আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ১২৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে ১১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও চার হাজার ২৭১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

আজ সোমবার (২৬ জানুয়ারি) করোনাভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪ কোটি ১৯ লাখ ৯৯ হাজার ২৭৮ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩০ লাখ ৩২ হাজার ৮৬২ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১২ কোটি ৫ লাখ ৩১ হাজার ৫৮১ জন।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ২৪ লাখ ৪ হাজার ৪৫৪ জন। এবং ৫ লাখ ৮১ হাজার ৬১ জন মারা গেছেন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৩৯ লাখ ৭১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৪৪২ জনের।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশি দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ১ কোটি ৫০ লাখ ৫৭ হাজার ৭৬৭ জন এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৭৮ হাজার ৭৯৩ জন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।


আরও খবর



আরও এক সপ্তাহ কঠোর লকডাউনের সুপারিশ

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ১২৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সরকার ইতোমধ্যে ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেছে। কমিটি এতে সন্তোষ প্রকাশ করে। যদিও বৈজ্ঞানিকভাবে দুই সপ্তাহের কম লকডাউনে কার্যকর ফলাফল আশা করা যায় না। দেশের অর্থনীতি সচল রাখার স্বার্থে শিল্প-কলকারখানা খোলা রাখার বিষয়টি

আরও এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউনের সুপারিশ করেছে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। সোমবার (১৯ এপ্রিল) সকালে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

কমিটির ৩১তম সভা রবিবার (১৮ এপ্রিল) দিনগত রাতে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা।

কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বেশ কিছু সুপারিশসমূহ গৃহীত হয়। এতে বলা হয়, আরও এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউনের পরবর্তী সপ্তাহ শেষ হওয়ার আগে সংক্রমণের হার বিবেচনা করে আবার সিদ্ধান্ত নেওয়া যেতে পারে। ধীরে ধীরে লকডাউন শেষ করার পূর্ব পরিকল্পনা প্রস্তুত রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়।

সভায় সংক্রমণের অবস্থা ও প্রতিরোধে গৃহীত পদক্ষেপের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। সারাদেশে কোভিড-১৯ এর উচ্চ সংক্রমণ ও ক্রমবর্ধমান মৃত্যুতে সভায় উদ্বেগ প্রকাশ করে কমিটি। জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি কমপক্ষে দুই সপ্তাহের জন্য পূর্ণ লকডাউন সুপারিশ করেছিল। সরকার ইতোমধ্যে ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেছে। কমিটি এতে সন্তোষ প্রকাশ করে। যদিও বৈজ্ঞানিকভাবে দুই সপ্তাহের কম লকডাউনে কার্যকর ফলাফল আশা করা যায় না। দেশের অর্থনীতি সচল রাখার স্বার্থে শিল্প-কলকারখানা খোলা রাখার বিষয়টি কমিটি উপলব্ধি করে। তবে বেসরকারি দপ্তর, ব্যাংক খোলা রাখা, ক্রমবর্ধমানভাবে ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল, ইফতার বাজারে অনাকাঙ্ক্ষিত ও অপ্রয়োজনীয় অতিরিক্ত ভিড় লকডাউনের সাফল্যকে অনিশ্চিত করে। পাশাপাশি সভা-সামাজিক সমতার বিষয়েও নীতি নির্ধারকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। স্বাস্থ্য, ফায়ার সার্ভিস ও অন্যান্য জরুরি সেবা ছাড়া সভায় সবকিছু বন্ধ রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়। কমিটি খোলা রাখা জরুরি সেবার তালিকা প্রকাশ করার অনুরোধ করে। অন্যথায় বিরূপ পরিস্থিতির আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়। উদাহারণ হিসেবে চলমান লকডাউনে চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মীদের ডিউটির জন্য চলাচলে বাধা ও অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার কথা উল্লেখ করা হয়। কাঁচাবাজার উন্মুক্ত স্থানে স্থাপনের প্রস্তাব আবারও দেওয়া হয়।

এতে আরও বলা হয়, ডিএনসিসি কোভিড হাসপাতাল চালু হওয়ায় সভায় সরকারকে অভিনন্দন জানানো হয়। রোগী ভর্তির বাড়তি চাপ থাকায় অতিদ্রুত আরও সক্ষমতা বাড়ানোর ব্যবস্থা গ্রহণের ওপরও জোর দেওয়া হয়।

