আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

দেশে ফের বাড়ল করোনায় মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১২ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ মে ২০২১ | ১৪১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪০ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে ২৭ জন পুরুষ ও ১৩ জন নারী। নমুনা পরীক্ষায় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে এক হাজার ১৪০ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো সাত লাখ ৭৭ হাজার ৩৯৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বুধবার (১২ মে) এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মারা যাওয়া ৪০ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৩২ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৫ জন ও ৩ জন বাসায় মারা যান। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১২ হাজার ৪৫ জনে।

একই সময়ে সরকারি ও বেসরকারি ৪৫৯টি ল্যাবরেটরিতে ১৫ হাজার ৪৬০টি নমুনা সংগ্রহ ও ১৫ হাজার ২৯৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৬ লাখ ৭৭ হাজার ২২২টি।


আরও খবর
করোনায় আরও ৭৬ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১




সুযোগ-সুবিধার দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন রোহিঙ্গারা

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নোয়াখালীর ভাসানচরে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধার দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন রোহিঙ্গারা। সোমবার (৩১ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তারা এই বিক্ষোভ করেন।

ভাসানচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহে আলম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, আজ সোমবার সকালে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধার দাবি জানিয়ে রোহিঙ্গারা এই বিক্ষোভ করেন।

জানা গেছে, সোমবার (৩১ মে) সকালে জাতিসংঘ শরণার্থীবিষয়ক সংস্থার ইউএনএইচসিআর'র সহকারী হাইকমিশনার রউফ মাজাও এবং গিলিয়ান ট্রিগসসহ ১৪ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের সুযোগ সুবিধা পর্যবেক্ষণ করতে পরিদর্শনে আসে।

এই প্রথমবার ভাসানচর আসলো ইউএনএইচসিআরর কোনো প্রতিনিধি দল। এ সময় তারা ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের সুযোগ-সুবিধা পর্যবেক্ষণে গেলে রোহিঙ্গারা বিক্ষোভ শুরু করে তাদের সুযোগ সুবিধার জন্য।

এ বিষয়ে নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ভাসানচরের রোহিঙ্গারা প্রতি মাসে নগদ ৫ হাজার টাকা দাবি করছে। মানসম্পন্ন রেশন, কর্মসংস্থান ও পর্যাপ্ত চিকিৎসার দাবি করে বিক্ষোভ করে।

নিউজ ট্যাগ: রোহিঙ্গা

আরও খবর



করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ | ৩৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের ডেল্টা প্লাস প্রজাতিতে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। ভারতের মধ্যপ্রদেশে এই প্রজাতিতে আক্রান্ত হওয়া এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যটিতে এই প্রজাতিতে আক্রান্ত হওয়া রোগীদের মধ্যে তিনিই প্রথম মারা গেলেন। মৃত্যু হওয়া নারী উজ্জয়িনীর বাসিন্দা। সেখানকার স্থানীয় প্রশাসন বুধবার এই মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। খবর ইন্ডিয়া টুডের।

এখনও পর্যন্ত মধ্যপ্রদেশে পাঁচজনের শরীরে ডেল্টা প্লাস প্রজাতির সন্ধান পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে তিনজন ভোপালের এবং দুইজন উজ্জয়িনীর। এই পাঁচজনের মধ্যে উজ্জয়িনীর ওই নারীই প্রথম প্রাণ হারালেন। বাকি চারজন সুস্থ হয়েছে বলে জানা গেছে।

তবে প্রায় এক মাস ওই নারীর মৃত্যু হয়েছিল। কিন্তু জিনোম বিশ্লেষণ করে ডেল্টা প্লাস প্রজাতির বিষয়টি বুধবার নিশ্চিত হওয়া গেছে। এরপর উজ্জয়িনীর নোডাল কোভিড অফিসার রৌনক জানান, ২৩ মে ওই নারীর মৃত্যু হয়েছিল। ওই নারীর স্বামী তার আগে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। জানা গেছে, ওই নারীর স্বামী দুটি টিকাই নিয়েছিলেন। কিন্তু ওই নারীর একটি টিকা নেয়া বাকি ছিল।

