আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

দুই সন্তানসহ বিষপান, মায়ের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৫৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পারিবারিক কলহের জেরে সুনামগঞ্জের শাল্লায় দুই সন্তানসহ বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টায় এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তবে দেরিতে বিষপান করায় প্রাণে বেঁচে গেছে তার দুই শিশু সন্তান।

আত্মহননকারী ওই নারী উপজেলা সদরের সুলতানপুর গ্রামের। সোমবার সকাল ৯ টার দিকে তার স্বামীর বসত বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের ধারণা, পারিবারিক কলহের জেরে এই ঘটনা ঘটেছে। প্রতিদিনের ন্যায় ওই নারী স্বামী সোমবার সকালে গ্রামের পাশের ছায়ার হাওরে মাছ ধরতে চলে যায়। ৯ টার দিকে বাড়িতে এসে দেখতে পান স্ত্রী ও তার দুই ছেলে ঘরের ভেতর মৃত্যু যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন।

ওই নারী স্বামী ছেলেদের নিকট কি হয়েছে জানতে চাইলে, বড় ছেলে তাকে জানিয়েছে, তার মা প্রথম বিষ খেয়েছে। পরে জোর করে তাদেরকে ও বিষপান করিয়েছে। এগুলে শুনে ওই নারী স্বামী দিলে আশপাশের লোকজন এসে দ্রুত তাদেরকে শাল্লা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

সিলেট নিয়ে যাবার পথে ওই নারী মারা যায়। অসুস্থ দুই শিশু সন্তানকে দিরাই ও শাল্লা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর

বিকেলে সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

শাল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন, স্থানীয়দের ধারণা পারিবারিক কলহের জের ধরেই দুই শিশু সন্তানসহ নিজে ইদুর মারার বিষপান করেছিল ওই নারী। দুই শিশু সন্তান প্রাণে বাঁচলেও মায়ের মৃত্যু হয়েছে।


আরও খবর



বেড়েছে তেল-সবজি-মুরগির দাম

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | ৭২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ভোজ্যতেল, পেঁয়াজ, সবজি, মুরগি ও কাঁচামরিচের। এছাড়া দাম কমেছে ডিম ও আলুর।

অপরদিকে অপরিবর্তিত রয়েছে অন্যান্য পণ্যের দাম। 

বাজারে বেশির ভাগ সবজির দাম কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা বেড়েছে। এসব বাজারে প্রতিকেজি গোল বেগুন ৮০ টাকা, লম্বা বেগুন ৬০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, টমেটো ১২০ টাকা, সিম ১২০ টাকা, বরবটি ৮০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪০ টাকা, চিচিঙ্গা ৪০ টাকা, পটল ৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৬০ টাকা, লতি ৬০ টাকা, কাকরোলা ৬০ টাকা, পাতা কফি ও ফুল কফি প্রতিপিস ৫০ টাকা, চাল কুমড়া প্রতিপিস ৪০ টাকা, প্রতিপিস লাউ আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।

এসব বাজারে আলুর দাম কমে বিক্রি হচ্ছে ১৮ টাকা কেজি। পেঁয়াজের দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। বাজারে বেড়েছে কাঁচামরিচের দাম। কেজিতে ২০ টাকা দাম বেড়ে প্রতিকেজি কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায়। গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছে ১৪০ টাকায়। কাঁচা কলার হালি বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়। পেঁপে প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা। শসা বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৬০ টাকায়। লেবুর হালি বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকায়।

বাজারে শুকনো মরিচ প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ২৫০ টাকা, রসুন ৮০ থেকে ১৩০ টাকা, আদা ১০০ টাকা, হলুদের গুড়া ১৬০ টাকা থেকে ২২০ টাকা। এছাড়া ইন্ডিয়ান মসুর ডাল কেজিপ্রতি ৯০ টাকা ও দেশি মসুর ডাল ১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এসব বাজারে বেড়েছে ভোজ্যতেলের দাম। খুচরা প্রতিলিটার তেল বিক্রি হচ্ছে ১৫৩ টাকায়। আগের দামে কেজিপ্রতি চিনি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা। এছাড়া প্যাকেট চিনি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮৫ টাকায়। বাজারে দামে বেড়েছে খুচরা আটার। প্রতিকেজি আটা বিক্রি হচ্ছে ৩৫ টাকায়। 