করোনা রোগী দ্রুত শনাক্ত করা সংক্রমণ প্রতিরোধের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সরকার ল্যাবরেটরির সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য কাজ করছে। সাম্প্রতিককালে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে। নমুনা সংগ্রহ সহজ ও রোগীদের হাতের নাগালের মধ্যে আনার জন্য শহর অঞ্চলে প্রতি ওয়ার্ডে নমুনা সংগ্রহের বুথ স্থাপন করা প্রয়োজন। সভায় রিপোর্ট দ্রুত পাঠানোর জন্য নমুনা সংগ্রহের বুথে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করার পরামর্শ দেওয়া হয়। 

নমুনা পরীক্ষা সহজলভ্য করার উদ্দেশে কমিটি ইতোমধ্যে সরকারি নমুনা পরীক্ষা বিনামূল্যে করার পরামর্শ দিয়েছে। পিসিআর টেস্ট কিটের দাম উল্লেখযোগ্যভাবে কমে যাওয়ায় বেসরকারি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষার মূল্য পুনর্নির্ধারণের পরামর্শ দেওয়া হয়। এতে যেমন পরীক্ষার সংখ্যা বাড়বে, তেমনিভাবে সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে নিয়ে আসবে ও সাশ্রয়ীমূল্যে পরীক্ষা করা যাবে। সরকারি ল্যাবরেটরিতে চাপ কিছুটা কমবে। এতে রোগীদের পরীক্ষা ও রিপোর্ট দ্রুত দিয়ে আইসোলেশন নিশ্চিত করা যাবে। যা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সরকারি/বেসরকারি সব হাসপাতাল, ক্লিনিকে গর্ভবতী করোনা/নন করোনা মাদের চিকিৎসা ব্যবস্থা নিশ্চিন্তে করার জন্য অনুরোধ করা হয়। এ ব্যাপারে অন্যথায় উচিত নয়। করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে অবশ্যই গর্ভবতী মাদের সেবার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। নতুন ডিএনসিসি হাসপাতালে গর্ভবতী মাদের একটা কর্নারে বিশেষায়িত (আইসিইউ) ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্য অনুরোধ করা হয়। প্রতিটি হাসপাতাল তার নিজস্ব সক্ষমতা অনুযায়ী চেইন অফ রেফারেন্স সিস্টেম মেনে চলবেন।

সব মৃদু করোনা রোগীদের বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য টেলিমেডিসিন সেবা অব্যাহত রাখা প্রয়োজন। সেইসঙ্গে কোয়ালিটি সেবা নিশ্চিত করার জন্য টেলিমেডিসিন সেবা নিয়মিত মনিটরিং জোরদার করা প্রয়োজন।


আরও খবর



বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩০ লাখ ৪২ হাজার ছাড়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | ১০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন বিশ্বের ১৪ কোটি ২৬ লাখ ৯০ হাজার ৬৭১ জন মানুষ। এর মধ্যে মারা গেছেন ৩০ লাখ ৪২ হাজার ৮৪৩ জন। আর স্বস্তির খবর এই যে, এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন ১২ কোটি ১১ লাখ ৯২ হাজার ৯২৬ জন।

মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন তিন কোটি ২৪ লাখ ৭৫ হাজার ৪৩ জন। মৃত্যু হয়েছে পাঁচ লাখ ৮১ হাজার ৫৪২ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৫০ লাখ ৪৩ হাজার ৪৬৩ জন।

আক্রান্তে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন ১ কোটি ৫৩ লাখ ১৪ হাজার ৭১৪ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ৮০ হাজার ৫৫০ জন। আর সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৩১ লাখ ৩ হাজার ২২০ জন।

আক্রান্তে তৃতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ৩৯ লাখ ৭৭ হাজার ৭১৩ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে তিন লাখ ৭৫ হাজার ৪৯ জনের। তবে ১ কোটি ২৪ লাখ ৬০ হাজার ৭১২ জন সুস্থ হয়েছেন।

ফ্রান্সে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫২ লাখ ৯৬ হাজার ২২২ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ১ হাজার ১৮০ জন।