এ বিষয়ে মধ্যপ্রদেশের মেডিকেল এডুকেশন মন্ত্রী বিশ্বাস সরঙ্গ বলেছেন, সরকার বিষয়টির উপর নজর রাখছে। ডেল্টা প্লাস প্রজাতিতে আক্রান্ত হওয়া রোগীদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের যত দ্রুত সম্ভব খুঁজে বের করে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। তবে ডেল্টা প্লাসে এটাই ভারতের প্রথম মৃত্যু কিনা তা আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়নি দেশটির সরকার।



আরও খবর



‘হিমায়িত মৎস্য রফতানি বৃদ্ধিতে সরকার সচেষ্ট রয়েছে’

প্রকাশিত:সোমবার ২১ জুন 20২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২১ জুন 20২১ | ৬৯জন দেখেছেন
তাছনিম আদনান

Image
মৎস্য খাতকে আরো সমৃদ্ধ করার জন্য, এ খাতের রফতানি বৃদ্ধিসহ রফতানির সাথে সম্পর্কিত যে কোন সমস্যা দূর করার জন্য সবধরনের পদক্ষেপ নিতে সরকার প্রস্তুত রয়েছে। হিমায়িত খাদ্য রফতানির ক্ষেত্রে কোন প্রতিবন্ধকতা থাকলে তা দূর করার বিষয়টি সর্বোচ্চ আন্তরিকতা দিয়ে সরকার বিবেচনা করবে। তবে এ ব্যাপারে বেসরকারি উদ্যোক্তাসহ এ খাত সংশ্লিষ্ট সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

হিমায়িত মৎস্য রফতানি বৃদ্ধিতে সরকার সচেষ্ট রয়েছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। সোমবার (২১ জুন) রাজধানীর সচিবালয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুডস্ এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাথে অনুষ্ঠিত সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ বিষয়ে মন্ত্রী আরো বলেন, মৎস্য খাতকে আরো সমৃদ্ধ করার জন্য, এ খাতের রফতানি বৃদ্ধিসহ রফতানির সাথে সম্পর্কিত যে কোন সমস্যা দূর করার জন্য সবধরনের পদক্ষেপ নিতে সরকার প্রস্তুত রয়েছে। হিমায়িত খাদ্য রফতানির ক্ষেত্রে কোন প্রতিবন্ধকতা থাকলে তা দূর করার বিষয়টি সর্বোচ্চ আন্তরিকতা দিয়ে সরকার বিবেচনা করবে। তবে এ ব্যাপারে বেসরকারি উদ্যোক্তাসহ এ খাত সংশ্লিষ্ট সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

এসময় মন্ত্রী আরো যোগ করেন, শেখ হাসিনা সরকার মৎস্য খাতকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়েছে। বাংলাদেশে অতীতে যা কোন সরকার নেয়নি। মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা থেকে শুরু করে সব বিষয়ে এ খাতকে আলাদাভাবে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। করোনাকোলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মৎস্য খাতের উন্নয়নে গৃহিত সকল প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। এর অর্থ এ খাতকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য তাঁর আন্তরিকতা ও আগ্রহ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আমাদের মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট ২৯ প্রজাতির দেশীয় বিলুপ্তপ্রায় মাছ নতুন করে বৈজ্ঞানিক গবেষণার মাধ্যমে ফিরিয়ে এনেছে।

এসময় তিনি বলেন, করোনা ক্রান্তিকালে মৎস্য খাদ্য আমদানির ক্ষেত্রে সৃষ্ট সমস্যা দূর করা হয়েছে। মাছ উৎপাদনে ক্ষতিগ্রস্ত খামারিদের সরকারিভাবে পোনা বিতরণ করা হয়েছে, মৎস্য খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে এবং একশ কোটি টাকা নগদ প্রণোদনা দেওয়া হয়েছে। উৎপাদিত মাছ বিক্রয়ের জন্য ভ্রমাম্যাণ ও অনলাইন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। এভাবে করোনায় মৎস্য খাতকে সচল রাখার জন্য সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছে।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, উপসচিব ড. আবু নঈম মুহাম্মদ আবদুছ  ছবুর, এ জেড এম নূরুল হক ও মোহাম্মদ আজিজুল ইসলাম, বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুডস্ এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ আমিন উল্লাহ, সিনিয়র সহসভাপতি মোঃ খলিলুল্লাহ, সহসভাপতি আশরাফ হোসেন মাসুদ ও হুমায়ুন কবির, পরিচালক শ্যামল দাস, মহাসচিব শেখ সোহেল পারভেজ, সাবেক সহসভাপতি ড. সৈয়দ আবু আসফার, এসিআই এগ্রোবিজনেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. ফা হ আনসারী এবং জেমিনি সী ফুডস্ লিমিটেড, খুলনা-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী ইনাম আহমেদ সভায় অংশগ্রহণ করেন।


