আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাইয়ের 'শতবর্ষের মিলনমেলা' স্থগিত

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ১৪ ও ১৫ জানুয়ারির 'শতবর্ষের মিলনমেলা' অনুষ্ঠানটি সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ. কে. আজাদ এবং মহাসচিব রঞ্জন কর্মকার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ১৪ ও ১৫ জানুয়ারির 'শতবর্ষের মিলনমেলা' অনুষ্ঠানটি সাময়িকভাবে স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরবর্তী তারিখ সম্মানিত সদস্যদের জানিয়ে দেওয়া হবে।

অনুষ্ঠানটি সাময়িকভাবে স্থগিত হওয়ায় বিজ্ঞপ্তিতে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করা হয়।

অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব রঞ্জন কর্মকার বলেন, 'বিকেলে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধকল্পে সরকারের পক্ষ থেকে কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এ বিষয়ে পরিপত্র দেওয়ার পর আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেছি। সরকারের বিধিনিষেধ এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে অনুষ্ঠানের পরবর্তী তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে।'


আরও খবর



বিচ্ছিন্ন অনিয়ম-সহিংসতায় শেষ হলো পঞ্চম ধাপের ভোট

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবেই শেষ হয়েছে পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচন। বুধবার বিকেল ৪টায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। এখন চলছে গণনা। এর আগে সকাল ৮টায় শুরু হয়ে সারাদিন উৎসবমুখর পরিবেশে চলে ভোটগ্রহণ। ঘন কুয়াশা ও তীব্র শীত উপেক্ষা করে ভোটাররা দলে দলে ভোটকেন্দ্রে আসেন। কেন্দ্রগুলোতে নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

নির্বাচনে সারাদেশে উল্লেখযোগ্য কোনো সহিংসতার খবর না পাওয়া গেলেও কয়েক বেশ কয়েটি কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ ওঠে।

মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে ভোটকেন্দ্রের পাশে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষের মাঝে পড়ে সমেলা খাতুন (৫০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। শিবালয় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানিয়া সুলতানা জানান, বাঁচামারা ইউনিয়নের ২নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই নারী মাঝে পড়ে নিহত হন।

সাভারে নৌকার পক্ষে এজেন্টরাই সিল মারেন ব্যালটপেপারে। কয়েকটি কেন্দ্রে দেখা যায় চেয়ারম্যান পদের ব্যালটপেপার উধাও। প্রিসাইডিং অফিসারও জানেন না কে বা কারা সেটা নিয়ে গেছে। রাজবাড়ীর পাংশার পাট্টা ইউপির বয়রাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ২নং বুথে উন্মুক্ত স্থানেই ভোট দেন ভোটররা।

ফেনী সদর উপজেলার ফরহাদনগর ইউপিতে প্রকাশ্যে সিল মারতে গোপন কক্ষে নৌকার এজেন্টরা ভোটারদের বাধ্য করেন। বিষয়টি জানাজানি হলে মধ্য ফরহাদনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভোটকেন্দ্রের ভেতরে মো. কারিফ (৩৮) নামে এক পোলিং এজেন্টকে নগদ টাকাসহ পাওয়ায় এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত কারিফ ওই ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের হালিম শাহ লিল মিয়ার ছোট ভাই ও পোলিং এজেন্ট।

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে ভোটকেন্দ্র থেকে মো. রবিন (২৮) নামে এক যুবককে অস্ত্রসহ আটক করে পুলিশ। ইউপি নির্বাচন চলাকালীন মোটরসাইকেল আরোহী সন্দেহভাজন যুবককে তল্লাশির সময় রবিন বাজারের ব্যাগ নিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। তাকে আটকের পর ব্যাগে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার দক্ষিণ বংশিকুন্ডা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দায়িত্বরত পুলিশ কনস্টেবল আখলাকুর ইসলামকে (৫০) লাঞ্ছিতের অভিযোগ ওঠে নৌকা প্রার্থীর এজেন্ট আনিসুল ইসলামের (২৪) বিরুদ্ধে। বুধবার (০৫ জানুয়ারি) দুপুরে গড়াকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মহিলা ভোট কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটে।

