আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

ধূমপান থেকে মুক্তি পেতে যা করবেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

ধূমপায়ীদের ধূমপান বর্জনের আকাঙ্ক্ষা থাকা সত্ত্বেও কখনো কখনো তা বিভিন্ন পারিপার্শ্বিক কারণে সম্ভব হয়ে উঠে না। কাজের চাপ বা রোজকার জীবনের একঘেয়েমি কাটাতেই যেন ধূমপানের আশ্রয় নেওয়া। মনের কোনায় হয়তো এটাও ঘুরপাক খায়, ধূমপান বন্ধ করলে তার পরিবর্তে কোনো অভ্যাসকে প্রতিস্থাপন করা যাবে। নিতান্তই শখের বসে শুরু করা ধূমপানের অভ্যাস ধীরে ধীরে গ্রাস করতে থাতে অচেতন মনকে। মস্তিষ্ককে সংবাদ দিতে থাকে তাকে ছাড়া আমার চলবে না

মস্তিষ্কই নির্ধারণ করে আমাদের কর্মকাণ্ড। আমরা যেমন মস্তিষ্ককে বারবার বলি ধূমপান করব, করতে ভালো লাগে কিংবা ধূমপান না করে থাকতে পারব না। বারবার এ ধরনের চিন্তা মনে অবচেতনভাবে আচ্ছন্ন করে ফেলে এবং ক্রমাগত শখ থেকে ধূমপান আসক্তির পথে নিয়ে যায়। এ থেকে পরিত্রাণের উপায় কী? আমরা কি এই আসক্তিকে আশকারা দিয়ে পালতে চাচ্ছি? নাকি ধূমপানের কারণে শরীরে যে স্থায়ী ক্ষতির সৃষ্টি হচ্ছে তা থেকে পরিত্রাণ চাই?

মনই সকল আসক্তির ঘর। তাহলে কি এই মন আয়ত্তে আনতে পারলেই সব সমস্যার সমাধান! একদমই তাই। ক্লিনিক্যাল হিপনোথেরাপি বিজ্ঞানের এমন একটি শাখা, এমন একটি বিকল্পধারার চিকিৎসা পদ্ধতি যার মাধ্যমে অবচেতন মন নিয়ন্ত্রণে এনে ধূমপানের আসক্তি থেকে বের হয়ে আসা সম্ভব। শুধু এক বা দুই সেশনেই অভিজ্ঞ হিপনোথেরাপিস্টের সহায়তায় এ আসক্তি থেকে অব্যাহতি সম্ভব। বিভিন্ন কেস স্টাডিতে দেখা যায়, চার অথবা পাঁচ বছর পর অনেক সময় এ আসক্তি ফিরে এলেও তা আবার থেরাপি করে নিলেই পূর্বাবস্থায় ফিরে যাওয়া সম্ভব।

বর্তমানে বিভিন্ন মানসিক সেবার সংযোজন হয়েছে। পাশ্চাত্যে এ বিকল্পধারা চিকিৎসা আশির দশক থেকে ব্যবহৃত হলেও আমাদের উপমহাদেশে এর আগমন আরও পরে। বিনা ওষুধ সেবন কিংবা ওষুধের কার্যকারিতা বাড়াতে ক্লিনিক্যাল হিপনোথেরাপি সেশন দৈনন্দিন জীবনের অন্যান্য নানা উপসর্গের পাশাপাশি স্মোকিং সিসেশন বা ধূমপান আসক্তি থেকে বিরত হতে সাহায্য করে। অথরেটেটিভ সাজেশনের মাধ্যমে অবচেতন মন বা সাবকনশাস মাইন্ডকে নিয়ন্ত্রণ করে খুব সহজেই ক্লিনিক্যাল হিপনোসিস করে ধূমপানের বদভ্যাস ছাড়াতে পারেন।


আরও খবর
২৯ ফেব্রুয়ারি: ইতিহাসের এই দিনে

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আজকের রাশিফল: বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চোরচক্রের পাঁচজন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

অবশেষে ধরা পড়ল বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চোরচক্রের পাঁচজন। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় উপজেলায় বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরির ঘটনায় তাদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় দুটি চোরাই ট্রান্সফরমার ও ট্রান্সফরমারের ভেতরের তার উদ্ধার করা হয়। আজ শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন, উপজেলার বন্যাকান্দি গ্রামের মো. নুরুল ইসলাম (২৮), রামকান্তপুর গ্রামের মো. আসাদুজ্জামান আসাদ (২৬), ঘোষগাতি গ্রামের শ্ৰী উজ্জল দত্ত (৪৪), নয়নগাতী গ্রামের মো. রাজিব হোসেন (২৭) ও একই গ্রামের মো. ইউনুছ আলী (৪৫)। এদের মধ্যে রাজিব হোসেন ও ইউনুস আলী বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

