আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বেড়েছে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | ৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈদকে সামনে রেখে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বেড়েছে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়। মঙ্গলবার (৪ মে) সকালে দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ফেরিঘাটে গিয়ে যাত্রীদের চাপের চিত্র দেখা যায়।

যাত্রী শরিফুল ইসলাম বলেন, আর কয়েক দিন পর ঈদ। তাই বাড়িতে চলে যাচ্ছি। সরকার লকডাউন বাড়িয়েছে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত। পরে যদি না যেতে পারি তাই আগে চলে যাচ্ছি।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিসির দৌলতাদিয়াঘাট কার্যালয়ের সহকারী মহাব্যবস্থাপক মো. ফিরোজ শেখ বলেন, ঈদকে সামনে রেখে ঢাকা থেকে পরিবার-পরিজন নিয়ে মানুষ দেশের বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে। তবে এ নৌরুটে দিনে ছোট ৬টি ও দিনরাত মিলে ১৫টি ফেরি চলাচল করছে।


আরও খবর



দেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৭৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ এপ্রিল ২০২১ | ৭৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গেল ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া গত একদিনে এই ভাইরাসে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৯৫৫ জন।

আজ বুধবার (২৭ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে বিশ্বে করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত মৃত্যু ৩১ লাখ ৪৮ হাজার ৭৮১ জন ছাড়িয়েছে। আর আক্রান্তের হয়েছেন ১৪ কোটি ৯৩ লাখ ২৮ হাজার ৮৫৮ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১২ কোটি ৬৯ লাখ ৮২ হাজার ১৩৭ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ২৯ লাখ ২৭ হাজার ৯১ জন আর ৫ লাখ ৮৭ হাজার ৩৮৪ জন মারা গেছেন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ১ কোটি ৭৯ লাখ ৮৮ হাজার ৬৩৭ জন এবং মারা গেছেন ২ লাখ ১১ হাজার ৬৫ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৪৪ লাখ ৪৬ হাজার ৫৪১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৯৫ হাজার ৩২৪ জনের।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।


আরও খবর



কঠোর লকডাউনে জনশূন‌্য রাজধানী

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ | ১২২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নতুন করে সরকারঘোষিত আটদিনের বিধি-নিষেধের প্রথমদিনে রাজধানীর সর্বত্র কঠোরভাবেই লকডাউন পালিত হচ্ছে। এই বিধি-নিষেধ সর্বাত্মকভাবে পালনে বাধ্য করতে রাজধানীর পাড়া-মহল্লা থেকে শুরু করে রাজপথের প্রধান সড়ক ও মোড়ে মোড়ে টহল দিচ্ছেন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

গেল সপ্তাহের লকডাউনের সঙ্গে আজ বুধবারের (১৪ এপ্রিল) লকডাউনের কোনো মিলই নেই। গত নয়দিন লকডাউনে রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ দেখা গেলেও আজ মানুষ নেই বললেই চলে। প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হলেই পুলিশসহ বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যদের জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে নগরবাসীকে।

রাস্তায় পুলিশের টহল গাড়ি, পণ্যবাহী ট্রাক, রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স, প্রাইভেটকার, রিকশা, মোটরসাইকেলসহ জরুরি প্রয়োজনে ব্যবহৃত সীমিত সংখ্যক যানবাহন ছাড়া তেমন যানবাহন চোখে পড়েনি। প্রায় প্রতিটি যানবাহনকে থামিয়ে থামিয়ে কী প্রয়োজনে কোথায় যাচ্ছেন তা জানতে চাইছেন পুলিশ সদস্যরা। অপ্রয়োজনে বাইরে বের হয়েছেন নিশ্চিত হলে মামলা দিয়ে বাড়ি পাঠানো হচ্ছে।

সরকারের একাধিক মন্ত্রী ও দায়িত্বশীল শীর্ষ কর্মকর্তারা এবার আগে থেকেই সর্বাত্মক লকডাউনের ঘোষণা দেয়ার ফলে ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে নগরের বাসিন্দারা যেন হাওয়ার মতো উবে গেছেন!