কুমিল্লার চান্দিনায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রার্থী আবুল হাসেমের গাড়িতে পুলিশ, ডিবি ও বিজিবির স্টিকার লাগিয়ে নির্বাচনী এলাকা পরিদর্শনের সময় আটক করা হয়। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা কারা হয় এবং তার গাড়িচালক আলী আজ্জমকে ৭ দিনের সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে দায়িত্বে অবহেলা করায় এক প্রিসাইডিং অফিসারকে প্রত্যাহার করা হয়। বুধবার (৫ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নের বঙ্গের বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. রেজানুল ইসলামকে প্রত্যাহার করা হয়।

প্রসঙ্গত, পঞ্চম ধাপে দেশের ৪৮ জেলার ৯৫টি উপজেলার ৭০৮টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হলো। এ ধাপে মোট ১৯৩ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

নিউজ ট্যাগ: ইউপি নির্বাচন

আরও খবর



করোনায় মৃত্যু বাড়লেও কমেছে শনাক্ত

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | ২৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। দীর্ঘদিন পর দ্বিতীয় দিনের মতো দৈনিক শনাক্ত করোনা রোগীর সংখ্যা ৯ হাজার ছাড়িয়েছে। 

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় দেশে ২৮ হাজার ২০৯ জনের মৃত্যু হলো। এ সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৬১৪ জন।  এ নিয়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ লাখ ৭৪ হাজার ২৩০ জনে। শনিবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ২৮ দশমিক ০২ শতাংশ।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল ২০২০ সালের ৮ মার্চ। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেই বছর সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৬৪ জনের।

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় গত বছর জুন থেকে রোগীর সংখ্যা হু-হু করে বাড়তে থাকে। ২৮ জুলাই একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

২০২১ সালের ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৫ ও ১০ আগস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যু হয়, যা মহামারির মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এরপর বেশকিছু দিন ২ শতাধিক মৃত্যু হয়।

এরপর গত ১৩ আগস্ট মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ এর নিচে নামা শুরু করে। দীর্ঘদিন শতাধিক থাকার পর গত ২৮ আগস্ট মৃত্যু ১০০ এর নিচে নেমে আসে।

২০২০ সালের এপ্রিলের পর গত বছরের ১৯ নভেম্বর প্রথম করোনাভাইরাস মহামারিতে মৃত্যুহীন দিন পার করে বাংলাদেশ। সর্বশেষ দ্বিতীয়বারের মতো ৯ ডিসেম্বর মৃত্যুশূন্য দিন পার করেছে দেশ।

ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণেই ছিল। কিন্তু এরমধ্যেই বিশ্বে শুরু হয় ওমিক্রন ঝড়। ৩ জানুয়ারি দৈনিক শনাক্তের হার ৩ শতাংশ এবং ৬ জানুয়ারি তা ৫ শতাংশ ছাড়ায়। এরপর থেকে সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে শুরু করেছে। 


আরও খবর
করোনায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৪৮২৮

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশের বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও সংগ্রামে বলিষ্ঠ নেতৃত্ব দানকারী ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ। বাংলা, বাঙালির স্বাধিকার অর্জনের লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশনায় ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জন্ম হয়।

সংগঠনটির দীর্ঘ রাজনৈতিক পরিক্রমায় ৫২র ভাষা আন্দোলন, ৫৪র প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের বিজয়, ৫৮র আইয়ুববিরোধী আন্দোলন, ৬২র শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬র ছয় দফার পক্ষে গণঅংশগ্রহণের মাধ্যমে মুক্তির সনদ হিসেবে এই দাবিকে প্রতিষ্ঠা করে।

