আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪
শিরোনাম

ঢাকা-১ আসনে বিপুল ভোটে জয়ী সালমান এফ রহমান

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নাজনীন শিকদার (দোহার-নবাবগঞ্জ)

Image

ঢাকা-১ আসনে নৌকা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপুল ভোটে হারিয়ে জয়ের মালা পড়লেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা ও এই আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য সালমান এফ রহমান।

রবিবার (৭ জানুয়ারি) সারা দেশের ন্যায় সকাল ৮ টা থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকার দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলায় ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়। তবে বরাবরের তুলনায় এবার ভোটারদের উপস্থিতি কম ছিলো।

ঢাকা-১ এই আসনে মোট প্রার্থী ছিলো ৭ জন। তবে মূল প্রতিদ্বন্দিতা হয়েছে আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী সালমান এফ রহমান ও জাতীয় পার্টির লাঙল মার্কার সালমা ইসলামের সাথে।

ভোটের দিন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহল ছিলো সার্বক্ষনিক।

দিনব্যাপী ভোট শেষে রাতে দোহার উপজেলার রির্টানিং অফিসার জাকির হোসেন ও নবাবগঞ্জ উপজেলার সহকারী রির্টানিং অফিসার কামরুল হাসান সোহেল সালমান এফ রহমানকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

প্রাপ্ত ফলাফলে জানা যায়, এ আসনে মোট ১৮৪টি কেন্দ্র থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার ৫ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন সালমান এফ রহমান। তার প্রতিদ্বন্দ্বী লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী সালমা ইসলাম পেয়েছেন ৩৪ হাজার ৯৩০ ভোট।

এছাড়া বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির মো. করম আলী হাতুড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬শ ৪২টি ভোট, গণফ্রন্টের শেখ মো. আলী মাছ প্রতীক নিয়ে পেয়েছে ৫৩১টি, বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির সামসুজ্জামান চৌধুরী একতারা প্রতীক নিয়ে পেয়েছে ৫০৮টি, তৃণমূল বিএনপির মুফিদ খান সোনালী আঁশ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪৭৩টি এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আব্দুর হাকিম আম প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪৩০টি ভোট পেয়েছেন।

রাতে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়ে এমপি সালমান এফ রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী কথা দিয়েছিলেন এবারের নির্বাচন অবাদ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আমরা প্রধানমন্ত্রীর হয়ে তার কথা রেখেছি। তিনি আরো বলেন, দোহার-নবাবগঞ্জ বাসী আমার প্রতি পুনরায় আস্থা রেখেছেন। আমি ও আমার দেওয়া কথা রাখবো। এই দোহার-নবাবগঞ্জকে আমি ঢেলে সাজাবো।

উল্লেখ্য, ঢাকা-১ আসনে দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ৫ লাখ ১৩ হাজার ৬০৫ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৫৯ হাজার ৪৪৫ জন এবং মহিলা ভোটার ২ লাখ ৫৪ হাজার ১৫৭ জন। এছাড়া তিনজন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটারও রয়েছেন। এ নির্বাচনে দুটি উপজেলায় মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্য ১৮৪টি।


আরও খবর



৯৬ হাজার অবৈধ কর্মীকে বৈধতা দে‌বে ওমান: প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী জানিয়েছেন, ৯৬ হাজার অবৈধ বাংলাদেশি কর্মীকে বৈধতা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে ওমান সরকার।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিকের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ওমানে ৯৬ হাজার কর্মী অবৈধভাবে বসবাস করছেন। তাদের বৈধ করার আশ্বাস দিয়েছে ওমান সরকার। এই বৈধকরণে জন্য একটি জরিমানা নেওয়া হয়। এই জরিমানা মওকুফ করার জন্য আমরা ওমান সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, ওমান বাংলাদেশ থেকে ১২ ক্যাটাগরিতে নতুন কর্মী নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে। তারা দক্ষ কর্মী নিতে চায়। আমরা এ বিষয় আলোচনা করেছি। দক্ষ কর্মী যাওয়া শুরু করলে অদক্ষ কর্মীও যাওয়া শুরু করবে। পর্যায়ক্রমে সে ব্যবস্থা হবে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের শ্রমবাজার নিয়ে প্রতিমন্ত্রী জানান, দুবাই শ্রমবাজার আরও গতিশীল ও বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে দুবাইয়ের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। দুবাই থেকে ইতোমধ্যে ৩ হাজার কর্মীর চাহিদা এসেছে। এর মধ্যে ৪০০ কর্মী চলে গেছে। আরও ৫০০ কর্মীর যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে।

প্রসঙ্গত, মধ্যপ্রাচ্যের শ্রমবাজার নিয়ে সম্প্রতি  দুবাই, ওমান ও কাতার সফর ক‌রেন প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী। সেই সফরের অভিজ্ঞতা আজ তুলে ধরেন তিনি।


