আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

দাম কমেছে মুরগির মাংসের, স্থিতিশীল রয়েছে সবজি-পেঁয়াজ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় লকডাউনে গিয়েছে সরকার। এর মধ্যে বেশিরভাগ পণ্যের মূল্য যেমন- পেঁয়াজ, আলু, গরুর মাংসসহ বেশিরভাগ পণ্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে। মুরগির মাংসের দাম কেজিতে কমেছে ২০ টাকা। বুধবার (৭ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে গিয়ে দেখা যায়, আলু ২০ টাকা, পেঁয়াজ ৪০ টাকা, গরুর মাংস ৬০০ টাকা, কাঁচামরিচ ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। লকডাউনের আগে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হতো ১৮০ টাকা, এখন তা বেড়ে ১৫০-১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

কারওয়ান বাজারে বাজার করতে আসা ফার্মগেটের ব্যবসায়ী নিজামুল কবির বলেন, সকল পণ্যের দাম একই আছে। কোনও মালের দাম বাড়েনি। তবে লকডাউনের ঘোষণা দেওয়ার আগের দিন ক্রেতারা বেশি বাজার করায় দাম একটু বেড়েছিল।

নিউজ ট্যাগ: বাজার দর

আরও খবর
সব সবজির দাম ঊর্ধ্বমুখী

শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১




১৪টি লাশসহ

১৮ ঘণ্টা পর উদ্ধার হলো শীতলক্ষ্যায় ডুবে যাওয়া লঞ্চটি

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মাঝ নদী থেকে ‘সাবিত আল হাসান’ নামে লঞ্চটি টেনে পারের দিকে নিয়ে আসা হয়। সেসময় আশেপাশে ভিড় করেন স্থানীয়রা। উদ্ধারকর্মীদের

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি তীরে তোলা হয়েছে। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত লঞ্চটি ভিতর থেকে ১৪টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৩০ জনের বেশি যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন।

আজ সোমবার (৫ এপ্রিল) দুপুর ১২টা ২০ মিনিটের দিকে সাবিত আল হাসান নামে লঞ্চটি তীরে তোলা হয়। এ সময় নিখোঁজ যাত্রীদের স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। তারা রবিবার রাত থেকেই নদীর তীরে অপেক্ষা করছিলেন। মাঝ নদী থেকে সাবিত আল হাসান নামে লঞ্চটি টেনে পারের দিকে নিয়ে আসা হয়। সেসময় আশেপাশে ভিড় করেন স্থানীয়রা। উদ্ধারকর্মীদের পাশাপাশি লঞ্চটি তোলার পর সেখান থেকে মরদেহ উদ্ধারের কাজে হাত লাগান স্থানীয়রা।

নারায়াণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আরেফিন জানান, ডুবে যাওয়া লঞ্চটি তোলা হয়েছে। সেখান থেকে আরও ১৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকাজ চলছে। আরও অনেক যাত্রীর মরদেহ উদ্ধার হতে পারে।

বিআইডাব্লিউটিএ -এর চেয়ারম্যান গোলাম মো. সাদেক বলেন, ফায়ার সার্ভিস, নৌবাহিনী এবং কোস্টগার্ডের ডুবুরীরা মৃতদেহগুলো উদ্ধারের পর সেগুলো জেলা প্রশাসনের কাছে পাঠানো হবে। সেখান থেকে মরদেহ শনাক্তের পর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে রবিবার (৪ এপ্রিল) অর্ধশত যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটে। এখন পর্যন্ত জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ২০ জনকে। নিখোঁজ রয়েছেন অন্তত ২৯ জন। ১৮ ঘণ্টা ধরে চলে উদ্ধারকাজ।


আরও খবর



শেয়ার বাজারে একদিনে হাওয়া ১৫ হাজার কোটি টাকা

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এক সপ্তাহের লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে শেয়ার বাজারের বিনিয়োগকারীরা। আতঙ্কে তারা শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়িয়ে দিয়েছেন। যার ফলস্বরূপ দিনের লেনদেন শেষে বড় ধসের ঘটনা ঘটেছে দেশের শেয়ার বাজারে। এই ধসের মধ্যে পড়ে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ার ও ইউনিটের দাম একদিনেই ১৫ হাজার কোটি টাকা হাওয়া হয়ে গেছে।