৬৯র গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে কারাগার থেকে মুক্ত করে আনা, ৭০র নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ জয়লাভ ও ৭১র মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে পরাধীন বাংলায় লাল সবুজের পতাকার বিজয় ছিনিয়ে আনতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।

ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পাঁচদিনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে-

৪ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ৭টায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ৮টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি এবং কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের প্রতিনিধি দল টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, সকাল ৯টায় কার্জন হলে কেক কাটা এবং দুপুর ২টায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন ও আনন্দ শোভাযাত্রা।

৫ জানুয়ারি (বুধবার) বেলা সাড়ে ১১টায় কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তনে আলোচনা সভা। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে গণভবন থেকে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ সম্প্রচার হবে প্রতিটি জেলা, মহানগর ও উপজেলার দলীয় কার্যালয়ে।

৬ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সংলগ্ন স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে পথশিশুদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ, বিকেল ৩টায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হবে।

৭ জানুয়ারি (শুক্রবার) বিকেল ৩টায় দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ। ৮ জানুয়ারি (শনিবার) বেলা ১১টায় ঢাবির অপরাজেয় বাংলায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করবে সংগঠনটি।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঘোষিত কর্মসূচি যথাযথ মর্যাদায় পালন করতে ইউনিটের (জেলা, মহানগর, বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ) নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।


আরও খবর



জাতীয় দলে জায়গা হারালেন নেইমার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুই মাসের বিরতি শেষে চলতি মাসে আবারও মাঠে গড়াচ্ছে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব। চলতি মাসের শেষ দিকে, আর পরবর্তী মাসের শুরুতে দুই ম্যাচে আবারও মাঠে নামবে দক্ষিণ আমেরিকান দলগুলো। সেই দুই ম্যাচকে সামনে রেখে ব্রাজিল কোচ তিতে ঘোষণা করেছেন স্কোয়াড। যাতে বার্সেলোনা ডিফেন্ডার দানি আলভেস ফিরেছেন, জায়গা হারিয়েছেন নেইমার!

সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে এই দল ঘোষণা করেছেন তিতে। নেইমার অবশ্য চোটের কারণে দল থেকে বাদ পড়েছেন। গত নভেম্বরে পিএসজির হয়ে এক ম্যাচে চোট পেয়ে প্রায় দুই মাসের জন্য মাঠের বাইরে চলে যান তিনি।

জাতীয় দলে জায়গা ফিরে পেয়েছেন দানি আলভেস। চলতি শীতকালীন দলবদলে তাকে মূল দলের সঙ্গে নিবন্ধন করিয়ে নিয়েছে বার্সা। খেলে ফেলেছেন দুটো ম্যাচও। গ্রানাডার বিপক্ষে পুনরাভিষেকে করেছেন একটি অ্যাসিস্টও। দ্বিতীয় ম্যাচে গত বৃহস্পতিবার তার দল বার্সেলোনা চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হারলেও তার পারফর্ম্যান্স নজর কেড়েছে সবার। আর তাই কোচ তিতে তাকে দলে ফিরিয়ে এনেছেন।

শেষ কিছুদিনে মাঠে না নামলেও দলে আছেন ফেলিপে কৌতিনিও। কোচ তিতে জানালেন দলের গুরুত্বপূর্ণ এক সদস্য তিনি। বললেন, কৌতিনিও একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় যে খেলা গড়ে দিতে পারে, গোল করতে পারে। সে ধীরে ধীরে তার সেরা ফর্মে ফেরার চেষ্টা করছে। বর্তমানে যে অবস্থায় আছে সে, তাতে সে জাতীয় দলে ফেরার জন্য যথেষ্ট।

আগামী ২৮ জানুয়ারি ইকুয়েডরের আতিথ্য নেবেন তিতের শিষ্যরা। এর পাঁচ দিন পর ফেব্রুয়ারির শুরুতে দলটি খেলবে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে। নিজেদের মাঠেই হবে সেই ম্যাচটি।