আরও খবর



শ ম রেজাউল করিমের নির্দেশে কৌ‌রিখাড়া ভাঙ্গনরো‌ধের কাজ দ্রুত এগি‌য়ে চল‌ছে

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | ৬৬৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
কৌ‌রিখাড়াবা‌সির প্রা‌ণের দাবী ছি‌লো নদীর ভাঙ্গন রো‌ধে জনপ্র‌তি‌নি‌ধিরা এ‌গি‌য়ে আস‌বে। সা‌বেক ও বর্তমান উপ‌জেলা চেয়ারম্যান সু‌টিয়াকা‌ঠি ইউ‌পির হ‌লেও তারা কোনই পদ‌ক্ষেপ

স্বরূপকা‌ঠির সন্ধ্যা নদীর অব্যাহত ভাঙ্গন‌রো‌ধে কৌ‌রিখাড়া গ্রাম রক্ষা‌র্থে জিও ব্যা‌গে বালু ভরা‌টের কাজ চল‌ছে দ্রুত গ‌তি‌তে। ছার‌ছিনাপী‌রের বা‌ড়ির সাম‌নে সন্ধ্যা নদীর পা‌ড়ে বস্তায় বালু ভরা‌ট করা হ‌চ্ছে দিন রাত।

৫ গ্রু‌পের এ কা‌জের একজন ঠিকাদার মোঃ রিপন ব‌লেন, ২৭হাজার ৫০টি বস্থা ফেলা হ‌বে সন্ধ্যা নদীর প‌শ্চিম পা‌ড়ের কৌ‌রিখাড়া অংশে। প্রতিটি বস্তায় ১৭৫ কে‌জির বে‌শি বালু ভরাট করা হ‌চ্ছে। এ জন্য পা‌নি উন্নয়ন বোর্ড থে‌কে ৯৮ লক্ষ টাকা বরাদ্ধ হ‌য়ে‌ছে। বছ‌রের পর বছর ধ‌রে অব্যাহত ভাঙ্গ‌নে নাকাল কৌ‌রিখাড়া বা‌সির প্রা‌ণের দাবী ছি‌লো ভাঙ্গন রোধ করা।

এ ব্যাপা‌রে কৌ‌রিখাড়া ওয়া‌র্ডের ইউ‌পি সদস্য অরুন বসু ব‌লেন, যুগ যুগ ধ‌রে একা‌ধিক এম‌পির দারস্ত হ‌লেও কেউই এ ব্যাপা‌রে কর্নপাত ক‌রে‌নি। বর্তমান মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল ক‌রিমের নিকট মাত্র একবার গ্রামবা‌সি দাবী জানা‌তেই তি‌নি ভাঙ্গন রো‌ধে ত‌রিৎ ব্যবস্থা গ্রহণ ক‌রে‌ছেন।