রবিবার (৪ মার্চ) শেয়ার বাজারে লেনদেন শুরু হওয়ার আগেই দেশজুড়ে এক সপ্তাহের লকডাউনের সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে। এতে লেনদেন শুরু হতেই ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ৮৫ পয়েন্ট পড়ে যায়।

শেয়ার বাজারে দেখা দেওয়া এই বড় দরপতনের মধ্যেই এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলাম জানান, লকডাউনের মধ্যেও শেয়ার বাজারে লেনদেন বন্ধ হবে না। ব্যাংকের লেনদেনের সময়ের সঙ্গে সমন্বয় রেখে শেয়ার বাজারে লেনদেন চলবে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থার এমন আশ্বাসও বিনিয়োগকারীদের আতঙ্ক দূর করতে পারেনি। ফলে শুরুর বড় দরপতনের ধারা চলমান থাকে। এর মধ্যেই দুপরে লকডাউন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। এই প্রজ্ঞাপন জারির পর শেয়ার বাজারে দরপতনের মাত্রা আরও বেড়ে যায়।

আতঙ্কিত বিনিয়োগকারীরা অস্বাভাবিক বিক্রির চাপ বাড়ালে অনেক কোম্পানির ক্রেতা সঙ্কট দেখা দেয়। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে সূচকের ওপরে। ফলে দেখতে দেখতে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক প্রায় দুশ পয়েন্ট নেই হয়ে যায়।

দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে দাম বেড়েছে মাত্র ৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার। বিপরীতে দাম কমেছে ২৫১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। আর ৬৬টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এতে লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৩৪৫ কোটি টাকা। যা আগের কার্যদিবসের লেনদেন শেষে ছিল ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৬৮০ কোটি টাকা। অর্থাৎ একদিনেই ডিএসইর বাজার মূলধন কমেছে ১৫ হাজার ৩৩৫ কোটি টাকা। মূলধন বাড়ার অর্থ হলো, তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দাম সম্মিলিতভাবে ওই পরিমাণ বেড়েছে।

বড় অঙ্কের বাজার মূলধন কমার পাশাপাশি সবকটি মূল্যসূচকের বড় পতন হয়েছে। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক আগের দিনের তুলনায় ১৮১ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৮৮ পয়েন্টে নেমে গেছে। এর মাধ্যমে গত বছরের ৯ মার্চের পর সূচকটির সব থেকে বড় পতন হল।

প্রধান মূল্যসূচকের পাশাপাশি বড় পতন হয়েছে ডিএসইর অপর দুই সূচকের। এর মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৮২ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৯০১ পয়েন্টে নেমে গেছে। আর ডিএসইর শরিয়াহ্ সূচক ৩৬ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ১৬৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এদিকে সূচকের বড় পতনের দিনে ডিএসইর লেনদেন হয়েছে ৫২১ কোটি ১৭ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৪৫১ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। এ হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৬৯ কোটি ৮৪ লাখ টাকা।

অপর শেয়ার বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই কমেছে ৫৪২ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৭৫ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ২১৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৮৪টির। আর ১৯টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: শেয়ার বাজার

আরও খবর
সব সবজির দাম ঊর্ধ্বমুখী

শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১




লকডাউনে শেয়ার বাজার চলবে

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ এপ্রিল ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লকডাউনে শেয়ার বাজারে লেনদেন চলবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম। শনিবার (৪ মার্চ) তিনি এ তথ্য জানান।

করোনা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় আগামী সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউনের ঘোষণা আসতে পারে বলে জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার ঢাকায় নিজের সরকারি বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। বলেন, সোমবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করছে সরকার।

এদিকে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকার ২/৩ দিনের মধ্যে এক সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে লকডাউনের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার শর্তে শিল্পকারখানা চালু থাকবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।


আরও খবর



পুলিশের দুই গাড়িকে বাসের ধাক্কা, গুরুতর আহত ২১

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
Image

কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় পুলিশের দুই ঢহল গাড়িতে থাকা ২১ পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন। সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল ৮ টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ৬ জনকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার সকাল ৮ টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের রিকুইজিশন করা দুটি পিকআপভ্যান ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর বাইপাস কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে দায়িত্ব পালন করছিলেন পুলিশ সদস্যরা। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা ব্রাহ্মণবাড়িয়া ইকোনো পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একসঙ্গে থাকা পরপর পুলিশবাহী দুটি পিকআপ ভ্যানকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই পুলিশের ২১ সদস্য আহত হন।