আরও খবর



ঘূর্ণিঝড় রেমাল: লক্ষ্মীপুরে প্রস্তুত ১৮৯ সাইক্লোন শেল্টার

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

Image

মেঘনা উপকূলীয় জেলা লক্ষ্মীপুর বঙ্গোপসাগর থেকে খুব কাছে হওয়ায় প্রতিটি প্রাকৃতিক দুর্যোগেই ঝুঁকিপূর্ণ থাকে। এতে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় রেমালেও লক্ষ্মীপুর ঝুঁকির তালিকায় রয়েছে। রেমালের প্রভাবে নদীতে জোয়ারের পানি বেড়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হতে পারে। এছাড়া ৩-৫ ফুট অধিক উচ্চতার বায়ুতাড়িত জলোচ্ছ্বাস হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এমন পরিস্থিতি থেকে মানুষসহ গবাদিপশু রক্ষায় লক্ষ্মীপুরে ১৮৯টি স্থায়ী ও অস্থায়ী সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত করা হয়েছে। এছাড়া ঘূর্ণিঝড়কালীন মানুষের সেবা নিশ্চিত করতে ৬৪টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।

শনিবার (২৫ মে) রাতে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমটির প্রস্তুতি সভায় এসব তথ্য জানান।

সভায় জানানো হয়, দুর্যোগকালীন ত্রাণ তহবিলে ১৯ লাখ ২০ হাজার টাকা ও ৪৫০ মেট্রিক টন চাল রয়েছে। দুর্যোগ থেকে মানুষ ও গৃহপালিত প্রাণি রক্ষায় ফায়ার সার্ভিস, জনপ্রতিনিধি ও রেড ক্রিসেন্টসহ স্বেচ্ছাসেবীরা কাজ করবে।

জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান বলেন, উপজেলা প্রশাসনও ঘূর্ণিঝড় থেকে রক্ষায় বিভিন্ন ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণে সভা করেছে। এর থেকে রক্ষায় আমাদেরকে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। আমাদের কাছে পর্যাপ্ত ত্রাণ রয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে চরাঞ্চলসহ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার বাসিন্দাদের নিরাপদে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসার কাজ শুরু করা হবে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেজা-ই রাফিন সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মেহের নিগারসহ সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



বাবা ডেকেও ধর্ষণের হাত থেকে রেহাই পায়নি শিক্ষার্থী

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সুজন কুমার মন্ডল, জয়পুরহাট

Image

জয়পুরহাট পৌর শহরের কাশিয়াবাড়ির হযরত ফাতেমা (র:) কওমি হাফেজিয়া মহিলা মাদরাসার চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ওই মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আজিজুল হক ফেন্সির (৬০) বিরুদ্ধে।

রোববার (২৩ জুন) বিকেলে জয়পুরহাট শহরের মাছুয়া বাজার এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে আজিজুল হককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তার আজিজুল সদর উপজেলার পৌর এলাকার কাশিয়াবাড়ি মহল্লার ব্যবসায়ী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, হযরত ফাতেমা (র:) কওমি হাফেজিয়া মহিলা মাদরাসাতে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়াশোনা করত নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট উপজেলার এক শিক্ষার্থী। ঈদের ছুটি হলেও মাদরাসাতে বেতন বাকি থাকায় ওই শিক্ষার্থীকে ছুটি দেয়া হয়নি। তাকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ওই মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আজিজুল হক ফেন্সির বিরুদ্ধে। পরে রোববার মেয়েটি মাদরাসা থেকে পালিয়ে বান্ধবীর বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এসময় ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী তার বান্ধবীর বাবাকে সব ঘটনা জানান। পরে তিনি তাৎক্ষণিক ওই ছাত্রীকে জয়পুরহাট সদর থানায় নিয়ে যায়। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ আজিজুলকে গ্রেপ্তার করে।

ধর্ষণের শিকার ছাত্রী বলেন, আমি চতুর্থ শ্রেণিতে মাদরাসায় পড়াশোনা করি। আমার বাবা সময়মত মাদরাসার বেতন পরিশোধ করতে পারেনি। ইতিমধ্যে ঈদুল আজহা উপলক্ষে মাদরাসা ছুটি ঘোষণা করা হয়। মাদরাসায় আমার টাকা বাকি ছিল। বাড়ি গিয়ে যদি আর না আসি সেজন্য মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আজিজুল হক ফেন্সি আমাকে বাড়িতে যেতে দেয়নি। পরে তিনি আমাকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে আমাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। আমি তাকে বাবা ডেকেও রেহাই পাইনি। একপর্যায়ে রোববার সেখান থেকে পালিয়ে গিয়ে আমার এক বান্ধবীর বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেই। আমার সর্বনাশকারীর বিচার চাই।