বাজারে দাম কমেছে ডিমের। লাল ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ১০৫ টাকায়। হাঁসের ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা। দেশি মুরগির ডিম বিক্রি হচ্ছে ১৮০ টাকা। সোনালি (কক) মুরগির ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৫০ টাকায়। 

এসব বাজারে আবারও বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। কেজিতে ২০ টাকা বেড়ে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৭০ টাকায়। সোনালি (কক) মুরগি কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ২৯০ টাকা, লেয়ার মুরগি ২৩০ টাকায়। ~ 

নিউজ ট্যাগ: বাজার দর

আরও খবর
দফায় দফায় বাড়ছে মুরগির দাম

শুক্রবার ০৮ অক্টোবর ২০২১




শিগগিরই বাগদান করতে যাচ্ছেন ভিকি-ক্যাটরিনা

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ক্যাটরিনা কাইফ ও ভিকি কৌশল চুটিয়ে প্রেম করছেন বলিউডপাড়ায় এমন গুঞ্জন বহুদিন ধরে চলছে। দুজন শিগগিরই গাঁটছড়া বাঁধতে যাচ্ছেন এ ধরনের কথা প্রায়ই শোনা যায়।

দুজনের একসঙ্গে ঘোরাঘুরি, বলিউড নায়িকার বাড়িতে ভিকির অবাধ যাতায়াত এই গুঞ্জনকে দৃঢ় করেছে। কিন্তু প্রেম কিংবা বিয়ের বিষয়টিতে ক্যাটরিনা ও ভিকির কেউ-ই এতদিন মুখ খোলেননি।

অবশেষে বলিউড সেনসেশনের সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জনের বিষয়ে নীরবতা ভেঙেছেন ভিকি কৌশল। আমি শিগগিরই বাগদান করতে যাচ্ছি।

বলিউড হাঙ্গামার খবরে বলা হয়েছে, টাইমস অব ইন্ডিয়াকে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ভিকি কৌশল বলেন, বিয়ের সময় হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, পাপারাজ্জিরা ঘিরে ধরলে ক্যাটরিনার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে ভিকি বলেন, এটি তোমাদের বন্ধুদের ছড়ানো গুঞ্জন। সময় হলে সব জানতে পারবে। তবে আমার বাগদান শিগগিরই হচ্ছে।  

 

নিউজ ট্যাগ: ভিকি-ক্যাটরিনা

আরও খবর



শ্রীপুরে ছোট গরু ‘টুনটুনি’ কে দেখতে উৎসুক জনতার ভীর!

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ৫৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শ্রীপুর(গাজীপুর) প্রতিনধিঃ

গাজীপুরের শ্রীপুরে ছোট গরু টুনটুনি কে দেখতে উৎসুক জনতার ভীর লক্ষ্য করার মতো। খর্বাকতির এ গরুটির নাম রাখা হয়েছে টুনটুনি। দেখতে স্বাভাবিক বাছুরের চেয়ে ছোট। বয়স ১৪ মাস, ওজন ২৩ কেজি, উচ্চতা ২২ ইঞ্চি। দুরন্তপনা ও অন্য সব গরুর চেয়ে ছোট বলে তার মালিক আদর করে নাম রেখেছেন টুনটুনি। স্থানীয়দের আশা, সাভারের রানির রেকর্ড ভেঙে জীবিত হিসেবে পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু টুনটুনি গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের তালিকায় স্থান করে নেবে শিগগির।

