্ত্রণালয়ে একটি সভা হবে। সেখানেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, আগামীকাল আলোচনা করে এ ব্যাপারে একটা সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের মাধ্যমিক শাখার একজন উপ-সচিব জানান, চলতি বছরের শুরুতে তীব্র শীত এবং মাঝামাঝি সময়ে প্রচণ্ড গরমের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে হয়েছে। এর ফলে শিখন ঘাটতি তৈরি হয়েছে। আবার নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী যেসব শ্রেণিতে পাঠদান হচ্ছে, সেসব শ্রেণিতে জুলাই মাসে অনুষ্ঠিতব্য ষাণ্মাসিক মূল্যায়নের প্রস্তুতিও ভালো হয়নি। অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্ধারিত সিলেবাস শেষ করতে পারেনি। এজন্য একটি সভার মাধ্যমে বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে।

বছরের শুরুতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা, বিভিন্ন পরীক্ষা ও মূল্যায়নের সূচি ঘোষণা করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে স্কুল এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা প্রকাশ করা হয়।

অন্যদিকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর ছুটির তালিকা, বিভিন্ন পরীক্ষা ও মূল্যায়নের সূচি জানানো হয়। এটি শিক্ষাপঞ্জি নামে পরিচিত।


আরও খবর



ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে জরুরি বৈঠকে প্রভোস্ট কমিটি

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ঢাবি প্রতিনিধি

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্যের বাসভবনে জরুরি বৈঠকে বসেছে প্রভোস্ট কমিটি। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এ বৈঠক শুরু হয়।

বৈঠকে উপস্থিত জহুরুল হক হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক আবদুর রহিম গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, উদ্ভূত পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে এই বৈঠক ডাকা হয়েছে।

এর আগে সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। পরে ঢাকা মেডিকেলের সামনে কোটা আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এদিন বিকেল ৫টার দিকে শুরু হওয়া ওই সংঘর্ষে শিক্ষার্থীদের বিপরীতে ছাত্রলীগ ঢাকা মহানগর উত্তর, দক্ষিণ ও ঢাকা জেলা উত্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত রয়েছেন। সেখানে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও অসংখ্য ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।

এদিকে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের হটিয়ে রাজু ভাস্কর্য ও টিএসসি দখলে নিয়েছে ছাত্রলীগ। বিকেল সোয়া ৪টার দিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা পিছু হটলে রাজু ভাস্কর্যে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগ।


আরও খবর



লোকসভার প্রধান বিরোধী দলনেতা হচ্ছেন রাহুল গান্ধী

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান হলো। দীর্ঘ ১০ বছর পর প্রধান বিরোধী দলীয় নেতা পেল ভারতের লোকসভা। ভারতে ১৮তম লোকসভায় প্রধান বিরোধী দলনেতা হচ্ছেন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সাবেক সভাপতি ও দলটির অন্যতম শীর্ষস্থানীয় নেতা রাহুল গান্ধীই।

এর আগে গেল শনিবার দল থেকে রাহুল গান্ধীকে সর্বসম্মতভাবে এই পদে মনোনয়ন দেয়া হয়। কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন বিরোধীদের ইন্ডিয়া জোটের অন্য শরিকদের সঙ্গে আলোচনার পর এ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাতে এ ঘোষণা দেয় কংগ্রেস। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক কেসি বেনুগোপাল এমন কথাই জানিয়েছেন। একই দিন রাতে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৮তম লোকসভায় রাহুল গান্ধী প্রধান বিরোধী দলনেতা হচ্ছেন বলে মঙ্গলবার রাতে জানিয়েছেন সাধারণ সম্পাদক কেসি বেনুগোপাল। তিনি বলেছেন, সিপিপি চেয়ারপারসন সোনিয়া গান্ধী প্রোটেম স্পিকার ভর্তৃহরি মাহতাবকে চিঠি লিখে লোকসভার বিরোধী দলনেতা হিসাবে রাহুল গান্ধীকে নিয়োগের সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন।

এছাড়া অন্যান্য পদাধিকারীদের বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। মূলত আজ বুধবারই (২৬ জুন) ভারতের ১৮তম লোকসভা সাক্ষী হতে চলেছে এক বড় লড়াইয়ের। বিরোধী এবং শাসক জোটের মধ্যে ভোটাভুটি হবে লোকসভার স্পিকার পদ নিয়ে। তার কয়েক ঘণ্টা আগেই এই সিদ্ধান্ত জানানো হলো।

এদিকে এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার আগে দিল্লিতে কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের বাসভবনে ইনডিয়া জোটের লোকসভার নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন রাহুল। সেই বৈঠকেই তাকে লোকসভার প্রধান বিরোধী দলনেতা হিসেবে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

অবশ্য গত ৯ জুন কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে এই বিষয়ে একটি প্রস্তাব পাস হয়েছিল। তারপর এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার রাহুলের ওপরই দেওয়া হয়েছিল। রাহুল গান্ধী সেসময় জানিয়েছিলেন, সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে এই বিষয়ে ভেবে দেখার জন্য তার কিছুটা সময় দরকার।

উল্লেখ্য, রাহুল গান্ধী বিরোধী দলনেতার পদে যাওয়ার মাধ্যমে দীর্ঘ দুই দশক পর লোকসভার প্রধান বিরোধী দলের নেতা পদটি ফিরে পেল কংগ্রেস। ২০১৪ সালের নির্বাচনে, ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার সময় কংগ্রেস মাত্র ৪৪টি আসন জিতেছিল। আর ২০১৯ সালে জিতেছিল ৫২টি আসন।

দুইবারই বিজেপির পর সংসদে দ্বিতীয় বৃহত্তম দল ছিল কংগ্রেস। কিন্তু সংসদে প্রধান বিরোধী দলের মর্যাদা পাওয়ার মানদণ্ড পূরণ করতে পারেনি দলটি। নিয়ম অনুযায়ী, লোকসভায় ১০ শতাংশের কম আসন পেলে প্রধান বিরোধী দলের মর্যাদা বা প্রধান বিরোধী দলনেতার পদ পাওয়া যায় না।

অবশ্য এ বছরের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস ৯৯টি আসনে জয় পেয়েছে।


আরও খবর