সেলেসাওদের বিশ্বকাপ অবশ্য নিশ্চিত হয়ে গেছে গেল নভেম্বরেই। ১৩ ম্যাচে ১১ জয় ও ২ ড্রয়ে ৩৫ পয়েন্ট অর্জন করেছে দলটি। কনমেবল বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের পয়েন্ট তালিকায় দুইয়ে আছে আর্জেন্টিনা, ব্রাজিলের সমান ১৩ ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট অর্জন করে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ফেলেছে তারাও।

ব্রাজিল দল:

গোলরক্ষক: অ্যালিসন, এডারসন, ওয়েভারটন

ডিফেন্ডার: দানি আলভেস, এমারসন, আলেক্স সান্দ্রো, আলেক্স তেলেস, এডার মিলিতাও, গ্যাব্রিয়েল, মারকিনিওস, থিয়াগো সিলভা।

মিডফিল্ডার: ক্যাসেমিরো, ফ্যাবিনিও, ব্রুনো গিমারেস, গারসন, ফ্রেড, কৌতিনিও, লুকাস পাকেতা।

ফরোয়ার্ড: রাফিনিয়া, অ্যান্থনি, রদ্রিগো, এভারটন রিবেইরো, গ্যাব্রিয়েল জেসুস, ভিনিসিয়াস জুনিয়র, মাতিয়াস কুনিয়া, গ্যাবিগোল।

নিউজ ট্যাগ: নেইমার

আরও খবর
মাঠে ফিরছেন মাশরাফি, বোলিংয়ে ঢাকা

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




পর্নোগ্রাফি মামলায় গ্রেফতার করা যাবে না পুনমকে : আদালত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ২৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পর্নোগ্রাফি মামলায় ভারতীয় অভিনেত্রী পুনম পাণ্ডেকে গ্রেফতার করা যাবে না বলে আদেশ জারি করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। বিচারপতি বিনীত শরণ এবং বি ভি নাগারথনার একটি বেঞ্চ এই নির্দেশ জারি করেছে।

এর আগে মুম্বাই হাইকোর্ট পুনমের আগাম জামিন প্রত্যাখ্যান করেছিল। সেই আদেশের বিরুদ্ধে পান্ডের দায়ের করা আপিলের উপর মুম্বাইয়ের মহারাষ্ট্র সরকারকে নির্দেশ জারি করেছে ভারতের সর্ব্বোচ্চ আদালত। বিচারপতি বলেন, বিজ্ঞপ্তি জারি করুন, আবেদনকারীর বিরুদ্ধে কোন জবরদস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না।

একটি এফআইআরে অভিনেতা শার্লিন চোপড়ার সঙ্গে নাম ছিল পুনমেরও। মুম্বাই হাইকোর্ট গত ২৫ নভেম্বর তার অগ্রীম জামিনের আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছিল। এরপর ডিসেম্বরে, সর্বোচ্চ আদালত বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রাকে পর্নোগ্রাফিক ভিডিও তৈরি ও তা ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে নথিভুক্ত একটি এফআইআরের ক্ষেত্রেও একই নির্দেশ জারি করেছিল।

কুন্দ্রার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির বেশ কিছু ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। এরমধ্যে অন্যতম ছিল নারীর অশালীন প্রতিনিধিত্ব (প্রতিরোধ) আইন এবং তথ্য প্রযুক্তি আইনের অধীনে যৌন ভিডিও প্রচার। এই দুই ধারার ভিত্তিতে মামলা করা হয়েছিল। গ্রেফতারি থেকে রেহাই পেতে কুন্দ্রা প্রথমে দায়রা আদালত থেকে আগাম জামিন চেয়েছিলেন। কিন্তু তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছিল। এরপরে তিনি উচ্চ আদালতে যান। সেখানে তিনি দাবি করেছিলেন যে তাকে ফাঁসানো হয়েছে।

 

 

নিউজ ট্যাগ: পুনম পাণ্ডে

আরও খবর