আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পুনর্নির্ধারণ

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনার ঊর্দ্বমুখী সংক্রমণের কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১মবর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

নতুন তারিখ অনুযায়ী ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১ অক্টোবর শুক্রবার, খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২ অক্টোবর ২০২১ শনিবার, গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২২ অক্টোবর ২০২১ শুক্রবার, ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৩ অক্টোবর ২০২১ শনিবার এবং চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ০৯ অক্টোবর ২০২১ শনিবার অনুষ্ঠিত হবে।

চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার (অংকন) তারিখ যথাসময়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ডিনস কমিটির এক বিশেষ ভার্চুয়াল সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষার তারিখও পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

পুন:নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী বিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২৯ অক্টোবর শুক্রবার, কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৩০ অক্টোবর ২০২১ শনিবার এবং বাণিজ্য ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৫ নভেম্বর ২০২১ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া পুন:নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি অনুষদের অন্তর্গত প্রযুক্তি ইউনিট-এর ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ বি.এসসি (ইঞ্জিনিয়ারিং) শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষা আগমী ২ অক্টোবর শনিবার (বিকালে), গার্হস্থ্য অর্থনীতি ইউনিটের অন্তর্গত গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজসমূহে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ সম্মান শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১২ নভেম্বর ২০২১ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে।

পুনর্নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী সব ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র আগামী ১১ সেপ্টেম্বর থেকে পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পূর্ব পর্যন্ত ডাউনলোড করা যাবে।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান, বিভিন্ন অনুষদের ডিন এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ সংযুক্ত ছিলেন।


আরও খবর



কোপা আমেরিকায় যৌথভাবে সেরা মেসি-নেইমার

প্রকাশিত:রবিবার ১১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ জুলাই ২০২১ | ৩৬১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোপা আমেরিকায় অন্যরকম এক সিদ্ধান্ত নিতে দেখা গেল। আয়োজক কনমেবল লিওনেল মেসি ও নেইমারকে যৌথভাবে সেরা ঘোষণা করেছে।

শতবর্ষী এই টুর্নামেন্টের ইতিহাসে এবারই প্রথম কোনো আসরে দুই জনকে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার দেওয়া হলো।

তারকা ফুটবলার মেসি ও নেইমার পুরো আসরে অসাধারণ খেলে নিজেদের দল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলকে ফাইনালে তুলতে সাহায্য করেন।

এক বিবৃতিতে কনমেবল জানায়, কোনো একজনকে বেছে নেওয়া সম্ভব নয়, কারণ প্রতিযোগিতাটিতে দুই জন সেরা খেলোয়াড় আছে। দুজনই তাদের জাতীয় দলের সঙ্গে ফাইনালে উঠেছে। আসরে শীর্ষ গোলদাতাদের তালিকাতেও আছে তারা (মেসি এখন পর্যন্ত ৪ গোল করে শীর্ষে, নেইমার ২টি)। সতীর্থদের দিয়েও গোল করিয়েছে তারা; মেসি পাঁচটি ও নেইমার তিনটি। এই সংখ্যাগুলোই প্রমাণ করে মাঠে তারা কতটা ফল নির্ধারক।

আর্জেন্টিনা অধিনায়ক মেসি আসরে গ্রুপ পর্ব ও নকআউট পর্ব মিলিয়ে ছয় ম্যাচের সবকটিতেই খেলেছেন। এই ছয় ম্যাচের চারটিতেই ম্যাচ সেরা হয়েছেন মেসি।

এক ম্যাচ বিশ্রামে পাঁচ ম্যাচ গড়ে নেইমার ড্রিবল করেছেন ৫.২টি, তার সফল পাস দেওয়ার শতকরা হার ৮০.১৮। দুটিতেই অবশ্য কিছুটা এগিয়ে মেসি। তবে সব ম্যাচেই দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল ২৯ বছর বয়সী পিএসজি তারকার। নেইমার তিন ম্যাচে সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন।