ছোট একটা গরু টুনটুনিকে দেখতে উপজেলার গোসিংগা ইউনিয়নের হায়াতখারচালা গ্রামের আড়ালিয়া ভিটার কৃষক আবুল কাশেমের বাড়িতে প্রতিদিন শত শত মানুষর আনাগোণা ক্রমশ বাড়ছে। দেশীয় জাতের গরুর একটি খর্বাকতির বাছুর দেখতে এ কৃষকের বাড়িতে হাজারো উৎসুক জনতার ভীর । টুনটুনি নামক খর্বাকতির বাছুরটি হায়াতখারচালা গ্রামের কৃষক আবুল কাশেমের (৪৫) বাড়িতে গত বছরের জুলাই মাসে টুনটুনির জন্ম। রানির উচ্চতা ছিল ২০ ইঞ্চি। টুনটুনির উচ্চতা ২২ ইঞ্চি। রানির চেয়ে ৩ কেজি ওজন কম টুনটুনির। রানির আগে ২০১৪ সালে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে সবচেয়ে ছোট গরু হিসেবে নাম লিখিয়েছিল ভারতের কেরালা রাজ্যের মানিকিয়াম নামের একটি গরু। এটির উচ্চতা ছিল ২৪ দশমিক শূন্য ৭ ইঞ্চি।

অদ্ভুত শারীরিক গড়ন আর চঞ্চল স্বভাবের কারণে পরিবারের সব সদস্যের কাছে টুনটুনি বেশ পছন্দের। কাশেমের স্ত্রী জরিনা বেগম বলেন, জন্মের সময় অনেকটা খরগোশের মতো ছিল। জন্মের কিছুক্ষণের মধ্যেই এটি দ্রুত হাঁটতে শুরু করে। এত ছোট আকৃতির বাছুর তাঁরা আর কখনো দেখেননি।

আবুল কাশেম বলেন, এই বাছুরকে জন্ম দেওয়া গাভিটি এর আগে আটটি বাচ্চার জন্ম দিয়েছে। আগের সবগুলো বাছুরের শারীরিক গড়ন স্বাভাবিক ছিল। এই বাছুরের শারীরিক গড়ন ছোট হওয়ায় এটি মায়ের দুধ পান করতে পারত না। তখন এটিকে কোলে নিয়ে গাভির পেটের নিচে ধরে বসে থাকতে হতো।

শ্রীপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. রোকনুজ্জামান পলাশ বলেন, এই বয়সে একটি দেশি বাছুরের ওজন অন্তত ১০০ কেজি হয়। জন্মের সময় দেশি বাছুরের ওজন ২০ থেকে ২২ কেজি হয়। সে তুলনায় এটির ওজন অনেক কম। আমরা বাছুরটির বিষয়ে সরাসরি খোঁজ নিয়েছি। এটি রেকর্ড গড়ার মতো, আমরা সব ধরনের সহযোগিতা করব।


আরও খবর



মাদক নেওয়ার কথা স্বীকার শাহরুখপুত্র আরিয়ানের

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | ৫৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিলাসবহুল এক প্রমোদতরীর মাদক পার্টি থেকে আটকের পর টানা ৬ ঘণ্টা জেরার পর মাদক গ্রহণের কথা স্বীকার করেছেন বলিউড স্টার শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান।

শনিবার রাতে শাহরুখপুত্রকে মুম্বাইয়ের কর্ডেলিয়া নামে এক প্রমোদতরী থেকে আটক করে ভারতের মাদকবিরোধী সংস্থা-এনসিবি।

রবিবার সকাল থেকেই তাকে জেরা করা হয়। এনসিবি কর্মকর্তাদের প্রায় ছয় ঘণ্টা জেরার পর আরিয়ান স্বীকার করে নেন, প্রমোদতরীর মাদক পার্টিতে তিনি মাদক নিয়েছেন।

এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো বিবৃতি জারি করেনি এনবিসি। কিছু জানানো হয়নি শাহরুখের পরিবারের পক্ষ থেকেও।

কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি জানিয়েছে, এই পার্টিতে ভিভিআইপি তালিকায় নাম থাকায় কোনো প্রবেশমূল্য ছাড়াই প্রবেশ করেছিলেন আরিয়ান। তিনি নিজেই নাকি জেরায় স্বীকার করেছেন এ কথা।

এনসিবি খতিয়ে দেখছে শাহরুখপুত্রের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট। তিনি কাদের সঙ্গে কথা বলতেন, যোগাযোগ রাখতেন এসব কিছু নিয়েও এখন তদন্ত চলছে।