আজ সরেজমিনে রাজধানীর ধানমন্ডি, লালবাগ, তেজগাঁও, রমনা, কলাবাগানসহ বিভিন্ন থানা এলাকা ঘুরে অধিকাংশ রাস্তাঘাটে পুলিশের টহল ভ্যান ও সাইরেন বাজিয়ে অ্যাম্বুলেন্স চলাচল করতে দেখা গেছে। গতকালের (১৩ এপ্রিল) তুলনায় রাস্তাঘাটে মানুষের উপস্থিতি নেই বললেই চলে। তাছাড়া রমজানের প্রথম দিন হওয়ার কারণে এমনিতেই মানুষ ঘরের বাইরে বের হননি।

রাজধানীর বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সড়কে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ব্যারিকেড দিয়ে টহল বসিয়ে যানবাহন ও যাত্রীদের জেরা করতে দেখা গেছে। তবে যারা ঘরের বাইরে বের হয়েছেন তাদের বেশিরভাগই জরুরি প্রয়োজনে বের হয়েছেন বলে প্রমাণ দেখিয়ে যেতে পারছেন।

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় কর্তব্যরত একজন পুলিশ কর্মকর্তা এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, তারা সাহরির পর থেকেই রাস্তায় টহলে নেমেছেন। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কড়া নির্দেশ করোনার সংক্রমণরোধে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে রাস্তায় থাকতে দেয়া যাবে না। শুধু তাই নয়, পুলিশের বিশেষ পাস ছাড়া চলাচলে বাধা দিতে বলা হয়েছে। তবে মানবিক বিবেচনায় কিছু মানুষ যারা তথ্য-প্রযুক্তি সম্পর্কে জানেন না কিন্তু জরুরি প্রয়োজনে বের হয়েছেন তাদেরকে চলাচল করতে দেয়া হচ্ছে।

লকডাউন চলাকালে ফলমূল ও কাঁচামাল পরিবহনের অনুমতি থাকলেও বেশ কিছু রাস্তায় পুলিশকে ভ্যান ও ঠেলাগাড়ি ফিরিয়ে দিতে দেখা গেছে। ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, পুলিশের বাধার কারণে তাদের অনেকটা পথ ঘুরে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে।

নীলক্ষেত মোড়ে সরকারি এক কর্মকর্তা অসুস্থ ছেলেকে পান্থপথে শমরিতা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য রিকশার খোঁজ করছিলেন। কিন্তু দু-চারটা রিকশা থাকলেও সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড় ও কলাবাগানে তারা যেতে চাইছিলেন না। একজন রিকশাচালক রাজি হলেও ভাড়া চাইলেন ১০০ টাকা। এ সময় সরকারি ওই কর্মকর্তা বলেন, ৪০ টাকার ভাড়া দ্বিগুণেরও বেশি হাঁকছো কেন?

নিউজ ট্যাগ: লকডাউন

আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | ১৩৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বব্যাপী তাণ্ডব চালানো মহামারি করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ৬১ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৭০৫ জনে। একই সময়ে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন আরও ১ হাজার ৯১৪ জনের দেহে। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৫৯৬ জনে।

করোনাভাইরাস নিয়ে মঙ্গলবার (৪ মে) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সেখানে উল্লেখ করা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ৩ হাজার ৮৭০ জন। এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ৯৫ হাজার ৩২ জন।

এর আগে সোমবার (৩ মে) দেশে করোনায় ৬৫ জন মারা যান, আর নতুন করে শনাক্ত হয় ১ হাজার ৭৩৯ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার (৪ মে) সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মারা গেছেন আরও ১০ হাজার ৪৭৮ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৬ লাখ ৬৯ হাজার ৬৮৯ জনের শরীরে। এ নিয়ে বিশ্বে মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩২ লাখ ২৬ হাজার ৮৭৫ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ কোটি ৪১ লাখ ৭৮ হাজার ২৪৪ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ কোটি ১৫ লাখ ৭৩ হাজার ৮৫৮ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৩২ লাখ ৩০ হাজার ৫৬১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৯১ হাজার ৫১৪ জনের।