নিউজ ট্যাগ: মেসি ও নেইমার

আরও খবর



মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল কুকুর-বিড়ালের অভয় আশ্রম

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১ | ১২৭জন দেখেছেন
Image

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:

মুন্সীগঞ্জের ১০০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে রোগীর বিছানায় কুকুর বেড়ালকে দুধ পান করাচ্ছে এমন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ফেসবুকে ভাইরাল ভিডিও দেখে জনমনে প্রশ্ন উঠেছে হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা, নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যসেবার মান নিয়ে।

গত ১ জুলাই ভিডিওটি ধারণ করেছিলেন ডি এম সালাম নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী। এরপর আজ ৭ জুলাই পুনরায় এমন আরেকটি ভিডিও ধারণ করেন মো. জাকির হোসেন।

১ জুলাই ধারণকৃত ভিডিওতে দেখা যায়, হাসপাতালের কেবিনের বিছানায় একটি কুকুর ঘুমিয়ে রয়েছে। ভিডিও ধারনকারী বলেন, লকডাউনের কুকুরের কাজ না থাকায় সে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে লকডাউন পালন করছে। ভিডিওটি মুহূর্তেই ফেসবুকে ভাইরাল হলে নেটিজেনরা তীব্র নিন্দা জানায়।

আজ ৭ জুলাই বুধবার অপর একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, হাসপাতালে ২য় তলায় কুকুরের দুধ পান করছে একটি বিড়াল। মো. জাকির হোসেনের মোবাইলে স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো, মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে দ্বিতীয় তলা থেকে তোলা ছবি এবং ভিডিও, সময় সকাল দশটা। এখানে বেঁচে থাকার জন্য একটি পশু আরেকটি পশুকে তার দুধ দিয়ে সহযোগিতা করছে। তিনি তার মায়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে এ ভিডিওচিত্রটি ধারণ করেন। ফেইসবুকে ভাইরাল এই ভিডিওতে  কমেন্টের মাধ্যমে হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সচেতন নাগরিকরা। কমেন্টে কেউ বলেছেন, কিভাবে একটি সরকারি হাসপাতালের ভিতরে কুকুর-বেড়াল আনাগোনা করে? রফিকুল আমিন খান কমেন্টে লিখেন, মানুষের চিকিৎসা দেয়া হয় না বিধায় এটি এখন কুকুরের বিশ্রামখানা।

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন আবুল কালাম আজাদ জানান, অসতর্কতায় হাসপাতালের দরজা খোলা ছিলো। বিষয়টি ভাবনার বিষয়। পরবর্তীতে এমন ভুল যেন না হয় সে বিষয়ে দায়িত্বপ্রাপ্তদের সতর্ক করা হবে।


আরও খবর



লাশ না, এখন আমরা হাড্ডি খুঁজি

প্রকাশিত:রবিবার ১১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ জুলাই ২০২১ | ১৮২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রূপগঞ্জের হাশেম ফুডস কারাখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড এমন দুর্ঘটনা এদেশে একেবারে অভিনব নয়। এটাকে কি দুর্ঘটনা বলা যায়। অবহেলাজনিত মৃত্যু? নাকি হত্যাকাণ্ড। জরুরি বের হওয়ার কোন সিঁড়ি ছিল না কারখানাটিতে।

আগুন নেভানোর সিলিন্ডার বা যন্ত্রপাতি বা ফায়ার এলার্ম ছিল না কিছুই। সবচেয়ে বড় কথা প্রতিটি তলার দরজা ছিল তালাবদ্ধ। না হলে আরও শ্রমিক বের হতে পারতেন। তাহলে এটি কি একটি মৃত্যুফাঁদ ছিল। সরকারি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ এরইমধ্যে এ ঘটনায় মালিকপক্ষের সম্ভাব্য দোষীদের আইনের আওতায় আনা হয়েছে।