এদিকে তালিকায় পঞ্চম স্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ লাখ ১০ হাজার ৬৯০ জন। ভাইরাসটিতে মারা গেছেন এক লাখ ৫ হাজার ৯২৮ জন। এরই মধ্যে ৪৩ লাখ ৩৩ হাজার ৫৯৮ জন সুস্থ হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস বিশ্বের দুই শতাধিক দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে।


আরও খবর



মেয়ের বাবার সম্পত্তি আত্মসাতের উদ্দেশ্য

অপহরণ করে কলেজছাত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ মে ২০২১ | ১৫১জন দেখেছেন
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

প্রথমে প্রেমের প্রস্তাব, রাজি না হওয়ায় অপহরণ করে নিয়ে জোর করে বিয়ে। উদ্দেশ্য, একমাত্র মেয়ের বাবার অর্থ-সম্পত্তি আত্মসাৎ করা। আর এ লক্ষ্যে এক কালেজছাত্রীকে দেড় মাস আটকে রেখে  অমানুষিক নির্যাতন চালানো হয়। মেয়ের বাবা থানায় প্রথমে সাধারণ ডায়েরী ও পরে অপহরণ মামলা দিলে পুলিশ নানা কৌশল অবলম্বন করে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। অপহরণকারীদের প্রস্তাব ও তাদের কথামতো চলতে অস্বীকৃতি জানালে তারা মেয়েটিকে আটকে রেখে প্রতিনিয়ত শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতো। পাশাপাশি তাকে চেতনানাশক ও নেশাজাতীয় দ্রব্য খাওয়ানো হতো। অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সোহাগদল ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে। উদ্ধারের পর মেয়েটির কাছ থেকে জানা গেছে, সোহাগদল এলাকার ব্যবসায়ীর একমাত্র মেয়ে একাদশ শ্রেণীর দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। ব্যবসায়ী বাবার অর্থ-সম্পত্তি আত্মসাতের  উদ্দেশ্যে পার্শ্ববর্তী সারেংকাঠি ইউনিয়নের বিষ্ণুকাঠি গ্রামের মো. আবুল কালামের ছেলে মাইনুল ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। বিষয়টি মেয়ের কাছে শুনতে পেয়ে বাবা ওই ছেলের পরিবারের কাছে নালিশ করেন। পরে গত ২০ ফেব্রুয়ারি ছাত্রীটি প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার পথে মাইনুল, তার ভাই আমান, মামা মামুন ও চাচাতো ভাই কামরুল মিলে তাকে অচেতন করে অপহরণ করে নিয়ে যায়। জ্ঞান ফিরে মেয়েটি দেখতে পায় তাকে একটি গাড়িতে করে কোথাও নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এসময় মেয়েটি ব্যাগ থেকে মোবাইল বের করে তার বাবার কাছে ফোন দিতে চাইলে অপহরণকারীরা তার গলায় চাকু ধরে মোবাইল ও সাথে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়। তাকে চুপচাপ বসে থাকতে বলা হয়। একটি মাহিন্দ্র জিপে করে তাকে খুলনার রামপালে নিয়ে গিয়ে জোর করে মাইনুলের সাথে বিয়ে দেয়া হয়। এসময় মাইনুলের পিতা আবুল কালাম ও মা মারুফা বেগমও উপস্থিত ছিলেন। পরবর্তীতে মেয়েটি তার বাবার কাছ থেকে টাকা এনে দিতে অস্বীকৃতি জানালে অপহরণকারীরা তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন শুরু করে। পাশাপাশি তাকে চেতনানাশক ও নেশাজাতীয় দ্রব্য খাওয়ানো হতো। এদিকে হেলাল, মাইনুল ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে মেয়েকে অপহরণের মামলা দায়ের করেন বাবা। সেই মামলায় জামিন পেতে মাইনুল মেয়েটিকে জীবননাশের হুমকি দিয়ে আদালতে তাদের পক্ষে সাক্ষ্য দেয়াতে বাধ্য করে। বর্তমানে মাইনুল ও তার পরিবার ওই মামলায় জামিনে রয়েছেন।