ঘটনার পর হাইওয়ে পুলিশ এবং স্থানীয়দের সহায়তায় আহত পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন।

তাদের মধ্যে ১৯ জনের নাম পাওয়া গেছে। এরা হলেন-শাকিল আহম্মেদ (২১), নাসিম (২১), শওকত (২৫), জহিরুল (২০),  ওমর ফারুক,  রায়হান (২৫), বুলবুল (২২), মকুবল (৫৮), রাব্বী (২২), আলামিন (২২), হৃদয় (২৩), মো. ইউসুফ আলী, শরিফুল (২৫), রানা (২২), বিল্লাল (২৬), সুমন (২৩), হাসিবুল (২৫), বেলায়েত হোসেন (৫৬) ও সুজন (২৩)।

আহতদের মধ্যে ৬ জনের অবস্থা গুরুতর। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইস উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর সার্কেল মোজাম্মেল রেজাসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ছুটে আসেন। এ সময় তারা আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেন।

ঘটনা সম্পর্কে কাউছার এবং রাশেদ নামে স্থানীয় দুই বাসিন্দা জানান, যাত্রীবাহী বাসটি অন্যায়ভাবে তার সাইডলাইন অতিক্রম করে পুলিশবাহী পিকআপ দুটিকে ধাক্কা দেয়। তাদের ধারণা বাসের চালক ঘুমিয়ে যাওয়ার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর সার্কেলের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোজাম্মেল রেজা জানান, আহত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ৬ জনের অবস্থা গুরুতর। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত পিকআপসহ ঘাতক বাস এবং চালককে জব্দ করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: পুলিশ সদস্য

আরও খবর



মোদির আগমনকে ঘিরে সাতক্ষীরায় নিরাপত্তা জোরদার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | ৬৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন ঘিরে পুরো সাতক্ষীরায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সকালে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জেলা প্রশাসক জানান, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ঘিরে জেলায় এর মধ্যে সব ধরনের নিরাপত্তার প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। হ্যালিপ্যাড থেকে যশোরেশ্বরী কালিমন্দির পর্যন্ত সড়কের দুই ধারে সৌন্দর্য বর্ধন করা হয়েছে। এছাড়া যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরসহ সংস্কার করা হয়েছে কালিমন্দির সংলগ্ন সড়ক। নির্মাণ করা হয়েছে ৪টি হ্যালিপ্যাড। এছাড়া, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশ্রামের বিষয়টিও মাথায় রেখে স্থানীয় ভূমি অফিসকেও সাজানো হচ্ছে নতুন আঙ্গিকে।

র‌্যাব-৬, সাতক্ষীরা (সিপিসি-১) এর কোম্পানি কমান্ডার সিনিয়র (এএসপি) মো. বজলুর রশিদ এবং (এএসপি) এইচ এম শফিকুর রহমান জানান, র‌্যাবের নেতৃত্বে আগামী ২৭ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সাতক্ষীরা আগমন উপলক্ষে সাতক্ষীরা টু শ্যামনগরগামী মহাসড়কে ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট, রোবাস্ট পেট্রোলিং, ফিঙ্গার প্রিন্টের মাধ্যমে তথ্য যাচাই এবং বিশেষ অভিযান পরিচালনা শুরু করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বর্তমানে সাতক্ষীরা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের পক্ষ থেকে ওই মন্দির এলাকায় নিরাপত্তার ব্যাপারে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাবের গোয়েন্দা কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হয়েছে। নিরাপত্তার বিষয়টি দেখছেন এসএসএফ।

উল্লেখ‌্য, আগামী শনিবার (২৭ মার্চ) নরেন্দ্র মোদি সাতক্ষীরার শ্যামনগরের ইশ্বরীপুর যশোরেশ্বরী কালি মন্দিরে পূজা দিতে আসছেন। তিনি সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে শ্যামনগর এ. সোবাহান মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে নবনির্মিত হ্যালিপ্যাডে বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টারযোগে অবতরণ করবেন।

এরপর তিনি সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে যশোরোশ্বরী দেবি মন্দির পূজা দেওয়ার জন্য প্রবেশ করবেন। সেখানে তিনি মাত্র ২০ মিনিট থাকার পর ১টা ১০ মিনিটে মন্দির ত্যাগ করবেন। এরপর তিনি ১০টা ১৫ মিনিটে হেলিকপ্টারযোগে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। সেখানে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধ পরিদর্শন ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন।


আরও খবর