বিএন‌পি নেতা ও ইউ‌পি সদস্য প্রার্থী মোঃ মিলন ব‌লেন, কৌ‌রিখাড়াবা‌সির প্রা‌ণের দাবী ছি‌লো নদীর ভাঙ্গন রো‌ধে জনপ্র‌তি‌নি‌ধিরা এ‌গি‌য়ে আস‌বে। সা‌বেক ও বর্তমান উপ‌জেলা চেয়ারম্যান সু‌টিয়াকা‌ঠি ইউ‌পির হ‌লেও তারা কোনই পদ‌ক্ষেপ নেন‌নি ভাঙ্গন‌রো‌ধে। সেক্ষেত্রে মন্ত্রী রেজাউল ক‌রিমকে মাত্র একবার বলার পর তি‌নি যে গুরুত্ব দি‌য়ে ভাঙ্গন‌রো‌ধে দ্রুত পদ‌ক্ষেপ নি‌য়ে‌ছেন তা বিরল। আমরা মন্ত্রী রেজাউল ক‌রি‌মের উত্তর উত্তর সমৃদ্ধী কামনা কর‌ছি।

ভাঙ্গন কব‌লিত বা‌সিন্ধা সত্য‌জিত ঘোষ ব‌লেন, মন্ত্রীর এ ত‌রিৎ পদ‌ক্ষে‌পে নদী ভাঙ্গন কব‌লিত কৌ‌রিখাড়াবা‌সি আজীবন তা‌কে ম‌নে রাখ‌বে।

ঠিকাদার রিপন ব‌লেন, উত্তর কৌ‌রিখাড়া পোস্ট আফিসের দ‌ক্ষিণ পাশ থে‌কে ২৩০ মিটার দৈর্ঘের নদী শাস‌নের এ কাজ আগামী ১২ জুন সকাল ১১ টায় উদ্ভোধন কর‌বেন মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী অ্যাড‌ভো‌কেট শ ম রেজাউল ক‌রিম।

রিপন আরও ব‌লেন, ২৩০ মিটার কা‌জের ম‌ধ্যেই শুরু হ‌য়ে যা‌বে উত্তর কৌ‌রিখাড়া ইছু হা‌জির বা‌ড়ি পর্যন্ত ভাঙ্গন রো‌ধে বালুর বস্তা ফেলা। এছাড়া দ‌ক্ষিণ কৌ‌রিখাড়া ফে‌রিঘাট সংলগ্ন নদীর ভাঙ্গন রো‌ধেও দ্রুতই বালুর বস্তা ফেলার কাজ শুরু হ‌বে।

নিউজ ট্যাগ: শ ম রেজাউল করিম

আরও খবর



ফিলিস্তিনকে ৫০০ মিলিয়ন ডলার সহায়তা দিচ্ছে কাতার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৭ মে ২০২১ | ১১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইসরায়েলি হামলায় অবরুদ্ধ গাজায় ধসে যাওয়া বাড়িঘর সংস্কারের কাজে ৫০০ মিলিয়ন ডলার সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কাতার। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শায়খ মোহাম্মদ বিন আবদুল্লাহমান আল থানি বুধবার এক টুইটে বলেন, আমরা গাজার সংস্কার কাজের সহায়তায় ৫০০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছি। ফিলিস্তিনি ভাইদের সাহায্যের জন্য আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাব।

ফিলিস্তিন ও ইসরায়েলের ১১ দিনের যুদ্ধে প্রায় ২৫০ জনের বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে গাজায়। যুদ্ধবিরতির পর ইসরায়েল ও হামাস উভয়ে নিজেদের জয় হয়েছে বলে দাবি করেছে।

সাময়িক যুদ্ধবিরতি উদযাপন করেছে দক্ষিণ ইসরায়েলের বাসিন্দারাও। তবে আরেকটি যুদ্ধ সময়ের ব্যাপার বলে মনে করছেন অনেকে।

ধ্বংসযজ্ঞ ও প্রাণহানি হিসাব করলে ফিলিস্তিনিদের ক্ষয়ক্ষতি কয়েকগুণ বেশি হলেও ইসরায়েলি বাহিনীকে যুদ্ধবিরতিতে বাধ্য করা হামাসের জন্য বিজয়ের সামিল বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা।

জাতিসংঘের শিশু তহবিল ইউনিসেফ জানিয়েছে, যুদ্ধের সময় হামাসের নিয়ন্ত্রণাধীন গাজায় প্রায় এক লাখের বেশি লোক ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছিল। ওই জায়গায় প্রায় আট লাখ লোকের পানির সংকট রয়েছে।


নিউজ ট্যাগ: ইসরায়েলি হামলা

আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১