গ্রেপ্তারের আগ মুহূর্তে আজিজুল হক ফেন্সি কখন বলেন তার ভুল হয়েছে। আবারও কখনও ষড়যন্ত্র করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জয়পুরহাট সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রুবেল জানান, রোববার দুপুরে দুইজন মহিলা ও একজন পুরুষ ছোট এক মেয়েকে থানায় আসে। এরপর তাদের কাছ থেকে জানতে পারি শিশুটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়েছে। যার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি শহরের কাশিয়াবাড়ি এলাকায় একটি বালিকা কওমি মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আজিজুল হক ফেন্সি। তিনি ওই ছাত্রীর মাদরাসার বেতন পরিশোধ না করায় তাকে আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে সেখান থেকে শিশুটি পালিয়ে এসেছে। এ ঘটনার পর অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আজিজুল হক ফেন্সিকে মাছুয়া বাজার এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, গ্রেপ্তারের পর আজিজুল হক ফেন্সি ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে এবং তিনি শিশুটিকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছে।


আরও খবর



স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে বেনজীর আহমেদ

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আইজিপির পদ থেকে অবসরের পর দুর্নীতির অভিযোগে দেশজুড়ে আলোচনায় এখন বেনজীর আহমেদ। দায়িত্ব পালনের সময় অবৈধভাবে সম্পদের পাহাড় গড়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। তিনিসহ পরিবারের সদস্যদের দুর্নীতি দমন কমিশন তলবও করেছে। কিন্তু এরই মধ্যে স্ত্রীসহ চলে গেছেন সিঙ্গাপুরে।

৪ মে রাতে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনেসের একটি ফ্লাইটে করে তিনি দেশত্যাগ করেন বলে পুলিশের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

ওই সূত্র বলেছে, স্ত্রীর চিকিৎসার কথা বলেই তিনি দেশের বাইরে যাচ্ছেন বলে তার স্বজন ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের বলেছেন। তবে প্রভাবশালী মহলের একাংশকে দেশ ত্যাগের বিষয়টি অবহিত করেই তিনি দেশ ছেড়েছেন।

নাম প্রকাশ না করে বেনজীর আহমেদের ঘনিষ্ঠ এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, দুদকে তলব করাসহ সবকিছুর বিষয়ে তিনি আগাম ওয়াকিবহাল ছিলেন। প্রভাবশালী একটি মহল তাকে আগাম সবকিছু বলে দিয়েছিল। তবে তিনি বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে খুবই বিব্রত।

জানা গেছে, আগামী ৬ জুন বেনজীর আহমেদকে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) তলব করা হয়েছে। আর ৯ জুন তার স্ত্রী ও তিন সন্তানকে ডেকেছে সংস্থাটি।

দুদক সূত্র জানায়, অভিযোগ ওঠার পর বেনজীর আহমেদ, তার স্ত্রী, তিন মেয়ে ও এক স্বজনের নামে থাকা ৩৪৫ বিঘা (১১৪ একর) জমি ক্রোক বা জব্দের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই দিন বেনজীর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের নামে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকে থাকা ৩৩টি ব্যাংক হিসাব (অ্যাকাউন্ট) অবরুদ্ধ করার আদেশ দেওয়া হয়।

তাছাড়া বেনজীর আহমেদের স্ত্রী জীশান মীর্জার নামে থাকা মাদারীপুরে ২৭৬ বিঘা (৯১ একর) জমি এবং বেনজীরের পরিবারের নামে থাকা গুলশানের চারটি ফ্ল্যাটও জব্দের আদেশ দেন আদালত। বেনজীর পরিবারের নামে থাকা ১৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও তিনটি বিও হিসাব (শেয়ার ব্যবসা করার বেনিফিশিয়ারি ওনার্স অ্যাকাউন্ট) এবং ৩০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র অবরুদ্ধ করার আদেশও দেওয়া হয়। সাভারে তাদের কিছু জমিও পড়েছে একই আদেশের মধ্যে। এরই মধ্যে সম্পদ জব্দের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।


আরও খবর



বেনাপোল বন্দর দিয়ে টানা পাঁচ দিনপর আমদানি-রফতানি চালু

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
এম এ রহিম, বেনাপোল (যশোর)

Image

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ছুটি শেষে  টানা পাঁচ দিনপর বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম চালু হয়েছে। কাজে যোগ দিয়েছ বন্দর শ্রমিকেরা। খুলোছে বন্দর ও কাষ্টমস। তবে বন্দরে কর্মচাঞ্চল্য শুরু হয়নি এখনও।

বন্দর সংশ্লিষ্টরা জানান, শুক্র-শনি সরকারি ছুটিসহ ঈদুল আজহা উপলক্ষে ১৪ থেকে ১৮ জুন পর্যন্ত বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি ছিল বন্ধ। বুধবার সকাল থেকে চালু হয়েছে বন্দর ও কাষ্টমসের কার্য্যক্রম। শুরু হয়েছে আমদানি রফতানি। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বন্দরে আসছে রফতানিকৃত পন্য বোঝায় ট্রাক।

বেনাপোল স্থলবন্দরের পরিচালক রেজাউল করিম জানান, ১৪জুন থেকে ১৮জুন পর্যন্ত বন্ধের পর আজ থেকে চালু হয়েছে পোর্ট। কয়েক দিনের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে রাতদিন আমদানি-রফতানি বাণিজ্যসহ পণ্য লোড আনলোডের কাজ চলবে।


আরও খবর