কোনো মাদকচক্রের সঙ্গে তিনি যুক্ত কিনা, তা-ও জানার চেষ্টা চলছে। বন্ধুদের বিভিন্ন গ্রুপে কী ধরনের আলোচনা করতেন তিনি, তা-ও এখন নজরে তদন্তকারীদের।

আরিয়ানের বিরুদ্ধে নারকোটিকস ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস (এনডিপিএস) আইনে মামলা হতে পারে।

কর্ডেলিয়া নামে সেই প্রমোদতরীর পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন আরও বেশ কিছু তারকা। কিন্তু এনসিবি যখন হানা দেয়, তখন মাদক সেবন করতে দেখা যায়নি তাদের। আপাতত আরিয়ানের থেকেই এ পার্টি সম্পর্কে নানা ধরনের তথ্য নেওয়ার চেষ্টায় রয়েছেন এনসিবির কর্মকর্তারা। 

 


আরও খবর



আত্মবিশ্বাস-আত্মমর্যাদা নিয়ে গড়ে উঠুক শিশুরা: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ২৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
শেখ হাসিনা বলেন, ৭১ ও ৭৫ শিশুদেরও হত্যা করেছে ঘাতকেরা। সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়েছে ২০০১ সালের নির্বাচনে। আবার ২০১৩ সালে বাসে আগুন দিয়ে শিশুসহ মানুষ পুড়িয়ে হত্যার পুনরাবৃত্তি হয়েছে

শিশুরা নিজেদের প্রতিভা বিকাশের পাশাপাশি আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদা নিয়ে গড়ে উঠুকএমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) শেখ রাসেল দিবসের অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি।

ছোট ভাই রাসেলের স্মৃতিচারণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাসেল ছোটবেলা থেকে বাচ্চাদের নিয়ে প্যারেড করতো। সে বড় ভাই শেখ জামালের মতো সেনা অফিসার হতে চাইতো। বেঁচে থাকলে আজকে হয়তো সেনাবাহিনীর বড় অফিসার হতো।

৭৫-এর হত্যাকাণ্ডের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, সেদিন রাসেল মায়ের কাছে যাবো বলে কান্না করছিল। তাকেও হত্যা করা হলো। আমার একটাই প্রশ্ন এ শিশুটির কী অপরাধ ছিল?

শেখ হাসিনা বলেন, ৭১ ও ৭৫ শিশুদেরও হত্যা করেছে ঘাতকেরা। সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়েছে ২০০১ সালের নির্বাচনে। আবার ২০১৩ সালে বাসে আগুন দিয়ে শিশুসহ মানুষ পুড়িয়ে হত্যার পুনরাবৃত্তি হয়েছে। আমরা এটা চাই না, শিশুরা অকালে ঝরে যাক। শিশুরা গড়ে উঠুক সুন্দর পরিবেশে। বাংলাদেশকে আমরা সেভাবে গড়ে তুলতে চাই।

তিনি বলেন, শিশুরা আত্মবিশ্বাস ও আত্মমর্যাদা নিয়ে গড়ে উঠুক। তাদের প্রতিভা বিকশিত হোক। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লালন করুক। আধুনিক বিজ্ঞান প্রযুক্তি শিক্ষায় নিজেদের উন্নত করে গড়ে তুলুক, সেটাই আমরা চাই।

এসময় শিশু-কিশোরদের উদ্দেশ্য প্রধানমন্ত্রী বলেন, তোমরা মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনা করবে। শিক্ষা এমন এক সম্পদ কেউ নিতে পারবে না।

শিশু রাসেলের নাম করণের ইতিহাস তুলে ধরে তিনি বলেন, আমাদের পরিবারে পাঠাভ্যাস ভালো ছিল। সবাই বই পড়তো, পড়ে শোনাতো। আব্বা নোবেল লরিয়েট বার্ট্রান্ড রাসেলের ফিলোসোফি মাকে শোনাতেন। তার ফিলোসোফি ব্যাখ্যা করতেন। তিনিও সেটা মনোযোগ দিয়ে শুনতেন। সে থেকে তার নাম রাসেল রাখা হয়।


আরও খবর