কিন্তু প্রশ্ন থেকে যায়? সরকারি কর্তৃপক্ষের যাদের এই কারাখানার কর্মপরিবেশ, অগ্নিনির্বাপণ এবং জরুরি বের হওয়া ব্যবস্থা, শিশু শ্রম দেখার কথা ছিল তারা কি সেটা দেখেছেন? এই অবহেলায় দায়ীদের কি আইনের আওতায় আনা হবে। কোনো পদক্ষেপ কি নেয়া হবে সব কারাখানার কর্মপরিবেশ নিশ্চিতে? মালিকরা কি দুঃখজনক এই অবস্থাতেও একবার ভাববেন, প্রতিটি শ্রমিকের জীবনও মূল্যবান। তাদেরও স্বাভাবিক জীবনের গ্যারান্টি প্রয়োজন। প্রয়োজন মর্যাদার সঙ্গে কাজ করার। সেদিন কি কখনও আসবে?

এই ধরনের ঘটনা এদেশে অভিনব নয়। অফিসিয়ালি এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ৫২। কিন্তু অসহায় মানুষ তাদের প্রিয়জনের লাশটাও বুঝে পাচ্ছেন না। কারণ কারও চেহারাই চেনার উপায় নেই। অপেক্ষা করতে হবে ডিএনএ নমুনা পরীক্ষার ফলের জন্য। নতুন এই পরিস্থিতিতে স্বজনরা হাজির হয়েছেন মর্মান্তিক এক দাবি নিয়ে। বাবা বলছেন, কন্যার হাড্ডিটাও যদি পাওয়া যেতো।


আরও খবর



বাড়তি ভাড়া নেওয়া যানবাহনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | ৮১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলোতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় এবং শর্ত লঙ্ঘণকারী যানবাহনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিআরটিএকে নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের শর্ত মেনে যানবাহন চালোনার অনুরোধ জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২০ জুলাই) দুপুরে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী নিজ বাসভবনে ব্রিফিংয়ে এ আহবান জানান। যারা ঈদ যাত্রায় ভোগান্তির মুখে পড়েছেন তাদের প্রতি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেন ওবায়দুল কাদের।

সড়ক-মহাসড়কে যানবাহনের অত্যাধিক চাপ থাকার কারণ প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, বৃষ্টি এবং কোরবানির পশুবাহী গাড়ির কারণে ঢাকা- গাজীপুর এবং ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যাত্রীদের কিছু জায়গায় ভোগান্তি   হয়েছে ও হচ্ছে। আবার কোথাও কোথাও থেমে থেমে গাড়ি চলছে। লকডাউনসহ বিদ্যমান পরিস্থিতির কারণে এবারের ঈদে পণ্যবাহী ট্রাক, লরি এবং কাভার্ডভ্যান চলাচল করছে, তাই যানবাহনের চাপ বেশি।

মন্ত্রী বলেন, আজ ঈদের আগের দিন হওয়ায় মহাসড়কে যাত্রীদের চাপ আরও বাড়তে পারে। এ অবস্থায় হাইওয়ে পুলিশ, জেলা পুলিশ, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধৈর্যের সাথে পরিস্থিতি মোকাবিলার আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, করোনা সংক্রমণের উচ্চমাত্রার এমন পরিস্থিতিতে অসতর্ক হলে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন। এমতাবস্থায় ঈদ আনন্দ যেন বিষাদে রূপ নিতে না পারে সেজন্য আবারও ঘরমুখো মানুষের প্রতি আকুল আবেদন জানাই। শপিংমল, বাস ও লঞ্চ টার্মিনাল, ট্রেন স্টেশন, ফেরিঘাট, পশুর হাটসহ জনসমাগমস্থলে শতভাগ মাস্ক পরিধান ও ভিড় এড়িয়ে নিজেকে সুরক্ষিত রাখুন। ঈদের এ আনন্দ ভ্রমণ যেন কান্নায় রূপ না নেয়, সেজন্য নিজেকে সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে রাখতে হবে এবং নিজে ও অন্যকে সতর্ক রাখতে হবে।