ওসি আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম বলেন, চক্রটি উপজেলার পঞ্চক্রোসী ইউনিয়নের সদর, বেতকান্দি, বন্যাকান্দিসহ বিভিন্ন ফসলের মাঠ থেকে কৃষকের সেচ পাম্পের ট্রান্সফরমার চুরি করে আসছিল। এসব চুরির ঘটনায় কৃষকদের করা মামলার ভিত্তিতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ওসি জানান, চক্রটির সঙ্গে আরও অনেকে জড়িত রয়েছে। জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মসিক নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দিলেন ইকরামুল হক টিটু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

Image

উৎসবমূখর পরিবেশে আসন্ন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন (মসিক) নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী মো: ইকরামুল হক টিটু তার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এ মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন ময়মনসিংহের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন চৌধুরী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আমিনুল হক শামীম, সহ সভাপতি শওকত জাহান মুকুল, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠানসহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ এবং তাদের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা।

মনোনয়নপত্র দাখিলের পর মো: ইকরামুল হক টিটু সাংবাদিকদের বলেন, আমি সিটি কর্পোরেশনের মেয়র থাকাকালে নানা বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলা করে আমার সর্বোচ্চ দিয়ে সম্মানিত নগরবাসীর উন্নয়নে কাজ করার চেষ্টা করেছি। পুনরায় নগরবাসীর মূল্যবান ভোটে মেয়র নির্বাচিত হলে একটি স্মার্ট সিটি করপোরেশন গড়তে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবো।

প্রসঙ্গত, গত ২০১৮ সালে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন ঘোষণা হয়। এরপর ২০১৯ সালের ৫ মে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হন মো: ইকরামুল হক টিটু। মেয়র হওয়ার পর বৈশ্বিক সংকট করোনা মহামারী এবং রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলা করে নগরীর ৩৩ টি ওয়ার্ডে দৃশ্যমান নানা উন্নয়ন করে নগরবাসীর আস্থা অর্জন করতে সমর্থ হন তিনি।

উল্লেখ, স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) নির্বাচন বিধিমালা, ২০১০ এর বিধি ১০(১) অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন: ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর ও সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে ইভিএম পদ্ধতিতে আগামী ৯ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের সম্ভাব্য মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লক্ষ ৩৬ হাজার ৪৯৬ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১ লক্ষ ৬৩ হাজার ৮৩২ এবং নারী ভোটার সংখ্যা ১ লক্ষ ৭২ হাজার ৬৫৫ জন। এছাড়া হিজড়া ভোটার রয়েছেন ৯ জন। সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১২৮ এবং ভোট কক্ষের সংখ্যা ৯৯০ টি। সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সংখ্যা ১১ টি এবং সাধারণ ওয়ার্ডের সংখ্যা ৩৩ টি।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




রিয়েলিটি শো’র মঞ্চে দেখা যাবে মমতা ব্যানার্জিকে

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা ব্যানার্জিকে প্রথমবারের মত দেখা যাবে রিয়েলিটি শো দিদি নাম্বার ওয়ানর মঞ্চে। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালক জনপ্রিয় অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জি। আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি এপিসোডটির দৃশ্যগ্রহণ করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

এদিকে গত জানুয়ারিতেই মমতার সাথে দেখা করেছিলেন রচনা। ধারণা করা হয়েছিলো রচনা হয়ত আগামী লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের হয়ে রাজনীতির মাঠে নামবেন। তবে সব জল্পনা ভেস্তে দিয়ে রচনা জানিয়েছেন, আসলে মুখ্যমন্ত্রীকে অনুষ্ঠানের জন্য আমন্ত্রণ জানাতে গিয়েছিলেন তিনি।

ভারতীয় একাধিক গণমাধ্যমের খবর, আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি জি বাংলার জনপ্রিয় এই রিয়েলিটি শোর স্পেশাল পর্বের শ্যুটিং স্টুডিওতে না হয়ে হাওড়ার ডুমুরজেলা স্টেডিয়ামে হবে।

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গে মমতা ব্যনার্জি ও রচনা ব্যানার্জি দুজনকেই আমজনতা দিদি নামে সম্বোধন করে। একজন রাজনৈতিক পরিচয়ে গণমানুষের দিদি, আরেকজন এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আপামর জনসাধারনের দিদি হয়ে উঠেছেন। দুজনের নামের পদবিও এক। ওপার বাংলার এই জনপ্রিয় শোর প্রচুর ভক্ত ও দর্শক রয়েছে বাংলাদেশেও।


আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শাকিব ‘রাজকুমার’ হলে আমি রাজা: জায়েদ খান