এ বিষয়ে ওই কলেজছাত্রীর বাবা হেলাল উদ্দিন জানান, মাইনুল মাদক ব্যবসা, চুরি, নারী কেলেঙ্কারীসহ নানা ধরনের অপকর্মের সাথে জড়িত। মাইনুল ও তার পরিবার আমার অর্থ-সম্পত্তি আত্মসাতের উদ্দেশ্যে আমার মেয়েকে অপহরণ করেছে। এমনকি তারা জামিনে এসে অপহরণ মামলা এড়াতে আমার বিরুদ্ধে তাদের ঘরে ভাঙচুরের মিথ্যা অভিযোগ এনেছে। তারা আমার মেয়েকে আটকে রেখে দিনের পর দিন যে অমানুষিক নির্যাতন করেছে তাতে আমার মেয়ের জীবন আজ বিপন্ন।


আরও খবর



আজ ব্যাংকের লেনদেন দুপুর ১টা পর্যন্ত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সিটি করপোরেশন এলাকায় ব্যাংকের প্রতিটি শাখা একদিন পরপর খোলা থাকবে। অর্থাৎ শাখাগুলো একদিন বন্ধ থাকলে পরের দিন খোলা থাকবে। এই নিয়মে চলবে উপজেলা পর্যায়ের শাখাতেও

দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। আজ বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) থেকে খোলা থাকছে সব ব্যাংক। ব্যাংকিং লেনদেন চলবে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত। আর আনুষাঙ্গিক কাজ শেষ করার জন্য ব্যাংক খোলা রাখা যাবে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এক জরুরি সভায় গত মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) এ সিদ্ধান্ত হয়। ফলে লকডাউনে সরকারি ছুটির দিন ছাড়া অন্যান্য দিন সীমিত পরিসরে ব্যাংকের লেনদেন চালু থাকবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়, সিটি করপোরেশন এলাকায় ব্যাংকের প্রতিটি শাখা একদিন পরপর খোলা থাকবে। অর্থাৎ শাখাগুলো একদিন বন্ধ থাকলে পরের দিন খোলা থাকবে। এই নিয়মে চলবে উপজেলা পর্যায়ের শাখাতেও। জেলা পর্যায়ে সদর শাখা খোলা থাকবে। আর বৈদেশিক বাণিজ্য শাখাগুলো খোলা থাকবে নিয়মিত।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে পরবর্তী সাত দিনের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। এই সময় আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার কথা বলা হয়। গেল ১২ এপ্রিল এক প্রজ্ঞাপনে এক সপ্তাহের জন্য দেশের সব ব্যাংকের শাখা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংকও। এই সময়ে কেবল স্থলবন্দর, সমুদ্রবন্দর ও কাস্টমসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শাখাগুলো খোলা রাখার কথা বলা হয়। পরে অপর আদেশে ব্যাংক খোলা রাখার কথা ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।


আরও খবর



বাবুনগরী রাষ্ট্রপতি হবেন এবং প্রধানমন্ত্রী হবেন মামুনুল হক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | ১৬৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার অভিযানের মধ্যেই সংগঠনটির একজন নেতা জানিয়েছেন, তারা ক্ষমতায় আসার পর কাদের কাদের ফাঁসিতে ঝোলানো হবে সেই তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। এছাড়াও তাদের চোখ টেনে টেনে ছিঁড়ে ফেলা হবে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন সেই নেতা।

সম্প্রতি সময়ে ওই নেতার একটি ওয়াজের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে তাকে বলতে দেখা যাচ্ছে, একদিন তাদের সংগঠনের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী এই দেশের রাষ্ট্রপতি হবেন এবং প্রধানমন্ত্রী হবেন মামুনুল হক। তারা ক্ষমতায় আসার পর ফতোয়া বোর্ড গঠন করে ফাঁসির রায় দেবেন।

জানা গেছে, ওই আলেমের নাম নূর হোসাইন নুরানী। হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য ছিলেন তিনি। এছাড়াও তিনি আহমদিয়া বিরোধী আন্দোলন করা খতমে নবুওয়ত আন্দোলন বাংলাদেশ- সংগঠনটির সভাপতি।

জানা গেছে, তিনি যে ওয়াজটিতে এসব বক্তব্য রেখেছেন তা গাজীপুরের কালিয়াকৈরের মৌচাক এলাকার। ওয়াজের একটি ব্যানার থেকে জানা যাচ্ছে গত ২২ এপ্রিলের আগে হয়েছিল ওয়াজটি। কেননা, ওইদিন নুরানী তার নিজ এলাকা মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার হয়।


আরও খবর