আক্রান্তে দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বের সর্বোচ্চ ৩ লাখ ৫৫ হাজার ৮২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে মোট সংক্রমণ হয়েছেন ২ কোটি ২ লাখ ৭৫ হাজার ৫৪৩ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে রেকর্ড সংখ্যক ৩ হাজার ৪৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভারতে এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ২২ হাজার ৩৮৩ জনের।

আক্রান্তে তৃতীয় এবং মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিল এখন পর্যন্ত করোনায় এক কোটি ৪৭ লাখ ৯১ হাজার ৪৩৪ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৮ হাজার ৮২৯ জনের।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ লাখ ৫৬ হাজার ৭ জন। ভাইরাসটিতে মারা গেছেন এক লাখ ৫ হাজার ১৩০ জন।

এই তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে তুরস্ক। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৪৯ লাখ ১২১ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪১ হাজার ১৯১ জন।

এদিকে আক্রান্তের তালিকায় রাশিয়া ষষ্ঠ, যুক্তরাজ্য সপ্তম, ইতালি অষ্টম, স্পেন নবম এবং জার্মানি দশম স্থানে রয়েছে। এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম।


আরও খবর



অগ্রিম টাকা নিয়ে ভ্যাকসিন না দেয়া গ্রহণযোগ্য নয় : পাপন

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | ১১১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বেক্সিমকোর এমডি ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, অগ্রিম টাকা নিয়ে ভ্যাকসিন না দেয়া গ্রহণযোগ্য নয়, সেরামকে শক্ত ভাষায় বলা উচিত, অগ্রীম টাকা অনুযায়ী ভ্যাক্সিন আমাদের দিতে হবে।

আজ শনিবার দুপুর ১২টার দিকে টিকা নিতে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাপন। পরে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

এর আগে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকার প্রথম ডোজ নেন পাপন। দেশজুড়ে শুরু হওয়া গণ-টিকাদান কর্মসূচির অংশ হিসেব রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালেই টিকা নেন তিনি।


আরও খবর



বাবুনগরী রাষ্ট্রপতি হবেন এবং প্রধানমন্ত্রী হবেন মামুনুল হক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | ১৬৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার অভিযানের মধ্যেই সংগঠনটির একজন নেতা জানিয়েছেন, তারা ক্ষমতায় আসার পর কাদের কাদের ফাঁসিতে ঝোলানো হবে সেই তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। এছাড়াও তাদের চোখ টেনে টেনে ছিঁড়ে ফেলা হবে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন সেই নেতা।

সম্প্রতি সময়ে ওই নেতার একটি ওয়াজের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে তাকে বলতে দেখা যাচ্ছে, একদিন তাদের সংগঠনের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী এই দেশের রাষ্ট্রপতি হবেন এবং প্রধানমন্ত্রী হবেন মামুনুল হক। তারা ক্ষমতায় আসার পর ফতোয়া বোর্ড গঠন করে ফাঁসির রায় দেবেন।

জানা গেছে, ওই আলেমের নাম নূর হোসাইন নুরানী। হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য ছিলেন তিনি। এছাড়াও তিনি আহমদিয়া বিরোধী আন্দোলন করা খতমে নবুওয়ত আন্দোলন বাংলাদেশ- সংগঠনটির সভাপতি।

জানা গেছে, তিনি যে ওয়াজটিতে এসব বক্তব্য রেখেছেন তা গাজীপুরের কালিয়াকৈরের মৌচাক এলাকার। ওয়াজের একটি ব্যানার থেকে জানা যাচ্ছে গত ২২ এপ্রিলের আগে হয়েছিল ওয়াজটি। কেননা, ওইদিন নুরানী তার নিজ এলাকা মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার হয়।


আরও খবর