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নির্বাচন নিয়ে যা বললেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের নির্বাচনের পর সরকার গঠন নিয়ে ধোঁয়াশা এখনও কাটেনি। নানান আলোচনা চলছে বিশ্ব সংবাদমাধ্যমগুলোতে। এই অবস্থায় এবারের নির্বাচন নিয়ে মুখ খুললেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল আসিম মুনীর।

পাকিস্তানে রাজনীতি ও সরকারের নিয়ন্ত্রণ সেনাবাহিনীর হাতে বলে মনে করা হয়। নির্বাচনের আগে বিশ্লেষকরা বলেছিলেন যে, সেনাবাহিনী নওয়াজ শরিফকে ক্ষমতায় বসানোর সব ব্যবস্থা করেছে। কিন্তু নির্বাচনে ভোটাররা চমকে দিয়েছে। তাদের পছন্দ ইমরান খানের পিটিআই সমর্থিত স্বতন্ত্ররা। তাতে সরকার গঠনের পরিস্থিতি জটিল হয়ে উঠেছে। এখনও কারা কীভাবে সরকার গঠন করবে সে বিষয়টি পরিষ্কার নয়।

এমন অবস্থায় একটি বিবৃতি দিয়েছেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আসিম মুনির। তিনি বলেন, পাকিস্তানকে নির্বাচন-পরবর্তী নৈরাজ্য ও মেরুকরণ থেকে সরে আসতে হবে। খবর আল আরাবিয়্যার

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) এক সামরিক বিবৃতিতে আসিম মুনির বলেন, সাধারণ নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফলের সাথে সাথে পাকিস্তানকে নৈরাজ্য ও মেরুকরণের রাজনীতি বাদ দিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।

আসিম মুনির আরও বলেন, জাতির নৈরাজ্য ও মেরুকরণের রাজনীতি থেকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য স্থিতিশীল হাত এবং একটি নিরাময় স্পর্শ প্রয়োজন।

জানা গেছে, পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের মোট আসনসংখ্যা ৩৩৬টি। এর মধ্যে ২৬৬ আসনে সরাসরি ভোট হয়। ৭০টি আসন সংরক্ষিত। এসব আসনের মধ্যে ৬০টি নারীদের ও ১০টি সংখ্যালঘুদের। ২৬৬ আসনের একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী গুলিতে নিহত হওয়ায় সেখানে নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। ভোটগ্রহণ হয়েছে ২৬৫ আসনে।


আরও খবর



বিশ্বে দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে ঢাকা

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বজুড়ে বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা আইকিউ এয়ারের তথ্য অনুযায়ী সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার বাতাসের মান ঝুঁকিপূর্ণ। এদিন সকাল ৮টার পর ৪৮৯ স্কোর নিয়ে বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে ঢাকা।

একই সময়ে ৩৩০ স্কোর নিয়ে দূষিত বায়ুর শহরের তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পশ্চিম আফ্রিকার দেশ ঘানার আক্রা। ১৭৬ স্কোর নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারতের মুম্বাই। এরপর যথাক্রমে ১৭৩ স্কোর নিয়ে চার নম্বরে নেপালের কাঠমান্ডু ও একই স্কোর নিয়ে চীনের বেইজিং পাঁচে আছে । অর্থাৎ, শহরদুটির বাতাসও আজ অস্বাস্থ্যকর।

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইকিউ এয়ার দূষিত বাতাসের শহরের এ তালিকা প্রকাশ করে। প্রতিদিনের বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা একিউআই স্কোর একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটুকু নির্মল বা দূষিত, সে সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং তাদের কোনো ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হতে পারে কি না, তা জানায়।

তথ্যমতে, একিউআই স্কোর শূন্য থেকে ৫০ ভালো হিসেবে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ মাঝারি হিসেবে গণ্য করা হয়। আর সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। ১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়।

একইভাবে একিউআই স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে থাকলে খুব অস্বাস্থ্যকর এবং স্কোর ৩০১ থেকে ৪০০ এর মধ্যে থাকলে ঝুঁকিপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়। বায়ুদূষণ গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে। এটা সব বয়সী মানুষের জন্য ক্ষতিকর। তবে শিশু, অসুস্থ ব্যক্তি, প্রবীণ ও অন্তঃসত্ত্বাদের জন্য বায়ুদূষণ খুবই ক্ষতিকর।

ঢাকায় বায়ু দূষণের জন্য ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলোকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। বায়ুদূষণের ফলে বাড়ছে শ্বাসকষ্ট, কাশি, নিম্ন শ্বাসনালীর সংক্রমণ এবং বিষণ্ণতার ঝুঁকি।


আরও খবর
সারা দেশে কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