সকল অপপ্রচার মিথ্যা প্রমাণ করে দেশে একের পর এক ভ্যাকসিনের চালান আসছে, বাড়ছে সরবরাহ উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণটিকাদানের বয়সসীমা কমিয়ে এর আওতা বাড়ানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে ভ্যাকসিন আসার সাথে সাথে বয়য়সীমা আরও কমিয়ে আনবে শেখ হাসিনার সরকার। জনগণকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আবারও আস্থা রাখার আহ্বান জানাই। সংকট ও দুর্যোগে তার দূরদর্শিতা ইতোমধ্যেই পরীক্ষিত। শেখ হাসিনা সংকট দেখলে জনমানুষের কল্যাণে ঝাঁপিয়ে পড়েন, গ্রহণ করেন চ্যালেঞ্জ। অন্যদিকে কথামালার ভাণ্ডার নিয়ে বিএনপি নেতারা সংকট দেখলে পালানোর পথ খোঁজেন এবং জনগণ থেকে নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান করেন।

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণ করায় খালেদা জিয়াকে ধন্যবাদ জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, শুরু থেকে বিএনপির নেতারা নানান অপপ্রচার চালালেও শেষ পর্যন্ত খালেদা জিয়াও ভ্যাকসিন নিয়েছেন।


আরও খবর



ইভ্যালি: গ্রাহকের কাছ থেকে নেয়া টাকার ‘হদিস’ নেই

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ১২৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ইভ্যালি গ্রাহক ও সরবরাহকারীদের কাছ থেকে অগ্রিম যে পরিমাণ টাকা নিয়েছে তার কোনো অস্তিত্ব পাওয়া যাচ্ছে না।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ইভ্যালি মানুষের কাছ থেকে যে পরিমাণ টাকা নিয়েছে, তার মোট অঙ্ক প্রায় ৩০০ কোটি টাকার বেশি। কিন্তু প্রাথমিক তদন্তে তাদের কাছে সেই টাকার অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠায় বাংলাদেশ ব্যাংক ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠান তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত পরিচালনা করে। তদন্ত শেষে গ্রাহকদের ও সাপ্লায়ারদের কাছ থেকে নেয়া টাকার খুব সামান্য অংশের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। সেজন্যই প্রশ্ন উঠেছে, এই বিশাল দায় কীভাবে তারা শোধ করবে?

ইভ্যালি এর মধ্যে যে পরিমাণ টাকা গ্রাহক ও ব্যবসায়িক পার্টনারদের কাছ থেকে নিয়েছে, তা ফেরৎ পাওয়ার নিশ্চয়তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, তাদের ফান্ড কোথায় রেখেছে, অন্য কোনো উৎস আছে কিনা সেটা তদন্তের পর জানা যাবে। তবে এখন সেই পরিমাণ টাকার কোনো হদিস পাওয়া যায়নি।

গত জানুয়ারি মাসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ ও ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের একটি প্রতিবেদনে উঠে আসে যে, পণ্য বেচাকেনার ক্ষেত্রে ইভ্যালি আইন ভঙ্গ করেছে। এর পর জুন মাসে বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি তদন্ত দল ইভ্যালির কার্যক্রমের কিছু অনিয়ম চিহ্নিত করে প্রতিবেদন দাখিল করে। পরদিনই বেশ কয়েকটি ব্যাংক ইভ্যালিসহ আরো কয়েকটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে লেনদেন বাতিল করে।

অপরদিকে গ্রাহকদের অনেকে অভিযোগ করেছেন, ইভ্যালির সাথে যোগাযোগ করে কোন সাড়া মিলছে না এবং তারা প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয় বন্ধ পাচ্ছেন। তবে ইভ্যালির মুখপাত্র শবনম ফারিয়া জানান, তাদের কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস এখনও ২৪ ঘণ্টা চালু আছে।



আরও খবর
আজ ব্যাংক বন্ধ

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১